বুধবার, মে ২৩, ২০১৮
ফের বিপাকে প্রিয়া
ফের সুপ্রিম কোর্টে মামলা হলো মালায়লম সিনেমা ওরু আদার লাভ এর কলাকুশলীদের বিরুদ্ধে। এ ছবির যে অংশের যে ভিডিওর হাত ধরে রাতারাতি তারকা বনে গিয়েছিলেন প্রিয়া প্রকাশ ভারিয়ার, সেই ৩০ সেকন্ডের ভিডিওই বারবার তাকে বিপাকে ফেলে দিচ্ছে। জানা গেছে, হায়দরাবাদের দুটি রাজনৈতিক দল ওরু আদার লাভ ছবির বিরুদ্ধে সর্বোচ্চ আদালতে মামলা করেছে। অভিযোগকারীদের দাবি, চোখ টেপা ইসলামে নিষিদ্ধ। আর এই জন্যই মামলা দায়ের করা হয়েছে। তবে এবারই প্রথম নয়, এর আগেও হায়দরাবাদ ও মহারাষ্ট্রের দুই সংগঠন প্রিয়া প্রকাশ ভারিয়ার সহ ওরু আদার লাভ-এর সব কলাকুশলীর বিরুদ্ধে থানায় মামলা করেছিল। যদিও সেসব মামলায় প্রিয়া প্রকাশ ভারিয়ারসহ সবাইকে রেহাই দিয়েছিল দেশের সর্বোচ্চ আদালত। তবে সেই রেশ কাটতে না কাটতেই ফের বিপাকে পড়লেন দক্ষিণ ভারতের উঠতি অভিনেত্রী। এই মামলায় সুপ্রিম কোর্ট কী রায় দেয় সেটাই এখন দেখার।
তানহা নতুন বিজ্ঞাপনে
শ্রীলঙ্কার কলম্বোয় গত বছর অনুষ্ঠিত সার্ক ফিল্ম ফেস্টিভ্যাল-এ প্রদর্শিত হয় দেশের প্রথম মিউজিক্যাল চলচ্চিত্র সারাংশে তুমি। জনপ্রিয় কণ্ঠশিল্পী কুমার বিশ্বজিতের গান নিয়ে নির্মিত এই মিউজিক্যাল চলচ্চিত্র গত বছর এ দেশেও মুক্তি পায়। এটি নির্মাণ করেন আশিকুর রহমান। আর এতে মডেল হিসেবে কাজ করেন রাহা তানহা খান ও অন্তু করিম। রাহা তানহা খান সম্প্রতি দুটি নতুন বিজ্ঞাপনে মডেল হিসেবে কাজ করেছেন বলে জানান। তিনি বলেন, এর আগেও বেশ কিছু বিজ্ঞাপনে মডেল হিসেবে কাজ করেছি। আর সম্প্রতি এফডিসিতে রাসেল শিকদারের নির্দেশনায় এলজি এসি এবং আবুল খায়ের চান্দ ভাইয়ের ইগলু আইসক্রিম-এর বিজ্ঞপনে মডেল হিসেবে কাজ করলাম। বিজ্ঞাপনে মডেল হিসেবে কাজ করতে আমার বেশ ভালোলাগে। আশা করি, কাজ দুটি দর্শকরা বেশ পছন্দ করবেন। এ কাজের বাইরে রাহা তানহা খান স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্রেও কাজ করেছেন। হেলেন অব ট্রয় টু নামের নতুন এই স্বল্পদৈর্ঘ্যের শুটিং এরইমধ্যে শেষ হয়েছে। এটি নির্দেশনা দিয়েছেন ইভান মনোয়ার। খুব শিগগিরই এই কাজগুলোর পাশাপাশি আরো কিছু নতুন কাজে সামনে দর্শক তাকে দেখতে পাবেন বলে জানিয়েছেন রাহা।
পয়লা বৈশাখে বিশেষ দুটি কনসার্টে অংশ নেবেন জেমস
বিশেষ দিন মানেই বিশেষ গান, কনসার্ট। রক তারকা জেমসের ভক্তরা এভাবেই উৎসব পালন করছেন। বছরের পর বছর এই ধারাবাহিকতায় মঞ্চ পরিবেশনায় মুগ্ধতা ছড়াচ্ছেন জনপ্রিয় এই শিল্পী। এবারের পয়লা বৈশাখের দিনটিও সাজিয়েছেন সেভাবেই। জেমসের ব্যক্তিগত সহকারী রুবাইয়াৎ ঠাকুর রবিন জানান, নগরবাউলখ্যাত জেমস পয়লা বৈশাখে বিশেষ দুটি কনসার্টে অংশ নেবেন। এবার ঢাকার বাইরে কোনো শো রাখা হয়নি। দুটি কনসার্টই হবে ঢাকায়। ১৪ এপ্রিল দুপুর ২টায় জেমস গাইবেন মেট্রোপলিটন পুলিশ আয়োজিত কনসার্টে। এখানকার পরিবেশনা শেষ করে জেমস ছুটবেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মল চত্বরে। সেখানে তার পরিবেশনা শুরু হবে বিকাল ৪টা নাগাদ। এদিকে শ্রোতাদের জন্য নতুন কিছু গান তৈরি করছেন এই শিল্পী। এরই মধ্যে বেশকিছু কাজ এগিয়ে গেছে। অল্প কিছুদিনের মধ্যে ভক্ত শ্রোতাদের হাতে নতুন গানগুলো তোলে দিতে পারবেন বলে জানান রবিন।
ফের সালমানকে জেলে পাঠাতে তোড়জোড় শুরু
জামিন পেলে কি হবে, চিন্তা কমছে না সালমান খানের। কারণ, নায়কের জামিনের বিরোধিতা করে হাইকোর্টে আবেদন জানাতে চলেছে রাজস্থানের বিষ্ণোই সম্প্রদায়। সর্বভারতীয় এক গণমাধ্যমের এমনটাই দাবি করা হয়েছে। কৃষ্ণসার হরিণ হত্যার অপরাধে দুদিন জেলে থাকার পর শনিবারই জামিন পান সালমান। ভাইজানের জামিনে বলিউড এবং তার ভক্তরা খুশি হলেও হতাশ বিষ্ণোই সম্প্রদায়ের প্রতিনিধিরা। তারা মনে করছেন, সালমান জামিন পাওয়ায় তাদের এতদিনের আইনি লড়াইয়ের কোনও মূল্য থাকল না। সেই কারণেই সালমানকে জেলে ফেরাতে উচ্চতর আদালতে আবেদন করতে চলেছেন তারা। সালমানের উপর রেগে গেলেন আসারাম বাপু, জামিন পাওয়ার আগেই জেলের মধ্যে বিবাদ বিষ্ণোই টাইগার ফোর্স সংগঠনের নেতা রামনিবাস ধোরির কথায়, আজ আমাদের জন্য অত্যন্ত দুঃখের দিন। পাঁচ বছরের সাজা হওয়ার পরে মাত্র দু দিন জেলে থেকেই জামিন পেয়ে গেলেন সালমান। বিষ্ণোইদের অন্য একটি সংগঠনের নেতা রণনিবাস বুধনাগরও জানিয়েছেন, সালমানের জামিনের নির্দেশ ভালো করে খতিয়ে দেখছেন তারা। আইনি পরামর্শও নেওয়ার পর তারা উচ্চতর আদালতে জামিনের বিরোধিতা করে আবেদন জানাবেন। তিনি আরও জানান, শুধু সালমানের জামিনের বিরোধিতা নয়, চার অভিনেতাসহ এই মামলায় অব্যাহতি পাওয়া বাকি পাঁচজনের শাস্তির দাবিতেও উচ্চতর আদালতে আবেদন জানাব আমরা। সালমানের সাথেই সাইফ আলি খান, টাবু, নীলম, সোনালি বেন্দ্র এই মামলায় অভিযুক্ত ছিলেন। যদিও, তাদের অভিযোগ থেকে অব্যাহতি দিয়েছেন আদালত। বিষ্ণোইরা সত্যিই শেষ পর্যন্ত হাইকোর্টে আবেদন করে কি না, তা সময়ই বলবে। কিন্তু আপাতত বাড়ি ফিরলেও বিষ্ণোইদের এই হঙ্কার সালমানকে চিন্তায় রাখতে বাধ্য।
আমি খুব খুশি সালমান জেলে যাওয়ায়:সোফিয়া
বৃহস্পতিবার থেকে ভারতের সব গণমাধ্যমের শিরোনামে রয়েছেন বলিউড ভাইজান খ্যাত বলিউড সুপারস্টার সালমান খান। ১৯৯৮ সালে হাম সাথ সাথ হ্যায় ছবির শ্যুটিংয়ের ফাঁকে জোধাপুরে কৃষ্ণসার হরিণ শিকারের অপরাধে বৃহস্পতিবার তার ৫ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন দেশটির আদালত। সালমানের কারাদণ্ডের পর বলিউডের বিভিন্ন অভিনেতারা তার প্রতি সহমর্মিতা দেখালেও একমাত্র সোফিয়া হায়াতই নেতিবাচক প্রতিক্রিয়া দেখিয়েছেন। সোফিয়া হায়াত একাধারে অভিনেত্রী, মডেল ও গায়ক। তিনি বিগ বস-৮ এর প্রতিযোগী ছিলেন। সালমানের রায়ের খবর প্রকাশ হওয়ার পর সোফিয়া তার ফেসবুক পেজে সালমানের ছবি শেয়ার করে নেতিবাচক পোস্ট দেন। সেখানে তিনি ছবির ক্যাপশনে লেখেন,বিইং হিউম্যান এর বদলে লেখা নো মোর হিউম্যান । সোফিয়া তার পোস্টে লেখেন,কর্মের ফল পেতেই হয়। অনেকে সালমানের বিরুদ্ধে কথা বলতে ভয় পান। তারা ভাবেন সালমান পুরো বলিউডের পর্যালোচনা করেন। কিন্তু আমি বলতে ভয় পাই না। সালমান জেলে গিয়েছেন বলে আমি খুব খুশি হয়েছি। লম্বা পোস্টটির শেষে সোফিয়া লেখেন, আজ আমি বলতে পারি, হিন্দুস্তান জিন্দবাদ। তবে এই প্রথম নয়। এর আগেও বহুবার বিভিন্ন বিষয়ে বিস্ফোরক মন্তব্য করে সোফিয়া হায়াত বিতর্কে জড়িয়েছিলেন।
দীপিকা-শ্রীদেবীর চরিত্রে অভিনয় করবেন
চলতি বছরের ২৪ ফেব্রুয়ারি প্রয়াত হয়েছেন ভারতের প্রথম নারী সুপারস্টার শ্রীদেবী। তাঁর মৃত্যুতে যতটা কষ্ট পেয়েছে বলিউড, ঠিক ততটাই কষ্ট পেয়েছে দক্ষিণ ভারতের চলচ্চিত্র সংশ্লিষ্টরা। কারণ শ্রীদেবীর উঠে আসা দক্ষিণের চলচ্চিত্রের হাত ধরেই। তাই শ্রীদেবীকে আবারো বড় পর্দায় ফিরিয়ে নিয়ে আসা হচ্ছে দক্ষিণের চলচ্চিত্রে। আর সেই চরিত্রে অভিনয় করতে যাচ্ছেন দীপিকা পাডুকোন। ডেকান ক্রনিকেলসের বরাত দিয়ে জি নিউজের খবরে প্রকাশ, দক্ষিণের মহাতারকা এবং অন্ধ্রপ্রদেশের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী এনটি রামা রাওকে নিয়ে বায়োপিক নির্মাণের ঘোষণা দিয়েছে হায়দ্রাবাদের রামাকৃষ্ণা স্টুডিও। পর্দায় বাবার চরিত্রে অভিনয় করবেন রামা রাওয়ের ছেলে নানদামুরি বালাকৃষ্ণা। আর এই রামা রাও শ্রীদেবীর বিপরীতে বেশ কিছু ব্যবসাসফল ছবিতে অভিনয় করেছেন। শ্রীদেবীর বিপরীতে ভেতাগাদু কোনদাভেতি সিমহাম এবং বব্বিলি পুলি ছবিগুলোতে রামা রাও অভিনয় করেছিলেন, এসময় ছবিগুলো সাফল্যের চূড়া স্পর্শ করে। রামা রাওকে নিয়ে করতে যাওয়া বায়োপিকে দীপিকার কথাই ভাবছেন পরিচালক ও প্রযোজক- এমনটাই জানা যায় ঘনিষ্ঠ এক সূত্রে। রামা রাওয়ের বায়োপিকটি যৌথভাবে প্রযোজনা করবেন বালাকৃষ্ণা, সাই কাররোপাতি ও বিষ্ণু ভারদান ইন্দুরি। তেজা খ্যাত এই অভিনেতা অভিনয় জীবন শেষে রাজনীতিতে জড়িয়ে পড়েন। ১৯৯৬ সালের ১৮ জানুয়ারি ৭২ বছর বয়সে মারা যান রামা রাও।
বুবলী ও শাকিবের হেলিকপ্টারে ভ্রমণ
ছবিটা দেখে মনে হচ্ছে দুজনে ভ্রমণে বেরিয়েছেন। দুজনই কালো পোশাক পরা। পাশাপাশি বসে আছেন হেলিকপ্টারে। হাস্যোজ্জ্বল। ঢালিউড কিং শাকিব খানকে সঙ্গে নিয়ে এমনই একটি ছবি ফেসবুকে নিজের ওয়ালে পোস্ট করেছেন চিত্রনায়িকা শবনম বুবলী। ছবিটি দেখে প্রশ্ন আসতে পারে একসঙ্গে হেলিকপ্টারে চড়ে কোথায় যাচ্ছেন তারা? আসলে ছবিটি এই জুটির নতুন সিনেমা সুপারহিরোর শুটিংয়ের সময় তোলা। ছবিটির ক্যাপশনে বুবলী লিখেছেন,সুপার হিরো টিম যখন হেলিকপ্টারে। সমপ্রতি চট্টগ্রামে ছবিটির শুটিং হয়েছে। এর আগে অস্ট্রেলিয়ায় একই ছবির শুটিংয়ে অংশ নিয়েছিলেন আলোচিত শাকিব-বুবলী জুটি।
চিত্রনায়িকা পূর্ণিমাকে নিয়ে তোলপাড়
চিত্রনায়িকা পূর্ণিমা নাটক ও চলচ্চিত্রের পাশাপাশি সাম্প্রতিক সময়ে জনপ্রিয়তা পেয়েছেন তার সাবলীল উপস্থাপনার মাধ্যমে। এরই পরিপ্রেক্ষিতে গত ২৪ মার্চ প্রচারিত বেসরকারি টেলিভিশন আরটিভিতে এবং পূর্ণিমা অনুষ্ঠানের একটি পর্বে অতিথি হয়ে আসেন খলনায়ক মিশা সওদাগর। এই পর্বে পূর্ণিমা চলচ্চিত্র বিষয়ে অনেক প্রশ্নের পাশাপাশি পর্দায় ধর্ষণ সিন নিয়ে প্রশ্ন করেন অতিথি মিশার সঙ্গে। তার এই প্রশ্ন করা নিয়ে সমালোচনার ঝড় উঠেছে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমসহ বিভিন্ন মাধ্যমে। আপনি সিনেমাতে কতবার ধর্ষণ করেছেন? কার সঙ্গে স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করতেন ধর্ষণের সিন করতে?অনুষ্ঠানে মিশা সওদাগরকে এমন প্রশ্ন করেছিলেন পূর্ণিমা, যা নিয়ে তৈরি হয়েছে বিতর্ক। গত কয়েক দিন ধরে এ বিষয়ে তার কোনো বক্তব্য পাওয়া যাচ্ছিল না। তবে সম্প্রতি এই বিষয় নিয়ে তিনি দুঃখ প্রকাশ করেছেন। অনুষ্ঠানটি দেখে যারা তার ওপর ক্ষুব্ধ হয়েছেন কিংবা কষ্ট পেয়েছেন তাদের প্রতি তিনি দুঃখ প্রকাশ করেন। তিনি বলেন, সত্যি কথাটা হলো আমরা আসলে অনেক কিছুই সহজভাবে নিতে পারি না। বোঝার চেষ্টা করি না, এটা একটা ফান শো বা আড্ডা। এই অনুষ্ঠান দেখে আমার কথায় যদি কেউ কষ্ট পেয়ে থাকেন, সেটার জন্য সত্যিই আমি আন্তরিকভাবে দুঃখিত। আপনাদের দুঃখ দেওয়ার জন্য এই অনুষ্ঠানগুলো বা সিনেমা করি না। আপনাদের আনন্দ দেওয়াই আমাদের উদ্দেশ্য। কিন্তু পূর্ণিমা এই দুঃখ প্রকাশের সঙ্গে সঙ্গে ক্ষোভ প্রকাশও করেন। ক্ষোভ প্রকাশের সুরে পূর্ণিমা বলেন,আসলে ব্যক্তিগত রেষারেষি থেকে পুরো অনুষ্ঠানের ওই অংশটি কেটে ভিডিওটা ছড়ানো হয়েছে। তবে কারা এবং কেন করেছে তা এখন বলতে চাচ্ছি না। পরে সময় হলে সব জানিয়ে দেব সবাইকে। পূর্ণিমা এই ধরনের প্রশ্ন করার নেপথ্যের কারণ হিসেবে বলেন, মিশা ভাইয়ের সঙ্গে করা প্রথম ছবিটিতে ধর্ষণের দৃশ্য ছিল আমার সঙ্গে। তিনি তো পুরো ক্যারিয়ারে হাজারটা এমন দৃশ্য করেছেন। আর আমিও কমপক্ষে ৫০-৬০টি ছবিতে এই দৃশ্য করেছি। সবই কিন্তু চিত্রনাট্যের দাবিতে করা দৃশ্য মাত্র। সিনেমায় তো খুনোখুনিও হয়, ভালোবাসাও। আমরা তো সেই সিনেমারই মানুষ। অথচ মজার ছলে এই বিষয়ে কথা বলতে গেলে সেটা অন্যভাবে কেন নেওয়া? অনুষ্ঠানে আমাদের অনেক বিষয় নিয়ে আলাপ হয়েছে। কথা প্রসঙ্গে ধর্ষণ সিন বিষয়টাও এসেছে। কারণ, এটি যেকোনো শিল্পীর জন্য একটু কঠিন বিষয়। যেমন মিশা ভাই এই অনুষ্ঠানেই বলেছেন, মৌসুমী আপুর সঙ্গে তার যে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক সেটার কারণে তার সঙ্গে এই ধরনের বিশেষ সিন করতে তিনি স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করেন। কারণ, সহশিল্পীর সাপোর্ট ছাড়া আপনি কোনো দিনই ভালো অভিনয় করতে পারবেন না। অথচ এই জানতে চাওয়াটাই এখন জীবনের বড় ভুল হয়ে ধরা দিল। মিশা ভাই তো আমার সামনে বসে আমার কথাও বললেন। কারণ, আমরা বিষয়টাকে একটি দৃশ্য হিসেবেই ট্রিট করেছি। আমাদের মনে কোনো খারাপ উদ্দেশ্য ছিল না। অথচ সেটা নিয়ে এত বড় নোংরামি কেন? তবে এটা ঠিক, গেল এক সপ্তাহে দেশে কিছু অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা ঘটেছে। কাছাকাছি সময়ে এই অনুষ্ঠানটা অনএয়ার যাওয়ার পর স্বাভাবিক বিষয়টাকে অস্বাভাবিক খাতে প্রবাহিত করা হয়েছে। ভিডিও ক্লিপ বানিয়ে ফেসবুক স্ট্যাটাস দিয়ে মানুষকে বিভ্রান্ত করেছে কিছু মানুষ।উল্লেখ্য, সৈয়দ আশিক রহমানের মূল ভাবনায় আরটিভিতে প্রচারিত সেলিব্রেটি টক-শো এবং পূর্ণিমা। অনুষ্ঠানটি প্রযোজনা করছেন সোহেল রানা বিদ্যুৎ এবং গ্রন্থনা করছেন অনিন্দ্য মামুন।
জনপ্রিয় খল অভিনেতা আহমেদ শরীফের ৩ মাসের জেল
চেক জালিয়াতির মামলায় জনপ্রিয় খল অভিনেতা আহমেদ শরীফকে ৩ মাসের কারাদণ্ড প্রদান করেছেন আদালত। কারাদণ্ডের পাশাপাশি এক লাখ ৬৭ হাজার টাকা জরিমানাও করেছেন আদালত। ঢাকার চতুর্থ অতিরিক্ত মহানগর দায়রা জজ আদালতের বিচারক ইমান আলী শেখ এ রায় ঘোষণা করেন। আদালতের পেশকার ইফতেখার হোসেন সোহাগ সাংবাদিকদের জানান, রায় ঘোষণার সময় অভিনেতা আহমেদ শরীফ পলাতক ছিলেন। এক লাখ ৬৭ হাজার টাকার চেক প্রতারণার অভিযোগে মোশারফ হোসেন সুমন নামের এক ব্যবসায়ী গত ৫ মার্চ মাসে এই মামলা দায়ের করেন। তবে রায় ঘোষণার সময় অভিনেতা আহমেদ শরীফ আদালতে অনুপস্থিত ছিলেন। মামলায় এজাহার থেকে জানা গেছে, আহমেদ শরীফের কাছে বাদী মোশারফ হোসেনের ১ লাখ ৬৭ হাজার টাকা পাওনা ছিল। সেই টাকা পরিশোধের জন্য আহমেদ শরীফ তাকে ইস্টার্ন ব্যাংকের একটি চেক দেন। ওই টাকা তোলার জন্য তিনি দুই দফা ব্যাংকে জমা দিলেও সেটি প্রত্যাখ্যাত হয়। এ বিষয়ে উপযুক্ত সমঝোতা না পেয়েই এই অভিনেতার বিরুদ্ধে মামলা করেন মোশাররফ হোসেন সুমন। আহমেদ শরীফের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তার ব্যবহৃত মোবাইল নাম্বারটি খোলা পাওয়া যায়। তবে কোনো সাড়া মেলেনি। খোঁজ নিয়ে জানা গেল, শারীরিকভাবে অসুস্থ থাকায় আদালতে হাজির হতে পারেননি আহমেদ শরীফ।