শুভ জন্মদিন তারিন
২৬,জুলাই,রবিবার,বিনোদন ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: আজ টেলি তারকা তারিনের জন্মদিন। ১৯৭৬ সালের ২৬ জুলাই নোয়াখালী জেলায় জন্মগ্রহণ করেন এ অভিনেত্রী। বিশেষ এই দিনটিকে ঘিরে তোমন কোনো আয়োজন করবেন না অভিনেত্রী। তবে পরিবারের সবাইকে নিয়ে তিনি দিনটি পার করবেন। তিনি তার ভক্ত-দর্শকদের কাছে দোয়া চেয়েছেন যেন সুস্থ থাকেন এবং তাদের ভালোবাসা ধরে রাখতে পারেন। জন্মদিনে তারিনকে নিউজ একাত্তর পরিবারের পক্ষ থেকে শুভেচ্ছা। নিজের জন্মদিন প্রসঙ্গে তারিনের বরাবরই এক কথা, জন্মদিনে আমার নিজের জন্য কিছুই চাওয়ার নেই। শুধু মহান আল্লাহর কাছে এটাই চাইবো যে, তিনি যেন আমার পরিবারের সবাইকে সুস্থ রাখেন, ভালো রাখেন। তিনি আরও জানান, প্রতিটি জন্মদিনেই পরিবার দিনটিকে বিশেষভাবে পালন করে। পাশাপাশি দেশ-বিদেশের অসংখ্য ভক্তের শুভেচ্ছা বার্তা আমাকে আপ্লুত করে। জীবনট খুবই ছোট। কিন্তু তারপরও মানুষের যে ভালোবাসা পাই সেটি জীবনের অনেক বড় প্রাপ্তি। সবার কাছে দোয়া চাই, যেন দর্শককে ভালো গল্পের নাটক উপহার দিতে পারি। উল্লেখ্য, তারিন শুধু একজন অভিনেত্রীই নন, তিনি একধারে একজন মডেল, নৃত্যশিল্পী ও গায়িকা। ১৯৮৫ সালে জাতীয় সাংস্কৃতিক প্রতিভা অন্বেষণ নতুন কুঁড়িতে অভিনয়, নাচ এবং গল্প বলা প্রতিযােগিতায় প্রথম হন তিনি। তখন থেকেই তিনি শিশু শিল্পী হিসেবে ছােট পর্দায় কাজ করতে শুরু করেন। তিনি অভিনয়ের জন্য ২০০৬, ২০০৭ এবং ২০১২ সালে মেরিল-প্রথম আলো পুরস্কার অর্জন করেছেন। তারিন ওস্তাদ হাসান ইকরাম উল্লাহ্-এর কাছে শাস্ত্রীয় সংগীতে তালিম নেন। তিনি অসংখ্য নাটকে অভিনয় করেছেন। তার উল্লেখযােগ্য নাটক গুলোর মধ্যে রয়েছে- এইসব দিনরাত্রি, সংসপ্তক, ফুল বাগানের সাপ, কথা ছিল অন্যরকম, ইউ টার্ন, মায়া, হারানাে আকাশ, রাজকন্যা, সবুজ ভেটে,অগ্নিবলাকা ইত্যাদি। এছাড়া তিনি অভিনয় করেছেন বেশ কিছু টেলিফিল্মেও। তারিন পিরীত রতন পিরীত যতন এবং কাজলের দিনরত্রি নামের দুটি সিনেমায় অভিনয় করেছেন।
সুশান্ত মৃত্যুর ঘটনায় কঙ্গনাকে পুলিশের তলব
২৫,জুলাই,শনিবার,বিনোদন ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর ঘটনায় এবার তলব করা হল কঙ্গনা রানাউতকে। লকডাউন ও সংক্রমণের কারণে অভিনেত্রী এখন হিমাচল প্রদেশের পৈতৃক ভিটেতে রয়েছেন। জানা গিয়েছে, বয়ান রেকর্ড করাতে তাঁকে বান্দ্রা থানায় আসতে বলেছেন তদন্তকারীরা। অভিনেত্রীর আইনজীবী এই সমনের সত্যতা স্বীকার করেছেন। তিনি বলেছেন, ১৭ মার্চ থেকে অভিনেত্রী সিমলায়। উনি পুলিশকে অনুরোধ করেছেন একটা দলকে হিমাচলে পাঠাতে। রাজ্য পুলিশের সঙ্গে কথা বলে আমার মক্কেল ওই দলের সঙ্গে যোগাযোগ করে বয়ান রেকর্ড করাবেন। এখনও পর্যন্ত এই ঘটনায় প্রায় ৪০ জনের বয়ান রেকর্ড করেছে মুম্বাই পুলিশ। তালিকায় সুশান্তের চর্চিত বান্ধবী রিয়া চক্রবর্তী-সহ আদিত্য চোপড়া, শানু শর্মা কাস্টিং ডিরেক্টর, সাংবাদিক রাজীব মসন্দ এবং দিল বেচারা ছবির পরিচালক মুকেশ ছাবড়াও আছেন। এদিকে, প্রাক্তনের শেষ ছবি মুক্তি পেয়েছে শুক্রবার। তাও আবার ডিজনি+হটস্টারে। তাই সুশান্ত সিং রাজপুতকে স্মরণ করতে ও দিল বেচারার সাফল্য কামনা করে ইনস্টাগ্রামে পোস্ট করলেন অঙ্কিতা লোখান্ডে। মোমবাতি হাতে অঙ্কিতা। বৃহস্পতিবার এই ছবি শেয়ার করে তিনি লেখেন, যেখানেই তুই থাক, শুধু হাসিখুশি থাক। আশা-প্রার্থনা এবং মানসিক শক্তি। ২০০৮ সালে বালাজি টেলিফিল্মসের পবিত্র রিস্তা থেকে পরিচয়। তারপর প্রায় ছ'বছর সম্পর্কে ছিলেন সুশান্ত-অঙ্কিতা। ইতি মধ্যে ছোট পর্দার পরিবার ছেড়ে বড়পর্দায় পাড়ি জমিয়েছিলেন সুশান্ত ও অঙ্কিতা। সম্পর্কে চিড় ধরলেও, বন্ধন ছিল অটুট। তাই প্রাক্তনের মৃত্যুর পর থেকে নানাভাবে তাঁকে স্মরণ করতে উদ্যোগী অঙ্কিতা লোখান্ডে।
নায়িকা পপি করোনায় আক্রান্ত
২৪,জুলাই,শুক্রবার,বিনোদন ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ঢাকাই চলচ্চিত্রের জনপ্রিয় নায়িকা সাদিকা পারভিন পপি। কয়েকদিন ধরে অসুস্থ থাকার পর তিন দিন আগে নমুনা পরীক্ষা করান তিনি। এতে তার করোনা পজেটিভ ধরা পড়ে। পপি বলেন, কিছু দিন ধরে জ্বর এবং সঙ্গে কাশি দেখা দিয়েছে। মাঝখানে জ্বর একটু কমলেও শরীর খারাপ লাগছিল। এর মধ্যে শ্বাসকষ্ট হওয়ায় পরিবারের লোকেরা করোনার জন্য নমুনা পরীক্ষা করাতে পরামর্শ দেন। গত বুধবার সেই ফল হাতে পাই। করোনা পজিটিভ আসে। এখন বাসায় আলাদা থেকে পারিবারিক ডাক্তারের পরামর্শ অনুযায়ী চিকিৎসা নিচ্ছি। সবাই আমার জন্য দোয়া করবেন। বাংলাদেশে করোনা বিস্তারের আগেই নিজ বাড়ি খুলনার খালিশপুরে যান পপি। সেখানে পারিবারিক কাজেই গিয়েছিলেন। এরপর সাধারণ ছুটি ও পরিবহন চলাচল বন্ধ হয়ে গেলে আর ঢাকায় ফিরতে পারেননি এ নায়িকা। রোজা ও ঈদ পালন করেছেন খুলনায়। সেখানে গত তিন মাস ধরে নিজের সামর্থ্যের মধ্যে কয়েক দফায় খালিশপুর ও পাশ্ববর্তী এলাকায় অসচ্ছল মানুষদের ত্রাণ বিতরণ করেন। উল্লেখ্য, লকডাউনের আগে কাঠগড়ায় শরৎচন্দ্র, সাহসী যোদ্ধা ও সেইভ লাইফ নামে তিনটি ছবির শুটিং করছিলেন এ নায়িকা। করোনা প্রকোপ কমে গেলে ঢাকায় ফিরে এসব ছবির শুটিং পূনরায় শুরু করার করবেন বলে জানা গেছে।
ঈদ আয়োজনে গানচিত্রে কাজী শুভ এর- দুঃখ দিলা
২৪,জুলাই,শুক্রবার,বিনোদন ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: ঈদ উপলক্ষে খুব শিগগির আসছে জনপ্রিয় সংগীতশিল্পী কাজী শুভর দুঃখ দিলা শিরোনামের গান-ভিডিও। এন আই বুলবুলের কথায় গানটি সুর ও সংগীতায়োজন করেছেন রোহান রাজ। এরই মধ্যে মিউজিক ভিডিওটির শুটিং সম্পন্ন হয়েছে। এটি পরিচালনা করেছেন রোহান মাহমুদ। অভিনয় করেছে জামশেদ শামিম ও আশপিয়া ওহী। মিউজিক ভিডিওটি প্রকাশ করবে আরসিটি এন্টারটেইনমেন্ট। প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানটি মিউজিক ভিডিওটি নিয়ে দারুন আশাবাদী। এ গান প্রসঙ্গে কাজী শুভ বলেন, ঈদে আমার বেশ কয়েকটি গানের ভিডিও প্রকাশ হবে। এর মধ্যে এই গানের ভিডিওটিও থাকছে। এটি নিয়ে আমি আশাবাদি। গানটির কথা ও সুর সবার মনে দাগ কাটবে বলে আমার বিশ্বাস।
শিল্পী নমিতা ঘোষকে ২১ লাখ টাকা দিলেন প্রধানমন্ত্রী
২২,জুলাই,বুধবার,বিনোদন ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রের শিল্পী নমিতা ঘোষের পাশে দাঁড়িয়েছেন। তার চিকিৎসার জন্য তিনি ২১ লাখ টাকা অনুদান দিয়েছেন। বুধবার (২২ জুলাই) প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব ইহসানুল করিম বিষয়টি নিশ্চিত করেন। তিনি জানান, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নমিতা ঘোষের ক্যান্সার ও চোখের চিকিৎসার জন্য ২১ লাখ টাকা অনুদান দিয়েছেন। সশরীরে দেয়ার সুযোগ না থাকায় এ অর্থ তার পরিবারের কাছে পাঠিয়ে দেয়া হবে। নমিতা ঘোষ দীর্ঘদিন ধরেই ক্যান্সার ও চোখের জটিল রোগে ভুগছেন। তিনি মহান স্বাধীনতা যুদ্ধে যারা বিভিন্নভাবে অবদান রেখেছিলেন তাদের মধ্যে অন্যতম একজন শিল্পী। স্বাধীনতা যুদ্ধে গান গেয়ে মুক্তিযোদ্ধাদের অনুপ্রাণিত করেছেন, সাহস যুগিয়েছেন। গান গেয়ে মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য অর্থ সংগ্রহ করেছেন। মাত্র ১৪ বছর বয়সে স্বাধীন বাংলা বেতারকেন্দ্রে যোগ দিয়ে স্বাধীনতা সংগ্রামে পরোক্ষভাবে অংশগ্রহণ করেন। তিনি একজন বরেণ্য মহিয়সী নারী। তাকে বলা হয়ে থাকে স্বাধীন বাংলা বেতারকেন্দ্রের প্রথম নারী বিপ্লবী। ঢাকার একটি সম্ভ্রান্ত সংস্কৃতমনা পরিবারেই বেড়ে ওঠেন নমিতা ঘোষ। তার মা জসোদা ঘোষ সে সময় রেডিও টেলিভিশনে নিয়মিত সংগীত পরিবেশন করতেন। মাত্র চার বছর বয়সেই মায়ের কাছে সংগীতের তালিম নেন তিনি। পরবর্তীতে সংগীতানুরাগী বাবার উৎসাহে ওস্তাদ মুন্সি রইসউদ্দিন, বারীণ মজুমদার, পিসি গোমেজ, বেদার উদ্দিন আহমেদ প্রমুখ সংগীতজ্ঞের কাছে গানের প্রশিক্ষণ নেন।
চার তরুণীর হাতে বিপর্যস্ত হয়েই নিরাপত্তা বাড়ালেন সালমান
২১,জুলাই,মঙ্গলবার,বিনোদন ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: সালমান খান নায়ক হিসেবে বরাবরই তরুণীদের হার্টথ্রব। এক বার চার তরুণীর হাতে বিপর্যস্ত হয়েছিলেন তিনি! শুধু বিপর্যস্তই বললে কম বলা হয়ে যায়। এমনও শোনা যায়, ওই চার তরুণী তাঁর অনুরাগী সেজে লুঠ করেছিলেন তাঁর দামি জিনিসপত্র। বান্দ্রার এক নাইট ক্লাবে নাকি সালমান এই ঘটনার মুখোমুখি হন। চার তরুণী নাকি প্রথমে তাঁর সঙ্গে আলাপ করেন। তাঁরা সলমান খানের বড় ভক্ত পরিচয় দেন। তাঁরা সালমানের সঙ্গে গল্প করতে চান। তরুণীদের আসল উদ্দেশ্য সালমান বুঝতে পারেননি। তিনি তাঁদের সঙ্গে কিছু ক্ষণ কথা বলেন। সে সময় নাকি সালমানের কাছে ব্যক্তিগত নিরাপত্তারক্ষীরাও ছিল না। চার তরুণী ভক্তের সঙ্গে কথা বলার সময় তাঁদের কাছে রাখার প্রয়োজন ছিল না বলেই মনে হয়েছিল সালমানের। কিন্তু অভিযোগ রয়েছে, তরুণীরা চলে যাওয়ার বেশ কিছু ক্ষণ পরে তিনি বিপদ বুঝতে পারেন। টের পান, তাঁর ওয়ালেট, রোদচশমা এবং বিখ্যাত বজরঙ্গী ভাইজান লকেট খোয়া গিয়েছে। যে সময় সালমান তরুণীদের সঙ্গে কথা বলছিলেন, সে সময় তাঁর কাছের একটি টেবিলে ওই জিনিসগুলি রাখা ছিল বলে জানা যায়। সেখান থেকেই ভক্তবেশী তরুণীরা সেগুলি হাতসাফাই করেন বলে অভিযোগ। সালমানের নিরাপত্তারক্ষীরা তাঁকে অভিযোগ জানাতে বলেন। কিন্তু সালমান পুলিশের কাছে কোনও অভিযোগ না জানিয়ে নিজের নিরাপত্তারক্ষী বাড়িয়ে দুই থেকে ১৪ করে দেন। বছর পাঁচেক আগে বিভিন্ন পত্রপত্রিকায় প্রকাশিত এই খবর গুজব বলে উড়িয়ে দেন সালমানের বোন অর্পিতা। তাঁর দাবি, সালমান সে সময়ে নাইটক্লাবে যেতেন না। তিনি সঙ্গে ওয়ালেটও রাখেন না বলেই দাবি বোন অর্পিতার। এ বিষয়ে সালমান নিজেও কোনও দিন মুখ খোলেননি। তবে বলিউডে জোর গুঞ্জন, এই ঘটনার পরেই ব্যক্তিগত নিরাপত্তারক্ষী সংখ্যা বাড়িয়ে দেন তিনি।
কৃষি কাজে মনযোগী সালমান খান, ট্রাক্টর চালাচ্ছেন নিজেই
২০,জুলাই,সোমবার,বিনোদন ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: ভারতে করোনার ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব শুরু হওয়ার পর থেকে লকডাউনের মধ্যে পানভেলে নিজের ফার্ম হাউসে অবস্থান করছেন বলিউড সুপারস্টার সালমান খান। এ সময়ের মধ্যেই তার বিশাল ফার্ম হাউসটির ভেতরে মিউজিক ভিডিওর শুটিং করে দর্শকদের দেখিয়েছেন এই অভিনেতা। সেখানেই সালমান খান এখন ব্যস্ত রয়েছেন কৃষি কাজ নিয়ে। শুধু তাই না, ট্রাক্টর চালানো থেকে শুরু করে চাষাবাদের নানা কাজ তিনি নিজেই করছেন। সালমান ইনস্টাগ্রামে এক ভিডিওর মাধ্যমে তাই দেখালেন। কর্দম জমি চাষের জন্য প্রস্তুত করতে চালকের আসনে বসে তাকে ট্রাক্টর চালাতে দেখা গেছে। এছাড়া জমিতে নেমে কাজও করেছেন এই তারকা। এদিকে কিছুদিন আগে শর্টস ও টি-শার্ট পরা কাদা মাখানো গায়ে চাষের জমিতে বসে ছবি তুলে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করে সালমান খান। ক্যাপশনে লেখেন, সকল কৃষিকে শ্রদ্ধা। ছবিটি নিয়ে অবশ্য বেশ সমালোচনা করেছে সুশান্ত সিং রাজপুতের ভক্তরা। কারণ এই সম্ভাবনাময় অভিনেতার আত্মহত্যার পর নানা বিষয়ে অভিযুক্ত করে সালমানের দিকেও অনেকে আঙুল তুলেছেন। খুব শিগগিরই সালমান খানের রাধে সিনেমার শুটিংয়ে ফেরার কথা রয়েছে। সিনেমাটি চলতি বছর ঈদে মুক্তি পাওয়ার কথা থাকলেও করোনার কারণে তা বন্ধ হয়ে যায়।- বাংলা নিউজ
ঈদুল আজহায় সিনেমাওয়ালার- অবুঝ মন
১৯,জুলাই,রবিবার,বিনোদন ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: ঈদুল আজহা উপলক্ষে দর্শকদের জন্য একটি নাটক উপহার দেবেন জনপ্রিয় নির্মাতা মুহাম্মদ মোস্তফা কামাল রাজ ও তার প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান সিনেমাওয়ালা। এর নাম রাখা হয়েছে- অবুঝ মন। নাটকটিতে এই প্রজন্মের টিভি তারকা ফারহান আহমেদ জোভানের সঙ্গে অভিনয় করেছেন নবীন অভিনয়শিল্পী কেয়া পায়েল। নির্মাতা রাজ জানান, একটি মিষ্টি প্রেমের গল্পে দেখা যাবে তাদের। কাহিনির সঙ্গে মিলেমিশে থাকা একটি গান আছে। অবুঝ মন- গানের কথা লিখেছেন জনি হক। এটি গেয়েছেন এপি শুভ ও দৃষ্টি আনাম। গানটির সুর ও সংগীত পরিচালনার পাশাপাশি নাটকের আবহসংগীত করেছেন নাভেদ পারভেজ। মুহাম্মদ মোস্তফা কামাল রাজ বলেন, কোরবানির ঈদে তিন-চারটি নাটক তৈরির ইচ্ছে ছিল। পরিকল্পনাও গুছিয়ে এনেছিলাম। কিন্তু করোনা ভাইরাসের কারণে শেষ পর্যন্ত একটি কাজই করতে পেরেছি। অবুঝ মন আমার মন দিয়ে বানিয়েছি। এ নাটকে আমার শুরুর দিকের নির্মাণের ছাপ পাবেন দর্শকরা। ঢাকার ৩০০ ফিট এলাকায় গত ৫ ও ৬ জুলাই অবুঝ মন-এর শুটিং হয়েছে। এতে আরও অভিনয় করেছেন ফখরুল বাসার, মিলি বাসার, রকি, রত্না, আরবিন ও রোকন। চিত্রগ্রহণ করেছেন আদিত্য মনির। নাটকটির নির্বাহী প্রযোজক সালেকিন শাকিল। সিনেমাওয়ালা ইউটিউব চ্যানেলে আসন্ন ঈদুল আজহায় মুক্তি পাবে- অবুঝ মন। ইতোমধ্যে এই চ্যানেলটির সাবস্ক্রাইবার সংখ্যা ১০ লাখ ছাড়িয়েছে।- বাংলা নিউজ
মিশা-জায়েদের পদত্যাগের দাবিতে এফডিসির সামনে মানববন্ধন
১৯,জুলাই,রবিবার,বিনোদন ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির বর্তমান সভাপতি মিশা সওদাগর ও সাধারণ সম্পাদক জায়েদ খানকে নিয়ে সম্প্রতি বিতর্ক তৈরি হয়েছে। চলচ্চিত্রবিরোধী কর্মকাণ্ডে যুক্ত থাকার অভিযোগে তাদের দু জনকে অবাঞ্ছিত ঘোষণা করেছে চলচ্চিত্র সংশ্লিষ্ট ১৭টি সংগঠন। এবার শিল্পী সমিতি থেকে মিশা-জায়েদের পদত্যাগের দাবিতে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র উন্নয়ন করপোরেশনের সামনে মানববন্ধন করেছে সংগঠনটি থেকে ভোটাধিকার হারানো শিল্পীরা। রোববার (১৯ জুলাই) বেলা ১১টায় শিল্পীরা মানববন্ধনে অংশ নেন। মানবন্ধনে শিল্পী সমিতির ভোটাধিকার হারানো ১৮৪ জন শিল্পীর পক্ষ থেকে দাবি করা হয়, মিশা-জায়েদ অন্যায়ভাবে তাদের সদস্যপদ বাতিল করেছেন। এছাড়া তারা পুনরায় তাদের ভোটাধিকার ফিরিয়ে দেওয়ার দাবিও জানান। এছাড়া তাদের কণ্ঠে শ্লোগান শোনা যায়, যে নেতা শিল্পীদের সম্মান করে না, তাকে আমরা চাই না। ২০১৭-১৮ সালের শিল্পী সমিতির দ্বিবার্ষিক নির্বাচনে সমিতির মোট ভোটার সংখ্যা ছিল ৬২৪ জন। মিশা সওদাগর-জায়েদ খান নির্বাচিত হওয়ার পর এ তালিকা থেকে ১৮১ জনের ভোটাধিকার বাতিল করে কেবল সহযোগী সদস্য করা হয়েছে। এরপর নতুন করে ২০ জন শিল্পীকে ভোটার করা হয়।