অবশেষে প্রকাশ হল প্রিয়াঙ্কা-নিকের বিয়ের ছবি
বিনোদন ডেস্ক: অবশেষে প্রকাশ হল হলিউড গায়ক অভিনেতা নিক জোনাস ও বলিউড অভিনেত্রী প্রিয়াঙ্কা চোপড়ার বিয়ের ছবি। যোধপুরের তাজ উমেদ ভবন প্রাসাদে তিন দিনব্যাপী বিয়ের অনুষ্ঠান সম্পন্ন হয়েছে। নব এই দম্পতিকে কেমন মানিয়েছে তা দেখার জন্য উন্মুখ ছিলেন ভক্তরা। শেষ পর্যন্ত ভক্ত ও সিনেমাপ্রেমীদের ইচ্ছে পূরণ হলো। অবশেষে প্রকাশ পেয়েছে ওই জুটির বিয়ের ছবি। ১লা ডিসেম্বর খ্রিস্টান মতে বিয়ে করেন নিক-প্রিয়াঙ্কা। এদিন প্রিয়াঙ্কা ব়্যালফ লরেনের ডিজাইন করা একটি গাউন পরেছিলেন এবং নিক মানানসই স্যুট পরেছিলেন। এর পরের দিন (২ ডিসেম্বর) হিন্দু রীতি মেনে ফের বিয়ে করেন তারা। দেশি লুকে নজরকাড়া পোশাকে ধরা দেন তারা। উমেদ প্যালেসে হিন্দু রীতিতে বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা সারেন প্রিয়াঙ্কা ও নিক। বিয়েতে সব্যসাচী মুখার্জির ডিজাইন করা লাল রঙের লেহেঙ্গা ও গহনা পরেন প্রিয়াঙ্কা। আর নিক পরেছেন সোনালি রঙের শেরওয়ানি ও চুড়িদার। একইসঙ্গে মাথায় পাগড়ি ও গলায় ছিলো লাল রঙের মালা। এ প্রসঙ্গে অভিনেত্রী বলেন, বিয়েতে লাল রঙের পোশাকই আমার পছন্দ। কিন্তু সব্য (সব্যসাচী) এর মধ্যে ফ্রেঞ্চ অ্যাম্বডারি, ঘোমটা ও গহনা যুক্ত করে আমাকে সাজিয়েছেন।
পুরো ছবির শুটিং শেষ ৩১ দিনেই!
বিনোদন ডেস্ক: নন্দিত নাট্য নির্মাতা গোলাম সোহরাব দোদুল প্রথমবারের মতো সিনেমা পরিচালনা করেছেন। সিনেমার নাম সাপলুডু। আরিফিন শুভ ও বিদ্যা সিনহা মিম জুটির ছবির শুটিং শুরু হয় চলতি বছরের ২৭ অক্টোবর। গতকাল সোমবার (৩ ডিসেম্বর) মাত্র ৩১ দিনেই শেষ হয়েছে ছবিটির শুটিং। ফেসবুক লাইভে বিষয়টি জানান গোলাম সোহরাব দোদুল। শিল্পীদের তিনি ধন্যবাদ জানান সঠিক সময়ে কাজটি শেষ করতে সহযোগিতা করার জন্য। শুভ বলেন, শুটিং শেষ হলেও এখনও আমরা জার্নির মধ্যে দিয়েই যাচ্ছি। এটি আমাদের একটি স্বপ্নের প্রজেক্ট। সব কিছুই পরিকল্পনা মাফিক হয়েছে। সাপলুডুতে চেয়েছি অন্যরকম এক শুভকে দেখুক দর্শক। জানিনা কতটা পেরেছি। হলে গিয়ে দর্শকরা হাত তালি দিলেই আমাদের শ্রম স্বার্থক হবে। মিম বলেন, দারুণ গল্পের একটি ছবি। আমরা দেশের নানা প্রান্তে ছবিটির শুটিং করেছি। দর্শকরা একটি ভালো ছবি উপহার পেতে যাচ্ছেন। শুভ-মিম ছাড়া ছবিতে আরও অভিনয় করেছেন সালাহউদ্দিন লাভলু, জাহিদ হাসানসহ একঝাঁক অভিনয় শিল্পী।
ইরফান-সাফার,জাপটে থাকুক প্রেম
বিনোদন ডেস্ক: মানুষের সঙ্গে মানুষের পরিচয়, ভালোলাগা, প্রেম কিংবা ভালোবাসার সম্পর্কগুলো মাঝে মাঝে খুব অদ্ভুত ধরনের হয়। অনেকটা ভাবনার ওপর দিয়ে চলে যায়। জুবায়ের ও রাকার জীবনের এমন গল্প নিয়েই নির্মিত হয়েছে নাটক জাপটে থাকুক প্রেম। সেতু আরিফের রচনায় নাটকটি পরিচালনা করেছেন রাইসুল তমাল। এতে দুটি প্রধান চরিত্র জুবায়ের ও রাকা হয়ে অভিনয় করেছেন ইরফান সাজ্জাদ এবং সাফা কবির। আরও অভিনয় করেছেন তিয়া রহমান, মিলি বাশার ও ফয়সাল হাসান। রাজধানীর বিভিন্ন লোকেশনে শেষ হয়েছে নাটকটির শুটিং। এতে অভিনয় প্রসঙ্গে ইরফান সাজ্জাদ বলেন, নাটকের গল্পটি দারুণ। আমি চেষ্টা করেছি জুবায়ের চরিত্রটি ভালোভাবে ফুটিয়ে তুলতে। আশা করি এটি দর্শকের ভালো লাগবে। সাফা কবির বলেন, প্রেমের গল্পের নাটক, মনে হবে আমাদের নিজেদেরই গল্প এটি। সব মিলিয়ে ভালো একটি কাজ হবে। শিগগিরই নাটকটি দেশের কোনো একটি বেসরকারি চ্যানেলে প্রচার হবে বলে জানান নির্মাতা।
আজ রোববার হিন্দু রীতিতে বিয়ে করবেন নিক-প্রিয়াংকা
বিনোদন ডেস্ক: রীতিতে বিয়ে করেছেন বলিউডের জনপ্রিয় অভিনেত্রী প্রিয়াংকা চোপড়া ও মার্কিন গায়ক নিক জোনাস। ভারতের যোধপুরে উমেদ ভবনে অনুষ্ঠিত জমকালো ওই বিয়ের অনুষ্ঠানে দুই তারকার পরিবারের সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন। এদিকে আজ রোববার হিন্দু রীতিতে ফের বিয়ে করবেন নিক-প্রিয়াংকা। এর আগে গত আগস্ট মাসে তাদের বাগদান সম্পন্ন হয়। খবর সিএনএন ও বিবিসির। বিয়ের অনুষ্ঠান কেন্দ্র করে পুরো উমেদ ভবনে নিয়োগ করা হয় নিরাপত্তারক্ষী বাহিনী। এ দায়িত্বে থাকাকালীন নিরাপত্তারক্ষীরা স্মার্টফোন ব্যবহার করতে পারবেন না। উমেদ ভবনের ক্যাটারিং কর্মীদের জন্যও একই ব্যবস্থা করা হয়েছে। পাশাপাশি প্রিয়াংকা-নিকের বিয়েতে যে অতিথিরা উপস্থিত থাকবেন, অনুষ্ঠানে থাকাকালীন তারাও স্মার্টফোন ব্যবহার করতে পারবেন না। অনুষ্ঠানের কোনো ছবি তোলা যাবে না বলে জানানো হয়েছে। প্রিয়াংকা-নিকের সঙ্গে বিয়ের ছবির জন্য দুটি মার্কিন ও একটি ভারতীয় ম্যাগাজিন ইতিমধ্যে চুক্তি করেছে। এ কারণে বিনা অনুমতিতে বিয়ের কোনো ছবি বাইরে প্রকাশ করার ব্যাপারে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে।
কাল বিয়ে,আজ গায়ে হলুদ
অনলাইন ডেস্ক: মার্কিন গায়ক-অভিনেতা নিক জোনাসের সঙ্গে নতুন জীবন শুরুর জন্য প্রস্তুত বলিউড অভিনেত্রী প্রিয়াঙ্কা চোপড়া। মেহেদি ও সংগীত শেষে আজ এ তারকা জুটির গায়ে হলুদ। আগামীকাল বহুল প্রতীক্ষিত বিয়ে। কাল থেকে স্বামী-স্ত্রী হিসেবে নতুন পরিচয়ে হাজির হবেন বিশ্বনন্দিত এ যুগল। ভারতের রাজস্থানের নীল শহর যোধপুরের বিখ্যাত উমেদ ভবন প্রাসাদে চলছে প্রিয়াঙ্কা-নিকের রাজকীয় বিয়ের আয়োজন। কয়েকটি আয়োজন আছে মেহরনগড় দুর্গেও। সংবাদমাধ্যম ডিএনএ জানিয়েছে, প্রিয়াঙ্কার হলদি অনুষ্ঠানের জন্য প্রস্তুত উমেদ ভবন প্রাসাদ। এ উপলক্ষে একটি রাজকীয় পার্টির আয়োজন করা হয়েছে। উমেদ ভবনের দরবার হলে ২৫০ জন অতিথি উপস্থিত থাকবেন এই আয়োজনে। আগামীকাল রোববার প্রাসাদের মণ্ডপে হবে বহুল প্রতীক্ষিত বিয়ে। প্রিয়াঙ্কা পরবেন লাল শাড়ি আর নিক পরবেন সোনালি শেরওয়ানি। গত বৃহস্পতিবার আয়োজিত হয় সংগীত অনুষ্ঠান। বাগদত্তা নিক জোনাস হবু স্ত্রীর জন্য একটি বিশেষ পারফরমেন্স করেন। এতে আবেগাক্রান্ত হয়ে পড়েন কোয়ান্টিকো অভিনেত্রী। সংগীতে প্রিয়াঙ্কা পরেছিলেন গোলাপি পোশাক। হীরার গহনায় সজ্জিত ছিলেন তিনি। প্রিয়াঙ্কাও তাঁর হবু বরকে উৎসর্গ করে একটি বিশেষ পারফরমেন্স করেন। চার ঘণ্টাব্যাপী ওই আয়োজনে বলিউড, পাঞ্জাবি ও রাজস্থানী গান পরিবেশন করা হয়। সার্বিক তত্ত্বাবধানে ছিলেন প্রিয়াঙ্কার চাচাতো বোন পরিণীতি চোপড়া। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বেশ কয়েকজন ভারতীয় ও আন্তর্জাতিক শিল্পী। শিল্পপতি মুকেশ আম্বানি ও ও তাঁর স্ত্রী নিতাও উপস্থিত ছিলেন। মেহেদি অনুষ্ঠানে চোপড়া ও জোনাস পরিবারের লোকজন ও ঘনিষ্ঠ কয়েকজন বন্ধুবান্ধব উপস্থিত ছিলেন। সংবাদমাধ্যম টাইমস নাউ তাদের প্রতিবেদনে জানিয়েছে, প্রিয়াঙ্কার মেহেদি অনুষ্ঠানে সাড়ে ৫ কেজি মেহেদি পাঠানো হয়। আর এই মেহেদির দায়িত্বে ছিলেন রিতেশ আগরওয়াল। ২০০৭ সালে সাবেক বিশ্বসুন্দরী ঐশ্বরিয়া রাইয়ের মেহেদি অনুষ্ঠানেও মেহেদি সরবরাহ করেছিলেন এই রিতেশ। শোনা গেছে, প্রিয়াঙ্কার হাত মেহেদিতে রাঙানোর সময় বেজে উঠেছিল মেহেদি হ্যায় রাসনে ওয়ালি ও নিকের হাত রাঙানোর সময় বেজেছিল তারে গিন গিন ইয়াদ বিচ গান দুটি। আগামীকাল ৩৬ বছরের প্রিয়াঙ্কা ও ২৬ বছরের নিকের বিয়ে হবে হিন্দু রীতিতে। পরের দিন ৩ ডিসেম্বর হবে খ্রিস্টান রীতিতে বিয়ে। শোনা যাচ্ছে, সালমান খান ও তাঁর পরিবার ছাড়াও কঙ্গনা রানাউত, ফারহান আখতার, সিদ্ধার্থ রায় কাপুর, রণবীর কাপুর, আলিয়া ভাট, ক্যাটরিনা কাইফকে দেখা যেতে পারে প্রিয়াঙ্কার বিয়েতে। ইতিমধ্যে সালমানের বোন অর্পিতা খান শর্মা ও তাঁর পুত্র আদুরে আহিল যোধপুরে পৌঁছেছেন। দীপবীরের মতোই প্রিয়াঙ্কা ও নিকের দুটি বিবাহোত্তর সংবর্ধনার আয়োজন করা হয়েছে। একটি হবে দিল্লিতে ও অন্যটি মুম্বাইয়ে। বিয়ের কয়েক দিন পর দিল্লির একটি পাঁচতারকা হোটেলে হবে প্রথম বিবাহোত্তর সংবর্ধনা। এ অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি উপস্থিত থাকবেন। তবে দিনক্ষণ এখনো জানানো হয়নি।
আইয়ুব বাচ্চুকে ছাড়াই আই চত্বরে বসতে যাচ্ছে চ্যানেল আই ব্যান্ড ফেস্ট
বিনোদন ডেস্ক: চ্যানেল আই চত্বরে চ্যানেল আই ব্যান্ড ফেস্ট অনুষ্ঠিত হয়ে আসছে গেলো চার বছর ধরেই ১ ডিসেম্বর। অনন্যা রুমার পরিচালনায় প্রতি বছরই এই আয়োজনটির সঙ্গে ওতপ্রোতভাবে জড়িয়ে ছিলেন সদ্য প্রয়াত কিংবদন্তি মিউজিশিয়ান আইয়ুব বাচ্চু। পুরো ফেস্টের নেতৃত্বেই ছিলেন তিনি। কিন্তু এবার তাকে ছাড়াই চ্যানেল আই চত্বরে বসতে যাচ্ছে চ্যানেল আই ব্যান্ড ফেস্ট-এর ৫ম আসর। এর আগের ব্যান্ডফেস্টের চারটি আসরেই নেতৃত্বে ছিলেন আইয়ুব বাচ্চু। এ ফেস্ট নিয়ে তার উচ্ছাসও কম ছিল না। গেল ব্যান্ডফেস্টের আগে এক সংবাদ সম্মেলনে আইয়ুব বাচ্চু বলেছিলেন,যতদিন চ্যানেল আই থাকবে, ততদিন ব্যান্ড ফেস্ট থাকবে। যতদিন বাংলাদেশ আছে, ততদিন ব্যান্ড ফেস্ট চলবে। তার কথাকেই শ্রদ্ধা জানিয়ে ব্যান্ড ফেস্ট চালিয়ে যেতে বদ্ধপরিকর পরিচালক অনন্যা রুমা। আইয়ুব বাচ্চুকে ছাড়া প্রথমবার চ্যানেল আই ব্যান্ড ফেস্ট আয়োজন নিয়ে তিনি বলেন, বাচ্চু ভাইকে ছাড়া আমরা ব্যান্ড ফেস্ট করবো এটা কল্পনাও করিনি কখনো। এই ফেস্টের শুরম্ন থেকে তিনি আমাদের সাথে ছিলেন। তিনিই এই ফেস্টের নেতৃত্ব দিতেন, কিন্তু এটা আমাদের জন্য অত্যন্ত্ম বেদনার যে আমরা তাকে হারিয়ে ফেলেছি। তবে তার কথার সূত্র ধরেই চ্যানেল আই ব্যান্ড ফেস্ট নিয়মিত চালিয়ে যেতে চাই। আর এবারের ব্যান্ড ফেস্টটি আমরা তাই আইয়ুব বাচ্চুকেই উৎসর্গ করছি। ১ ডিসেম্বর চ্যানেল আই প্রাঙ্গণে অনুষ্ঠিত হবে ব্যান্ড ফেস্ট-এর পঞ্চম আসর। যেখানে পারফর্ম করবে এলআরবি, আর্টসেল, জলের গান,দলছুট, ফিডব্যাক, অবসিকিউরসহ আরো বেশকিছু ব্যান্ড দল। সকাল সাড়ে ১০টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত্ম চলবে ব্যান্ডফেস্ট ২০১৮।
ভারতের প্রখ্যাত সঙ্গীতশিল্পী মহম্মদ আজিজ আর নেই
অনলাইন ডেস্ক: হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ভারতের প্রখ্যাত সঙ্গীতশিল্পী মহম্মদ আজিজ। মঙ্গলবার রাতে মুম্বাইয়ের নানাবতী হাসপাতালে তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৬৪ বছর। বেশ কিছুদিন ধরেই তিনি অসুস্থ ছিলেন। এই শিল্পীর মৃত্যুতে গভীর শোক নেমে এসেছে বলিউডসহ টলিউডেও। মহম্মদ আজিজের জন্ম হয়েছিল ১৯৫৪ সালের ২ জুলাই ভারতের অশোকনগরে। তিনি বাংলা ও হিন্দি সহ বিভিন্ন ভাষায় মোট ২০ হাজার গান গেয়েছেন। শৈশব থেকেই সঙ্গীতের প্রতি তার গভীর টান ছিল। উপমহাদেশের বিখ্যাত সঙ্গীতশিল্পী মহম্মদ রাফির গান দিয়েই সঙ্গীত জগতে এসেছিলেন মহম্মদ আজিজ। তবে বহুমুখী প্রতিভাধর শিল্পী আজিজের চলচ্চিত্রের গানে অভিষেক হয় কলকাতার বাংলা জ্যোতি সিনেমায় গান গাওয়ার মাধ্যমে। এরপর খুব অল্প সময়েই মুম্বাই থেকে তার ডাক চলে আসে। এক প্রযোজকের অনুরোধে ১৯৮৪ সালে মুম্বাই যান তিনি। ওই বছরই বলিউড অম্বর ছবিতে তার গান গাওয়ার সুযোগ হয়। প্রথম গানেই সকলের নজর কাড়েন। আশি ও নব্বইয়ের দশকে তখনকার সুপারহিট লতা মঙ্গেশকর, আশা ভোঁসলে ও কবিতা কৃষ্ণমূর্তিদের সঙ্গে বহু হিট গান উপহার দিয়েছেন সদ্য প্রয়াত শিল্পী মহম্মদ আজিজ। বিশেষ করে কবিতা কৃষ্ণমূর্তির সঙ্গে তার জুটি ছিল দর্শক মহলে সর্বাধিক জনপ্রিয়। সে সময় তাকে কিংবদন্তি শিল্পী মহম্মদ রাফির যোগ্য উত্তরসূরি হিসেবে মেনে নিয়েছিলেন শ্রোতারা। বলিউড শাহেনশাহ অমিতাভ বচ্চন, ড্যান্স সুপারস্টার গোবিন্দ, মিঠুন চক্রবর্তী ও ঋষি কাপুরের মতো সুপারস্টাররা আজিজের গানের সঙ্গে ঠোঁট নেড়েছেন। তম্বু মে বম্বু, মর্দ টাঙ্গেওয়ালা, তেরি বেওয়াফা কি শিকওয়া, লাল দুপাট্টা মলমল কা, তেরে গম আগার না হোতা এবং এক রাজা এক রানীর মতো বহু গানের মাধ্যমে ভক্তদের মনে জায়গা করে নিয়েছিলেন তিনি।
২৯ নভেম্বর প্রকাশ হবে টয়া-তৌসিফ-সাফার উহ্ লা লা নাটক
বিনোদন ডেস্ক: এই শহরে প্রতিদিনই ছুটে চলছে মানুষ। নিজ নিজ প্রয়োজনেই এই ছুটে চলা। একে অন্যের কাছাকাছি পাশাপাশিই চলছে প্রতিনিয়ত, কিন্তু বোঝার উপায় থাকে না যে, কার চরিত্র কেমন। শহরের কিছু মানুষ প্রতিনিয়ত ঠকে, আর কিছু মানুষ প্রতিনিয়ত ঠকায়। যারা মানুষ কে ঠকায় তাদের ডান-বাম খেলায় বোকা বনে যায় সাধারণ মানুষ। রিরংসাবৃত্তি চরিতার্থ করার শঠ-কৌশলে মানুষকে বোকা বানিয়ে নিজের স্বার্থ আদায় করতে ব্যস্ত থাকে ঠকবাজ মানুষগুলো। কিন্তু এমনি করেই কী চলে, তার সারা জীবন ? এর শেষ পরিনতিই বা কি ? এমনই গল্পে নির্মিত হলো নাটক উহ্ লা লা। ইমরাউল রাফাতের রচনা ও পরিচালনায় এই নাটকের বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করেছেন লাক্স সুপারস্টার মুমতাহিনা টয়া, তৌসিফ মাহবুব , সাফা কবির সহ আরও অনেকে। প্রথমবারের মতো দর্শক টয়া এবং সাফা কবিরকে ব্যতিক্রমী দুটি চরিত্রে দেখতে পাবেন এই নাটকে। ব্রেভার এনার্জী ড্রিংস নিবেদিত নাটক উহ্ লা লা প্রযোজনা করেছে ধ্রুব এন্টারটেইনমেন্ট। আগামী ২৯ নভেম্বর , বৃহস্পতিবার প্রতিষ্ঠানটি তাদের ইউটিউব চ্যানেল ধ্রুবটিভি তে প্রকাশ করবে নাটক উহ্ লা লা।
আ. লীগের মনোনয়ন পাননি যেসব তারকা
বিনোদন ডেস্ক: আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নৌকা প্রতীকে নির্বাচন করার জন্য মনোনীতপ্রার্থীদের চিঠি দিয়েছে আওয়ামী লীগ। রোববার (২৫ নভেম্বর) সকাল ১০টার দিকে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউয়ে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয় থেকে এ চিঠি দেওয়া শুরু হয়। তবে, ২৩০ জনের মনোনয়ন চূড়ান্ত করলেও এখন পর্যন্ত চিঠি পেয়েছেন ২০০ জনের কিছু বেশি। নির্বাচনের টিকিট পেয়েছেন বেশ কয়েকজন তারকা। প্রথমবার ঢাকা-১৭ আসনে নির্বাচনের সুযোগ পেয়েছেন চিত্রনায়ক ফারুক। আর নীলফামারী-৩ আসনের পুনরায় মনোনয়ন পেয়েছেন আসাদুজ্জামান নূর এবং কণ্ঠশিল্পী মমতাজ বেগম মানিকগঞ্জ-২ আসন থেকে মনোনয়ন পেয়েছেন। মনোনয়নপ্রত্যাশীদের মধ্যে বঞ্চিত হয়েছেন অভিনেত্রী সারাহ বেগম কবরী, রোকেয়া প্রাচী, তারিন জাহান, চিত্রনায়ক শাকিল খান, ডিপজল, শমী কায়সার এবং জ্যোতিকা জ্যোতি। আর আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পাননি ১৯ জন সংসদ সদস্য। এসব আসনে নতুন প্রার্থীকে মনোনয়ন দেওয়া হয়েছে। যাদেরকে মনোনয়ন দেওয়া হয়নি- আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির নানক। ওই আসনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন সাদেক খান। এছাড়া, গাজীপুর-৩ আসনে দলের প্রার্থী হচ্ছেন ইকবাল হোসেন সবুজ, শরীয়তপুর-১ আসনে ইকবাল হোসেন অপু আর শরীয়তপুর-২ এ এনামুল হক শামীম। এছাড়া টেকনাফের আলোচিত সংসদ সদস্য আবদুর রহমান বদির বদলে তার স্ত্রী শাহিনা আক্তার চৌধুরীকে মনোনয়ন দেয়া হয়েছে। সিরাজগঞ্জ-৩ আসনে শিশু বিশেষজ্ঞ ডাক্তার আব্দুল আজিজ, শেখ হেলালের ছেলে শেখ তন্ময় বাগেরহাট-২, এস এম শাহজাদা পটুয়াখালী-৩, আহসানুল ইসলাম টিটু টাঙ্গাইল-৬, ইঞ্জিনিয়ার মোজাফফর হোসেন জামালপুর-৫ এবং জাফর আলম কক্সবাজার-১ আসনে প্রথমবারের মতো মনোনয়ন পেলেন।