শ্যালিকাকে ধর্ষণের পর হত্যা দুলাভাই পলাতক
২১জুন২০১৯,শুক্রবার,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম:ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় শ্যালিকাকে ধর্ষণের পর শ্বাসরোধ করে হত্যার অভিযোগ উঠেছে দুলাভাইয়ের বিরুদ্ধে। গতকাল দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে সদর উপজেলার নাটাই (দক্ষিণ) ইউনিয়নের শালগাঁও গ্রামে ওই কিশোরীর বোনের শ্বশুরবাড়ি থেকে মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। নিহত তামান্না আক্তার (১৫) শালগাঁও গ্রামের নোয়াব মিয়ার মেয়ে। সে ওই গ্রামের একটি বিদ্যালয়ে নবম শ্রেণির ছাত্রী ছিল। ঘটনার পর থেকেই অভিযুক্ত দুলাভাই নাঈম ইসলাম (২৭) পলাতক রয়েছেন।তামান্নার বড় বোন স্মৃতি আক্তার জানান, নাঈম তার বাবা বসু মিয়ার সঙ্গে জেলা শহরের সড়ক বাজারে নৈশপ্রহরীর কাজ করেন। গত সোমবার তামান্নাকে খবর দিয়ে বাড়িতে আনেন নাঈম। বুধবার রাতে বসু মিয়া কাজে গেলেও নাঈম যাননি। স্মৃতি কাজে না যাওয়ার কারণ জানতে চাইলে নাঈম জানান, তিনি সকালে ঢাকা থেকে তার মাকে আনতে যাবেন।তিনি আরো জানান, রাত সাড়ে ৯টার দিকে নাঈম আমের জুস নিয়ে তার মেয়ে জান্নাতকে খাওয়ায়।জুস খেয়ে জান্নাত ঘুমিয়ে পড়ে। এরপর তামান্নাকে জুস খেতে বললে তামান্না জুস না খাওয়ায় স্মৃতি সেই জুস খান। জুস খাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে স্মৃতি অচেতন হয়ে পড়েন। সকালে ঘুম থেকে ওঠে তামান্নাকে ডাক দিলেও সে কোনো সাড়া দেয়নি। এরপর তামান্নার কাছে গিয়ে দেখেন তার শরীর রক্তাক্ত। খবর পেয়ে গ্রামের এক সর্দার বাড়িতে আসলে নাঈম পালিয়ে যান। নাঈম ধর্ষণের পর তামান্নাকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করেন বলে অভিযোগ করেন স্মৃতি।ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর মডেল থানা পুলিশের পরিদর্শক (তদন্ত) আতিকুর রহমান জানান, ঘটনার খবর পেয়ে পুলিশ দুপুরে মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য জেলা সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে।
ময়মনসিংহ থেকে সোহেল তাজের ভাগ্নে উদ্ধার
২০জুন২০১৯,বৃহস্পতিবার,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম: চট্টগ্রাম থেকে নিখোঁজের ১১ দিন পর সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী সোহেল তাজের ভাগ্নে সৈয়দ ইফতেখার আলম প্রকাশ সৌরভকে জীবিত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়েছে। আজ বৃহস্পতিবার ভোর ৬টায় নিজের ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে লাইভে এসে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন সোহেল তাজ। লাইভে সোহেল তাজ বলেন, ময়মনসিংহের তারাকান্দা উপজেলা থেকে সৌরভকে উদ্ধার করা হয়েছে। একটি গাড়ি থেকে তাকে রাস্তার পাশে রেখে যাওয়া হয়। ওই রাস্তা দিয়ে কিছু মানুষ অফিসে যাওয়ার সময় তাকে দেখে বিষয়টি তার পরিবারকে জানিয়েছে। ফেসবুক লাইভে তিনি আরও বলেন, তারা সৌরভকে তাদের কর্মস্থলে নিয়ে নিরাপদ জায়গায় রাখে। সকাল সাড়ে পাঁচটার দিকে খবর পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে আমরা কাউন্টার টেররিজমের সংশ্লিষ্ট ডিসির সঙ্গে যোগাযোগ করি। উনি তাৎক্ষণিক সেই এলাকার এসপির সঙ্গে যোগাযোগ করেন। এরপর এসপি নিজে গিয়ে সেই লোকেশন থেকে সৌরভকে নিজেদের হেফাজতে নিয়েছে। সৌরভ এখন পুলিশ কাস্টডিতে আছে। তাকে এখন পুলিশি প্রহরায় আমাদের কাছে নিয়ে আসা হচ্ছে। এর আগেও এ বিষয়ে একাধিকবার নিজের ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে লাইভে আসেন সোহেল তাজ। তখন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী, গণমাধ্যম ও আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর কাছে সৌরভকে ফিরে পাওয়ার বিষয়ে বেশ কিছু প্রশ্ন রাখেন তিনি। বাংলাদেশের প্রথম প্রধানমন্ত্রী তাজউদ্দিন আহমদের ছেলে ও সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী তানজিম আহমেদ সোহেল তাজের মামাতো বোনের ছেলে (ভাগ্নে) সৈয়দ ইফতেখার আলম প্রকাশ সৌরভ। গত শুক্রবার রাত ১টায় নিজের ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে দেওয়া এক পোস্টে তাকে অপহরণের অভিযোগ করেন সোহেল তাজ। সূত্র: আলোকিত বাংলাদেশ
গণধর্ষণের শিকার সেই কলেজ ছাত্রীর আত্মহত্যা
১৯জুন২০১৯,বুধবার,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম: বরিশালের বাকেরগঞ্জ উপজেলার গারুড়িয়া ইউনিয়নের পূর্ব রবিপুর গ্রামে গণধর্ষণের শিকার কলেজ ছাত্রী ফারজানা আক্তার (১৭) বিষপানে আত্মহত্যা করেছেন। এ ঘটনায় সোমবার রাতে বাকেরগঞ্জ থানায় মামলা দায়ের করেন নিহতের পিতা রবিপুরের বাসিন্দা সালাম ফরাজী। ফারজানা বাকেরগঞ্জ কলেজের শিক্ষার্থী। মামলার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন বাকেরগঞ্জ থানার ওসি আবুল কালাম। ১২ জুন গণধর্ষণের শিকার হওয়া ফারজানা বিষপান করলে শেরে বাংলা মেডিকেলে ভর্তি করা হয়। ১৬ জুন মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়ে। গণধর্ষণের ঘটনায় অভিযুক্তরা হচ্ছেন, তরিকুল ইসলাম, সাওন গাজী, শাওন ফরাজী, জোবায়ের, রাসেদ ও রাজীব। মামলার বাদী ও নিহতের পিতা সালাম ফরাজী জানান, ঘটনার দিন দীর্ঘ সময় ফারজানাকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছিল না। পরবর্তীতে মিয়ার বাড়ির সামনে মেয়েকে বসা দেখতে পাই। এ সময় ফারজানা আমাকে গণধর্ষণের বিষয়টি জানালে আমি তাকে বকাঝকা করে বাসায় নিয়ে আসি। বাসায় এসে পরিবারের সকলের অগোচরে ফারজানা বিষ পান করে। দ্রুত তাকে শেরেবাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে ৩দিন চিকিৎসাধীন থাকার পর ১৬ জুন মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়ে আমার মেয়ে। এ ব্যাপারে গারুরিয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান জুলফিকার হায়দার বলেন, আমি এ বিষয়টি লোকমুখে শুনেছি। তবে মেয়েটির পরিবার কেউ আমার কাছে অভিযোগ জানাননি। আমাকে জানালে আমি দোষীদের ধরিয়ে দিয়ে পুলিশকে সহায়তা করব। তবে যাহারা এই কাজটি করেছে তাদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানালেন তিনি। বাকেরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ আবুল কালাম বলেন, মেয়েটির পরিবার ধর্ষণের মামলা দায়ের করেছে। দোষীদের গ্রেপ্তারে বাকেরগঞ্জ থানা পুলিশের অভিযান অব্যাহত আছে।-আলোকিত বাংলাদেশ
২০ উপজেলায় ভোটগ্রহণ চলছে
১৮জুন২০১৯,মঙ্গলবার,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম: পঞ্চম উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের শেষ ধাপে ২০ উপজেলায় ভোটগ্রহণ চলছে। এবারই প্রথম উপজেলা নির্বাচনে আজ মঙ্গলবার সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত ভোটগ্রহণ করা হচ্ছে। এতদিন সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত ভোট নেওয়া হতো। ইতিমধ্যে ভোটগ্রহণ উপলক্ষে নির্বাচনী এলাকাগুলোতে সাধারণ ছুটি ঘোষণা করা হয়েছে। মোতায়েন করা হয়েছে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যদের। ঝুঁকিপূর্ণ এলাকায় অতিরিক্ত বিজিবিও মোতায়েন করা হয়েছে। আজ যেসব উপজেলায় ভোট হচ্ছে তা হলো- নেত্রকোনা জেলার পূর্বধলা, সুনামগঞ্জ জেলার জামালগঞ্জ, কিশোরগঞ্জ জেলার কটিয়াদী, পিরোজপুর জেলার মঠবাড়িয়া, ফেনী জেলার ছাগলনাইয়া, শেরপুরের নকলা, নাটোরের নলডাঙ্গা, সিরাজগঞ্জের কামারখন্দ, গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ, পটুয়াখালীর রাঙ্গাবালী, বরগুনার তালতলী, গাজীপুরের গাজীপুর সদর, নারায়ণগঞ্জ বন্দর, মাদারীপুর সদর, রাজবাড়ীর কালুখালী, হবিগঞ্জের শায়েস্তাগঞ্জ, ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বাঞ্ছারামপুর ও বিজয়নগর, নোয়াখালী সদর ও খুলনার ডুমুরিয়া উপজেলা। এদিকে নির্বাচনের জন্য কমিশন (ইসি) সব ধরনের প্রস্তুতি নিয়েছে বলে জানিয়েছেন ইসি সচিব মো. আলমগীর। তিনি জানান, আজ ২০টি উপজেলা পরিষদে ভোট হচ্ছে। এর মধ্যে চারটি উপজেলায় ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন (ইভিএম) ব্যবহার করা হচ্ছে। সেগুলো হচ্ছে- গাজীপুর সদর, নারায়ণগঞ্জ বন্দর, ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বিজয়নগর ও নোয়াখালী সদর। নির্বাচনের সহিংসতা নিয়ে উদ্বেগের কিছু নেই জানিয়ে সচিব বলেন, ইসি তার দায়িত্ব পালন করবে। সহিংসতার কারণে একজন প্রার্থীর প্রার্থিতা বাতিল করা হয়েছিল। কিন্তু তিনি হাইকোর্ট থেকে প্রার্থিতা ফিরে পেয়েছেন। আর অন্য একটি উপজেলায় অনিয়মের প্রমাণ পাওয়ায় স্থানীয় প্রশাসনকে বদলি করা হয়েছে। এবার পাঁচ ধাপে উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ভোটগ্রহণ করা হচ্ছে। আজ হচ্ছে শেষ ধাপ। এর আগে গত ১০ মার্চ পঞ্চম উপজেলা পরিষদ নির্বাচন শুরু হয়। এরপর দ্বিতীয় ধাপে ১৮ মার্চ, তৃতীয় ধাপে ২৪ মার্চ, চতুর্থ ধাপে ৩১ মার্চ ভোটগ্রহণ করে নির্বাচন কমিশন। এর মধ্যে চতুর্থ ধাপে ৩১ মার্চ ছয়টি উপজেলায় এবং ২৪ মার্চ তৃতীয় ধাপে চারটি উপজেলায় ইভিএমে ভোটগ্রহণ করে ইসি।
ঝিনাইদহে ট্রাক উল্টে খাদে, চালক ও সহকারী নিহত
১৬জুন২০১৯,রবিবার,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম: ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ উপজেলায় সিমেন্টবোঝাই ট্রাক উল্টে চালক ও তাঁর সহকারী (হেলপার) নিহত হয়েছেন। আজ রোববার সকাল ৬টার দিকে উপজেলার ছালাভরা নামক স্থানে এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত ট্রাকচালক সুজন (৩০) কুষ্টিয়ার ভেড়ামারা উপজেলার মাধবপুর গ্রামের মানিক আলীর ছেলে। তবে চালকের সহকারীর নাম-পরিচয় জানা যায়নি। ঝিনাইদহ ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের উপসহকারী পরিচালক রফিকুল ইসলাম বলেন, সকালে সিমেন্টবোঝাই ট্রাকটি কুষ্টিয়ার ভেড়ামারা উপজেলার দিকে যাচ্ছিল। পথে ট্রাকটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রাস্তার পাশে খাদে উল্টে পড়ে। এতে ঘটনাস্থলেই চালক সুজন ও তাঁর সহকারী নিহত হন। লাশ উদ্ধার করে পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে বলে জানান ফায়ার সার্ভিসের কর্মকর্তা রফিকুল।
আওয়ামী লীগ কর্মী খুন
১৪ জুন২০১৯,শুক্রবার,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম:যশোরের চৌগাছায় দলীয় প্রতিপক্ষের ধারালো অস্ত্রের আঘাতে মমিনুর রহমান (৫০) নামে এক আওয়ামী লীগ কর্মী খুন হয়েছে। তিনি উপজেলার চৌগাছা সদর ইউনিয়নের লস্কারপুর গ্রামের শামসুদ্দিন ওরফে ইসমাইলের ছেলে। আজ শুক্রবার সকালে এ ঘটনা ঘটে। প্রত্যক্ষদর্শী নিহতের ভাতিজা রাকিব হোসেন ও স্ত্রী শেফালী বেগম বলেন, শুক্রবার সকালে বাড়ির পাশের পুকুরে নেটের পাটা দেয়ার কাজ করছিল। এ সময় একই গ্রামের মৃত সিরাজুল ইসলাম ওরফে সিরাজের ছেলে আলম হোসেন, মশিয়ার রহমান ও ইউনুছ আলীর নেতৃত্বে আলমের ছেলে তুষার, মশিয়ারের ছেলে সুমন, আলমের শ্যালক আবু বক্করের ছেলে নান্নু, আলমের ভাগ্নে চুরামনকাঠি গ্রামের রাসেল মমিনুরের উপর পরিকল্পিত ভাবে হামলা চালায়। এ সময় তারা দেশীয় অস্ত্র রাম-দা ও গাছি-দা দিয়ে এলোপাতাড়ি ভাবে কুপিয়ে মৃত ভেবে ফেলে রেখে চলে যায়। হামলাকারীরা ঘটনাস্থল ছেড়ে গেলে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে চৌগাছা মডেল হাসপাতালে নিলে জরুরি বিভাগে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। চৌগাছা মডেল হাসপাতালের চিকিৎসক ডা. সুব্রত কুমার বাগচী বলেন, হাসপাতালে আনার আগেই তার মৃত্যু হয়েছে। অতিরিক্ত রক্তক্ষরণে তার মৃত্যু হয়েছে। নিহতের দুই হাত, বুকে, পিঠসহ সমস্ত শরীরে ধারালো অস্ত্রের আঘাত রয়েছে।
মাদকাসক্ত নাতির হাতে নানী খুন
১৪ জুন২০১৯,শুক্রবার,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম:বগুড়ার সোনাতলায় মাদকাসক্ত নাতি সুখদেব দাসের (২১) হাতে নানী জোছনা বালা (৫৫) খুন হয়েছেন। ঘটনার পর ঘাতক নাতিকে আটক করে পুলিশে দিয়েছে স্থানীয় লোকজন। বৃহস্পতিবার রাতে বগুড়ার সোনাতলা উপজেলার চক নন্দন গ্রামে এ হত্যাকান্ড ঘটে। নিহত জোছনা বালা একই গ্রামের মৃত উপেন দাসের স্ত্রী। সোনাতলা থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) জাহিদ হোসেন জানান, হতদরিদ্র পরিবারের ছেলে সুখদেব তার নানা বাড়িতে থেকে সোনাতলা বাজারে শ্রমিকের কাজ করে। সে একজন মাদকাসক্ত এবং তার মানসিক সমস্যা রয়েছে। কোনো কারণে ক্ষিপ্ত হয়ে বৃহস্পতিবার গভীর রাতে সুখদেব কাঁচি দিয়ে তার নানীর পেটে আঘাত করলে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়। ভোর চারটার দিকে স্থানীয় লোকজন ঘটনাটি জানতে পেরে সুখদেবকে আটক করে পুলিশের হাতে তুলে দেয়। তিনি আরো জানান, লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।
বাস ও ট্রাকের সংঘর্ষে নিহত ১ আহত ১০
১৪ জুন২০১৯,শুক্রবার,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম:গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জে যাত্রীবাহী বাস ও মালবাহী ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষে একজন নিহত এবং কমপক্ষে ১০ জন গুরুতর আহত হয়েছে। আজ শুক্রবার ভোর সাড়ে ৫টায় গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার চাপড়ীগঞ্জ এলাকায় ঢাকা-রংপুর মহাসড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে।হাইওয়ে পুলিশ ও প্রতক্ষ্যদর্শীরা জানায়, উপজেলার ঢাকা-রংপুর মহাসড়কের চাপরীগঞ্জ নামকস্থানে ভোর সাড়ে ৫টার দিকে কুড়িগ্রামগামী ফাহমিদা হক পরিবহনের একটি যাত্রীবাহী বাস ও ঢাকাগামী টমেটো বোঝাই ট্রাকের মুখোমুখী সংঘর্ষে বাসের হেলপার শফিকুল ইসলাম (২৮) ঘটনাস্থলেই নিহত হন। এছাড়া আরো অন্তত ১০জন আহত হয়। খবর পেয়ে গোবিন্দগঞ্জ ফায়ার সার্ভিসের দুইটি ইউনিট, হাইওয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে উদ্ধার কাজ চালায়। গুরুতর আহত ১০ জনকে রংপুর মেডিকেলসহ আশেপাশের বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। হাইওয়ে থানা পুলিশ দুর্ঘটনাকবলিত গাড়ী দুটিকে আটক করেছে। নিহত হেলপার শফিকুল কুড়িগ্রাম জেলার রাজারহাট উপজেলার কাগকাঠি গ্রামের সাইখুল্লার ছেলে।

সারা দেশ পাতার আরো খবর