বাস-লেগুনা সংঘর্ষে, নিহত ৫ গাজীপুরে
অনলাইন ডেস্ক: গাজীপুরে রাজেন্দ্রপুরে বাস ও লেগুনার মুখোমুখি সংঘর্ষে পাঁচজন নিহত হয়েছে। এ ঘটনায় অন্তত সাতজন আহত হয়েছে। সোমবার সকালে ঢাকা-কাপাসিয়া সড়কের গাজীপুর সিটি করপোরেশনের হালডোবা এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। তাৎক্ষণিকভাবে হতাহতদের পরিচয় জানাতে পারেনি পুলিশ। গাজীপুর সদর থানার উপপরিদর্শক (এসআই) শহিদুল ইসলাম জানান, বাসের সঙ্গে লেগুনার সংঘর্ষে ঘটনাস্থলেই পাঁচজন নিহত হয়। এছাড়া আহত হয় কয়েকজন। আহতদের উদ্ধার করে গাজীপুরের শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে। এদিকে শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসক জানান, হাসপাতালে আনার পথে একজন এবং হাসপাতালে আনার পর চিকিৎসাধীন অবস্থায় আরেকজনের মৃত্যু হয়েছে।
৯নং উত্তর পাহাড়তলী ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের কেন্দ্র কমিটির প্রস্তুতি সভায় বক্তারা, বিজয়ের প্রতীক নৌ
চট্টগ্রাম-৪ আসনের বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকা প্রতীকের সংসদ সদস্য পদপ্রার্থী আলহাজ্ব দিদারুল আলম বলেন, ১৯৭১ সালের মহান মুক্তিযুদ্ধের নেতৃত্বদানকারী বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের বিজয়ের ও উন্নয়নের প্রতীক নৌকা মার্কাই উন্নয়নের মূল চাবিকাঠি। নৌকা মার্কার প্রার্থীদের বিজয়ী করে দেশের উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রেখে রূপকল্প-২০৪১ বাস্তবায়নের লক্ষে এগিয়ে নিতে দলের নেতাকর্মীদের সকল বিভেদ ভুলে ঐক্যবদ্ধ হয়ে কেন্দ্রীয় ও নগর আওয়ামী লীগের নিদের্শনা অনুযায়ী একসাথে কাজ করতে হবে। যারা দলীয় নিদের্শনা অমান্য করে দলের ভাবমূর্তি খুন্য করে দলীয় কর্মকান্ডের বিরোধীতা করবে তাদেরকে দলীয় নেতৃত্বের কাছে জবাব দিহিতা করতে হবে, তাই আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সারা দেশে নৌকা মার্কা প্রতীকপ্রাপ্ত সংসদ সদস্য প্রার্থীদের বিজয় সুনিশ্চিত করতে হবে। অনুষ্ঠানে প্রধান বক্তা ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের যুগ্ম আহ্বায়ক ও ৯নং উত্তর পাহাড়তলী ওয়ার্ডে কাউন্সিলর হাজী আলহাজ্ব মোঃ জহুরুল আলম জসিম তার বক্তব্যে বলেন, বাংলাদেশের প্রতিটি উন্নয়নের সাথে আওয়ামী লীগের সম্পৃক্ততা আছে ভবিষ্যতেও থাকবে তাই আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থীকে নৌকা মার্কায় বিজয় সুনিশ্চিত করতে সাংগঠনের ও ভ্রাতৃত্বপ্রতিম ও অঙ্গ সংগঠনের প্রতিটি নেতাকর্মীকে ঐক্যবদ্ধ থাকতে হবে। আওয়ামী লীগের মূলনীতি বাঙালী জাতীয়তাবাদ, গণতন্ত্র, অসম্প্রদায়িক রাজনীতি চর্চা ও শোষণমুক্ত সমাজ ও সমাজিক ন্যায় বিচার প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে সকল নেতাকর্মীদের দায়িত্ব পালন করতে হবে। ৯নং উত্তর পাহাড়তলী ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের উদ্যোগে দলীয় কার্যালয়ে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে চট্টগ্রাম-৪ আসনের কেন্দ্র কমিটির আয়োজিত প্রস্তুতি সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ আহ্বান জানান। ৯নং উত্তর পাহাড়তলী ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক সাবেক কমিশনার এস এম আলমগীরের সভাপতিত্বে আরো বক্তব্য রাখেন, ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাবেক সহ-সভাপতি ইলিয়াছ খান, সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক মোশারফ হোসেন দুলাল, সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা কামাল বাচ্চু, এ-ইউনিট আওয়ামী লীগ নেতা মোঃ জসিম উদ্দিন, বি-ইউনিট আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির নয়ন, ইকবাল হোসেন বাহার, দেলোয়ার হোসেন সিরাজ, আওয়ামী লীগ নেতা শামিম আহমেদ সুমন, ওয়ার্ড স্বেচ্ছাসেবকলীগ’র সহ-সভাপতি আবু নোমান নাহিদ, ওয়ার্ড যুবলীগ নেতা আনোয়ারুল আজিম, ওয়ার্ড ছাত্রলীগ নেতা মোস্তাফিজুর রহমান রোকন সহ ৯নং উত্তর পাহাড়তলী ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ ও অঙ্গ সংগঠন সমূহের নেতৃবৃন্দ বক্তব্য রাখেন। প্রেস বিজ্ঞপ্তি
খিলক্ষেত রেলক্রসিং এলাকায় ট্রেনের ধাক্কায় প্রাণ গেল দু-জনের
অনলাইন ডেস্ক: রাজধানীর খিলক্ষেতে ট্রেনের ধাক্কায় প্রাণ হারিয়েছে দুইজন। শনিবার সন্ধ্যায় খিলক্ষেত ওভারব্রিজের সংলগ্ন রেলক্রসিং এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। নিহতদের মরদেহ কমলাপুর রেল স্টেশন থানার মর্গে রাখা হয়েছে। নিহত দুইজন হলেন- ইসহাক মিয়া (২৪) ও আতিকুর রহমান চৌধুরী (৪০)। বিমানবন্দর রেল স্টেশন পুলিশ ফাঁড়ির উপ-পরিদরর্শক (এসআই) মোহাম্মদ রেজাউল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, রেললাইন ধরে হাঁটার সময় ঢাকা থেকে নেত্রকোনার মোহনগঞ্চগামী একটি ট্রেনের ধাক্কায় তারা ঘটনাস্থলে মারা যান। জানা গেছে, নিহত ইসহাকের বাড়ি নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজারে। তিনি ঢাকায় একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে ইলেক্ট্রিশিয়ান হিসেবে চাকরি করতেন। আর আতিকুর একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে সহকারী ম্যানেজার হিসেবে কাজ করতেন।
খিলক্ষেত রেলক্রসিং এলাকায় ট্রেনের ধাক্কায় প্রাণ গেল দু-জনের
অনলাইন ডেস্ক: রাজধানীর খিলক্ষেতে ট্রেনের ধাক্কায় প্রাণ হারিয়েছে দুইজন। শনিবার সন্ধ্যায় খিলক্ষেত ওভারব্রিজের সংলগ্ন রেলক্রসিং এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। নিহতদের মরদেহ কমলাপুর রেল স্টেশন থানার মর্গে রাখা হয়েছে। নিহত দুইজন হলেন- ইসহাক মিয়া (২৪) ও আতিকুর রহমান চৌধুরী (৪০)। বিমানবন্দর রেল স্টেশন পুলিশ ফাঁড়ির উপ-পরিদরর্শক (এসআই) মোহাম্মদ রেজাউল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, রেললাইন ধরে হাঁটার সময় ঢাকা থেকে নেত্রকোনার মোহনগঞ্চগামী একটি ট্রেনের ধাক্কায় তারা ঘটনাস্থলে মারা যান। জানা গেছে, নিহত ইসহাকের বাড়ি নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজারে। তিনি ঢাকায় একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে ইলেক্ট্রিশিয়ান হিসেবে চাকরি করতেন। আর আতিকুর একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে সহকারী ম্যানেজার হিসেবে কাজ করতেন।
পাবনায় কাঠের গুঁড়িভর্তি ট্রাক উল্টে তিন শ্রমিক নিহত
অনলাইন ডেস্ক: পাবনার সদর উপজেলায় কাঠের গুঁড়িভর্তি ট্রাক উল্টে তিন শ্রমিক নিহত হয়েছেন। রোববার সকাল সাড়ে ৬টার দিকে উপজেলার নুরপুর বাইপাস এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। তাৎক্ষণিকভাবে হতাহতদের পরিচয় পাওয়া যায়নি। এ তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করে পাবনা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ওবাইদুল হক জানান, কাঠের গুঁড়িভর্তি ট্রাকটি কাঁচপাড়া থেকে বাস টার্মিনাল এলাকায় যাচ্ছিল। উপজেলায় নুরপুর বাইপাস এলাকায় পৌঁছালে ট্রাকটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে উল্টে যায়। এতে ট্রাকচাপায় ঘটনাস্থলেই তিন শ্রমিক নিহত হন। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন একজন। আহত শ্রমিককে উদ্ধার করে পাবনা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। নিহতদের মৃতদেহ একই হাসপাতালের মর্গে রাখা হয়েছে বলে জানান ওসি।
চট্টগ্রামে অস্ত্রসহ যুবক গ্রেপ্তার
নিজেস্ব প্রতিবেদক,চট্টগ্রাম :চট্টগ্রাম নগরের কোতয়ালি থানা এলাকায় অস্ত্রসহ মো. মহিউদ্দিন (৩২) নামে এক যুবককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। মহিউদ্দিন কোতয়ালি থানার বদরপাট্টি লেইনের মৃত হাজী নুরুল ইসলাম প্রকাশ বাবুলের পুত্র। শনিবার রাতে সিনেমা প্যালেসের সামনে থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয় বলে জানিয়েছেন কোতয়ালি থানার ওসি মোহাম্মদ মহসীন। ওসি বলেন, শনিবার রাতে সিনেমা প্যালেসের সামনে দিয়ে যাচ্ছিলেন মহিউদ্দিন। তার গতিবিধি সন্দেহ হওয়ায় মহিউদ্দিনকে থামিয়ে তল্লাশি করে টহলে থাকা পুলিশ সদস্যরা। তখন তার শরীরে তল্লাশী চালিয়ে একটি এলজি ও দুই রাউন্ড কার্তুজ পাওয়া যায়। তার বিরুদ্ধে ২০১৫ সাল থেকে ১৩টি মামলা আছে কোতয়ালি থানায়। মহিউদ্দিন একজন পেশাদার ডাকাত দলের সদস্য। অস্ত্র উদ্ধারের ঘটনায় নতুন করে আরো একটি তার বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে বলে জানান ওসি।
নৌকার বিজয় মানে বাংলাদেশের উন্নয়ন তরান্বিত করা :বাদল
৫নং মোহরা ওয়ার্ড আওয়ামীলীগ, মহিলা আওয়ামীলীগ যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবকলীগ, ছাত্রলীগের যৌথ উদ্যোগে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন উপলক্ষে মহাজোট মনোনিত নৌকার প্রার্থী আলহাজ্ব মাঈনউদ্দীনের বাদলের সমর্থনে প্রবীণ আওয়ামী লীগ নেতা ফয়সাল চৌধুরীর সভাপতিত্বে এক কর্মীসভা গত ৩০ নভেম্বর মোহরা চররাঙ্গামাটিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠ প্রাঙ্গণে অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম ৮ আসন থেকে নৌকার মনোনিত প্রার্থী আলহাজ্ব মাঈনউদ্দীন খান বাদল এমপি। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ৫নং মোহরা ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের যুগ্ম আহবায়ক জসিম উদ্দীন, যুগ্ম আহবায়ক খালেদ হোসেন মাসুদ, আওয়ামীলীগনেতা অলিদ চৌধুরী, এসকান্দর আলী, রুবায়েত হোসেন, আবুল কালাম, বিপ্লব চৌধুরী, নগর যুবলীগের সদস্য নাঈম উদ্দীন খান, আলী আকবর, মোঃ ইকবাল, আবদুর রশিদ, জাহাঙ্গীর সওদাগর, মোকাফফর,আবদুল্লাহ আল মামুন প্রমুখ। সভায় প্রধান অতিথি তার বক্তব্যে বলেন সকল রকম ভেদাভেদ আগামী ৩০ ডিসেম্বর নৌকার প্রার্থী হিসেবে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রার্থী হিসেবে বিজয়ী করা সকল নেতা কর্মীদের দায়িত্ব। তিনি আরো বলেন বর্তমান মহাজোট সরকার বিগত ১০ বছরে যে উন্নয়নের মহাযজ্ঞ বাস্তবায়ন করেছে তা অতীতের কোন সরকার করতে পারেনি। বর্তমান সরকার শিক্ষা, স্বাস্থ্য, সমাজউন্নয়ন, নারীউন্নয়ন, যোগাযোগ, প্রযুক্তি এমনকি মাদ্রাসা শিক্ষার উন্নয়নসহ সর্বক্ষেত্রে ব্যাপক সাফল্য অর্জন করে চলেছে। নিজস্ব অর্থায়নে পদ্মাসেতু বাস্তবায়নের পথে। তিনি বলেন বর্তমান সরকার বঙ্গবন্ধু হত্যার বিচার, যুদ্ধাপরাধীেেদ বিচাররসহ আইনের শাসন প্রতিষ্ঠায় দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে। তিনি আওয়ামীলীগের সকল অঙ্গসংগঠনসহ মহাজোটের অন্তর্ভুক্ত সকলকে নৌকার পক্ষে ঐক্যবদ্ধ থেকে নৌকার বিজয় নিশ্চিত করার আহবান। তিনি বলেন এবারের নির্বাচন হবে স্বাধীনতার স্বপক্ষ ক্ষমতায় থাকবে কিনা কিংবা স্বাধীনতা বিরোধীরা আবারো রাষ্ট্র পরিচালনা করবে। তিনি স্বাধীনতার চেতনা জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা বিনির্মাণে মহান মুক্তিযুদ্ধের আত্মদানের মর্যাদা সমুন্বত রাখতে আগামী ৩০ ডিসেম্বর নৌকা প্রতীককে বিজয়ী করার আহবান জানান।প্রেস বিজ্ঞপ্তি
ফটিকছড়ি আলীগের সমাবেশ, বিক্ষোভ মিছিল পুলিশ সহ আহত
সজল চক্রবর্ত্তী, ফটিকছড়ি :ফটিকছড়ির সাংসদ ও মহাজোটের শরীক দল বাংলাদেশ তরিকত ফেডারেশনের চেয়ারম্যান সৈয়দ নজিবুল বশর মাইজভান্ডারীর বিরুদ্ধে গণজমায়েত, বিক্ষোভ মিছিল ও মানব বন্ধন করেছে ফটিকছড়ি উপজেলা আওয়ামীলীগ। শনিবার দুপুরে উপজেলা সদরের দলীয় কার্যালয়ের সম্মুখে এ মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়। সকাল থেকে উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়ন থেকে মিছিলে মিছিলে দলীয় কার্যালয় প্রাঙ্গনে সমবেত হন আওয়ামীলীগ নেতা-কর্মীরা। পরে দুপুর ১ টার দিকে দলীয় কার্যালয়ের সামনে সাংসদ নজিবুল বশর মাইজভান্ডারীকে নৌকার প্রার্থী হিসেবে অস্বীকৃতি জানিয়ে চট্টগ্রাম-খাগড়াছড়ি মহাসড়কের উপর মানববন্ধন শুরু করে। এরপর বিশাল একটি বিক্ষোভ মিছিল উপজেলা সদরের গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করে। এমন সময় মিছিলটি বিবিরহাট বাজারের মধ্যখানে পৌঁছলে পুলিশ বাঁধা দেয়। এতে পরিস্থিতি উপ্তপ্ত হয়ে উঠে। একপর্যায়ে পুলিশ মৃদু লাঠিচার্জ করলে নেতা-কর্মীরা দিগ-বিদিক ছুটাছুটি করতে থাকে। এসময় একপুলিশ সহ অন্তত: ১০ জন আহত হয়েছে। আহতদেরকে স্থানীয় হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়ার ছেড়ে দেয়া হয়। পরিস্থিতি শান্ত হলে মিছিলটি পুণরায় শুরু হয়ে দলীয় কার্যালয়ে গিয়ে শেষ হয়। সেখানে তাৎক্ষনিক এক প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আলহাজ্ব মুজিবুল হক চৌধুরীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এ সমাবেশে বক্তব্য রাখেন উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক নাজিম উদ্দীন মুহুরী, সহ সভাপতি গোলাপুর রহমান, দিদারুল বশর চৌধুরী দুদু, চেয়ারম্যান আবু তালেব, কাজী মাহমুদুল হক, মুজিবুর রহমান স্বপন প্রমুখ। এসময় বক্তারা ফটিকছড়ির জনবিচ্ছিন্ন সাংসদ মুজিবুল বশর মাইজভা-ারীকে নৌকা প্রতীক দেয়ায় ক্ষোভ প্রকাশ করেন এবং আসন্ন সংসদ নির্বাচনে বিজয় নিশ্চিত করতে দলীয় প্রার্থীকে মনোনয়ন দেয়ার দাবী জানান। অপরদিকে, উপজেলা সদরে আইন শৃঙ্খলা স্বাভাবিক রাখতে ব্যাপক পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। বর্তমানে এখানে থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে।
পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় ৫ জেলায় সড়কে ঝরল ১৩ প্রাণ
অনলাইন ডেস্ক: দেশের পাঁচ জেলায় পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় ১৩জন নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন কমপক্ষে ৩২জন। সবচেয়ে বড় দুর্ঘটনাটি ঘটেছে সিরাজগঞ্জ জেলায়। এ জেলায় মারা গেছেন সাতজন আহত হয়েছেন অন্তত ২৪জন। এছাড়া পাবনা, বাগেরহাট, টাঙ্গাইল ও মুন্সীগঞ্জে মারা গেছেন আরও ছয়জন। গতকাল বুধবার বিকাল থেকে বৃহস্পতিবার বিকাল পর্যন্ত এসব দুর্ঘটনা ঘটে। এর মধ্যে পাবনার হেমায়েপুরে মা ও মেয়ে, বাগেরহাটে মোটরসাইকেল আরোহী দুই স্কুলশিক্ষক মারা যান। টাঙ্গাইলে কলেজছাত্র ও মুন্সিগঞ্জের গজারিয়া উপজেলায় ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে লরির চাপায় এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। আমাদের প্রতিনিধিদের খবরে এ তথ্য জানা গেছে। সিরাজগঞ্জ: সিরাজগঞ্জে দুটি পৃথক দুটি সড়ক দুর্ঘটনায় সাতজন নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন আরও অন্তত ২৪জন। বৃহস্পতিবার ভোর ও বেলা সাড়ে ১১টার দিকে এসব দুর্ঘটনা ঘটে। জেলার কড্ডার মোড় ট্রাফিক পরিদর্শক (টিআই) আসাদ আলী জানান, সকালে ঢাকা থেকে বগুড়াগামী আলিফ পরিবহন নামের একটি বাস কড্ডার মোড়ে এসে নিয়ন্ত্রণ হারায়। এ সময় বিপরীত দিক থেকে আসা একটি মিনিবাস ও এর পাশের একটি ট্রাকের সঙ্গে বাসটির ত্রি-মুখী সংঘর্ষ হয়। এতে বাসটি রাস্তার ওপর ও মিনিবাসটি পাশের খাদে পড়ে যায়। খবর পেয়ে পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিস সদস্যরা উদ্ধার অভিযান শুরু করে। এসময় ঘটনাস্থলেই চার নারীর মরদেহ উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় আহত আরো ২০ যাত্রীকে উদ্ধার করে সিরাজগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আরও এক নারী মারা যায়। নিহতের মধ্যে একজনের পরিচয় পাওয়া গেছে। তিনি সলঙ্গা থানার হাটিকুমরুল ইউনিয়নের হাটিপাড়া গ্রামের আব্দুল খালেকের স্ত্রী সুমি আখতার আয়েশা (৩৫)। এর আগে বৃহস্পতিবার ভোরে বঙ্গবন্ধু সেতুর পশ্চিম সংযোগ মহাসড়কের সিরাজগঞ্জ সয়দাবাদ এলাকায় দুই ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষে চালক ও হেলপার নিহত হয়েছে। এতে আরো দুইজন আহত হয়েছেন। নিহত দুইজন হচ্ছেন, ট্রাক চালক মোরশেদুল ইসলাম (৩৫) বগুড়ার শিবগঞ্জ থানার আমতলী বড় বাজার এলাকার বাসিন্দা, আর চালকের সহকারী যশোর জেলার কুতুবালী থানার তেতুলিয়া গ্রামের আক্তার আলীর ছেলে আরিফ হোসেন (২২)। সিরাজগঞ্জ ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্সের উপ-সহকারী পরিচালক মো. আবদুল হামিদ জানান, উত্তরবঙ্গ থেকে ঢাকাগামী একটি রডবাহী ট্রাকের সঙ্গে বিপরীত দিক থেকে আসা অপর একটি ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে ঘটনাস্থলেই ওই দুইজন মারা যান। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিস সদস্যরা ঘটনাস্থলে পৌঁছে হতাহতদের উদ্ধার করে সিরাজগঞ্জ হাসপাতালে পাঠিয়েছে। পাবনা:পাবনা সদর উপজেলার হেমায়েতপুর ইউনিয়নের বাঙ্গাবড়িয়া গ্রামে বৃহস্পতিবার সকাল ১০টার দিকে ইঞ্জিনচালিত নছিমন চাপায় মা ও মেয়ে নিহত হয়েছেন। নিহত দুইজন হলেন, বাঙ্গাবাড়িয়া গ্রামের দিন মজুর আকবর আলীর স্ত্রী রিমি বেগম (৪০) ও তার মেয়ে বর্ষা (৮)। দুর্ঘটনায় গুরুতর আহত হয়েছেন ভ্যানচালক আকবর আলী। তাকে পাবনা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। পাবনা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জালাল উদ্দিন জানান, সকালে বাড়ি থেকে নিজের ভ্যানে স্ত্রী ও মেয়েকে নিয়ে শহরে আসছিলেন আকবর। এ সময় শ্যালো ইঞ্জিনচালিত একটি নছিমন নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে তাদের ভ্যানটিকে চাপা দিলে ঘটনাস্থলেই তার মেয়ে মারা যান। গুরুতর আহত হন আকবর ও তার স্ত্রী রিমি। স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে পাবনা জেনারেল হাসপাতালে নেওয়ার পর মারা যান রিমি। বাগেরহাট: বাগেরহাটের মোল্লাহাটে ট্রাকের ধাক্কায় আহত দুই মোটরসাইকেল আরোহী হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন। তারা দুইজনই স্কুলশিক্ষক। বুধবার বিকাল সাড়ে চারটার দিকে উপজেলার জয়ডিহি কাহালপুর বিদ্যুৎকেন্দ্রের সামনে বাগেরহাট-মাওয়া মহাসড়কে দুর্ঘটনায় তারা গুরুতর আহত হন। রাতে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় দুইজনই মারা যান। নিহত দুই স্কুলশিক্ষক হলেন, মোল্লাহাট উপজেলার সরোসপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক রফিকুল ইসলাম দুলাল (৪৫) ও একই উপজেলার সরোসপুর দক্ষিণপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক বাহারুল আলম মোল্লা (৪৩)। মোল্লাহাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কাজী গোলাম কবির জানান, মোল্লাহাট উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিস থেকে মোটরসাইকেলে করে বাড়ি ফিরছিলেন ওই দুই শিক্ষক। গোপালগঞ্জ থেকে খুলনাগামী একটি ট্রাক মহাসড়কে তাদের মোটরসাইকেলকে পেছন থেকে ধাক্কা দেয়। এতে দুই মোটরসাইকেল আরোহী ছিটকে পড়ে গুরুতর আহত হন। স্থানীয়রা তাঁদের উদ্ধার করে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করে। পরে সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাতে দুইজনই মারা যান। ওসি আরো বলেন, ট্রাক চালক পালিয়ে গেছে। ট্রাকটিকে শনাক্ত করতে কাজ চলছে। উপজেলার নিহতরা সরোসপুর গ্রামের বাসিন্দা। লাশ ময়নাতদন্ত শেষে তাদের পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। টাঙ্গাইল: টাঙ্গাইলে বাসচাপায় আনোয়ার খান নামে এক কলেজছাত্র নিহত হয়েছেন। বৃহস্পতিবার দুুপুরে ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কের নাটিয়াপাড়া এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত আনোয়ার খান দেলদুয়ার উপজেলার ডুবাইল উত্তরপাড়া গ্রমের আব্দুর রশিদ খানের ছেলে। তিনি করটিয়া সাদত কলেজের শিক্ষার্থী। গোড়াই হাইওয়ে থানা পুলিশের পরিদর্শক মতিউর রহমান বলেন,কলেজ শেষ করে আনোয়ার মোটরসাইকেলে বাড়ি ফিরছিলেন। নাটিয়াপাড়া এলাকায় পৌঁছালে একটি বাস তাকে চাপা দিয়ে চলে যায়। এতে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়। মুন্সীগঞ্জ: মুন্সীগঞ্জের গজারিয়া উপজেলায় ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে লরির চাপায় আবদুর রাজ্জাক নামের এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। তিনি গুরুতর আহত ছিলেন। অ্যাম্বুলেন্সে করে তাঁকে চিকিৎসার জন্য ঢাকায় নেওয়া হচ্ছিল। বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১০টার সময় উপজেলার বাউশিয়া ইউনিয়নের উজানভাটি এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় নিহত ব্যক্তির মেয়ে লাকি আক্তার (৩০) আহত হয়েছেন।