রবিবার, জুলাই ১৫, ২০১৮
মা, ভাই ও খালাকে কুপিয়ে হত্যা
পাবনার বেড়া উপজেলায় মা, ছোটভাই ও খালাকে কুপিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে তুহিন (২১) নামে এক যুবকের বিরুদ্ধে। বুধবার ভোর ৪টার দিকে উপজেলার সোনাপদ্মা তারাবটতলা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। ঘটনার পর থেকে পলাতক রয়েছে তুহিন। নিহতরা হলেন— তুহিনের মা বুলি খাতুন (৪০), ছোট ভাই তুষার (১০) ও খালা মরিয়ম (৫০)। বেড়া সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আশীষ বিন হাসান জানান, ভোরে একটি ধারালো চাপাতি দিয়ে তুহিন বাড়িতে ঘুমিয়ে থাকা মা, ভাই ও খালাকে কুপিয়ে হত্যা করে। এ সময় পাশের ঘর থেকে তুহিনের স্ত্রী ও প্রতিবেশীরা এলে পালিয়ে যায় তুহিন। তুহিন মানসিক ভারসাম্যহীন বলে তার স্ত্রী দাবি করলেও পুলিশ বিষয়টি খতিয়ে দেখছে বলেও জানান তিনি। অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আরো জানান, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে মরদেহ উদ্ধার করে পাবনা জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে। তুহিনকে গ্রেফতারে অভিযান শুরু হয়েছে। এ ঘটনায় বেড়া থানায় হত্যা মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।
দাবি আদায় না করে ঘরে ফিরে যাবে না সাংবাদিক সমাজ
নগরের ম্যাক্স হাসপাতালে ভুল চিকিৎসা ও চিকিৎসকের অবহেলায় সমকালের সাংবাদিক রুবেল খানের আড়াই বছরের শিশু রাইফা খানকে হত্যার বিচারে তিন দফা দাবি আদায় না করে ঘরে ফিরে যাবে না সাংবাদিক সমাজ। ওসি ও সাংবাদিকদের হুমকিদাতা চট্টগ্রামের স্বাস্থ্যখাতকে জিম্মিকারী ডা. ফয়সল ইকবালের হাতে জিম্মি চট্টগ্রামের ১ কোটি স্বাস্থ্যসেবা গ্রহণকারী মানুষকে মুক্ত করবে সাংবাদিক-জনতার ঐক্যবদ্ধ আন্দোলন। রাইফা মৃত্যুর তদন্ত প্রভাবিত করলে আগামী রোববার (০৮ জুলাই) থেকে লাগাতার আন্দোলনের ঘোষণা দিয়েছে সাংবাদিক নেতৃবৃন্দ। মঙ্গলবার (০৩ জুলাই) চট্টগ্রাম সাংবাদিক ইউনিয়ন আয়োজিত সাংবাদিক-জনতার সমাবেশে বক্তারা এসব কথা বলেন। চট্টগ্রাম কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে আয়োজিত সমাবেশে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে রাইফা হত্যার ঘটনায় অবৈধ-অনুমোদনহীন ম্যাক্স হাসপাতাল বন্ধ, অভিযুক্ত চিকিৎসকদের শাস্তি ও কথায় কথায় মানুষ জিম্মিকারী ডা. ফয়সল ইকবালের চিকিৎসা সনদ বাতিলেরও দাবি জানানো হয়। ভুল চিকিৎসায় শিশু রাইফা খানের মৃত্যুর প্রতিবাদে সিইউজে আয়োজিত সাংবাদিক-জনতার সমাবেশে বক্তব্য দেন বিএফইউজের যুগ্ম মহাসচিব তপন চক্রবর্তী। ছবি: বাংলানিউজচট্টগ্রাম সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি নাজিমুদ্দীন শ্যামলের সভাপতিত্বে সাধারণ সম্পাদক হাসান ফেরদৌসের পরিচালনায় সভায় বক্তব্য রাখেন-চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবের সভাপতি কলিম সরোয়ার, বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের (বিএফইউজে) সহ-সভাপতি শহীদ উল আলম, চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক শুকলাল দাশ, বিএফইউজের কেন্দ্রীয় নেতা মোল্লা জালাল, সিইউজের সাবেক সভাপতি মোস্তাক আহমেদ, রিয়াজ হায়দার চৌধুরী, সিইউজে সহ-সভাপতি মোহাম্মদ আলী, বিএফইউজের যুগ্ম মহাসচিব তপন চক্রবর্তী, প্রেস ক্লাবের সিনিয়র সহ-সভাপতি কাজী আবুল মনসুর, যুগ্ম সম্পাদক চৌধুরী ফরিদ, সিইউজের যুগ্ম সম্পাদক সবুর শুভ, বাংলাদেশ ফটো সাংবাদিক এসোসিয়েশনের সভাপতি দিদারুল আলম, একুশে টিভির আবাসিক সম্পাদক রফিকুল বাহার, সমকালের ব্যুরো প্রধান সারোয়ার সুমন, ম্যাক্স হাসপাতালে ভুল চিকিৎসায় মারা যাওয়ার ভুক্তভোগী পরিবারের সদস্য স্বামী হারানো নাজমা আক্তার মিতা ও বিচারকের স্ত্রী সায়মার মা নারগিস বেগম, পরিবেশবিদ ড. ইদ্রিস আলী, চট্টগ্রাম ১৪ দলের নেতা মিতুল দাশ গুপ্ত, নগর যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক ফরিদ মাহমুদ, ওয়ার্কাস পার্টি চট্টগ্রাম মহানগরের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক শরীফ চৌহান, দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের শ্রম বিষয়ক। বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর
লামায় পাহাড় ধসে ৩ জনের মৃত্যু
বান্দরবানের লামা উপজেলায় এক পরিবারের শিশুসহ ৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। মঙ্গলবার দুপুরে উপজেলার সরই ইউনিয়নের দুর্গম পাহাড়ি কালাইয়া পাড়ায় এ ঘটনা ঘটে।মৃতরা হলেন, কালাইয়া পাড়ার বাসিন্দা মো. মাঈন উদ্দিনের ছেলে মো. হানিফ (৩০), হানিফের স্ত্রী রেজিয়া খাতুন (২৫) ও মেয়ে হানিফা আক্তার (৩)। পরিবারের অন্য সদস্যরা ঘরের বাহিরে থাকায় প্রাণে বেঁচে যান তারা।স্থানীয় সূত্র জানায়, মঙ্গলবার সকাল থেকে টানা বর্ষণ শুরু হয়। এ সময় মঈন উদ্দিনের বসতঘরের ওপর আচমকা পাহাড় ধসে পড়ে। এতে ঘুমন্ত মো. হানিফ, তার স্ত্রী ও সন্তান মারা যায়। খবর পেয়ে দেলোয়ার হোসেন ও আবদুল জব্বারসহ স্থানীয়রা মৃতদের লাশ উদ্ধার করেন।পাহাড় ধসে শিশুসহ ৩ জনের মৃত্যুর সত্যতা সরই ইউনিয়ন পরিষদ সদস্য মো. আশ্রাফ আলী নিশ্চিত করে বলেন, নিহতদের ঘর থেকে পাহাড় প্রায় ২০০ফুট দূরে। এত দূর থেকে পাহাড়ে মাটি এসে মাটির ঘর চাপা পড়ে মৃত্যুর ঘটনা আশ্চার্য জনক। এ বিষয়ে লামা উপজেলা নির্বাহী অফিসার নূর-এ-জান্নাত রুমি বলেন, পাহাড় ধসে শিশুসহ ৩ জনের মৃত্যুর সংবাদ পেয়ে ঘটনাস্থলে যাচ্ছি ।
চট্টগ্রামে ওয়াসার লাইন সংস্কারের দাবিতে মানববন্ধন
চট্টগ্রামের হালিশহরসহ বিভিন্ন এলাকায় পানিবাহিত রোগ ও হেপাটাইটিস-ই ছড়িয়ে পড়ায় ওয়াসার লাইন সংস্কারের দাবিতে মানববন্ধন করেছেন এলাকাবাসী।মঙ্গলবার সকালে নগরীর ওয়াসা কার্যালয়ের সামনে সিডিএ ও হালিশহরবাসীর উদ্যোগে এ মানববন্ধন হয়। এতে বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ অংশ নেন। তাদের অভিযোগ, দীর্ঘদিন ধরে ওয়াসার পানিতে ময়লা ও দুর্গন্ধ পাওয়া যাচ্ছে। টানা বৃষ্টিতে নগরীতে জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হওয়ায় ওয়াসার পাইপ ফেটে ওই পানির সঙ্গে মিশে জন্ডিস, টাইফয়েড ও ডায়রিয়াসহ পানিবাহিত নানা রোগ ছড়িয়ে পড়ছে। বেশ কয়েকবার বিষয়টা জানানো হলেও ওয়াসা কর্তৃপক্ষ কোন ব্যবস্থা নেয়নি বলে অভিযোগ এলাকাবাসীর। অবিলম্বে ওয়াসার পাইপগুলো মেরামত ও নতুন পাইপ লাগানোর দাবি জানান তারা।
ভারী বৃষ্টিতে সীমাহীন দুর্ভোগে নগরবাসী
ভারী বৃষ্টিতে সীমাহীন দুর্ভোগে পড়েছেন নগরবাসী। চকবাজার, কাপাসগোলা, বাকলিয়া, আগ্রাবাদ সিডিএ আবাসিক, বেপারি পাড়াসহ নিম্নাঞ্চলে জমেছে হাঁটুপানি। জোয়ারের সঙ্গে ক্রমে বাড়ছে সেই পানি। যথারীতি রাস্তাঘাটে কমে গেছে যানবাহন। রিকশা ও সিএনজি অটোরিকশার ভাড়া হাঁকা হচ্ছে দ্বিগুণ। বিদ্যালয়গুলোতে দ্বিতীয় সাময়িক পরীক্ষা থাকায় শিক্ষার্থী-অভিভাবকরা বৃষ্টি উপেক্ষা করে ঘর থেকে বেরিয়েছেন। ছিন্নমূল মানুষ ও খেটে খাওয়া মজুরদের কষ্ট বেড়েছে বেশি। হালিশহরসহ যেসব এলাকায় ওয়াসার পানি সরবরাহ কম সেখানকার বিভিন্ন পরিবারের সদস্যদের বৃষ্টির পানি সংগ্রহ দেখা গেছে। পতেঙ্গা আবহাওয়া অফিস মঙ্গলবার (৩ জুলাই) সকাল নয়টা পর্যন্ত আগের ২৪ ঘণ্টায় ১২৯ মিলিমিটার বৃষ্টি রেকর্ড করেছে। সহকারী আবহাওয়াবিদ আবদুল হান্নান জানান, বর্ষা মৌসুমের বৃষ্টি হচ্ছে। এটি অব্যাহত থাকবে। দু-এক জায়গায় বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। তিনি জানান, সকাল ১০টায় জোয়ার শুরু হয়েছে। বিকেল পৌনে তিনটায় জোয়ারের পানি সর্বোচ্চ স্তরে পৌঁছাবে। এরপর থেকে ভাটা শুরু হবে। রাত সাড়ে ১০টা থেকে আবার জোয়ার আসা শুরু হবে। চকবাজার এলাকার বাসিন্দা মোহাম্মদ সোহেল রানা জানান, সিডিএ আবাসিকের নিচতলার ভাড়া বাসায় ছিলাম। জোয়ার-ভাটার পানি থেকে বাঁচতে চকবাজার এলাকায় এসেছি। এখন এখানেও দেখছি নিচতলা বসবাসের অযোগ্য হয়ে উঠছে। পানির জন্য হাঁটাচলা দায় হয়ে পড়েছে। এদিকে, ভারী বৃষ্টি ও পাহাড়ি ঢলে ফটিকছড়ি, রাউজান, পটিয়াসহ বিভিন্ন উপজেলার নিম্নাঞ্চলে বন্যা দেখা দিয়েছে।সুএ:আরটিভি অনলাইন ।
মোপলেসর উদ্যোগে প্রয়াত মরিয়ম খাতুনের শোকসভা অনুষ্ঠিত
মোরা পত্র লেখক সমাজ (মোপলেস) চট্টগ্রাম এর উদ্যোগে ২৯ জুন ২০১৮ শুক্রবার সন্ধ্যায় কদম মোবারক এম.ওয়াই উচ্চ বালক-বালিকা বিদ্যালয়ে প্রয়াত মরিয়ম খাতুনের (সমাজসেবক এম.এ. সবুরের মাতা) শোকসভা অনুষ্ঠিত হয়। শিক্ষক বাবুল কান্তি দাশের সভাপতিত্বে এতে প্রধান অতিথির আসন অলংকিত করেন সাবেক সিনিয়র সহকারী জজ, প্রবীণ রাজনীতিবিদ ও সমাজসেবক এড. মনজুর মাহমুদ খান। উদ্বোধক হিসেবে ছিলেন নাট্য অভিনেতা, মিডিয়া ও সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব সজল চৌধুরী। প্রধান আলোচক ছিলেন সমাজসেবক, শিক্ষা ও সংস্কৃতি অনুরাগী এম.এ. সবুর। স্বাগত বক্তব্য রাখেন মোপলেস সভাপতি সজল দাশ, শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন সাধারণ সম্পাদক অচিন্ত্য কুমার দাশ। এতে আরো বক্তব্য রাখেন বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোট চট্টগ্রাম জেলার সাধারণ সম্পাদক খোরশেদ আলম, শিল্পী কাজল দত্ত, শিল্পী নারায়ণ দাশ, ডা: মো: জামাল উদ্দিন, কবি আসিফ ইকবাল, সাংবাদিক ওসমান জাহাঙ্গীর, সাংবাদিক কামাল হোসেন, সাংবাদিক রোকন উদ্দিন, সংগঠক স.ম জিয়াউর রহমান, সুমন চৌধুরী। উপস্থিত ছিলেন খায়রুল আলম, এম এইচ সোহেল, নুর জাহান আক্তার কলি ও মো: জাফর আলম প্রমুখ। প্রধান অতিথি মনজুর মাহমুদ খান বলেন, এম.এ. সবুরের মাতা মরিয়ম খাতুন একজন রতগর্ভা মা ছিলেন। তাঁর চার পুত্র আজ সামাজিক কর্মকা-ের সাথে সম্পৃক্ত রয়েছেন। পৃথিবীতে মায়ের মতন আপন কেউ নেই। তাই মাকে শ্রদ্ধা ও ভক্তি করা সকলের জন্য মঙ্গলময়। মোপলেস এর পক্ষ থেকে মরিয়ম খাতুনকে নিয়ে শোক সভার আয়োজন করার জন্য তিনি সংগঠনের কর্মকর্তাদের ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন। উদ্বোধক সজল চৌধুরী বলেন, প্রয়াত মরিয়ম খাতুন একজন আদর্শবান, ন্যায়পরায়ণ ও পরোপকারী মহিলা ছিলেন। তিনি তাঁর স্মৃতির প্রতি গভীর শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। প্রধান আলোচক সমাজসেবক এম.এ. সবুর তার মায়ের কার্যক্রম আলোকপাত করে বক্তব্য উপস্থাপন করেন এবং বলেন, তিনি তার মায়ের মুখে শুনেছেন- তার বয়স যখন ৭ মাস তখন স্বাধীনতা যুদ্ধ চলছে। তাঁর মা স্থানীয় মুক্তিযোদ্ধাদের নিজের হাতে রান্না করে খাবার পরিবেশন করেছেন। এজন্য তিনি খুবই গর্বিত। সভার সভাপতি শিক্ষক বাবুল কান্তি দাশ বলেন, বর্তমানে স্বার্থ ছাড়া কেউ কোনো কাজ করে না। মোপলেস সেদিক থেকে ব্যতিক্রম। আজকের শোকসভার অনুষ্ঠানটি তাই প্রমাণ করে। প্রেস বিজ্ঞপ্তি
ঈদ বিক্রয় উৎসব কূপন ড্র ও পুরস্কার বিতরনী অনুষ্ঠিত
অলংকার শপিং কমপ্লেক্স ব্যবসায়ী কল্যাণ সমিতি আয়োজিত ঈদ বিক্রয় উৎসব’ ২০১৮ এর শুভেচ্ছা কূপন ড্র ও পুরষ্কার বিতরণী অনুষ্ঠান গতকাল বিকালে সম্পন্ন হয়। সমিতির সভাপতি শাহ্ নেওয়াজ খানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন বিশিষ্ট ক্রিড়া সংগঠক ও অলংকার শপিং কমপ্লেক্সের ব্যবস্থাপনা পরিচালক জনাব সাহেদ আজগর চৌধুরী, বিশেষ অতিথি জনাব সাবেক কমিশনার এস.এম আলমগীর এবং সমিতির সাধারন সম্পাদক ও বিক্রয় উৎসব ২০১৮ এর আহ্বায়ক জনাব হারুনুর রশিদ এবং সমিতির অন্যান্য কর্মকর্তাবৃন্দ। প্রথম পুরষ্কার এশটি মোটর সাইকেলসহ সর্বমোট ৩১ টি শুভেচ্ছা কূপনের ড্র শেষে উপস্থিত কূপন বিজয়ীদের মধ্যে পুরষ্কার বিতরণ করা হয়।প্রেস বিজ্ঞপ্তি
ফোম কারখানায় আগুন গাজীপুরে
গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের বড়বাড়ি এলাকায় একটি ফোম তৈরির কারখানায় অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। মঙ্গলবার সকাল ৭টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। তবে তাৎক্ষণিকভাবে এতে কোনো হতাহত বা ক্ষয়ক্ষতির খবর পাওয়া যায়নি। জানা যায়নি আগুন লাগার কারণও। স্থানীয়রা জানান, ওই এলাকার বানজিং বাংলাদেশ লিমিটেড নামে ফোম তৈরির কারখানার গুদামে আগুনের সূত্রপাত হয়। পরে আগুন দ্রুত গুদামের বিভিন্ন স্থানে ছড়িয়ে পড়ে। জয়দেবপুর ফায়ার সার্ভিসের সিনিয়র স্টেশন অফিসার মো. জাকির হোসেন জানান, টঙ্গীর বড়বাড়ি এলাকায় বানজিং বাংলাদেশ লিমিটেড নামক ফাইবারের ব্যাড (ফোম) এবং সিনথেটিক কাপড় তৈরির কারখানা ও গুদামে আগুন লাগে। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে ছুটে গেছে জয়দেবপুর, টঙ্গী ও উত্তরা ফায়ার সার্ভিসের ৮টি ইউনিটের কর্মীরা। তারা আগুন নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করছে। তবে আগুন নেভাতে অনেক সময় লাগতে পারে বলে জানিয়েছেন ওই কর্মকর্তা।
অধ্যক্ষ-প্রভাষকের স্ত্রীর অনৈতিক সম্পর্কের জেরে বন্ধ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান
ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় বাংলাদেশ গ্যাস ফিল্ডস স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষের বিরুদ্ধে ওই কলেজের এক প্রভাষকের স্ত্রীর সঙ্গে অনৈতিক সম্পর্কের ঘটনায় সোমবার থেকে ওই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে দু-দিনের ছুটি ঘোষণা করা হয়েছে। এর আগে ওই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানটির অধ্যক্ষ ও প্রভাষকের স্ত্রীর মধ্যে পরকীয়ার অডিও টেপ প্রকাশ হয়ে যাওয়ায় ঘটনাটি ব্রাহ্মণবাড়িয়ার টক অব দি টাউনে পরিনত হয়। রবিবার ওই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানটির অধ্যক্ষ ও প্রভাষক পদত্যাগ করেন। শহরতলীর বিরাসাস্থ বাংলাদেশ গ্যাস ফিল্ড স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ বিশ্বজিৎ ভাদুরী তারই কলেজের প্রভাষক ইছা হকের স্ত্রীকে দীর্ঘদিন ধরে উত্যক্ত করছেন বলে ২৮শে জুন ওই শিক্ষা প্রতিষ্ঠান পরিচালনা পর্ষদের সভাপতি ও বাংলাদেশ গ্যাস ফিল্ডস কোম্পানী লিমিটেডের কোম্পানী সচিব নাসিবুজ্জামান তালুকদারের কাছে লিখিত অভিযোগ করেন। এরপর রবিবার (১লা জুলাই) এনিয়ে গভর্নিং কমিটির সভা বসে। সভাতে অধ্যক্ষের সাথে প্রভাষকের স্ত্রীর অনৈতিক সম্পর্কের বিষয়টি প্রমাণিত হয় এবং তাদের সম্পর্কের বিষয়টি প্রভাষক নিজেও জানতেন বলে স্বীকার করেন। তিনিই স্ত্রীকে দিয়ে অধ্যক্ষের বিরুদ্ধে এমন অভিযোগ করেন বলে সভায় ওঠে আসে। পরবর্তীতে অধ্যক্ষ এবং প্রভাষক দু-জনেই চাকুরী থেকে স্বেচ্ছায় পদত্যাগ করতে বাধ্য হন। এ খবরে ওইদিন বিকেলে প্রতিষ্ঠানটির শিক্ষার্থীরা কলেজের সামনের কুমিল্লা-সিলেট মহাসড়ক অবরোধ এবং বিক্ষোভ করে। খবর পেয়ে পুলিশ সেখানে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এরপরই কোন পূর্ব ঘোষণা ছাড়া সোমবার থেকে বাংলাদেশ গ্যাস ফিল্ডস স্কুল এন্ড কলেজ দু-দিনের বন্ধ রাখা হয়। নাম না প্রকাশ করার শর্তে ওই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের এক ছাত্র বলেন, স্কুলবন্ধের বিষয়ে আমাদের আগে জানানো হয়নি। আমাদের অভিভাবকদের মোবাইলে স্কুল বন্ধের কথা লিখে ম্যাসেজ দেওয়া হয়েছে। বাংলাদেশ গ্যাস ফিল্ডস কোম্পানি লিমিটেডের কোম্পানী সচিব ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানটির পরিচালনা পর্ষদের সভাপতি মো. নাসিবুজ্জামান তালুকদার বলেন, অধ্যক্ষ ও প্রভাষকের স্ত্রী ঘটনায় অভিযোগ পাওয়ার পর পরিচালনা পর্ষদের সভায় দু’পক্ষকে ডাকা হয়। তারা দুইজন স্বেচ্ছায় পদত্যাগ করেছেন। অধ্যক্ষ না থাকায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখা হয়েছে। অভিযোগটি ষড়যন্ত্রমূলক ও ব্ল্যাকমেইল করতে করা হয়েছে বলে দাবী করেন কলেজ অধ্যক্ষ বিশ্বজিৎ ভাদুরী। তিনি ষড়যন্ত্র ও ব্লেকমেইলিংয়ের শিকার। সিবিএ এবং লোকাল শিক্ষকরা তাকে ব্লেকমেইল করেছে। তাকে পদত্যাগ করানো হয়েছে। ভয়ে তিনি পদত্যাগ করেছেন। তিনি বলেন, তাদের(কর্তৃপক্ষ) উচিত ছিলো সময় নিয়ে বিষয়টি দেখা। তবে প্রভাষক পত্নীর সঙ্গে দুষ্টামি করেছেন বলে স্বীকার করেন তিনি। ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নবীর হোসেন বলেন, এ বিষয়ে থানায় কোন অভিযোগ দেয়া হয়নি। অভিযোগ পেলে তারা আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

সারা দেশ পাতার আরো খবর