ঢাকাগামী বাস আরিচা মহাসড়কে লেগুনার উপর উঠে,নিহত ৪
ভৈরবে ট্রাক্টর-অটোরিকশা সংঘর্ষে তিন যাত্রী নিহত হয়েছেন। এছাড়া মানিকগঞ্জে আলাদা সড়ক দুর্ঘটনায় একজনের মৃত্যু হয়েছে। পুলিশ জানায়, সকালে ঘিওর থেকে যাত্রী নিয়ে একটি লেগুনা মানিকগঞ্জ যাচ্ছিলো। পথে ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের মূলজান এলাকায় পৌঁছালে ঢাকাগামী একটি যাত্রীবাহী বাস লেগুনাটিকে চাপা দেয়। এতে মিন্টু নামে এক যাত্রী ঘটনাস্থলেই মারা যান। এছাড়া গুরুতর অবস্থায় লেগুনার আরো এক যাত্রীকে উদ্ধার করে ঢাকার একটি হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। একই সময় ভৈরবের কুলিয়ারচরে ট্রাক্টর-অটোরিকশার সংঘর্ষে ৩ জন নিহত হন। এতে আহত হয়েছেন আরো ২ জন আহত হয়েছেন।
বাঙালির প্রাণের উৎসবে বাধা হয়ে দাঁড়িয়েছে বৃষ্টি
বিকালের শেষ প্রান্তে বাঙালির প্রাণের উৎসবে বাধা হয়ে দাঁড়িয়েছে বৃষ্টি। এতে উৎসবের আমেজে অনেকটা ভাটা পড়ে। বিকাল সাড়ে ৪টার দিকে গুড়ি গুড়ি বৃষ্টি শুরু হয়। পরে সেটি অঝোর ধারায় রূপ নেয়। এসময় উৎসবের আমেজে থাকা মানুষ ছোটাছুটি করে খোলা জায়গা থেকে সরে রাস্তার পাশে আশ্রয় নিতে দেখা গেছে।বৃষ্টিতে আটকে পড়া মানুষ যেন বাসায় ফিরতে পারে সেজন্য কাকরাইল-মৎস্য ভবন-প্রেসক্লাব-পল্টন রুট যানবাহন চলাচলের জন্য খুলে দেওয়া হয়েছে। এই রুটে সকাল থেকে যান চলাচল বন্ধ ছিল। শনিবার দুপুরের পূর্বাভাসে আবহাওয়া অধিদফতরের এক বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ঢাকা, ময়মনসিংহ, খুলনা, বরিশাল, রংপুর, রাজশাহী, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় অস্থায়ী দমকা অথবা ঝড়ো হাওয়ার সঙ্গে বজ্রপাতসহ বৃষ্টি হতে পারে। এর পাশপাশি আকাশ আংশিক মেঘাচ্ছন্ন থাকবে। শনিবার দুপুর ১২ টা পর্যন্ত বাতাসের আদ্রতা ছিল ৫৫ শতাংশ এবং সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩২.৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস।এদিকে নববর্ষ উদযাপন করতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসি, বাংলা একাডেমি, শাহবাগ, রমনা পার্ক, ধানমন্ডি, বনানী, উত্তরাসহ বিভিন্ন এলাকায় আয়োজিত অনুষ্ঠানে বৃষ্টির কারণে দর্শনার্থীরা চলে যেতে দেখা গেছে।
চট্টগ্রাম অনলাইন প্রেস ক্লাবের বর্ষ বিদায় ও বরণ উৎসবে বক্তারা, পৃথিবীর সাথে তাল মিলিয়ে চলতে প্র
চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের প্যানেল মেয়র-১ চৌধুরী হাসান মাহমুদ হাসনী বলেন, পৃথিবীর সাথে তাল মিলিয়ে চলতে প্রয়োজন ডিজিটাল বাংলাদেশ। আপনাদের কলমই আপনাদের মনুষ্যত্ব। আপনাদের কলমে সত্য উঠে আসলে অবহেলিত মানুষ চরমভাবে উপকৃত হবে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়তে অনলাইন গণমাধ্যমের ভূমিকা অনস্বীকার্য। তিনি প্রসঙ্গক্রমে বলেন, এমনও সময় আসতে পারে যখন প্রিন্ট মিডিয়া নাও থাকতে পারে। উপরিউক্ত উৎসবে প্রধান আলোচকের বক্তব্যে বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের সাবেক কেন্দ্রীয় সহ-সভাপতি ও দৈনিক পূর্বকোণের সাবেক প্রধান সহ-সম্পাদক ইসকান্দর আলী চৌধুরী বলেন, সাংবাদিকতার প্রথম শর্ত সততা। আপনাদের উদ্দীপনা, চেষ্টা, সদিচ্ছা থাকলে গন্তব্যে পৌঁছবেন। আপনাদের চিন্তা যুগোপযোগী। দৃঢ়তার সাথে এগুলেই আপনাদের স্বপ্ন একদিন বাস্তবায়ন হবে। তিনি প্রসঙ্গক্রমে বলেন, ১৯৬৯ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াকালীন সময়ে সাংবাদিকতা শুরু করি। চট্টগ্রাম অনলাইন প্রেস ক্লাবের সভাপতি অধ্যক্ষ মুকতাদের আজাদ খান- এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত উৎসবে বক্তব্য রাখেন, ক্লাবের যুগ্ম সম্পাদক স ম জিয়াউর রহমান, দপ্তর সম্পাদক আবু ছালেহ, উপ-অর্থ সম্পাদক রূপন দত্ত, উপ-প্রচার সম্পাদক রাজীব চক্রবর্ত্তী, অনলাইন বি কে টিভির চেয়ারম্যান গোলাম মোস্তফা তালুকদার, অনলাইন দৈনিক দেশবার্তার প্রকাশক হাজী জসিম উদ্দিন, ডিজিটাল বাংলাদেশ পাবলিসিটি কাউন্সিলের সহ-সভাপতি জসিম উদ্দিন, অনলাইন নিউজ পোর্টাল দৈনিক ধানসিঁড়ি সংবাদ সম্পাদক কে.এম সাইফুল ইসলাম, নির্বাহী সদস্য যথাক্রমে- শহিদুল ইসলাম ও হোসেন মিন্টু, অনলাইন সাংবাদিক জসিম উদ্দিন, নাজমুল হুদা, জামাল খান কুসুম কুমারী সিটি কর্পোরেশন বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের ইংরেজি বিষয়ের শিক্ষক সুরঞ্জিত দে, মিরসরাই অনলাইন প্রেস ক্লাবের এস.এম জাকারিয়া প্রমুখ। চট্টগ্রাম অনলাইন প্রেস ক্লাবের সহ-সভাপতি মহিউদ্দিন ওসমানীর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে দ্বিতীয় পর্বে সংগীত পরিবেশন করেন অ্যাডভোকেট জুলিয়েটস্ টস্কানো। প্রসঙ্গত, উৎসবে আমন্ত্রিত মেহমানসহ ক্লাবের সকলকে ক্লাবের পক্ষে সভাপতি লাল গোলাপ দিয়ে বরণ করে নেন এবং উপস্থিতিকে মিষ্টিমুখ করানো হয়।প্রেস বিজ্ঞপ্তি
চট্টগ্রামে বর্ষবরণ চলছে বর্ণিল আয়োজনে
চট্টগ্রামে নগরজুড়ে নানা আয়োজনে বাংলা নববর্ষকে বরণ করা হচ্ছে। বর্ষবরণের প্রতিটি আয়োজনেই ছিল নানা বয়সী নারী-পুরুষের উপচে পড়া ভিড়। মূল আয়োজন ছিল নগরের ডিসি হিলে। সম্মিলিত পয়লা বৈশাখ উদ্যাপন পরিষদের উদ্যোগে ৪১ বছর ধরে এ আয়োজন করা হচ্ছে। শনিবার (১৪ এপ্রিল) সকাল ছয়টা ১৫ মিনিটে ডিসি হিলে বর্ষবরণ অনুষ্ঠান শুরু হয় রক্তকরবীর পরিবেশনা দিয়ে।বিশিষ্ট রবীন্দ্রসংগীতশিল্পী শীলা মোমেনের নেতৃত্বে রক্তকরবীর শিল্পীরা নববর্ষকে আবাহন জানান গানে গানে।ছয়টা ৩৬ মিনিটে তারা পরিবেশন করেন এসো হে বৈশাখ এসো এসো গানটি। শিল্পীদের সঙ্গে কণ্ঠ মেলান ডিসি হিলের হাজারো দর্শক-শ্রোতা।এরপর গানের ডালি নিয়ে আসেন সংগীত ভবনের শিল্পীরা। প্রথম অধিবেশনে গান করবে জয়ন্তী, ছন্দানন্দ, গুরুকুল সংগীত একাডেমি, সুর সাধনা সংগীতালয়, গীতধ্বনি, সৃজামি, ইমন কল্যাণ সংগীত বিদ্যাপীঠ, খেলাঘর ও বংশী শিল্পকলা একাডেমি। নৃত্য পরিবেশন করবে নটরাজ, স্কুল অব ওরিয়েন্টাল ডান্স, ওড়িশী অ্যান্ড টেগোর ডান্স মুভমেন্ট সেন্টার, গুরুকুল, নৃত্যম একাডেমি, ঘুঙুর নৃত্যকলা কেন্দ্র, সঞ্চারী নৃত্যকলা একাডেমি, নৃত্য নিকেতন, দি স্কুল অব ক্লাসিক অ্যান্ড ফোক ডান্স এবং কৃত্তিকা নৃত্যালয়। আবৃত্তি করবে বোধন আবৃত্তি পরিষদ, প্রমা আবৃত্তি সংগঠন, স্বরনন্দন প্রমিত বাংলা চর্চা কেন্দ্র ও উচ্চারক আবৃত্তিকুঞ্জ। দ্বিতীয় অধিবেশন শুরু হবে বেলা দুইটায়। বৈশাখী উৎসবকে ঘিরে মোমিন রোড, নন্দনকানন, আবদুল করিম সাহিত্যবিশারদ সড়ক, চেরাগি পাহাড় এলাকায় বসেছে বৈশাখী মেলা। যাতে মাটির হাঁড়ি-পাতিল, ব্যাংক, শিশুদের খেলনা, মৌসুমি ফল, গহনা, গৃহস্থালি সামগ্রী, পান্তা-ইলিশ, শরবত, আইসক্রিম ইত্যাদি বিক্রি হচ্ছে। শিরীষতলায় জমছে বর্ষবরণ, বিকেলে বলীখেলা ভায়োলিনিস্ট চিটাগাংয়ের শিল্পীরা এসো হে বৈশাখ এসো এসো গানটি যখন পরিবেশন করেন তখন সকাল পৌনে আটটা।এর মধ্য দিয়ে শুরু হয় নৈসর্গিক সৌন্দর্যের লীলাভূমি সিআরবির শিরীষতলায় নববর্ষ উদযাপন পরিষদ চট্টগ্রামের আয়োজনে বর্ষবরণের ১০তম আয়োজন। প্রিয়তোষ বড়ুয়ার নেতৃত্বে ভায়োলিনিস্টের শিল্পীরা পরিবেশন করেন আলোকের ঝরনাধারাও পলাশ ও শিমুল গান দুইটি। তারা হাম্বাজ রাগে নববর্ষকে আবাহন জানান। প্রথম অধিবেশনে দলীয় পরিবেশনায় অংশ নেবে ২২টি সাংস্কৃতিক সংগঠন। বেলা দুইটায় সাত রাস্তার মোড়ে অনুষ্ঠিত হবে সাহাবউদ্দিনের বলীখেলা। পৌনে তিনটায় থাকবে ঢাকার সমগীত সাংস্কৃতিক প্রাঙ্গণের পরিবেশনা। বিকেল পৌনে চারটা থেকে একক সংগীত পরিবেশন করবেন নাফিজা শামীম প্রাপ্তি, পাপড়ি ভট্টাচার্য, ইকবাল হায়দার, বিমল বাউল, সনজিত আচার্য ও আবদুর রহিম। জাতীয় সংগীতের মধ্য দিয়ে শেষ হবে এবারের আয়োজন। সকালে অনুষ্ঠান শুরুর সময় হাজারখানেক দর্শক থাকলেও বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে লাখ ছাড়িয়ে যাবে বলে জানিয়েছেন আয়োজক কমিটির সদস্য নাট্যজন শেখ শওকত ইকবাল।বর্ষবরণকে ঘিরে যথারীতি বসেছে বৈশাখী মেলা। বাঁশ-বেত-তালপাতার তৈরি হাতপাখা, প্লাস্টিকের ঢোল, খেলনা, শোপিস, শরবত ডাব, তরমুজ ইত্যাদি বিক্রি হচ্ছে মেলায়। উদযাপন পরিষদের সচিব স্বপন মজুমদার জানান, সিআরবিতে বিপুলসংখ্যক পুলিশ, র্য্যাব, আনসার ছাড়াও ২০০ স্বেচ্ছাসেবক দায়িত্ব পালন করছেন। ডিসি হিল ও সিআরবিতে বর্ষবরণ উৎসবকে ঘিরে ছিল কঠোর নিরাপত্তাব্যবস্থা। সকাল থেকে র্যা ব-পুলিশের কড়া নজরদারি ছিল দুটি অনুষ্ঠানস্থলে। ডিসি হিলের প্রবেশমুখে নিরাপত্তাতল্লাশির ব্যবস্থা করা হয়। মূল ফটকের আগে দুইটি আর্চওয়ে, ভেতরে ওয়াচ টাওয়ার বসানো হয়েছে। পোশাক পরা নারী ও পুলিশ সদস্যের পাশাপাশি সাদা পোশাকের পুলিশ, গোয়েন্দা পুলিশ ও র্য্যব সদস্যরা দায়িত্ব পালন করছেন।
চট্টগ্রাম নাগরিক অধিকার বাস্তবায়ন পরিষদ স্মরণ সভায় বক্তারা গণমানুষের প্রিয় মানুষ ছিলেন ড. মাহম
চট্টগ্রাম নাগরিক অধিকার বাস্তবায়ন পরিষদ আয়োজিত চট্টগ্রাম জেলা পরিষদ সদস্য, চট্টগ্রাম উত্তর জেলা আওয়ামী লীগ নির্বাহী সদস্য ও মালয়েশিয়া আওয়ামী লীগ প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ড. মাহমুদ হাসানের ১ম মৃত্যুবার্ষিকীতে স্মরণ সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক মফিজুর রহমান বলেছেন গণমানুষের সেবায় নিয়োজিত থেকে ড. মাহমুদ হাসান নিঃস্বার্থ রাজনীতিক হতে পেরেছিলেন। তিনি আরো বলেন রাজনীতির বাহিরে তিনি গরীব ও দুঃখী মানুষের জন্য দু’হাতে দান করেছেন। অবশ্যই তিনি গরীবের বন্ধু হয়ে থাকবেন। প্রধান বক্তার বক্তব্যে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় কলা ও মানববিদ্যা অনুষদের ডীন ড. সেকান্দর চৌধুরী বলেন গুণী মানুষের ভীরে মাহমুদ হাসান অনন্য গুণীব্যক্তি ছিলেন উল্লেখ করে তিনি আরো বলেন চট্টগ্রাম ফকিটছড়িতে ব্যাপক মসজিদ মাদ্রাসা ও স্কুল কলেজ প্রতিষ্ঠা করে তিনি প্রজন্মদের মেধার বিকাশ ঘটান। তাঁর অসম্ভব কৃতকর্মের জন্য ড. মাহমুদ হাসান অমর হয়ে থাকবেন। বিশেষ অতিথির বক্তব্য চট্টগ্রাম জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতির শেখ ইফতেখার সাইমুল চৌধুরী বলেন রাজনীতিতে দানশীল ব্যক্তির খুব অকাল কিন্তু মাহমুদ হাসান চট্টগ্রামে রাজনীতি ও সংস্কতি অঙ্গনকে ব্যাপক সমৃদ্ধির পথে এগিয়ে নেওয়ার জন্য বঙ্গবন্ধুর আদর্শের পতাকাকে বহন করে ব্যাপক কাজ করেছেন। অবশ্যই মাহমুদ হাসান বিরল ব্যক্তিত্বের অধিকার। ড. মাহমুদ হাসানের জ্যৈষ্ঠপুত্র ও চট্টগ্রাম জেলা পরিষদের সদস্য আখতার উদ্দিন মাহমুদ পারভেজ বলেন বাবার একটি হাসপাতাল করার স্বপ্ন রয়েছে এটি প্রতিষ্ঠা করে মাহমুদ হাসানকে চিরঞ্জীব করে রাখার জন্য কাজ করে যাব। গত ১০ এপ্রিল নগরী সুপ্রভাত স্টুডিও হলে অনুষ্ঠিত স্মরণ সভায় সভাপতিত্বে করেন সংগঠনের সভাপতি লায়ন এ কে জাহেদ চৌধুরী, চট্টগ্রাম নাগরিক অধিকার বাস্তবায়ন পরিষদ সাধারণ সম্পাদক সাংবাদিক সৈয়দ দিদার আশরাফী সঞ্চালনায় এতে সূচনা বক্তব্য রাখেন কার্যকরী সভাপতি আলি আহমদ শাহিন। বক্তব্য রাখেন বীর মুক্তিযোদ্ধা ফজল আহমদ, রাজনীতিক স্বপন সেন, মুক্তিযোদ্ধা জাহাঙ্গীর আলম চৌধুরী, এ্যাড. আশুতোষ দত্ত নান্টু, কবি এহসান মাহমুদ আলম, সংগঠক প্রণবরাজ বড়–য়া, মুক্তিযোদ্ধা সুভাষ চন্দ্র চৌধুরী, মুক্তিযোদ্ধা এস এম আবু তাহের, মুক্তিযোদ্ধা এস এম নুরুল আমিন, মুক্তিযোদ্ধা রমিজ উদ্দিন আহমদ, মুক্তিযোদ্ধা সিরাজুল ইসলাম, মুক্তিযোদ্ধা আবদুস সালাম, মুক্তিযোদ্ধা মিজানুর রহমান মিলন, অধ্যক্ষ নজরুল ইসলাম খান, আনোয়ার আজম, সিদ্দিক আহমদ সিদ্দিক, হাজী ইউনুস, নোমান উল্লাহ বাহার, শিল্পী কাজল দত্ত, লায়ন জানে আলম, সোমিয়া সালাম, লাবলু চক্রবর্ত্তী, মোঃ এজাহারুল হক, নাসির হোসাইন জীবন, ইঞ্জিনিয়ার কবি সঞ্চয় কুমার দাশ, জান্নাতুল নাঈম চৌধুরী রিকু, পারভিন আক্তার চৌধুরী, জাকির হোসেন, রোজী চৌধুরী, রিমন মুহুরী, হারুনুর রশিদ, সৈয়দ জাহিদ হোসেন, ইউনুস মিঞা, দীলিপ হোড়, ডা. ডি কে ঘোষ, ডা. উত্তর কুমার সরকার, ডা. আ ম ম নুরুল হক, হেদায়ত হোসেন সোহেল, মনজুরুল আলম, আনিছ আহমদ খোকন, সমীরন পাল, কবি নূর নাহার ইউনুস নিপা, কবি জান্নাতুল ফেরদৌস সোনিয়া, দিলিপ সেনগুপ্ত, বিপ্লব দাশগুপ্ত, সজল দাশ, মোঃ তিতাশ, নুরুন নবী জনি, মোকলেসুর রহমান, আসিফ ইকবাল প্রমুখ। প্রেস বিজ্ঞপ্তি
নিয়াজ মোর্শেদ এলিটকে 'চট্টল দূরবীন' নেতৃবৃন্দের ফুলেল শুভেচ্ছা
বর্তমান তরুণ সমাজের আইকন চট্টগ্রাম খুলশী ক্লাবের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি, চট্টগ্রাম জুনিয়র চেম্বার এর সাবেক সফল প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি নিয়াজ মোর্শেদ এলিট বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ কেন্দ্রীয় কমিটির আন্তর্জাতিক বিষয়ক উপ-কমিটির সদস্য নির্বাচিত হওয়ায় মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় উজ্জীবিত সংগঠন 'চট্টল দূরবীন' নেতৃবৃন্দের পক্ষ থেকে ফুলেল শুভেচ্ছা বিনিময় করেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন 'চট্টল দূরবীন' এর সভাপতি ও লোহাগাড়া উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সফল আহ্বায়ক দিল মোহাম্মদ, চট্টগ্রাম আইন কলেজ ছাত্র সংসদের সাবেক সফল ভি.পি. ও 'চট্টল দূরবীন' এর সাধারন সম্পাদক মোহাম্মদ রায়হানুল হক চৌধুরী, মোহাম্মদ মঞ্জুরুল আলম, মোহাম্মদ ওবায়েদ, মহিউদ্দিন বাপ্পী, এম সোহেল, মোহাম্মদ শওকত আলী, জসীম উদ্দিন, মোহাম্মদ হোসাইন, মোহাম্মদ রিফাত, সাইফুল ইসলাম, আবু শাহাদাত মোঃ আদিল, আ.স.ম. হাসান ইমাম, সায়েম বিন নূর, মিজবাহ্ উদ্দিন, মাঈন উদ্দিন, মোহাম্মদ ইমরান, নুরুল উদ্দীন, মোহাম্মদ রিদুয়ান, খোরশেদুল ইসলাম, শেফাতুল ইসলাম, মোহাম্মদ মামুন প্রমুখ। এই সময় নিয়াজ মোর্শেদ এলিট বলেন, বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা ও মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণে তরুনদেরকে অগ্রগণ্য হতে হবে এবং আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে দেশরত্ন শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করার জন্য তরুণদেরকে নিজ নিজ অবস্থান থেকে মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় শাণিত হয়ে নৌকা মার্কা সমর্থনে কাজ করার জন্য উদাত্ত আহ্বান জানান। প্রেস বিজ্ঞপ্তি
ফেনীতে ইউপি চেয়ারম্যানের নিজ কার্যালয়ে ডেকে নিয়ে গৃহবধূকে ধর্ষণ
ফেনীতে ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের এক নেতার বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় মামলা হওয়ার পর তাকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। নির্যাতিতাকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। স্বজনরা জানান, বুধবার বিকেলে পারিবারিক কলহের জেরে সালিশি বৈঠককে কেন্দ্র করে স্থানীয় এক গৃহবধূকে নিজ কার্যালয়ে ডেকে নিয়ে ধর্ষণ করে ফুলগাজী সদর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক নুরুল ইসলাম। নির্যাতিতা গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে সদর হাসপাতালে ভর্তি করেন স্বজনরা। এ ঘটনায় অভিযুক্ত চেয়ারম্যানের শাস্তি দাবি জানিয়েছেন তারা। নির্যাতিতা বলেন, আমার ভাগিনাকে নিয়ে গেছিলাম। আমার ভাগিনাকে সিগারেট আনার কথা বলে বের করে দেয়। পরে আমার সঙ্গে অনেক অসভ্যতা করেছে।' নির্যাতিতার স্বামী বলেন, সদর হাসপাতাল জুনিয়র কনসালটেন্ট ডা. তাহিরা খাতুন রোজী বলেন, 'নির্যাতিতা একজন নারী এসেছে। আমরা পরীক্ষা-নিরীক্ষার জন্য সব কিছু নিয়েছি। পরে আরো কিছু পরীক্ষা-নিরীক্ষা করার পর জানানো যাবে।' এ ঘটনায় নির্যাতিতার শাশুড়ি বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেন।
বাসচাপায় ২ মোটরসাইকেল আরোহী নিহত মানিকগঞ্জে
মানিকগঞ্জে বাসচাপায় দুই মোটরসাইকেল আরোহী নিহত হয়েছেন। বুধবার সকাল সাড়ে ৭টার দিকে ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের মানরা এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহতরা হলেন, জেলার সাটুরিয়া উপজেলার জান্না গ্রামের আবুল হোসেনের ছেলে আব্দুল গফুর (২৮) ও একই উপজেলার ধুইল্লা গ্রামের আব্দুর কাদের (৩০)। মানিকগঞ্জ সদর থানার এসআই মো. বাচ্চু জানান, গফুর ও কাদের মোটরসাইকেলযোগে স্থানীয় তরা আড়তে মাছ কিনতে যাচ্ছিলেন। মানরা এলাকায় তাদের মোটরসাইকেলের সঙ্গে হানিফ পরিবহনের একটি বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। বাসটি পাটুরিয়া ফেরিঘাট থেকে ঢাকার দিকে যাচ্ছিল। দুর্ঘটনায় গফুর ও কাদের গুরুতর আহত হলে স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে মানিকগঞ্জ সদর হাসপাতালে নিয়ে যান। কিন্তু সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদের মৃত ঘোষণা করেন। পুলিশ হানিফ পরিবহনের বাসটি আটক করতে সক্ষম হলেও এর চালক ও সহযোগী পালিয়ে গেছে।

সারা দেশ পাতার আরো খবর