শুক্রবার, জুলাই ১০, ২০২০
গাজীপুরে চাপ বাড়ছে ঘরমুখো মানুষের
২২ মে,শুক্রবার,গাজীপুর প্রতিবেদক ,নিউজ একাত্তর ডট কম: করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ এড়াতে গণপরিবহন বন্ধ থাকলেও থেমে নেই মানুষের ঈদযাত্রা। উত্তরবঙ্গমুখী মহাসড়কগুলোতে বেড়েছে ঘরমুখো মানুষের চাপ। আজ শুক্রবার থেকে ঢাকা ময়মনসিংহ ও টাঙ্গাইল মহাসড়কে পায়ে হেঁটে ঘরে ফিরছেন অসংখ্য মানুষ। এ সময় বিভিন্ন জায়গায় চেকপোস্টে খানিকটা বাধা থাকলেও কড়াকড়ি কমেছে আগের থেকে। এদিকে মহাসড়কের কোথাও কোথাও মোটরসাইকেল ও থ্রি হুইলারেও লোকজনকে বাড়ি ফিরতে দেখা গেছে। আর এই সুযোগে তাদের বাড়তি ভাড়া দিতে হচ্ছে বলেও অভিযোগ রয়েছে। পুলিশ বলছে, আগের থেকে চলাচলে কিছুটা শিথিলতা থাকলেও অযথা বের হওয়াদের বিরুদ্ধে নেয়া হচ্ছে ব্যবস্থা।
ছাত্রীদের ম্যাসেঞ্জারে প্রধান শিক্ষকের আপত্তিকর প্রেম বার্তা
২২ মে,শুক্রবার,নিজস্ব প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম: জান আই লাভ ইউ। আমাকে কষ্ট দিও না। আই মিস ইউ। তুমি কি সত্যি আমাকে একটুও ভালবাসো না, এতদিন যদি আল্লাহকে ডাকতাম তবে তিনি সাড়া দিতেন। কিন্তু তুমি সাড়া দিলে না ম্যাসেঞ্জারে এমনি আপত্তিকর বার্তা দিয়ে প্রতিনিয়ত বিদ্যালয়ের ছাত্রীদের প্রেম নিবেদন করে আসছেন প্রধান শিক্ষক হায়দার আলী। হায়দার আলী যশোরের মনিরামপুর সরকারি উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক। এভাবে নিজের ব্যবহৃত ফেসবুক আইডির ম্যাসেঞ্জার থেকে প্রধান শিক্ষক বিদ্যালয়ের একাধিক শিক্ষার্থীকে তাদের ব্যবহৃত ম্যাসেঞ্জারে আপত্তিকর ভাষা ব্যবহার করে বার্তা দিয়েছেন।খবর বাংলাদেশ প্রেস। সম্প্রতি এসএসসি পরীক্ষা দিয়ে বিদায় নেওয়া এক ছাত্রীর সঙ্গে এমন আপত্তিকর বার্তা দেওয়ায় সে এটি ফাঁস করে দেয়। সোমবার প্রধান শিক্ষকের এহেন কর্মকাণ্ডের বিচার চেয়ে বিদ্যালয়ের সভাপতি স্থানীয় উপজেলা নির্বাহি কর্মকর্তা (ইউএনও) আহসান উল্লাহ শরিফীর কাছে ভুক্তভোগী দুই ছাত্রী লিখিত আবেদনপত্র দিয়েছে। রবিবার রাত থেকে ছাত্রীদের সঙ্গে ম্যাসেঞ্জারে প্রধান শিক্ষক হায়দার আলীর আপত্তিকর কথাবার্তার কয়েকটি স্ক্রিনশর্ট ফেসবুকে ভাইরাল হওয়ার পর থেকে সর্বমহলে প্রধান শিক্ষকের অপসারণসহ তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি উঠেছে। তার এমন আচরণে ক্ষুব্ধ অভিভাবকরাও। তারা সন্তানকে স্কুলে পাঠাতেও শঙ্কিত। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক ছাত্রী জানায়, গত আগস্টে তাকে ম্যাসেঞ্জারে আপত্তিকর কথাবার্তা লিখলে সে প্রধান শিক্ষকের আইডি ব্লক করে দেয়। অপর এক শিক্ষার্থী বলে, স্যারের এমন কুরুচিপূর্ণ লেখার প্রতিবাদ করলেই বিদ্যালয়ের না আসার হুমকি দিতেন। আরেক শিক্ষার্থী জানায়, সে বিদ্যালয়ের সভাপতি ইউএনও স্যারকে জানানোর কথা বললেই প্রধান শিক্ষক কিছুদিন চুপ হয়ে যেতেন। কিছুদিন পর থেকে আরেকজনের সাথে এমন আপত্তিকর বার্তা দেওয়া শুরু করতেন। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ওই প্রতিষ্ঠানের এক শিক্ষক বলেন, হেড স্যারের আইডিতে নাকি মাসখানেক ধরে সমস্যা দেখা দিচ্ছে। তাই তিনি রবিবার পুরনো আইডি ব্লক করে নতুন আইডি খুলেছেন। আমাদের সেই আইডিতে রিকোয়েস্ট পাঠাতে বলেছেন। এর আগেও চলতি বছরের শুরুতে লিতুনজিরা নামে এক প্রতিবন্ধী ছাত্রীকে নিয়ে কটূক্তি করায় সমালোচনার মুখে পড়েছিলেন হায়দার আলী। নিজের বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ অস্বীকার করে প্রধান শিক্ষক হায়দার আলী বলেন, আমি সংস্কৃতিমনা মানুষ। ছাত্রীদের সাথে আমার ভালো সম্পর্ক। এটা অনেকে সহ্য করতে পারে না। আমাকে ফাঁসানোর জন্য একটি চক্র আইডি হ্যাক করে এসব কাজ করেছে। মণিরামপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের পরিচালনা পর্ষদের সভাপতি আহসান উল্লাহ শরিফী বলেন, ছাত্রীদের কাছ থেকে পাওয়া লিখিত অভিযোগের ভিত্তিতে একটি তদন্ত টিম গঠন করে বিষয়টি খতিয়ে দেখা হবে।
মসজিদের ভেতরে দ্বিতীয় শ্রেণির ছাত্রীকে ধর্ষণ করেছে মসজিদের ইমাম
২২ মে,শুক্রবার,নিজস্ব প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম: এবার মসজিদের ইমামের বিরুদ্ধে দ্বিতীয় শ্রেণির এক ছাত্রীকে মসজিদের ভেতরে ধর্ষণ করার অভিযোগ উঠেছে। বৃহস্পতিবার দুপুরে কক্সবাজারের উখিয়ার রাজাপালং ইউনিয়নের ৪ নম্বর ওয়ার্ডের ডেইল পাড়ায় ঘটেছে চাঞ্চল্যকর এ ঘটনা। ধর্ষিতা শিশুটির আত্মীয় স্বজন সূত্রে জানা গেছে, স্থানীয় ডেইল পাড়া সরকারি প্রাইমারি স্কুলের দ্বিতীয় শ্রেণির এক ছাত্রী দুপুর ১২টায় স্কুল থেকে ঘরে ফিরছিল। পথিমধ্যে ডেইল পাড়া জামে মসজিদের ইমাম হাফেজ নুরুল আমিন তাকে মসজিদ ঝাড়ু দেওয়ার কথা বলে মসজিদে নিয়ে যায়। পরে মসজিদের ভেতর নিয়ে ইমাম তাকে ধর্ষণ করে। ঘটনার পর শিশুটি মসজিদ থেকে বের হয়ে কাঁদতে কাঁদতে করে ঘরে গিয়ে বাবা-মাকে একথা জানায়।খবর বাংলাদেশ প্রেস। এদিকে ঘটনার পর স্থানীয় ইউপি মেম্বার শালিশে বসে ইমামকে এক লাখ টাকা জরিমানা করেন। কিন্তু ততক্ষণে ধর্ষক ইমাম পালিয়ে যান। ঘটনার ব্যাপারে উখিয়া থানার ওসি (তদন্ত) মো. নুরুল ইসলাম মজুমদার ও উপপরিদর্শক মিল্টন জানান, পুলিশ খবর পেয়ে ধর্ষক ইমামকে আটকের জন্য অভিযান শুরু করেছে।
রড বোঝাই ট্রাক উল্টে শিশুসহ ১৩ জন নিহত
২২ মে,শুক্রবার,রংপুর প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম: গাইবান্ধায় পলাশবাড়ীতে রড বোঝাই ট্রাক উল্টে শিশুসহ ১৩ জন নিহত হয়েছে। সকালে ঢাকা-রংপুর মহাসড়কের পলাশবাড়ী উপজেলার জুনদহ এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। ঘটনা তদন্তে তিন সদস্যদের কমিটি গঠন করেছেন জেলা প্রশাসক। এছাড়াও প্রশাসনে পক্ষ থেকে নিহতদের প্রত্যক পরিবারের ১০ হাজার টাকা করে আর্থিক সহযোগিতা দেয়া হয়েছে। লকডাউনের কারণে গণপরিবহন বন্ধ থাকায় রডবোঝাই ট্রাকের ওপর ত্রিপল বিছিয়ে ঈদে ঢাকা থেকে রংপুরের বাড়ি ফিরছিলেন দুর্ঘটনাকবলিতরা। ঢাকা-রংপুর মহাসড়কের গাইবান্ধার পলাশবাড়ী উপজেলার জুনদহ এলাকায় রডবোঝাই ট্রাক উল্টে যায়। এতে ১৩ জন নিহত হয়। খবর পেয়ে দুপুরে পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা মরদেহগুলো উদ্ধার করেন। নিহত ১৩ জনের মধ্যে তিনজন শিশু । রাতে গুঁড়িগুঁড়ি বৃষ্টি ও ঝড়ো হাওয়ার ফলে এ দুর্ঘটনা ঘটেছে বলে জানিয়েছে ফায়ার সার্ভিসের উপ-সহকারী পরিচালক আমিনুল ইসলাম জানান। এদিকে ঘটনা তদন্তে তিন সদস্যদের কমিটি গঠনসহ প্রত্যক পরিবারকে আর্থিক সহায়তা দেয়ার কথা জানালেন জেলা প্রশাসক। এদিকে দুর্ঘটনায় দায়ী ট্রাক ড্রাইভার ও হেলপারকে আটকের চেষ্টা চলছে বলে জানান জেলা পুলিশ ‍সুপার।
ধর্ষক সুফিয়ান বন্দুকযুদ্ধে নিহত
২২ মে,শুক্রবার,নিজস্ব প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম: গাজীপুরের টঙ্গীতে শিশু চাদনী (৭) হত্যা ও ধর্ষণের প্রধান আসামি সিরিয়াল ধর্ষক সুফিয়ান (২১) RAB এর সাথে বন্দুকযুদ্ধে নিহত হয়েছে। টঙ্গীর মধুমিতা এলাকায় এ বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে। ঘটনাস্থল থেকে অস্ত্র-গুলি উদ্ধার করে RAB। RAB এর দাবি, নিহত আবু সুফিয়ান চাঞ্চল্যকর শিশু চাঁদনী (৭) হত্যা ও ধর্ষণের প্রধান আসামি। সে সিরিয়াল ধর্ষক। RAB-১ এর গাজীপুর কোম্পানি কমান্ডার লেফটেন্যান্ট কমান্ডার আব্দুল্লাহ আল মামুন বলেন, গত ১৬ মে (শনিবার) টঙ্গী মধুমিতা রেলগেট এলাকার একটি ময়লার স্তূপ থেকে চাঁদনী নামের প্রথম শ্রেণির মাদরাসার ছাত্রীর মরদেহ উদ্ধার করা হয়। ওই শিশুকে ধর্ষণের পর গলা টিপে এবং দুই পায়ে আঘাত করে নির্মমভাবে হত্যা করা হয় বলে তদন্তে ও ময়নাতদন্তে উঠে আসে। চাঞ্চল্যকর ওই ঘটনায় মো. নিলয় (১৫) নামের এক তরুণকে গ্রেফতার করে RAB। তিনি বলেন, গত রোববার (১৭ মে) রাত আড়াইটার দিকে RAB-১ এর একটি আভিযানিক দল টঙ্গী পূর্ব থানাধীন রেলস্টেশন এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করে। পরদিন গ্রেফতার নিলয় আদালতে সে ও আবু সুফিয়ানসহ ওই শিশুকে ধর্ষণ করে মর্মে জবানবন্দি দেয়। তদন্তে জানা যায়, শুধু এই শিশু নয়, আরও ৪/৫টি ধর্ষণের ঘটনা সাথে জড়িত এই আবু সুফিয়ান। লেফটেন্যান্ট কমান্ডার আব্দুল্লাহ আল মামুন বলেন, গ্রেফতার নিলয়ের দেয়া তথ্যে RAB-১ অভিযানে নামে। গোপন তথ্যের ভিত্তিতে জানা যায় সুফিয়ান টঙ্গী মধুমিতা রেললাইন এলাকায় বন্ধুদের সাথে আড্ডা দিচ্ছে। ওই তথ্যে বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত ১২টার দিকে RAB-১ অভিযানে যায়। চতুর সুফিয়ান RAB এর উপস্থিতি টের পেয়ে গুলি বর্ষণ করে। RAB ও আত্মরক্ষার্থে গুলি ছোড়ে। বন্ধুরা পালিয়ে যায়। ঘটনাস্থলে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় উদ্ধার করা হয় সিরিয়াল ধর্ষক আবু সুফিয়ানের মরদেহ। একই ঘটনায় এএসআই আতোয়ার ও কনস্টেবল সেলিম নামে দুই RAB সদস্য আহত হয়।
কিন্ডারগার্টেন স্কুলের শিক্ষক-শিক্ষিকাদের ঈদের উপহার
২১মে,বৃহস্পতিবার,হুমায়ুন কবির নরসিংদী ব্যুরো,নিউজ একাত্তর ডট কম: (কোভিড -১৯) এর কারণে দেশের কর্মহীন মানুষদের পাশে দাড়িয়েছে সরকার ও সমাজের বিত্তবানরা। কিন্তু জাতি গড়ার কারিগর খ্যাত কিন্ডারগার্টেন স্কুলের শিক্ষকদের পাশে দাড়িয়েছে কতজন (?) তার হিসাব হয়তো খুবই ক্ষুদ্র হবে। তবে এমনই এক মহৎ কাজে এগিয়ে এলেন মেহেরপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ মাহবুবুর রহমান। চেয়ারম্যান এর নিজ উদ্যোগে ১৮ টি স্কুলের দুইশত দশ জন শিক্ষকদের মাঝে ঈদের খাদ্য সামগ্রীর পাশাপাশি ঈদ উপহার হিসাবে পঞ্চাশটি শাড়ি ও পঞ্চাশটি ত্রি-পিস বিতরণ করেন। শিক্ষক প্রতিনিধি হাজি রুমান বলেন, কোভিড -১৯ এর প্রভাব বেসরকারি শিক্ষকদের উপর ও পড়েছে। আমাদের মেহের পাড়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মোঃ মাহবুবুর রহমান ইতিমধ্যেই তার জনসেবা মূলক কাজের জন্য ইউনিয়ন বাসীর মন জয় করে নিয়েছেন। এমন একটা সময়ে তিনি আমাদের কে যে সম্মানের সহিত সহযোগিতা করেছেন তার জন্য আমরা তার নিকট কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছি। আমার জানামতে, এ পর্যন্ত নরসিংদীতে আর কোন চেয়ারম্যান এভাবে শিক্ষকদের পাশে দাড়িয়েছে বলে মনে হয় না। আমরা তার জন্য দোয়া করি যাতে আল্লাহ নেক হায়াৎ দেন। চেয়ারম্যান বলেন, আমরা সবাই ই কোন না কোন শিক্ষকের ছাত্র। আপনাদের কে বলা হয় জাতি গড়ার কারিগর। আপনাদের খোঁজখবর রাখা আমাদের দায়িত্ব ও কর্তব্য। আমাদের সম্পদের সীমাবদ্ধতা রয়েছে। তারপরও আমার ব্যক্তিগত উদ্যোগে আপনাদের সুখ-দুঃখের ভাগিদার হতে পেরে সবচেয়ে বেশি আনন্দ লাগছে। আপনারা সমাজে সবচেয়ে বেশি সম্মানিত। আপনাদের সম্মান রক্ষার্থে আমি পাশে থাকবো ইনশাআল্লাহ। মানুষের সেবাই আমার বড় সম্পদ। এই মহামারী ভাইরাস থেকে আল্লাহ আমাদের দেশ সহ সারা পৃথিবী কে মুক্তি দিন। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক শিক্ষক বলেন, দীর্ঘদিন যাবৎ স্কুল বন্ধ। আমরা কারো কাছেই কিছু বলতে পারি না। এই ক্রান্তিলগ্নে চেয়ারম্যান আমাদের জন্য যা করলেন তাতে আমরা খুশি। শিক্ষকদের তিনি সম্মান দিলেন, আশা করি আল্লাহ ও তাকে সম্মানিত করবেন।
অসহায় কর্মহীনদের মাঝে ঈদ উপহার সামগ্রী বিতরণ করেছেন অানন্দ মোহন কলেজ ছাত্রদল
২০মে,বুধবার,কামরুজ্জামান মিন্টু,ময়মনসিংহ ব্যুরো,নিউজ একাত্তর ডট কম: করোনার প্রাদুর্ভাবে গোটা দেশ আজ স্তব্ধ। দিশেহারা হয়ে পরেছে সাধারণ মানুষ,নিম্ন আয়ের মানুষ থেকে শুরু করে মধ্যবিত্ত শ্রেণীর মানুষেরও করুণ অবস্থা, একদিকে ভয়াল ঘাতক করোনাভাইরাস অন্যদিকে ক্ষুধার তাড়নায় মানুষের জীবন অনেকটা দুর্বিষহ হয়ে উঠেছে। করোনার প্রাদুর্ভাব মোকাবিলায় সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়া ও বিএনপি'র ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের নির্দেশে,ময়মনসিংহ দক্ষিণ জেলা বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম আহ্বায়ক আলহাজ্ব জাকির হোসেন বাবলু'র সহায়তায় এবং আনন্দ মোহন কলেজ ছাত্রদল নেতা রুকন উজ জামান (রুকন)এর উদ্যোগে কর্মহীন মানুষের মাঝে ঈদ উপহার সামগ্রী বিতরণ করেছে আনন্দ মোহন কলেজ ছাত্রদল। বুধবার (২০মে ) ইতিকথা কমিউনিটি সেন্টারে ২০০জন অসহায় কর্মহীন পরিবারের মাঝে সেমাই, চিনি,দুধ,তৈল,সাবান বিতরণ করা হয়। এসময় জেলা ছাত্রদল নেতা মিনহাজ,মহানগর ছাত্রদল নেতা মেহেদী,মুকাররম ও আনন্দ মোহন কলেজ শাখা ছাত্রদল নেতা আশিকুর রহমান ,রনি,সৈকত,সোহাগ প্রমূখ উপস্থিত ছিলেন।
বাউল রণেশ ঠাকুরের গানের ঘর বানিয়ে দেওয়ার ঘোষণা
১৯মে,মঙ্গলবার,দিলাল আহমদ সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি,নিউজ একাত্তর ডট কম: বাউল সাধক শাহ আব্দুল করিমের সুযোগ্য শিষ্য সুনামগঞ্জের কৃতি সন্তান বাউল, রণেশ ঠাকুরের গানের ঘরটি পুড়িয়ে দিয়েছে দুর্বৃত্তরা। ইতিমধ্যে এই সংবাদটি ব্যাপক আলোচিত হয়েছে দেশ-বিদেশে। অনেক সংবাদ মাধ্যমে এই সংবাদটি ব্যাপক ভাবে প্রচারিত হওয়ার পর চোখে পড়ে নিউইয়র্ক প্রবাসী সুনামগঞ্জের আরেক সাহসী কৃতিসন্তান, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর আদর্শের নির্ভীক সৈনিক,২০০২-২০০৩ সালের সাস্টিয়ান (শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাক্তন ছাত্র) সাদিকুর রহমান সুফিয়ানের জানান। এই সংবাদটি তাকে খুবই বিচলিত করে তোলে। তিনি তার পিতা-মাতার নামে করা দাতা সংস্থা, হাফিজুর-হালেমা ওয়েলফেয়ার ফাউন্ডেশন'- এর পক্ষ থেকে দুর্বৃত্তের দেয়া আগুনে পুড়ে যাওয়া বাউল রণেশ ঠাকুরের ঘরটি এককভাবেই বানিয়ে দেওয়ার ঘোষণা দেন। তরুণ এই কর্মবীর মানবতার ফেরিওয়ালা সুফিয়ান বলেন, বিশ্বব্যাপি এই চরম মহামারী কালে, কে বা কারা বাউল রনেশ ঠাকুরের ঘরটি জ্বালিয়ে দিয়েছে। তার দুটি ভেড়াকে ঘর থেকে বের করে দিয়ে,আগুন ধরানো হয়েছে! যা আজকের মানবিক ইতিহাসে অত্যন্ত গর্হিত এবং মর্মান্তিক কাজ। আমি এই ঘৃণিত কাজটির প্রতিবাদ করতে গিয়েই বাউলের সাধনার ঘরটি বানানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছি। সাদিকুর রহমান সুফিয়ান আরও বলেন, বাউল গান বাংলা সংস্কৃতির অবিচ্ছেদ্য অংশ। বাউল রণেশ ঠাকুর- হাসন রাজা,রাধা রমণ, শাহ আব্দুল করিম, ফকির দুর্ব্বিন শাহ- সুনামগঞ্জের অনেক বাউলের সুযোগ্য উত্তরসূরি। আমরা এই মাটিকে উদার হাওরের উন্মুক্ত বুক বলেই জানি। সেই মাটিতে এমন অনাচার আমাকে চরমভাবে ব্যথিত করেছে। লোকসংস্কৃতির রাজধানী বলা হয়ে থাকে সুনামগঞ্জকে। আমি এই জেলার একজন সন্তান হতে পেরে গর্ববোধ করি। যাদের জন্য আমরা গর্বিত, যাদের কারনে আজ সমৃদ্ধ বাংলাদেশের লোকভান্ডার। যাদের গানে সুদূর প্রবাসে থাকার পরও পরিবার পরিজনদের অভাব অনুভূত হয়না। তাদের প্রতি আমাদের ভালবাসা আছে থাকবে। তিনি আরও জানান, 'আমাদের ফাউন্ডেশনের পক্ষ থেকে সকল যোগাযোগ সম্পন্ন করে কাজে হাত দেবো'। আমরা এই ঘৃণ্য কর্মকাণ্ডের বিচার চাই। সেই সাথে দোষীদের চিহ্নিত করে দ্রুত আইনের আওতায় আনার জন্য সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের প্রতি অনুরোধ করছি । তরুণ এই সমাজকর্মীর উদ্যোগটি ব্যাপকভাবে সমাদৃত হয়েছে দেশে-বিদেশে। আমেরিকা প্রবাসী সুফিয়ান প্রমাণ করে দিলেন মানুষের জন্য বা সমাজের জন্য ভালো কিছু করতে হলে বিশাল সম্পদের মালিক হতে হয়না। সদিচ্ছাই যথেষ্ট। এই সমাজে মানুষের জন্য মানুষ এই সত্যই এখনও চিরউজ্জ্বল । বিপন্ন সমাজের হাল ধরতে সুফিয়ানদের জন্ম হোক প্রতিটি ঘরে ঘরে।

সারা দেশ পাতার আরো খবর