রবিবার, জুলাই ৫, ২০২০
প্রকাশ : 2020-06-25

৪ ডাকাত সহ পুলিশের ভুয়া এস.আই গ্রেফতার

২৫,জুন,বৃহস্পতিবার,কামরুজ্জামান মিন্টু,ময়মনসিংহ,নিউজ একাত্তর ডট কম: ময়মনসিংহ জেলা গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি) অভিযান চালিয়ে ৪ ডাকাত ও পুলিশের ভুয়া একজন এস.আই'কে গ্রেফতার করেছে। বৃহস্পতিবার বিকাল ৬ টায় গ্রেফতারের বিষয়টি নিশ্চিত করেছে ডিবি'র ওসি শাহ কামাল আকন্দ। পুলিশ সূত্রে জানা যায়, ডিবি'র ওসি শাহ কামাল আকন্দের নির্দেশে এস.আই আনোয়ার হোসেন ও এস.আই আলাউদ্দিন বাদল বিশেষ অভিযান পরিচালনা করে। তখন ময়মনসিংহ সদরের চূরখাই ঢাকা- ময়মনসিংহ মহাড়সকে বৃহস্পতিবার (২৫ জুুন) ভোরে ডাকাতির প্রস্তুতি নিচ্ছিল ৪ জন অস্ত্রধারী ডাকাত। এসময় ডাকাতদের গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকৃতরা হলো-জয়পুরহাটের মৃত সৈয়দ আলীর পুত্র শাহজাহান (২৮),মাদারীপুরের মৃত এমদাদুল মৃধার ছেলে মেহেদী হাসান মৃধা (৩৮),ময়মনসিংহ সদরের ঝাউগড়ার মৃত শহীদের ছেলে রনি (২৫) ও কুড়িগ্রামের টগরু মিয়ার ছেলে আব্দুর রহিম (২৮)। এসময় তাদের কাছ থেকে ১ টি পাইপগান,২ টি কর্তুজ,৬ টি চাপাতি এবং ১ টি পিকআপ গাড়ী উদ্ধার করা হয়। জেলা গোয়েন্দা পুলিশের ওসি শাহ কামাল আকন্দ জানান, চারজন ডাকাত সহ অন্য এক অভিযানে পুলিশের ভুয়া এস.আই শহিদুল ইসলাম (৫৫) নামের এক প্রতারককে গ্রেফতার করা হয়েছে। ভুয়া এস.আই শহিদুল ইসলামকে ঢাকা বনশ্রী এলাকা থেকে (২৪জুন) মধ্য রাতে গ্রেফতার করা হয়। তিনি জানান, সোমবার (১৫জুন) সকাল সাড়ে ১০টায় ময়মনসিংহের মুক্তাগাছা বাজারে হক মিয়ার ভাই ভাই ষ্টোর নামক দোকানের সামনে দারাগো শফিক নামে পুলিশ অফিসার পরিচয় দিয়ে রুহল আমিন নামের এক ব্যক্তিকে বলে ময়মনসিংহ পুলিশ লাইন ও ময়মনসিংহ জেলখানার কিছু ধান বিক্রী করা হবে। ভুয়া পুলিশ শহিদুল বলেন এই আপনি কিনবেন কিনা? রুহুল আমিন প্রতারক শহিদুলের কথা বিশ্বাস করে ধান কিনার জন্য ৮৪০ টাকা মন দরে দাম ঠিক করে তার কথায় রাজি হয়। রুহুল আমিনকে প্রতারক শহিদুল বলেন, পুলিশ লাইন গেইটে আসলে রুহুল আমিনকে ধান দেখাবে এবং তার নিকট থেকে টাকা নিয়ে পুলিশের ব্যবহৃত গাড়ী দিয়ে ধান মুক্তাগাছায় রুহুল আমিনের দোকানে পৌছে দিবে। রুহুল আমিন ভুয়া এস.আই শহিদুলের কথায় বিশ্বাস করে ১লক্ষ ৩ হাজার টাকা প্রতারিত হন। পরে রুহুল আমিন বাদী হয়ে কোতোয়ালী মডেল থানায় শহিদুলের বিরুদ্ধে মামলা করেন। ওসি আরো জানান,প্রতারণার বিষয়টি পুলিশ সুপারের নজরে আসলে জেলা ডিবি পুলিশকে প্রতারক চক্রটিকে গ্রেফতারের নির্দেশ দেন।পরে বি-বাড়িয়া জেলার মৃত রফিকুল ইসলামের ছেলে প্রতারক শহিদুল ইসলামকে ঢাকার বনশ্রী এলাকা থেকে বুধবার (২৪ জুন) মধ্য রাতে গ্রেফতার করা হয়। তখন প্রতারকের কাছ থেকে বিভিন্ন কোম্পানীর শতাধিক সিম কার্ড এবং ৬টি মোবাইল জব্দ করা হয়। গ্রেফতারকৃত আসামীদেরকে বিজ্ঞ আদালতে সোর্পদ করা হয়েছে বলেও জানান তিনি।

সারা দেশ পাতার আরো খবর