মঙ্গলবার, ডিসেম্বর ১৮, ২০১৮
বিয়ের সময় এখনও হয়নি:জ্যাকুলিন
অনলাইন ডেস্ক :চলতি সময়ের জনপ্রিয় বলিউড অভিনেত্রী জ্যাকুলিন ফার্নান্দেজ। সফলতা ও দর্শকপ্রিয়তায় অল্প সময়ে বেশ এগিয়ে গেছেন তিনি। তার হাতে রয়েছে কমপক্ষে ৫ টি বড় বাজেটের ছবি। তবে সম্প্রতি নিজের ব্যাক্তিগত বিষয় নিয়ে বক্তব্য দিয়ে আলোচনায় চলে এসেছেন এ নায়িকা। বলিউডে এখন চলছে বিয়ের ধূম। একটি সংবাদমাধ্যম থেকে তাকে প্রশ্ন করা হয় আপনার বিয়েটা কবে হচ্ছে? জ্যাকুলিন উত্তরে বলেন, বিয়ের সময় এখনও হয়নি। যখন সময় হবে তখন অবশ্যই সবাইকে জানিয়ে বিয়ে করবো। এরপর তাকে প্রশ্ন করা হয় প্রেম নিয়ে? জ্যাকুলিন হেসে বলেন, প্রেম করার সময় নেই। কাউকে সময় দেয়ার সময় নেই। তাছাড়া প্রেম আমার কাছে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় নয়। আমার যোগ্য পুরুষও আমি খুঁজে পাইনি। সেটা পেতে অনেক সময় লাগবে। কারণ উপযুক্ত পুরুষ তেমন একটা নেই। জ্যাকুলিনের এমন বক্তব্যে বেশ ক্ষেপেছেন সাইবারবাসী। নেটদুনিয়ায় এ বিষয়টি এখন ভাইরাল। অনেকে বলছেন, কোন প্রশ্নের উত্তরে কি বলতে হবে সেটা জানেন না জ্যাকুলিন। আবার অনেকে বলছেন, জ্যাকুলিন বিষয়টি নিয়ে অতিরঞ্জিত কথা বলছেন। তার যোগ্য পুরুষ তিনি খুঁজে পাননি! এটা হাস্যকর ছাড়া কিছুই না।
রাজপথে একঝাঁক তারকা নৌকার প্রচারে
বিনোদন ডেস্ক: আগামী ৩০ ডিসেম্বর একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন। দেশব্যাপী এখন নির্বাচনের আমেজ।নির্বাচনী ডামাডোলে শামিল হয়েছেন একঝাঁক তারকা শিল্পী। আগামী নির্বাচনে নৌকাকে বিজয়ী করার আহ্বান জনগণের কাছে। নৌকার প্রচারে রুপালি জগতের একঝাঁক তারকার সঙ্গে শামিল নামকরা চিত্রশিল্পী, সঙ্গীতশিল্পী, নাট্যকর্মী, খেলোয়াড়রা। বৃহস্পতিবার (১৩ ডিসেম্বর) দুপুরে রাজধানীর কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার থেকে ঢাকার বিভিন্ন সড়দে কাভার্ডভ্যানে করে নৌকার পক্ষে প্রচারপত্র বিলি করতে নামেন তারা। নৌকার প্রচারে আজ রাজপথে শামিল ছিলেন জাহিদ হাসান, শাকিল খান, অরুণা বিশ্বাস, বাঁধন, নূতন, শমী কায়সার, রোকেয়া প্রাচী, তানভীন সুইটি, মাহফুজ, তারিন, শামীমা তুষ্টি, এস ডি রুবেল, সায়মন। তাদের সঙ্গে যোগ দেন স্বনামখ্যাত অভিনেতা সৈয়দ হাসান ইমাম, কবি তারিক সুজাত, এক সময়ের তারকা ফুটবলার সত্যজিৎ দাস রুপুসহ আরো অনেকে। আগামী ৩০ ডিসেম্বর অনুষ্ঠেয় নির্বাচনে নৌকাকে জয়ী করতে তারকাসমৃদ্ধ এই প্রচারাভিযান উদ্বোধন করেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, এই প্রচণ্ড রোদের মধ্যে আপনারা বসে আছেন, এটা একটা চেতনার বিষয়, আদর্শের বিষয়। এই আদর্শ, চেতনা, মূল্যবোধ আপনাদের এখানে বসিয়ে রেখেছে। এতে বোঝা যায়, আগামী নির্বাচনে আমরাই বিজয়ী হব। নির্বাচনে সাম্প্রদায়িক শক্তিকে পরাভূত করবে সাংস্কৃতিক চেতনা- এই আশাবাদ প্রকাশ করেন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, ‌'আজকে শিল্পী, সাহিত্যিক, বুদ্ধিজীবী, ক্রীড়া ব্যক্তিত্বের সবাই বসে আছেন একটি চেতনাকে হৃদয়ে ধারণ করে। আমাদের দেশের সাংস্কৃতিক অঙ্গন এখন মরাগাঙ্গ নয়। সারা দেশের নৌকার যে গণজোয়ার তা আছড়ে পড়ছে সাংস্কৃতিক অঙ্গনে। নবমুকুটে তারা আবার পরাজিত করবে সাম্প্রদায়িক অপশক্তিকে, আমরাই আবার বিজয়ী হবো। মুক্তিযুদ্ধের পরাজিত শক্তিকে আবার একাদশ জাতীয় নির্বাচনের মাধ্যমে বিজয়ের মাসে পরাজিত করার শপথে প্রচারে নামার আহ্বান জানান তিনি। একাত্তর সালে আমরা মুক্তিযুদ্ধবিরোধী শক্তিকে পরাজিত করেছি। ২০১৮ সালের ডিসেম্বরেও আমরা এই পরাজিত শক্তিকে পরাজিত করার শপথ নিয়েই প্রচার শুরু করব, এই হবে আজকে আমাদের শপথ।' ওবায়দুল কাদের বলেন, বাংলার মাটিতে আজও সেসব সাম্প্রদায়িক অপশক্তি আছে, তাদের মধ্যে জেনারেল জিয়াউর রহমানের নেতৃত্বে অনেকেই বাই চান্স মুক্তিযোদ্ধা। একাত্তরের মতো ২০১৮ সালেও সাংস্কৃতিক অঙ্গনে নৌকার জোয়ার উঠেছে বলে দাবি করে ওবায়দুল কাদের বলেন, 'সাংস্কৃতিক অঙ্গন আজ জেগে উঠেছে নব জোয়ারে। ১৯৭১ সালের মতো সংস্কৃতি অঙ্গন ২০১৮ সালেও জেগে উঠেছে। আসুন, বিজয়ের মাসে আমরা আরেকটি বিজয় ছিনিয়ে আনি। বিএনপি শিবিরে ‘গণভাটা’ পড়েছে বলে জানিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, একদিকে আওয়ামী লীগের নির্বাচনী গণজোয়ার শুরু হয়েছে, আরেক দিকে বিএনপিতে গণভাটা। নির্বাচনের দিন যতই এগুচ্ছে তারা ততই পরাজয়ের দিকে যাচ্ছে। বক্তব্য শেষে বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রায় প্রচারাভিযান শুরু হয়। এই শোভাযাত্রা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসি হয়ে, শাহবাগ, বাংলামোটর, কারওয়ান বাজার, ফার্মগেইট, জাতীয় সংসদ ভবন হয়ে ধানমণ্ডি ৩২ নম্বর গিয়ে শেষ হয়। আটটি ট্রাক থেকে দেশের তারকা শিল্পীরা সাধারণ মানুষের কাছে আওয়ামী লীগের প্রচারপত্র বিলি করেন। এতে তুলে ধরা হয়েছে আওয়ামী লীগ সরকারের ১০ বছরের উন্নয়নচিত্র। উদ্বোধন অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক হাছান মাহমুদ, উপ-প্রচার সম্পাদক আমিনুল ইসলাম আমিন, উপ-দফতর সম্পাদক বিপ্লব বড়ুয়া, সাবেক বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রী ইয়াফেস ওসমান প্রমুখ।
পরীমনি আসছেন প্রীতি হয়ে ১৩ ডিসেম্বর
বিনোদন ডেস্ক: জনপ্রিয় চিত্রনায়িকা পরীমনি কিছুদিন আগেই কাজ করেছেন গিয়াস উদ্দিন সেলিম পরিচালিত প্রীতি শিরোনামের একটি ওয়েব সিরিজে-এ খবর পুরোনো। নতুন খবর হলো আগামী ১৩ ডিসেম্বর মুক্তি পেতে যাচ্ছে এই ওয়েব সিরিজটি। প্রীতি শিরোনামের এই ওয়েব সিরিজটিতে পরীমনিকে একজন অনুসন্ধানী প্রতিবেদকের চরিত্রে দেখা যাবে। এ প্রসঙ্গে পরিচালক গিয়াস উদ্দিন সেলিম বলেছেন,পরীমনির সঙ্গে স্বপ্নজাল এ কাজ করতে গিয়ে মনে হয়েছে, যেকোনো চরিত্রে মানিয়ে নেওয়ার ক্ষমতা আছে তার। তাই সিরিজটিতে পরীমনিকে নেওয়া। পরীমনি আবারও তার অভিনয় যোগ্যতার প্রমাণ দিয়েছেন। ১৩ ডিসেম্বর এটি মুক্তি পাবার পর আশা করছি দর্শকরাও এটি পছন্দ করবেন। সম্প্রতি প্রীতি নামের এই ওয়েব সিরিজটির ফার্স্ট লুক প্রকাশ করা হয়েছে। আর প্রীতি প্রথম লুকেই দর্শকদের প্রশংসায় ভাসছেন তিনি। এই ওয়েব সিরিজটিতে আরও অভিনয় করেছেন শ্যামল মাওলা, সূচনা আজাদ, শহীদুল আলম সাচ্চু, রহমত আলী, মোমেনা চৌধুরী, সুজাত শিমুল, কালিন্দী কনা, আমিরুল ইসলামসহ অনেকে।
মায়ের জন্মদিনে সালমান
বিনোদন ডেস্ক: বলিউড সুলতান সালমান খানের বোন আলভিরা অগ্নিহোত্রীর স্বামী প্রযোজক অতুল অগ্নিহোত্রী। সামাজিক মাধ্যমে অতুল একবার মায়ের সঙ্গে সালমানের ছবি দিয়ে লিখেছিলেন, মা, মায়ের চোখের মণি। এই চোখের মণিটি কে? ছেলে সালমান। সালমানের কাছেও মা সবার আগে। তাঁর জীবনের ভালোবাসা মা সালমা খান। গতকাল শুক্রবার ছিল সালমানের মায়ের জন্মদিন। পরিবারের সবাই ঘটা করে উদযাপন করলেন এই বিশেষ দিনটি। এমনিতেও খানদান পরিবারের সবাই উৎসব, হুল্লোড় ভালোবাসেন। সালমান একবার বলেছিলেন, কোনো উৎসব না থাকলে নিজেরাই বুদ্ধি করে একটি পার্টির পরিকল্পনা করে ফেলেন। আর মায়ের জন্মদিনের পার্টি তারকাখচিত হবে না? হলোও তাই। সালমার জন্মদিনে ছিলেন তিন খান ব্রাদার্স সালমান, সোহেল ও আরবাজ। জন্মদিন পালন করা হয় সালমানের বোন অর্পিতা খান শর্মার বাসভবনে। জন্মদিন পার্টিতে উপস্থিত ছিলেন খান পরিবারের সাবেক পুত্রবধূ মালাইকা অরোরা। গত বছর আরবাজ খানের সঙ্গে তাঁর বিবাহবিচ্ছেদ হয়ে যায়। তবু খান পরিবারের সঙ্গে তাঁর বন্ধন অটুট আছে। উপস্থিত ছিলেন আরবাজের বর্তমান প্রেমিকা জর্জিয়া আদ্রিয়ানিও। সালমানের বাবা সেলিম খানও ছিলেন পার্টিতে। এ ছাড়া অর্পিতার বাসায় বিশেষ দিনটি উদযাপন করেছেন হেলেন, সীমা খান, অমৃতা অরোরা, সোহেল ও আরবাজের সন্তানেরা। অর্পিতার বাসায় প্রবেশের আগে আলোকচিত্রীদের ক্যামেরায় ধরা পড়েন তাঁরা। খানদান পরিবারের জন্য দিনটি খুবই আনন্দের। সালমান খান ক্যাজুয়াল পোশাকেই ছিলেন। তাঁর ভাই আরবাজও ছিলেন কালো শার্ট ও জিন্সের প্যান্ট পরিহিত। তবে আরবাজের সাবেক স্ত্রী মালাইকা অরোরা রক্তবর্ণের চকচকে পোশাক পরেছিলেন। আর তাঁর বর্তমান প্রেমিকা জর্জিয়া পরেছিলেন সাদা-কালো পোশাক। জর্জিয়া গায়ে জড়িয়েছিলেন কালো জ্যাকেট। সালমান খান এখন আলি আব্বাস জাফর পরিচালিত ভারত ছবির শুটিং নিয়ে ব্যস্ত। এতে তাঁর সঙ্গে জুটি বেঁধেছেন টাইগার জিন্দা হ্যায় সহ-অভিনেতা ক্যাটরিনা কাইফ। এ ছাড়া রয়েছেন নোরা ফাতেহি, সুনীল গ্রোভার, দিশা পাটানি, জ্যাকি শ্রফসহ অনেকে। ছবিতে সালমান খানকে পাঁচটি ভিন্ন লুকে দেখা যাবে। আগামী বছরের ঈদে মুক্তি পাবে ছবিটি। বলিউড সুপারস্টার সালমান খানের অসংখ্য ভক্ত তাঁর মা সালমা খানকে জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানাচ্ছেন। সূত্র : বলিউড লাইফ
অবশেষে প্রকাশ হল প্রিয়াঙ্কা-নিকের বিয়ের ছবি
বিনোদন ডেস্ক: অবশেষে প্রকাশ হল হলিউড গায়ক অভিনেতা নিক জোনাস ও বলিউড অভিনেত্রী প্রিয়াঙ্কা চোপড়ার বিয়ের ছবি। যোধপুরের তাজ উমেদ ভবন প্রাসাদে তিন দিনব্যাপী বিয়ের অনুষ্ঠান সম্পন্ন হয়েছে। নব এই দম্পতিকে কেমন মানিয়েছে তা দেখার জন্য উন্মুখ ছিলেন ভক্তরা। শেষ পর্যন্ত ভক্ত ও সিনেমাপ্রেমীদের ইচ্ছে পূরণ হলো। অবশেষে প্রকাশ পেয়েছে ওই জুটির বিয়ের ছবি। ১লা ডিসেম্বর খ্রিস্টান মতে বিয়ে করেন নিক-প্রিয়াঙ্কা। এদিন প্রিয়াঙ্কা ব়্যালফ লরেনের ডিজাইন করা একটি গাউন পরেছিলেন এবং নিক মানানসই স্যুট পরেছিলেন। এর পরের দিন (২ ডিসেম্বর) হিন্দু রীতি মেনে ফের বিয়ে করেন তারা। দেশি লুকে নজরকাড়া পোশাকে ধরা দেন তারা। উমেদ প্যালেসে হিন্দু রীতিতে বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা সারেন প্রিয়াঙ্কা ও নিক। বিয়েতে সব্যসাচী মুখার্জির ডিজাইন করা লাল রঙের লেহেঙ্গা ও গহনা পরেন প্রিয়াঙ্কা। আর নিক পরেছেন সোনালি রঙের শেরওয়ানি ও চুড়িদার। একইসঙ্গে মাথায় পাগড়ি ও গলায় ছিলো লাল রঙের মালা। এ প্রসঙ্গে অভিনেত্রী বলেন, বিয়েতে লাল রঙের পোশাকই আমার পছন্দ। কিন্তু সব্য (সব্যসাচী) এর মধ্যে ফ্রেঞ্চ অ্যাম্বডারি, ঘোমটা ও গহনা যুক্ত করে আমাকে সাজিয়েছেন।
পুরো ছবির শুটিং শেষ ৩১ দিনেই!
বিনোদন ডেস্ক: নন্দিত নাট্য নির্মাতা গোলাম সোহরাব দোদুল প্রথমবারের মতো সিনেমা পরিচালনা করেছেন। সিনেমার নাম সাপলুডু। আরিফিন শুভ ও বিদ্যা সিনহা মিম জুটির ছবির শুটিং শুরু হয় চলতি বছরের ২৭ অক্টোবর। গতকাল সোমবার (৩ ডিসেম্বর) মাত্র ৩১ দিনেই শেষ হয়েছে ছবিটির শুটিং। ফেসবুক লাইভে বিষয়টি জানান গোলাম সোহরাব দোদুল। শিল্পীদের তিনি ধন্যবাদ জানান সঠিক সময়ে কাজটি শেষ করতে সহযোগিতা করার জন্য। শুভ বলেন, শুটিং শেষ হলেও এখনও আমরা জার্নির মধ্যে দিয়েই যাচ্ছি। এটি আমাদের একটি স্বপ্নের প্রজেক্ট। সব কিছুই পরিকল্পনা মাফিক হয়েছে। সাপলুডুতে চেয়েছি অন্যরকম এক শুভকে দেখুক দর্শক। জানিনা কতটা পেরেছি। হলে গিয়ে দর্শকরা হাত তালি দিলেই আমাদের শ্রম স্বার্থক হবে। মিম বলেন, দারুণ গল্পের একটি ছবি। আমরা দেশের নানা প্রান্তে ছবিটির শুটিং করেছি। দর্শকরা একটি ভালো ছবি উপহার পেতে যাচ্ছেন। শুভ-মিম ছাড়া ছবিতে আরও অভিনয় করেছেন সালাহউদ্দিন লাভলু, জাহিদ হাসানসহ একঝাঁক অভিনয় শিল্পী।
ইরফান-সাফার,জাপটে থাকুক প্রেম
বিনোদন ডেস্ক: মানুষের সঙ্গে মানুষের পরিচয়, ভালোলাগা, প্রেম কিংবা ভালোবাসার সম্পর্কগুলো মাঝে মাঝে খুব অদ্ভুত ধরনের হয়। অনেকটা ভাবনার ওপর দিয়ে চলে যায়। জুবায়ের ও রাকার জীবনের এমন গল্প নিয়েই নির্মিত হয়েছে নাটক জাপটে থাকুক প্রেম। সেতু আরিফের রচনায় নাটকটি পরিচালনা করেছেন রাইসুল তমাল। এতে দুটি প্রধান চরিত্র জুবায়ের ও রাকা হয়ে অভিনয় করেছেন ইরফান সাজ্জাদ এবং সাফা কবির। আরও অভিনয় করেছেন তিয়া রহমান, মিলি বাশার ও ফয়সাল হাসান। রাজধানীর বিভিন্ন লোকেশনে শেষ হয়েছে নাটকটির শুটিং। এতে অভিনয় প্রসঙ্গে ইরফান সাজ্জাদ বলেন, নাটকের গল্পটি দারুণ। আমি চেষ্টা করেছি জুবায়ের চরিত্রটি ভালোভাবে ফুটিয়ে তুলতে। আশা করি এটি দর্শকের ভালো লাগবে। সাফা কবির বলেন, প্রেমের গল্পের নাটক, মনে হবে আমাদের নিজেদেরই গল্প এটি। সব মিলিয়ে ভালো একটি কাজ হবে। শিগগিরই নাটকটি দেশের কোনো একটি বেসরকারি চ্যানেলে প্রচার হবে বলে জানান নির্মাতা।
আজ রোববার হিন্দু রীতিতে বিয়ে করবেন নিক-প্রিয়াংকা
বিনোদন ডেস্ক: রীতিতে বিয়ে করেছেন বলিউডের জনপ্রিয় অভিনেত্রী প্রিয়াংকা চোপড়া ও মার্কিন গায়ক নিক জোনাস। ভারতের যোধপুরে উমেদ ভবনে অনুষ্ঠিত জমকালো ওই বিয়ের অনুষ্ঠানে দুই তারকার পরিবারের সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন। এদিকে আজ রোববার হিন্দু রীতিতে ফের বিয়ে করবেন নিক-প্রিয়াংকা। এর আগে গত আগস্ট মাসে তাদের বাগদান সম্পন্ন হয়। খবর সিএনএন ও বিবিসির। বিয়ের অনুষ্ঠান কেন্দ্র করে পুরো উমেদ ভবনে নিয়োগ করা হয় নিরাপত্তারক্ষী বাহিনী। এ দায়িত্বে থাকাকালীন নিরাপত্তারক্ষীরা স্মার্টফোন ব্যবহার করতে পারবেন না। উমেদ ভবনের ক্যাটারিং কর্মীদের জন্যও একই ব্যবস্থা করা হয়েছে। পাশাপাশি প্রিয়াংকা-নিকের বিয়েতে যে অতিথিরা উপস্থিত থাকবেন, অনুষ্ঠানে থাকাকালীন তারাও স্মার্টফোন ব্যবহার করতে পারবেন না। অনুষ্ঠানের কোনো ছবি তোলা যাবে না বলে জানানো হয়েছে। প্রিয়াংকা-নিকের সঙ্গে বিয়ের ছবির জন্য দুটি মার্কিন ও একটি ভারতীয় ম্যাগাজিন ইতিমধ্যে চুক্তি করেছে। এ কারণে বিনা অনুমতিতে বিয়ের কোনো ছবি বাইরে প্রকাশ করার ব্যাপারে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে।
কাল বিয়ে,আজ গায়ে হলুদ
অনলাইন ডেস্ক: মার্কিন গায়ক-অভিনেতা নিক জোনাসের সঙ্গে নতুন জীবন শুরুর জন্য প্রস্তুত বলিউড অভিনেত্রী প্রিয়াঙ্কা চোপড়া। মেহেদি ও সংগীত শেষে আজ এ তারকা জুটির গায়ে হলুদ। আগামীকাল বহুল প্রতীক্ষিত বিয়ে। কাল থেকে স্বামী-স্ত্রী হিসেবে নতুন পরিচয়ে হাজির হবেন বিশ্বনন্দিত এ যুগল। ভারতের রাজস্থানের নীল শহর যোধপুরের বিখ্যাত উমেদ ভবন প্রাসাদে চলছে প্রিয়াঙ্কা-নিকের রাজকীয় বিয়ের আয়োজন। কয়েকটি আয়োজন আছে মেহরনগড় দুর্গেও। সংবাদমাধ্যম ডিএনএ জানিয়েছে, প্রিয়াঙ্কার হলদি অনুষ্ঠানের জন্য প্রস্তুত উমেদ ভবন প্রাসাদ। এ উপলক্ষে একটি রাজকীয় পার্টির আয়োজন করা হয়েছে। উমেদ ভবনের দরবার হলে ২৫০ জন অতিথি উপস্থিত থাকবেন এই আয়োজনে। আগামীকাল রোববার প্রাসাদের মণ্ডপে হবে বহুল প্রতীক্ষিত বিয়ে। প্রিয়াঙ্কা পরবেন লাল শাড়ি আর নিক পরবেন সোনালি শেরওয়ানি। গত বৃহস্পতিবার আয়োজিত হয় সংগীত অনুষ্ঠান। বাগদত্তা নিক জোনাস হবু স্ত্রীর জন্য একটি বিশেষ পারফরমেন্স করেন। এতে আবেগাক্রান্ত হয়ে পড়েন কোয়ান্টিকো অভিনেত্রী। সংগীতে প্রিয়াঙ্কা পরেছিলেন গোলাপি পোশাক। হীরার গহনায় সজ্জিত ছিলেন তিনি। প্রিয়াঙ্কাও তাঁর হবু বরকে উৎসর্গ করে একটি বিশেষ পারফরমেন্স করেন। চার ঘণ্টাব্যাপী ওই আয়োজনে বলিউড, পাঞ্জাবি ও রাজস্থানী গান পরিবেশন করা হয়। সার্বিক তত্ত্বাবধানে ছিলেন প্রিয়াঙ্কার চাচাতো বোন পরিণীতি চোপড়া। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বেশ কয়েকজন ভারতীয় ও আন্তর্জাতিক শিল্পী। শিল্পপতি মুকেশ আম্বানি ও ও তাঁর স্ত্রী নিতাও উপস্থিত ছিলেন। মেহেদি অনুষ্ঠানে চোপড়া ও জোনাস পরিবারের লোকজন ও ঘনিষ্ঠ কয়েকজন বন্ধুবান্ধব উপস্থিত ছিলেন। সংবাদমাধ্যম টাইমস নাউ তাদের প্রতিবেদনে জানিয়েছে, প্রিয়াঙ্কার মেহেদি অনুষ্ঠানে সাড়ে ৫ কেজি মেহেদি পাঠানো হয়। আর এই মেহেদির দায়িত্বে ছিলেন রিতেশ আগরওয়াল। ২০০৭ সালে সাবেক বিশ্বসুন্দরী ঐশ্বরিয়া রাইয়ের মেহেদি অনুষ্ঠানেও মেহেদি সরবরাহ করেছিলেন এই রিতেশ। শোনা গেছে, প্রিয়াঙ্কার হাত মেহেদিতে রাঙানোর সময় বেজে উঠেছিল মেহেদি হ্যায় রাসনে ওয়ালি ও নিকের হাত রাঙানোর সময় বেজেছিল তারে গিন গিন ইয়াদ বিচ গান দুটি। আগামীকাল ৩৬ বছরের প্রিয়াঙ্কা ও ২৬ বছরের নিকের বিয়ে হবে হিন্দু রীতিতে। পরের দিন ৩ ডিসেম্বর হবে খ্রিস্টান রীতিতে বিয়ে। শোনা যাচ্ছে, সালমান খান ও তাঁর পরিবার ছাড়াও কঙ্গনা রানাউত, ফারহান আখতার, সিদ্ধার্থ রায় কাপুর, রণবীর কাপুর, আলিয়া ভাট, ক্যাটরিনা কাইফকে দেখা যেতে পারে প্রিয়াঙ্কার বিয়েতে। ইতিমধ্যে সালমানের বোন অর্পিতা খান শর্মা ও তাঁর পুত্র আদুরে আহিল যোধপুরে পৌঁছেছেন। দীপবীরের মতোই প্রিয়াঙ্কা ও নিকের দুটি বিবাহোত্তর সংবর্ধনার আয়োজন করা হয়েছে। একটি হবে দিল্লিতে ও অন্যটি মুম্বাইয়ে। বিয়ের কয়েক দিন পর দিল্লির একটি পাঁচতারকা হোটেলে হবে প্রথম বিবাহোত্তর সংবর্ধনা। এ অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি উপস্থিত থাকবেন। তবে দিনক্ষণ এখনো জানানো হয়নি।