প্রকাশ : 2021-01-14

ইকার্দি-নেইমারের গোলে পিএসজি চ্যাম্পিয়ন

১৪,জানুয়ারী,বৃহস্পতিবার,স্পোর্টস ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: ফ্রেঞ্চ সুপার কাপ আবারও জিতে নিয়েছে প্যারিস সেন্ত জার্মেই (পিএসজি)। ঘরের মাঠে মার্সেইকে হারিয়ে মৌসুমের প্রথম শিরোপা ঘরে তুলেছে তারা। নেইমার-ইকার্দিরা গোলে ২-১ ব্যবধানে ট্রফি ধরে রাখল মাওরিসিও পচেত্তিনোর দল। বুধবার (১৩ জানুয়ারি) রাতে মার্সেইকে হারিয়ে টানা অষ্টম ও সব মিলে দশম শিরোপা ঘরে তুলে পিএসজি। এদিকে কোচিং ক্যারিয়ারে প্রথম শিরোপার স্বাদ পেলেন পিএসজির নতুন কোচ পচেত্তিনো। এর আগে তিনি টটেনহ্যাম হটস্পারকে ২০১৫ সালে কারাবাও কাপ ও ২০১৯ সালে উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগের ফাইনালে তুলেছিলেন। কিন্তু শিরোপা জিততে পারেননি। ৩৯তম মিনিটে দলকে এগিয়ে নেন ইকার্দি। ডান দিক থেকে ইকার্দির হেড গোলরক্ষক ঠেকালেও বল নিয়ন্ত্রণে রাখতে পারেননি। বল পোস্টে লাগার পর ফাঁকা জালে পাঠান আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ড। অবশ্য তার আগে আরও একবার জালে বল জড়িয়েছিলেন এই তারকা। কিন্তু সেটি অফসাইডের কারণে বাতিল হয়। লম্বা এক মাসের ইনজুরি কাটিয়ে এই ম্যাচে মাঠে নেমেছিলেন নেইমার দ্য সিলভা জুনিয়র। ৬৫ মিনিটে অ্যাঙ্গেল ডি মারিয়াকে উঠিয়ে ২০২১ সালে প্রথমবারের মতো নেইমারকে মাঠে নামান কোচ। ৮৫ মিনিটে মাঠে নামাটা স্বার্থক করেন ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ড। এ সময় পেনাল্টি পায় মার্সেই। পেনাল্টি থেকে নেইমার গোল করে দলকে ২-০ ব্যবধানে এগিয়ে নেন। ১ গোলে এগিয়ে থেকে বিরতিতে যায় পিএসজি। ৬৫তম মিনিটে ডি মারিয়াকে উঠিয়ে নেইমারকে মাঠে নামান কোচ। মাঠে নামাটা ৮৫ মিনিটে স্বার্থক করেন ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ড। এ সময় পেনাল্টি পায় দল। মার্সেই গোলরক্ষক ডি-বক্সে ইকার্দিকে ফাউল করলে ভিএআরের সাহায্যে পেনাল্টির বাঁশি বাজান রেফারি। পেনাল্টি থেকে নেইমার গোল করে দলকে ২-০ ব্যবধানে এগিয়ে নেন। গত ১৩ ডিসেম্বর লিগ ওয়ানে লিওঁর বিপক্ষে গোড়ালিতে আঘাত পেয়ে স্ট্রেচারে মাঠ ছাড়ার নতুন বছরে এদিনই মাঠে নামেন নেইমার। আর নেমেই পেলেন গোল। তবে নির্ধারিত সময়ের এক মিনিট বাকি থাকতে ব্যবধান কমিয়ে ম্যাচ জমিয়ে তুলেছিলেন মার্সেইয়ের দিমিত্রি পায়েত। এ সময় তাকে গোল পেতে সহায়তা করেন ফ্লোরিয়ান থাউভিন। শেষ পর্যন্ত কোনো নাটকীয়তা ছাড়াই শিরোপা উৎসব করে পিএসজি। এ নিয়ে টানা অষ্টম ও সব মিলে দশম শিরোপা ঘরে তুললো ফরাসী ক্লাবটি।