সোমবার, নভেম্বর ২৩, ২০২০
প্রকাশ : 2020-10-16

মরিসের শেষের ঝড়ে চ্যালেঞ্জিং পুঁজি ব্যাঙ্গালুুরুর

১৬,অক্টোবর,শুক্রবার,স্পোর্টস ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: রয়েল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালুরু শুরুটা করেছিল ঝড়ো গতিতে। কিন্তু এরপর দারুণভাবে লড়াইয়ে ফেরে কিংস ইলেভেন পাঞ্জাব। নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ে বিরাট কোহলির দলকে আটকে রেখেছিলেন ক্রিস জর্ডান-মুরুগান অশ্বিনরা। ১৮ ওভার শেষে ৬ উইকেটে মাত্র ১৩৭ রান তুলতে পারে ব্যাঙ্গালুরু। প্রথম ৬ ওভারে সাড়ে নয় রানরেটে রান তোলা দলটি শেষ পর্যন্ত আর লড়াকু পুঁজি পাবে না মনে হচ্ছিল এমনটাই। অধিনায়ক কোহলিও যেন টি-টোয়েন্টির মারকাটারি ব্যাটিংটা করতে পারেননি। ৩৯ বলে মাত্র ৩ বাউন্ডারিতে ৪৮ রান করে ১৮তম ওভারে সাজঘরে ফেরেন কোহলি। তবে শেষ দুই ওভারে ইনিংস ঘুরিয়ে দিয়েছেন ক্রিস মরিস আর ইসুরু উদানা। এই যুগল ১৩ বলে যোগ করেন ৩৫ রান। এর মধ্যে মরিসই ছিলেন বেশি ভয়ংকর। ৮ বলে তার ২৫ রানের হার না মানা ইনিংসটিতে ছিল ১টি চার আর ৩টি ছক্কা। ১ ছক্কার সাহায্যে ৫ বলে ১০ রানে অপরাজিত থাকেন উদানা। টস জিতে ব্যাট করতে নেমে দুই ওপেনার দেবদূত পাডিক্কেল আর অ্যারন ফিঞ্চ ঝড়ো সূচনাই এনে দিয়েছিলেন দলকে। পাডিক্কেল ১২ বলে ১৮ আর ফিঞ্চ ১৮ বলে করেন ২০ রান। তারা দুজন যখন আউট হয়ে সাজঘরে, ৬.৩ ওভারে তখন ৬২ রান ব্যাঙ্গালুুরুর। পরের ব্যাটসম্যানদের মধ্যে শিভাম দুবে ১৯ বলে ২৩ রান করেন। কিন্তু কোহলির ইনিংসটি ছিল টি-টোয়েন্টির তুলনায় বেশ ধীরগতির। আর ব্যাঙ্গালুরুর মারকুটে ব্যাটসম্যান এবি ডি ভিলিয়ার্স এবার ২ রানের বেশি করতে পারেননি। পাঞ্জাবের বোলারদের মধ্যে ২টি করে উইকেট নেন মোহাম্মদ শামি আর মুরুগান অশ্বিন।