পাবনায় ভয়াবহ দুর্ঘটনা থেকে রক্ষা পেল ট্রেন স্কুলশিক্ষকের কারণে
অনলাইন ডেস্ক: পাবনার ভাঙ্গুড়া উপজেলায় স্কুলশিক্ষকের সচেতনতা ও উদ্যোগের কারণে ভয়াবহ দুর্ঘটনা থেকে রক্ষা পেল ট্রেন। ঘটনাটি ঢাকা-ঈশ্বরদী রেল লাইনে ভাঙ্গুড়া উপজেলার দিলপাশার স্টেশনের পূর্ব পাশে। আজ শনিবার সকাল ১০টায় স্কুলে যাচ্ছিলেন দিলপাশার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আব্দুস ছবুর। এ সময় তাঁর চোখে পড়ে দুটি স্লিপার ভেঙে একপাশের রেল লাইন অনেকটা নিচু হয়ে রয়েছে। এখানের রেল লাইনটি চলনবিলের মধ্যে দিয়ে অতিক্রম করায় ভূমি থেকে রেলের উচ্চতা প্রায় ৩০ ফুট। তাই এই ভাঙা স্থানের ওপর ট্রেন চললেই ভয়াবহ দুর্ঘটনার শিকার হবে এবং ৩০ ফুট নিচে উল্টে পড়বে। এতে ঘটতে পারে ব্যাপক প্রাণহানি। এদিকে যখন তখন চলে আসতে পারে দ্রুতগামী সব আন্তনগর ট্রেন। তাই আব্দুস সবুর সঙ্গে সঙ্গে একজন কৃষকের কাছ থেকে লাল গামছা নিয়ে ওখানে টাঙিয়ে দেন। এরপর তিনি দৌড়ে ছুটে যান দিলপাশার স্টেশনে। কিন্তু সেখানে রেলের কাউকে না পেয়ে তিনি ফোন দেন ভাঙ্গুড়া প্রেসক্লাবের সভাপতি অধ্যাপক মাহবুব-উল-আলমকে। তিনি বার্তাটি দ্রুত পৌঁছে দেন জিআরপি পুলিশ ও লাহিড়ী মোহনপুর স্টেশনে অবস্থানরত সাংবাদিক মানিক হোসেনের কাছে। তিনিও তৎক্ষণাৎ স্টেশন মাস্টারের মাধ্যমে বার্তা পাঠান রেলের পাকশী বিভাগের ট্রাফিক কন্ট্রোলের কাছে। ফলে এ পথে ট্রেন চলাচল বন্ধ করে দেওয়া হয়। অন্যদিকে খালাসিরা রেললাইন সংস্কার কাজ শুরু করে। আব্দুস সবুর বলেন, তখন আমি খুবই বিমর্ষ ও আতঙ্কিত হয়ে পড়েছিলাম। ভাঙ্গুড়া স্টেশন মাস্টার আব্দুল মালেক ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, দুপুর দেড়টা থেকে এ রুটে স্বাভাবিক ট্রেন চলাচল শুরু হয়েছে। এ কারণে ঢাকা-কলকাতা মৈত্রী এক্সপ্রেস, সুন্দরবন, নীলসাগর প্রভৃতি ট্রেনের যাত্রা কিছুটা বিলম্বিত হয়। তবে তিন ঘণ্টা পর থেকে সব পথে ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক হয়ে যায়।
ট্রাক-পিকআপ সংঘর্ষে সিরাজগঞ্জে নিহত ৩
অনলাইন ডেস্ক: সিরাজগঞ্জের কামারখন্দ উপজেলার ট্রাক ও পিকআপভ্যানের মধ্যে সংঘর্ষে তিনজন নিহত হয়েছেন। আজ শনিবার ভোর পৌনে ৫টায় দিকে বঙ্গবন্ধু সেতু পশ্চিম সংযোগ সড়কে উপজেলার ঝাঐল ওভারব্রিজ এলাকায় এই দুর্ঘটনা ঘটে বলে নিশ্চিত করেছেন সিরাজগঞ্জ ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের উপ-পরিচালক আব্দুল হামিদ। নিহতদের নাম-পরিচয় পাওয়া যায়নি। তবে নিহতদের মধ্যে পিকআপভ্যানের চালক ও তাঁর সহকারী রয়েছেন। ফায়ার সার্ভিসের উপ-পরিচালক আব্দুল হামিদ বলেন, উত্তরাঞ্চল থেকে পাথর বোঝাই একটি ট্রাক ঢাকা যাচ্ছিলো। ট্রাকটি কামারখন্দ উপজেলার ঝাঐল ওভারব্রিজ এলাকায় পৌঁছলে একটি পিকআপভ্যানের সঙ্গে সংঘর্ষ হয়। এতে পিকআপভ্যানটি দুমড়ে-মুচড়ে যায়। পিকআপভ্যানের মধ্যে আটকে পড়ে চালক ও তাঁর সহকারীসহ তিনজন ঘটনাস্থলে নিহত হন। খবর পেয়ে পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা গিয়ে নিহতদের উদ্ধার করে সিরাজগঞ্জ বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠায়।
দুপক্ষের গোলাগুলিতে মেহেরপুরে মাদক ব্যবসায়ী নিহত
অনলাইন ডেস্ক: মেহেরপুরের সদর উপজেলায় দুই পক্ষের গোলাগুলিতে এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন বলে পুলিশের পক্ষ থেকে দাবি করা হয়েছে। গতকাল বুধবার দিবাগত রাত ২টার দিকে উপজেলার বুড়িপোতা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে বলে পুলিশ দাবি করেছেন। নিহত ব্যক্তির নাম-পরিচয় জানাতে পারেনি পুলিশ। আজ বৃহস্পতিবার সকালে মেহেরপুর সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রবিউল ইসলাম দাবি করেন, গতকাল রাত ২টার দিকে সদর উপজেলার বুড়িপোতা গ্রামে গোলাগুলির খবর পেয়ে টহল পুলিশ সেখানে গিয়ে তল্লাশি চালায়। সেখানে একটি লিচুবাগান থেকে এক অজ্ঞাতপরিচয় ব্যক্তির গুলিবিদ্ধ মরদেহ উদ্ধার করে মেহেরপুর জেনারেল হাসপাতাল মর্গে নিয়ে আসে। পুলিশ ধারণা করছে, মাদক নিয়ে দ্বন্দ্বের জেরে দুপক্ষের মধ্যে গোলাগুলির ঘটনা ঘটেছে। ওসি আরো দাবি করেন, এ সময় ঘটনাস্থল থেকে একটি ওয়ান শুটারগান ও ৩০ বোতল ফেনসিডিল উদ্ধার করা হয়েছে।
পুলিশের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে কুমিল্লায় নিহত ১
অনলাইন ডেস্ক: কুমিল্লায় গুলিতে একজন নিহত হয়েছে। পুলিশ বলছে, নিহত সাইফুল তালিকাভুক্ত মাদক ব্যবসায়ী, মারা গেছে বন্দুকযুদ্ধে। ঘটনাস্থল থেকে অস্ত্র ও মাদকদ্রব্য উদ্ধার করা হয়। বুধবার( ২ ডিসেম্বর) মধ্যরাতে সদর উপজেলার মনাগ্রাম এলাকায় এঘটনা ঘটে। পুলিশ জানায়, রাতে মনাগ্রাম এলাকায় মাদক ব্যবসায়ী সাইফুল ও তার সহযোগীরা অবস্থান করছে এমন তথ্যের ভিত্তিতে অভিযান চালানো হয়। এসময় উপস্থিতি টের পেয়ে পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি করে সাইফুল ও তার সহযোগীরা। পুলিশও পালটা গুলি করে। পরে ঘটনাস্থল থেকে পুলিশ সাইফুলকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় উদ্ধার করে সদর হাসপাতালে পাঠায়। পরে সেখানে তার মৃত্যু হয়।
মাদকবিরোধী অভিযানে ফেনীতে নিহত ২
অনলাইন ডেস্ক: ফেনীর দাগনভূঁঞা উপজেলায় মাদক ব্যবসায়ীদের সঙ্গে Rab-৭ এর একটি আভিযানিক দলের গুলি বিনিময়ের ঘটনায় ঘটনাস্থল থেকে দুইজন মাদক ব্যবসায়ীর গুলিবিদ্ধ লাশ, ১টি ওয়ান শুটারগান ও ১৩ রাউন্ড গুলি উদ্ধার এবং আনুমানিক ২৫০ কেজি গাঁজাসহ ১টি কাভার্ড ভ্যান জব্দ করেছে Rab-৭। ফেনী-মাইজদী আঞ্চলিক মহাসড়কের সিলোনীয়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। সূত্র জানায়, ফেনী সদরের ধর্মপুরের একটি দল মাদক বহন করে নোয়াখালীর দিকে যাচ্ছিল- এমন খবরের ভিত্তিতে অভিযান চালায় Rab। এতে নিহতদের নাম আসাদ ও এনামুল হক আখন্দ বলে জানা গেছে। তারা মাদারিপুরের নাগরিক বলে জানা যায়। Rab-৭ এর ফেনী ক্যাম্প কমান্ডার শাফায়াত জামিল ফাহিম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন। বিস্তারিত বিবরণ পরে জানাবেন বলে তিনি জানান। সূত্র মতে, সোমবার রাত সাড়ে ১২টার দিকে চট্টগ্রাম থেকে আসা Rab এর একটি দলের সঙ্গে দাগনভূঁঞায় কথিত মাদক কারবারিদের সঙ্গে গুলি বিনিময়ের ঘটনা ঘটে। পরে দুটি মরদেহ উদ্ধার করে ফেনী সদর হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়।
বাসচাপায় ২ গার্মেন্ট শ্রমিক নিহত মালিবাগে
অনলাইন ডেস্ক: রাজধানীর মালিবাগে বাসচাপায় দুই গার্মেন্ট নারী শ্রমিক নিহত প্রাণ হারিয়েছেন। এ ঘটনায় বিক্ষুব্ধ জনতা সড়কে বিক্ষোভ করে বেশ কয়েকটি গাড়ি ভাঙচুর করে। মঙ্গলবার বিকেল ৩টার দিকে মালিবাগে আবুল হোটেলের সামনে বাসচালকের শাস্তির দাবিতে পোশাক কারখানার শ্রমিকরা সড়ক অবরোধ করে বেশ কয়েকটি গাড়ি ভাঙচুর করে। এ সময় পুলিশের সঙ্গে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। নিহত দুজন হলেন এম এইচ গার্মেন্টসের শ্রমিক নাহিদ পারভীন পলি (২২) ও মিম (১৬)। পলির বাড়ি নীলফামারীর সৈয়দপুর উপজেলায় এবং মিমের বাড়ি বগুড়ার গাবতলী উপজেলায় বলে জানা গেছে। তারা ঢাকার মগবাজারের পূর্ব নয়াটোলায় ভাড়া বাসায় থাকতেন। দুই তরুণীর লাশ ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে রাখা হয়েছে। এ ঘটনায় বাস ও বাসের চালককে আটক করেছে পুলিশ। নিহতের সহকর্মীরা জানান, বেলা দেড়টার দিকে মালিবাগের চৌধুরীপাড়ার রাস্তা দিয়ে যাচ্ছিলেন মিম ও পারভিন। এ সময় সদরঘাট থেকে গাজীপুরগামী সুপ্রভাত পরিবহনের একটি বাস তাদের দুজনকে চাপা দেয়। ঘটনাস্থালেই মিম মারা যায়। সেখানে কর্তব্যরত পুলিশ সার্জেন্ট সুব্রত কুমার দে পারভিনকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। পুলিশ সার্জেন্ট বলেন, তিনি পারভিনকে আহত অবস্থায় দ্রুত হাসপাতালে নিয়ে যান। কিন্তু শেষ রক্ষা হয়নি। তরুণী দুজনের লাশ মর্গে রাখা হয়েছে। তাৎক্ষণিকভাবে তাদের পরিচয় জানা যাচ্ছিল না। পরে তাঁদের সহকর্মীরা মর্গে এসে লাশ শনাক্ত করেন। খবর পেয়ে স্বজনেরা ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে যান। এ ঘটনায় সুপ্রভাত বাস ও বাসের চালককে হাতিরঝিল থানা পুলিশ আটক করেছে। হাতিরঝিল থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মো. ফারুক খান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।
স্বাভাবিক সারা দেশে যান চলাচল
অনলাইন ডেস্ক: একাদশ জাতীয় সংসদের ভোট গ্রহণ শেষে সোমবার (৩১ ডিসেম্বর) সকাল থেকেই রাজধানী ঢাকাসহ সারা দেশে স্বাভাবিক হয়েছে যানবাহন চলাচল। নির্বাচন উপলক্ষে সকল যান ও চলাচলের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছিল করেছিল নির্বাচন কমিশন । কিন্তু নির্বাচন শেষ হওয়ার পর রোববার গভীর রাতেই শেষ হয়েছে ইসির নিষেধাজ্ঞার মেয়াদ। ফলে আজ সকাল থেকে রাজধানীসহ দেশের সড়ক ও মহাসড়কে যান চলাচল স্বাভাবিক হতে শুরু করেছে। পুরোদমে গাড়ি না চললেও সকাল থেকে কিছু বাস দেখা যাচ্ছে। তবে রিক্সা-সিএনজি দেখা যাচ্ছে বেশি। তবে মোটরসাইকেলের ওপর নিষেধাজ্ঞার সময়সীমা এখনো চালু থাকায় অনুমোদিত ছাড়া অন্যগুলো এখনো চলতে পারছে না। রোববার একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। ভোটে সকল প্রকার নাশকতা ঠেকাতে তৎপর ছিল ইসি। এরই ধারাবাহিকতায় শনিবার দিবাগত রাত ১টা থেকে রোববার দিবাগত রাত ১২টা পর্যন্ত সবধরনের যন্ত্রচালিত যানবাহন চলাচলের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছিল ইসি।