গুজব না ছাড়ানোর আহ্বান ইরফানের বিষয়ে
গুরুতর অসুস্থ বলিউড অভিনেতা ইরফান খান। তার অবস্থার অবনতি হচ্ছে। চিকিৎসায় কোনো কাজ হচ্ছে না। এমন অনেক গুজব সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাসছে। এ ধরনের গুজব নিয়ে এবার মুখ খুললেন ইরফান খানের মুখপাত্র। তিনি আহ্বান জানিয়েছেন ইরফানের শারীরিক অসুস্থতা নিয়ে যেন গুজব না ছড়ানো হয়। পাশাপাশি অভিনেতার শারীরিক অবস্থা খারাপের খবরও উড়িয়ে দিয়েছেন মুখপাত্র। ইরফান খান তার অসুস্থতা নিয়ে প্রায় এক মাস আগে নিজের শারীরিক অসুস্থতার কথা জানিয়ে শেষ টুইট করেছিলেন। ওই সময় তিনি জানিয়েছিলেন, বিরল রোগ নিউরো এন্ডোক্রাইন সিনড্রমে আক্রান্ত। এরপরই লন্ডনে চিকিৎসার জন্য চলে যান। এরপর থেকেই ইরফান খানকে নিয়ে জল্পনা বাড়তে থাকে। ইরফান খানের মুখপাত্র আরও বলেন, ইরফানের অসুস্থতা সংক্রান্তে যেসব খবর সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়াচ্ছে, সেগুলো সবই মিথ্যা। আমরা, উনার পরিবার ও বন্ধুরা সবাই আপনাদের কাছে আহ্বান করছি এমন গুজব রটাবেন না। ইরফানের হয়ে শুধু প্রার্থনা করুন। পাশাপাশি গুজব ছড়ানোও একেবারে ঠিক নয়। এর আগে নিজের অসুস্থতার কথা জানিয়ে ইরফান লিখেছিলেন, অপ্রত্যাশিত কিছু আমাদের বেড়ে উঠতে সাহায্য করে। বিগত কয়েকদিনে সেটাই হচ্ছে। নিউরো এন্ডোক্রাইন টিউমারের চিকিৎসা চলছে, যেটা খুবই কঠিন। কিন্তু, আমার চারপাশে যে ভালোবাসা ও শক্তিরা আছে, তা থেকে আমি আশা দেখছি। এই সফরে আমাকে দেশের বাইরে যেতে হবে। প্রত্যেকের কাছে আমার আহবান সবাই আমার জন্য প্রার্থনা করুন।
সেই রাম রহিম ও হানিপ্রীতের কেমন কাটছে সময় জেলে
কেমন আছেন গুরমিত রাম রহিম সিংহ ইনসান এবং তার পালিত কন্যা হানিপ্রীত। দুই সন্ন্যাসিনীকে ধর্ষণের দায়ে ২০ বছরের কারাদণ্ড হয় রাম রহিমের। বর্তমানে বাবা ও কন্যার জেলেই কাটছে দিন। রোহতকের জেলে রয়েছেন সাজাপ্রাপ্ত রাম রহিম। আর আমবালার সেন্ট্রাল জেলে রয়েছেন হানিপ্রীত। সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত প্রতিবেদন থেকে জানা গেছে, জেলে ঢুকে অনেক বদলে গেছেন রাম রহিম। এখন তার রোজগার দৈনিক ২০ টাকা মাত্র। সারাদিন হাড়ভাঙা খাটুনি খাটেন রান্নাঘরের পাশের বাগানে। তাকে দেখে চেনাই মুশকিল। তার পরিবার তাকে মাসে মাসে ৫ হাজার টাকা দেয়। সেই টাকায় শিঙ্গাড়া কিনে খান তিনি। এদিকে পালিত কন্যা হানিপ্রীত নাকি মুখিয়ে থাকেন কবে কোনও আত্মীয় তার সঙ্গে দেখা করতে আসেন। জেলে মানিয়ে তীব্র চেষ্টা করছেন তিনি। মামলা চলাকালীন আদালতে হাজিরা দিতে আসার সময়ে তার পরনে থাকে নিত্য নতুন ডিজাইনার স্যুট। প্রথম প্রথম বাড়ি থেকে খাবার আনাতেন। জেল কর্তৃপক্ষের নির্দেশে সে সব অবশ্য বন্ধ। আপাতত জেলের খাবার খেয়ে দিন কাটছে তার।
নিজের প্রাণের বিনিময়েও রক্ষা করবেন মেয়েকে অশুভ শক্তি থেকে: সানি লিওন
আট বছরের এক মেয়েকে গণধর্ষণ করে খুনের ঘটনায় গোটা ভারত যখন আতঙ্কিত, তখন বলিউড তারকা সানি লিওনের একটি ছবি খুবই প্রাসঙ্গিক হয়ে উঠল। শনিবার নিজের ছোট্ট মেয়ে নিশাকে সবরকম অশুভ শক্তির হাত থেকে রক্ষা করার প্রতিশ্রুতি দিলেন সানি। মেয়েকে কথা দিলেন, প্রয়োজনে নিজের প্রাণের বিনিময়েও তাকে রক্ষা করবেন। সে যেন কখনও নিজেকে একা ভেবে ভয় না পায়! ইনস্টাগ্রামে এক আবেগঘন পোস্টে সানি লিখছেন, আমি প্রমিস করছি, বাইরের যে কোনও অশুভ শক্তির হাত থেকে তোমাকে রক্ষা করব। তার জন্য যদি আমাকে নিজের জীবন বাজি রাখতে হয়, আমি তাতেও পিছিয়ে আসব না। গত বছরই নিশাকে দত্তক নেন সানি ও তার স্বামী। তিনি আরও লিখেছেন, খারাপ মানুষদের হাত থেকে শিশুদের রক্ষা করা অভিভাবকদের দায়িত্ব। তা বলে শিশুদের কাছ থেকে শৈশব চুরি করে নিলে হবে না। সন্তানকে আরও বেশি কাছে টেনে নিতে হবে আমাদের। একজন দায়িত্বশীল মা হিসাবে সানির তার সন্তানের নিরাপত্তা নিয়ে চিন্তা হওয়াটা স্বাভাবিক। বিশেষত কাঠুয়া পরবর্তী সময়ে গোটা দেশের অধিকাংশ অভিভাবকই এখন নিজের কন্যাসন্তানের নিরাপত্তা নিয়ে আশঙ্কায় ভুগছেন। নিশা ছাড়াও সানি লিওন ও ড্যানিয়েল ওয়েবারের আরও দুই সন্তান রয়েছে। তাদের নাম আশার ও নোয়া। এবছর সারোগেসির মাধ্যমে এই দুই যমজ সন্তানের জন্ম হয়। তিন সন্তানের মা সানি সম্প্রতি একটি সংবাদপত্রকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে বলেছেন, যখন আমরা নিশাকে দত্তক নিই, ওর বয়স তখন ২১ মাস। ও আমাদের চোখের সামনে একটু একটু করে বড় হতে দেখেছি। আর তাই ওকে নিয়ে আমার চিন্তার শেষ নেই।
পাকিস্তানে অন্তঃসত্ত্বা সংগীত শিল্পীকে গুলি করে হত্যা
অন্তঃসত্ত্বা সংগীত শিল্পীকে গুলি করে হত্যা করা হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে পাকিস্তানের সিন্ধু প্রদেশে। তবে সামিরার ওপর যে গুলি ছুঁড়েছে তাকে আটক করেছে পুলিশ। বন্দুকধারী জানিয়েছেন দুর্ঘটনাবশত সামিরার শরীরে গুলি লেগেছে। জানা গেছে, মঙ্গলবার সন্ধ্যায় লারকানা প্রদেশের কাঙ্গা গ্রামে উৎসবের অনুষ্ঠানে ওই শিল্পী গুলি করে হত্যা করেছে অজ্ঞাত বন্দুকধারী। নিহত সংগীত শিল্পীর নাম সামিরা। তার বয়স ২৮ বছরে। সিন্ধুতে সামিরা স্থানীয়ভাবে সংগীতশিল্পী হিসেবে জনপ্রিয়। সিন্ধি লোকগান এবং সুফি গানের ওপর তাঁর কমপক্ষে আটটি অ্যালবাম আছে। তিনি পারিবারিক বিভিন্ন অনুষ্ঠানে জীবনমুখী গান করেন। মৃত্যুর সময় সামিরা ৮ মাসের অন্তঃসত্ত্বা ছিলেন। ওই বন্দুকধারীকে আটক করেছে স্থানীয় পুলিশ। বন্দুকধারী নাম তারিক জাতোই। আটক বন্দুকধারী জানান, গুলি ছোড়ার সময় দুর্ঘটনাবশত সামিরার শরীরে
ঈদের জন্য নির্মাণ হচ্ছে টেলিছবি 'কমলার বনবাস'
চলচ্চিত্রের পর এবার ছোট পর্দায় আসছে 'কমলার বনবাস'। ঈদের জন্য নির্মাণ হচ্ছে 'কমলার বনবাস' শিরোনামের একটি টেলিছবি। এটিতে অভিনয় করছেন মৌসুমী হামিদ। আর এতেই তিনি বোবা একটি মেয়ের চরিত্রে অভিনয় করেছেন। এ টেলিছবিতে মৌসুমী ছাড়া আরো থাকছেন আফরান নিশো, মনিরা মিঠু, আহসান হাবিব নাসিম, ডলি জহুর ও জয়ন্ত চট্টোপাধ্যায়। এটি নির্মাণ করছেন নির্মাতা সুমন আনোয়ার। টেলিছবিটি নিয়ে নির্মাতা জানান, 'কমলার বনবাস' জনপ্রিয় একটি চলচ্চিত্র। এই ছবির নামানুসারে আমি টেলিছবিটি নির্মাণ করছি। তবে এই টেলিছবিতে সেই চলচ্চিত্রের আবহ নেই। একদল সাদা মনের মানুষের গল্প এবং গ্রামীণ প্রেক্ষাপটে নির্মিত হচ্ছে এই টেলিছবি। এদিকে এই টেলিছবির মধ্য দিয়েই মৌসুমী হামিদ প্রথমবারের মতো অভিনয় করছেন। মৌসুমী বলেন, প্রথম এমন চরিত্রে অভিনয় করতে রাজি হইনি। নাটকে সব বাঘা বাঘা অভিনয়শিল্পী রয়েছেন। তারা ইমোশনাল সব সংলাপ বলবে। কিন্তু আমি কিছুই বলতে পারবো না। তাদের সামনে বোবা চরিত্রটি কতটুকু দর্শকরা নেবে সেটি বুঝতে পারিনি। কিন্তু শুটিং শুরু করার পর ধারণা পাল্টে গেছে।
ফের বিপাকে প্রিয়া
ফের সুপ্রিম কোর্টে মামলা হলো মালায়লম সিনেমা ওরু আদার লাভ এর কলাকুশলীদের বিরুদ্ধে। এ ছবির যে অংশের যে ভিডিওর হাত ধরে রাতারাতি তারকা বনে গিয়েছিলেন প্রিয়া প্রকাশ ভারিয়ার, সেই ৩০ সেকন্ডের ভিডিওই বারবার তাকে বিপাকে ফেলে দিচ্ছে। জানা গেছে, হায়দরাবাদের দুটি রাজনৈতিক দল ওরু আদার লাভ ছবির বিরুদ্ধে সর্বোচ্চ আদালতে মামলা করেছে। অভিযোগকারীদের দাবি, চোখ টেপা ইসলামে নিষিদ্ধ। আর এই জন্যই মামলা দায়ের করা হয়েছে। তবে এবারই প্রথম নয়, এর আগেও হায়দরাবাদ ও মহারাষ্ট্রের দুই সংগঠন প্রিয়া প্রকাশ ভারিয়ার সহ ওরু আদার লাভ-এর সব কলাকুশলীর বিরুদ্ধে থানায় মামলা করেছিল। যদিও সেসব মামলায় প্রিয়া প্রকাশ ভারিয়ারসহ সবাইকে রেহাই দিয়েছিল দেশের সর্বোচ্চ আদালত। তবে সেই রেশ কাটতে না কাটতেই ফের বিপাকে পড়লেন দক্ষিণ ভারতের উঠতি অভিনেত্রী। এই মামলায় সুপ্রিম কোর্ট কী রায় দেয় সেটাই এখন দেখার।
তানহা নতুন বিজ্ঞাপনে
শ্রীলঙ্কার কলম্বোয় গত বছর অনুষ্ঠিত সার্ক ফিল্ম ফেস্টিভ্যাল-এ প্রদর্শিত হয় দেশের প্রথম মিউজিক্যাল চলচ্চিত্র সারাংশে তুমি। জনপ্রিয় কণ্ঠশিল্পী কুমার বিশ্বজিতের গান নিয়ে নির্মিত এই মিউজিক্যাল চলচ্চিত্র গত বছর এ দেশেও মুক্তি পায়। এটি নির্মাণ করেন আশিকুর রহমান। আর এতে মডেল হিসেবে কাজ করেন রাহা তানহা খান ও অন্তু করিম। রাহা তানহা খান সম্প্রতি দুটি নতুন বিজ্ঞাপনে মডেল হিসেবে কাজ করেছেন বলে জানান। তিনি বলেন, এর আগেও বেশ কিছু বিজ্ঞাপনে মডেল হিসেবে কাজ করেছি। আর সম্প্রতি এফডিসিতে রাসেল শিকদারের নির্দেশনায় এলজি এসি এবং আবুল খায়ের চান্দ ভাইয়ের ইগলু আইসক্রিম-এর বিজ্ঞপনে মডেল হিসেবে কাজ করলাম। বিজ্ঞাপনে মডেল হিসেবে কাজ করতে আমার বেশ ভালোলাগে। আশা করি, কাজ দুটি দর্শকরা বেশ পছন্দ করবেন। এ কাজের বাইরে রাহা তানহা খান স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্রেও কাজ করেছেন। হেলেন অব ট্রয় টু নামের নতুন এই স্বল্পদৈর্ঘ্যের শুটিং এরইমধ্যে শেষ হয়েছে। এটি নির্দেশনা দিয়েছেন ইভান মনোয়ার। খুব শিগগিরই এই কাজগুলোর পাশাপাশি আরো কিছু নতুন কাজে সামনে দর্শক তাকে দেখতে পাবেন বলে জানিয়েছেন রাহা।
পয়লা বৈশাখে বিশেষ দুটি কনসার্টে অংশ নেবেন জেমস
বিশেষ দিন মানেই বিশেষ গান, কনসার্ট। রক তারকা জেমসের ভক্তরা এভাবেই উৎসব পালন করছেন। বছরের পর বছর এই ধারাবাহিকতায় মঞ্চ পরিবেশনায় মুগ্ধতা ছড়াচ্ছেন জনপ্রিয় এই শিল্পী। এবারের পয়লা বৈশাখের দিনটিও সাজিয়েছেন সেভাবেই। জেমসের ব্যক্তিগত সহকারী রুবাইয়াৎ ঠাকুর রবিন জানান, নগরবাউলখ্যাত জেমস পয়লা বৈশাখে বিশেষ দুটি কনসার্টে অংশ নেবেন। এবার ঢাকার বাইরে কোনো শো রাখা হয়নি। দুটি কনসার্টই হবে ঢাকায়। ১৪ এপ্রিল দুপুর ২টায় জেমস গাইবেন মেট্রোপলিটন পুলিশ আয়োজিত কনসার্টে। এখানকার পরিবেশনা শেষ করে জেমস ছুটবেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মল চত্বরে। সেখানে তার পরিবেশনা শুরু হবে বিকাল ৪টা নাগাদ। এদিকে শ্রোতাদের জন্য নতুন কিছু গান তৈরি করছেন এই শিল্পী। এরই মধ্যে বেশকিছু কাজ এগিয়ে গেছে। অল্প কিছুদিনের মধ্যে ভক্ত শ্রোতাদের হাতে নতুন গানগুলো তোলে দিতে পারবেন বলে জানান রবিন।
ফের সালমানকে জেলে পাঠাতে তোড়জোড় শুরু
জামিন পেলে কি হবে, চিন্তা কমছে না সালমান খানের। কারণ, নায়কের জামিনের বিরোধিতা করে হাইকোর্টে আবেদন জানাতে চলেছে রাজস্থানের বিষ্ণোই সম্প্রদায়। সর্বভারতীয় এক গণমাধ্যমের এমনটাই দাবি করা হয়েছে। কৃষ্ণসার হরিণ হত্যার অপরাধে দুদিন জেলে থাকার পর শনিবারই জামিন পান সালমান। ভাইজানের জামিনে বলিউড এবং তার ভক্তরা খুশি হলেও হতাশ বিষ্ণোই সম্প্রদায়ের প্রতিনিধিরা। তারা মনে করছেন, সালমান জামিন পাওয়ায় তাদের এতদিনের আইনি লড়াইয়ের কোনও মূল্য থাকল না। সেই কারণেই সালমানকে জেলে ফেরাতে উচ্চতর আদালতে আবেদন করতে চলেছেন তারা। সালমানের উপর রেগে গেলেন আসারাম বাপু, জামিন পাওয়ার আগেই জেলের মধ্যে বিবাদ বিষ্ণোই টাইগার ফোর্স সংগঠনের নেতা রামনিবাস ধোরির কথায়, আজ আমাদের জন্য অত্যন্ত দুঃখের দিন। পাঁচ বছরের সাজা হওয়ার পরে মাত্র দু দিন জেলে থেকেই জামিন পেয়ে গেলেন সালমান। বিষ্ণোইদের অন্য একটি সংগঠনের নেতা রণনিবাস বুধনাগরও জানিয়েছেন, সালমানের জামিনের নির্দেশ ভালো করে খতিয়ে দেখছেন তারা। আইনি পরামর্শও নেওয়ার পর তারা উচ্চতর আদালতে জামিনের বিরোধিতা করে আবেদন জানাবেন। তিনি আরও জানান, শুধু সালমানের জামিনের বিরোধিতা নয়, চার অভিনেতাসহ এই মামলায় অব্যাহতি পাওয়া বাকি পাঁচজনের শাস্তির দাবিতেও উচ্চতর আদালতে আবেদন জানাব আমরা। সালমানের সাথেই সাইফ আলি খান, টাবু, নীলম, সোনালি বেন্দ্র এই মামলায় অভিযুক্ত ছিলেন। যদিও, তাদের অভিযোগ থেকে অব্যাহতি দিয়েছেন আদালত। বিষ্ণোইরা সত্যিই শেষ পর্যন্ত হাইকোর্টে আবেদন করে কি না, তা সময়ই বলবে। কিন্তু আপাতত বাড়ি ফিরলেও বিষ্ণোইদের এই হঙ্কার সালমানকে চিন্তায় রাখতে বাধ্য।