মঙ্গলবার, জুন ২২, ২০২১
প্রকাশ : 2020-10-17

ঐতিহ্য ধরে রাখতে রিয়াজউদ্দিন বাজার এলাকা পরিচ্ছন্ন রাখতে হবে- চসিক প্রশাসক

১৭,অক্টোবর,শনিবার,নিজস্ব প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম: ফেলা যাবেনা। দোকানদার ও ব্যবসায়ী সমাজ আন্তরিক হলে নগরীর জনগণ উপকৃত হবে। তিনি রিয়াজউদ্দিন বাজারকে পরিচ্ছন্নতায় মডেল বাজারে উন্নীত করে এর সুনাম সারাদেশে ছড়িয়ে দেওয়ার আহবান জানান। সমিতির সভাপতি মো. কামাল উদ্দিনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মতবিনিময় সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন রাজনীতিক জামশেদুল আলম চৌধুরী, সাবেক কাউন্সিলর সলিম উল্লাহ বাচ্চু, কাউন্সিলর প্রার্থী আবদুস সালাম মাসুম, সংরক্ষিত সাবেক ওয়ার্ড কাউন্সিলর নিলু নাগ। চট্টগ্রাম ফল ব্যবসায়ী সমিতির নেতৃবৃন্দের সাথে মতবিনিময় বিকেলে প্রশাসক স্টেশন রোডস্থ চট্টগ্রাম ফল ব্যবসায়ী সমিতির কার্যালয়ে চট্টগ্রাম ফল ব্যবসায়ী সমিতির নেতৃবৃন্দের সাথে মতবিনিময় সভায় মিলিত হন। এ সময় প্রশাসক ফল ব্যবসায়ীদের উদ্দেশ্যে বলেন, ফল হচ্ছে আল্লাহতায়ালার শ্রেষ্ঠ নিয়ামত। এ নিয়ামতের ব্যবসায় কোন রকম ভেজাল বা ফরমালিন মেশানো হলে তার জন্য আল্লাহর কাছে জবাব করতে হবে। দোকানের ময়লা-আবর্জনা নির্দিষ্ট জায়গায় ফেলে ফলমন্ডিকে পরিস্কার-পরিচ্ছন রাখায় তিনি ফলমন্ডির ব্যবসায়ীদের প্রশংসা করেন। যত্র-তত্র ময়লা আবর্জনা ফেলে ফল বাজার এলাকা অপরিচ্ছন্নকারীদের বিরুদ্ধে কঠোর শাস্তি এবং ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে তিনি এ সময় হূঁশিয়ারী উচ্চারণ করেন। যে সকল ব্যবসায়ী এখনো পর্যন্ত নতুন ট্রেড লাইসেন্স গ্রহণ করেননি এবং লাইসেন্স নবায়ন করেননি তাদের দ্রুত ট্রেড লাইসেন্স করার অনুরোধ জানান প্রশাসক। ফলমন্ডি ফল ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি মো. আবদুল মালেক চৌধুরীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় বক্তব্য রাখেন কাউন্সিলর প্রার্থী আবদুস সালাম মাসুম, সংরক্ষিত সাবেক ওয়ার্ড কাউন্সিলর নিলু নাগ, সমিতির সহ সভাপতি হাজী আবদুল মালেক, সাধারণ সম্পাদক হাজী আলমগীর প্রমূখ। প্রশাসকের সাথে মাজার স্থানান্তর বিষয়ে গঠিত কমিটির মতবিনিময় পোর্ট কানেকটিং রোডের সম্প্রসারণ করতে গিয়ে মাজার স্থানান্তর বিষয়ে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন ও ধর্মীয় নেতৃবৃন্দের সমন্বয়ে গঠিত কমিটি আজ সকালে মাজার এবং সংলগ্ন এলাকা পরিদর্শন করেন। পরিদর্শন শেষে কমিটির নেতৃবৃন্দ চসিক প্রশাসক মোহাম্মদ খোরশেদ আলম সুজন এর সাথে তাঁর বাসভবনে মতবিনিময় করেন। মতবিনিময়কালে চসিক এবং ধর্মীয় নেতৃবৃন্দ একমত পোষণ করেন যে, মাজার এবং কবরস্থানকে সংরক্ষণ করে রাস্তাটি সম্প্রসারন করা হবে। এছাড়া বর্ণিত মাজার সংরক্ষণের জন্য চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের পক্ষ থেকে প্রয়োজনীয় সবকিছু করা হবে। এজন্য চসিক প্রশাসক স্থানীয় মুসল্লীসহ নগরবাসীর সহযোগিতা কামনা করেন । এ সময় ধর্মীয় নেতৃবৃন্দের মধ্যে কাজী মোহাম্মদ আবদুল ওয়াজেদ, গোলাম মোস্তফা মোহাম্মদ নুরন নবী আলকাদেরী, এডভোকেট মোছাহেব উদ্দিন বখতেয়ার, স.উ.ম আবদুস সামাদ, মাওলানা করিম উদ্দিন নূরী, মাওলানা কামাল পাশা, আব্দুন নবী আলকাদেরী, হাফেজ আবদুর রহমান, চসিক এর পক্ষে নির্বাহী প্রকৌশলী আবু সাদাত মো. তৈয়ব ও মাওলানা মুহাম্মদ হারুনুর রশিদ চৌধুরীসহ স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

নিউজ চট্টগ্রাম পাতার আরো খবর