প্রকাশ : 2018-04-08

ফের সালমানকে জেলে পাঠাতে তোড়জোড় শুরু

জামিন পেলে কি হবে, চিন্তা কমছে না সালমান খানের। কারণ, নায়কের জামিনের বিরোধিতা করে হাইকোর্টে আবেদন জানাতে চলেছে রাজস্থানের বিষ্ণোই সম্প্রদায়। সর্বভারতীয় এক গণমাধ্যমের এমনটাই দাবি করা হয়েছে। কৃষ্ণসার হরিণ হত্যার অপরাধে দুদিন জেলে থাকার পর শনিবারই জামিন পান সালমান। ভাইজানের জামিনে বলিউড এবং তার ভক্তরা খুশি হলেও হতাশ বিষ্ণোই সম্প্রদায়ের প্রতিনিধিরা। তারা মনে করছেন, সালমান জামিন পাওয়ায় তাদের এতদিনের আইনি লড়াইয়ের কোনও মূল্য থাকল না। সেই কারণেই সালমানকে জেলে ফেরাতে উচ্চতর আদালতে আবেদন করতে চলেছেন তারা। সালমানের উপর রেগে গেলেন আসারাম বাপু, জামিন পাওয়ার আগেই জেলের মধ্যে বিবাদ বিষ্ণোই টাইগার ফোর্স সংগঠনের নেতা রামনিবাস ধোরির কথায়, আজ আমাদের জন্য অত্যন্ত দুঃখের দিন। পাঁচ বছরের সাজা হওয়ার পরে মাত্র দু দিন জেলে থেকেই জামিন পেয়ে গেলেন সালমান। বিষ্ণোইদের অন্য একটি সংগঠনের নেতা রণনিবাস বুধনাগরও জানিয়েছেন, সালমানের জামিনের নির্দেশ ভালো করে খতিয়ে দেখছেন তারা। আইনি পরামর্শও নেওয়ার পর তারা উচ্চতর আদালতে জামিনের বিরোধিতা করে আবেদন জানাবেন। তিনি আরও জানান, শুধু সালমানের জামিনের বিরোধিতা নয়, চার অভিনেতাসহ এই মামলায় অব্যাহতি পাওয়া বাকি পাঁচজনের শাস্তির দাবিতেও উচ্চতর আদালতে আবেদন জানাব আমরা। সালমানের সাথেই সাইফ আলি খান, টাবু, নীলম, সোনালি বেন্দ্র এই মামলায় অভিযুক্ত ছিলেন। যদিও, তাদের অভিযোগ থেকে অব্যাহতি দিয়েছেন আদালত। বিষ্ণোইরা সত্যিই শেষ পর্যন্ত হাইকোর্টে আবেদন করে কি না, তা সময়ই বলবে। কিন্তু আপাতত বাড়ি ফিরলেও বিষ্ণোইদের এই হঙ্কার সালমানকে চিন্তায় রাখতে বাধ্য।