বুধবার, ফেব্রুয়ারী ২০, ২০১৯
প্রকাশ : 2018-06-03

মানবতাবিরোধী অপরাধ ,রায়ের অপেক্ষায় আরও ২ মামলা

১৯৭১ সালের মুক্তিযুদ্ধকালীন মানবতাবিরোধী অপরাধে দায়ের করা আরও ২টি মামলা এখন রায়ের অপেক্ষায় রয়েছে। আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের চেয়ারম্যান বিচারপতি মো. শাহিনুর ইসলামের নেতৃত্বে ৩ সদস্যের বিচারিক প্যানেল সম্প্রতি মামলাগুলোর উভয়পক্ষের যুক্তিতর্ক শেষে রায়ের জন্য অপেক্ষামন (সিএভি) রেখে আদেশ দেয়। এর মধ্যে একটি মামলায় গত ৩০ মে পটুয়াখালীর ৫ আসামীর বিষয়ে যুক্তিতর্ক শেষে যেকোনো দিন রায় (সিএভি) ঘোষণা করবে বলে আদেশ দেয়া হয়। এটি হবে যুদ্ধাপরাধের মামলায় ৩৪তম রায়। এর আগে গত ২০১৭ সালের ৮ মার্চ এই আসামীদের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করা হয়। আসামীদের সর্বোচ্চ সাজার আর্জি পেশ করে শুনানি করে প্রসিকিউশন। ২০১৫ সালের ২৩ সেপ্টেম্বর ট্রাইব্যুনাল এই ৫ জনের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেন। পরোয়ানা জারির পর ৫ জনকেই গ্রেফতার করা হয়। আসামিদের বিরুদ্ধে মুক্তিুযদ্ধকালীন হত্যা, গণহত্যা, ধর্ষণ, অগ্নিসংযোগসহ ৬ ধরনের মানবতাবিরোধী অপরাধের অভিযোগ রয়েছে। এছাড়াও যুদ্ধাপরাধের মামলায় ৩৩তম রায় ঘোষণাও অপেক্ষায় রয়েছে। এই মামলায় মৌলভীবাজারের রাজানগর উপজেলার সাবেক মাদ্রাসা শিক্ষক আকমল আলী তালুকদারসহ ৪ জনের বিরুদ্ধে উভয়পক্ষের যুক্তিতর্ক শেষে গত ২৭ মার্চ যে কোন দিন রায় ঘোষণার (সিএভি) জন্য রাখা হয়েছে। এ মামলায় যুক্তিতর্ক শুনানির সময় আসামিদের মধ্যে আকমল আলী তালুকদার (৭৩) হাজির ছিলেন। বাকি ৩ আসামি মৌলভীবাজারের রাজনগর উপজেলার আব্দুন নূর তালুকদার ওরফে লাল মিয়া, আনিছ মিয়া ও আব্দুল মোছাব্বির মিয়া পলাতক। প্রসিকিউটর সায়েদুল হক সুমন জানান, শিগগিরই এ মামলার রায় ঘোষণা হবে বলে তিনি আশাবাদী। মানবতাবিরোধী অপরাধে এই পর্যন্ত ৬৩ মামলায় ট্রাইব্যুনালের তদন্ত টিম তদন্ত শেষে প্রতিবেদন দাখিল করেছে। এর মধ্যে ৩৩ মামলার বিচার শেষ হয়েছে। ৩২ টির রায় ঘোষণা করা হয়েছে। ২ টি মামলা রায়ের অপেক্ষায় রয়েছে। এছাড়াও বেশ কয়েকটি মামলায় ট্রাইব্যুনালে দেয়া রায়ের বিরুদ্ধে আনা আপিল সুপ্রিমকোর্টে নিস্পত্তির অপেক্ষায় রয়েছে।

বিশেষ প্রতিবেদন পাতার আরো খবর