প্রকাশ : 2020-10-22

আর্মেনিয়া-আজারবাইজান যুদ্ধ: শান্তি আলোচনায় যুক্ত হচ্ছে বৈশ্বিক পরাশক্তি

২২,অক্টোবর,বৃহস্পতিবার,আন্তর্জাতিক ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: নাগোর্নো-কারাবাখ নিয়ে আর্মেনিয়া ও আজারবাইজানের মধ্যে চলমান যুদ্ধ বন্ধের আলোচনায় আন্তর্জাতিক পরাশক্তিগুলো সম্পৃক্ত হতে যাচ্ছে। ফলে এ অঞ্চলে শান্তি প্রতিষ্ঠায় ইতিবাচক অগ্রগতির সম্ভাবনা তৈরি হয়েছে। খবর রয়টার্স। নাগোর্নো-কারাবাখে সংঘাত বন্ধের বিষয়ে ইউরোপীয় ইউনিয়ন (ইইউ) ও নর্থ আটলান্টিক ট্রিটি অর্গানাইজেশনের (ন্যাটো) নেতাদের সঙ্গে আলোচনায় বসবেন আর্মেনিয়ার প্রেসিডেন্ট আরমেন সারকিসিয়ান। এ লক্ষ্যে তিনি গতকাল ব্রাসেলসের উদ্দেশে যাত্রা করেছেন। এদিকে যুদ্ধ বন্ধে বৈশ্বিক কূটনৈতিক উদ্যোগের অংশ হিসেবে আজারবাইজান ও আর্মেনিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রীরাও রুশ প্রতিনিধিদের সঙ্গে আলোচনার জন্য মস্কোর উদ্দেশে উড়াল দিয়েছেন। এ রাশিয়ার মধ্যস্থতাতেই বিবদমান দেশ দুটির মধ্যে যুদ্ধবিরতি চুক্তি হয়। অবশ্য শেষ পর্যন্ত এ যুদ্ধবিরতিও সংঘর্ষ থামাতে পারেনি। রাশিয়া সফর শেষে দুই দেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রীরা ওয়াশিংটন যাবেন। শুক্রবার সেখানে মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেওয়ের সঙ্গে তাদের বৈঠক হওয়ার কথা রয়েছে। আন্তর্জাতিক মহলের এ সংশ্লিষ্টতায় নাগোর্নো-কারাবাখ নিয়ে আর্মেনিয়া ও আজারবাইজানের মধ্যে বিরোধ নিষ্পত্তিতে আশার সঞ্চার হয়েছে। আর্মেনিয়ার প্রেসিডেন্টের দপ্তর থেকে এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, আমরা আশা করছি, ন্যাটো ও ইইউ নেতারা নাগোর্নো ও কারাবাখে আজারবাইজান ও ন্যাটো সদস্য তুরস্কের সামরিক কার্যক্রম বন্ধে সম্ভাব্য সব পদক্ষেপই গ্রহণ করবেন। এমনটি হলে যুদ্ধবিরতি চুক্তি আবার প্রাণ ফিরে পাবে। আর্মেনিয়ার অভিযোগ, নাগোর্নো-কারাবাখের যুদ্ধে আজারবাইজানকে সহযোগিতা করার জন্য সেখানে সৈন্য পাঠিয়েছে তুরস্ক। তবে আঙ্কারা এ অভিযোগ নাকচ করে বলেছে, এ যুদ্ধে তাদের সরাসরি কোনো ভূমিকা নেই।

আন্তর্জাতিক পাতার আরো খবর