প্রকাশ : 2020-09-06

এতে মনের খোরাক মেটে না - মাসুমা রহমান নাবিলা

০৬সেপ্টেম্বর,রবিবার,বিনোদন ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: জনপ্রিয় উপস্থাপক, মডেল ও অভিনেত্রী মাসুমা রহমান নাবিলা। খুব বেছে বেছে কাজ করে থাকেন। গতানুগতিক কাজে তার একেবারেই অনিহা৷ তাই ক্যারিয়ারে কাজের সংখ্যাও খুব কম। লকডাউন তুলে দেয়ার পর অনেক শিল্পী কাজে নামলেও- আয়নাবাজি; খ্যাত এই তারকা এখনও নিজের সুরক্ষার জন্য ঘরেই আছেন। অভিনয় করার জন্য মন কাঁদে উল্লেখ করে নাবিলা বলেন, গত বছর থেকে আবার গতানুগতিক কাজ বেশি হচ্ছে। এ ধরনের কাজ করার ইচ্ছে নেই। এতে মনের খোরাক মেটে না। আমি তো নাটকের শিল্পী না। অন্যরকম গল্প হলেই কেবল কাজ করি। তবে অভিনয় খুব মিস করি। অভিনয় করার জন্য মনটা কাঁদে। ভালো কাজের সাথে যুক্ত হতে চাই। নির্মাতারা আমার কাছে ভালো ভালো প্রজেক্ট নিয়ে আসবেন সেই অপেক্ষায় আছি। এদিকে, 'আয়নাবাজি'র পর নাবিলার দেখা মেলেনি বড় পর্দায়ও। কেন তাকে আর চলচ্চিত্রে পাওয়া যায়নি জানতে চাইলে এ অভিনেত্রী বলেন, আয়নাবাজির কাজটিতে মানের বিষয়টিকে অনেক গুরুত্ব দেয়া হয়েছিল। সেই কাজটি করার পর গতানুগতিক কাজের সাথে জড়াতে পারিনি। কারণ আমার স্কুলিংটা ওইভাবেই হয়েছিল। আমার জায়গায় অন্য কেউ থাকলে তার অবস্থাও একইরকম হতো। এরপর থেকে যেই ছবিগুলোর জন্য প্রস্তাব পেয়েছি তাদের অ্যাপ্রোচই আমার পছন্দ হয়নি। তারা এভাবে বলতো যে দুই সপ্তাহ পর সিডিউল দিতে পারবেন কিনা! কিন্তু এতো অল্প সময়ের প্রস্তুতিতে কাজ করা সম্ভব না। আমার কাছে মনে হয় অভিনয় খুব সাধনার বিষয়। এটা নিয়ে দীর্ঘ সময় ব্যয় করা প্রয়োজন। এসব কারণেই- আয়নাবাজির; পর আর কাজ করা হয়নি। ২০০৬- এ টিভি উপস্থাপনার মাধ্যমে নাবিলা কর্মজীবন শুরু করেন। উপস্থাপনা না অভিনয় কোনটা বেশি উপভোগ করেন? নাবিলা বলেন, অভিনয়-উপস্থাপনা দুটোই খুব ভালো লাগে। তবে অভিনয়ের প্রতি অন্যরকম একটা টান আছে।