মঙ্গলবার, নভেম্বর ২০, ২০১৮
প্রকাশ : 2018-06-15

নির্বাচনের বছরে হেভিওয়েট নেতাদের ঈদে হেভি আয়োজন

ঈদকে সামনে রেখে চট্টগ্রামের শীর্ষ রাজনীতিকরা নিজ নিজ কর্মী-সমর্থকদের জন্যে প্রতিবছর বিশেষ আয়োজন করেন। তবে নির্বাচনের বছর হওয়ায় এবার সেই আয়োজনে লেগেছে বাড়তি হাওয়া। আওয়ামী লীগ কিংবা বিএনপি- প্রতিটি দলের ‘হেভিওয়েট’নেতাদের বাসায় এবার ঈদে কর্মী-সমর্থকদের জন্য থাকছে ‘হেভি’ আয়োজন। আওয়ামী রাজনীতিকদের মধ্যে দলটির প্রেসিডিয়াম সদস্য এবং গৃহায়ণ ও গণপূর্তমন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন, নগর সহ-সভাপতি এবং প্রবাসীকল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী নুরুল ইসলাম বিএসসি, ভূমি প্রতিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী জাবেদ, নগর সাধারণ সম্পাদক এবং চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন, সাবেক মন্ত্রী এবং সংসদ সদস্য ডা. আফছারুল আমীন, সাবেক মন্ত্রী এবং সংসদ সদস্য ড. হাছান মাহমুদ, কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল সবাই নিজ নিজ এলাকায় ঈদ করবেন। এর মধ্যে মন্ত্রী নুরুল ইসলাম বিএসসি নগরের খুলশি’র নিজ বাসভবনে বাহারি পদের খাবারের আয়োজন করেছেন। সেখানেই দলীয় নেতাকর্মীদের সঙ্গে ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময় এবং তাদের আপ্যায়িত করবেন তিনি। আন্দরকিল্লায় নিজ বাসভবনে নেতাকর্মীদের জন্য বিশেষ খাবারের ব্যবস্থাসহ নানা আয়োজন করছেন মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দিন। নিজ বাসভবনেই দলীয় নেতাকর্মীদের সঙ্গে ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময় এবং তাদের আপ্যায়িত করবেন তিনি। প্রয়াত মেয়র এবিএম মহিউদ্দিন চৌধুরীর চশমা হিলের বাসায় নেতাকর্মীদের জন্য ঈদের দিন মেজবানির আয়োজন করেছেন তার ছেলে সাংগঠনিক সম্পাদক মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল। ঈদের পরদিন সেমাই দিয়েও তাদের আপ্যায়ন করা হবে বলে জানান তিনি। গ্রামের বাড়ি আনোয়ারার পাশাপাশি নগরের সার্সন রোডের বাসায় নেতাকর্মীদের জন্য আয়োজন করছেন ভূমি প্রতিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী জাবেদ। প্রতি বছরের মতো ডা.আফসারুল আমীনের বাসায়ও থাকছে বিশেষ আয়োজন। অন্যদিকে, বিএনপি রাজনীতিকদের মধ্যে সাবেক মন্ত্রী এবং দলটির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী, সাবেক মন্ত্রী এবং ভাইস চেয়ারম্যান আবদুল্লাহ আল নোমান, সাবেক মন্ত্রী এবং ভাইস চেয়ারম্যান মীর মোহাম্মদ নাছির উদ্দিন, কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক মাহবুবুর রহমান শামীম, নগর বিএনপির সভাপতি ডা. শাহাদাত হোসেন, সিনিয়র সহ-সভাপতি আবু সুফিয়ান সবাই নিজ নিজ এলাকায় ঈদ করবেন। নির্বাচনকে সামনে রেখে এলাকায় ঈদ উদযাপন করবেন আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী। ফলে অন্যান্য বছরের চেয়ে এবার আয়োজনের পরিধি বাড়ছে বলে জানা গেছে। প্রায় ১০ হাজার নেতাকর্মী আপ্যায়নের ব্যবস্থা করছেন তিনি। নগর সভাপতি ডা. শাহাদাত হোসেন আয়োজন করছেন রীমা কমিউনিটি সেন্টারে। প্রতিবছর ঈদের পরদিন নেতাকর্মীদের জন্য মেজবানির আয়োজন করলেও বিএনপি চেয়ারপরসন বেগম খালেদা জিয়া কারাবন্দি থাকায় এবার কোনো আয়োজন করছেন না বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান আবদুল্লাহ আল নোমান। তবে নগরের চান্দগাঁও এলাকায় নিজ বাসায় নেতাকর্মীদের জন্য বিশেষ আয়োজন করেছেন নগর বিএনপির সিনিয়র সহ-সভাপতি আবু সুফিয়ান। বাংলানিউজ

জাতীয় পাতার আরো খবর