মঙ্গলবার, নভেম্বর ২০, ২০১৮
প্রকাশ : 2018-06-17

আর্জেন্টিনা ও আইসল্যান্ড ১-১ গোলে ড্র

শুক্রবার রাতেই আগে কত কি কীর্তি গড়লেন বর্তমান সময়ের দুই সেরা ফুটবলারের একজন ক্রিস্তিয়ানো রোনালদো। স্পেনের বিপক্ষে পর্তুগিজ এই তারকার হ্যাট্রিকের প্রথমটি গোলটি ছিল স্পটকিক থেকে। আর তৃতীয়টি ছিল অসাধারণ এক ফ্রি-কিক থেকে। শনিবার মস্কোর স্পার্তাকে আইসল্যান্ডের বিপক্ষে একই রকম সুযোগ পেয়েছিলেন আরেক বিশ্বসেরা ফুটবলার লিওনেল মেসি। পেয়েছিলেন পেনাল্টি শ্যুট। করেছিলেন বেশ কয়েকটি ফ্রি-কিকও। কিন্তু গোলের দেখা পাননি তিনি। সবচেয়ে বেশি মূল্য অবশ্য দিতে হয়েছে পেনাল্টি শ্যুট মিসের জন্য। এই গোলটি করতে পারলে বিশ্বকাপে নিজেদের প্রথম ম্যাচে জয় নিয়ে মাঠ ছাড়তে পারত আর্জেন্টিনা। কিন্তু তার বদলে পুচকে আইসল্যান্ডের বিপক্ষে ১-১- গোলের ড্র নিয়ে সন্তুষ্ট থাকতে হচ্ছে দুইবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়নদের। এদিন ম্যাচের ১৯ মিনিটেই সার্জিও আগুয়েরোর গোলে ১-০ তে এগিয়ে যায় আর্জেন্টিনা। কিন্তু পিছিয়ে পড়ার ৪ মিনিটের মধ্যেই সেটি শোধ করে ১-১ গোলে সমতায় ফেরে আইসল্যান্ড। বিশ্বকাপে দেশের হয়ে প্রথম গোলটি করে আলফ্রেড ফিনবোগাসন। ম্যাচের ফলাফল ড্র হলেও ম্যাচ জুড়ে আধিপত্য ছিল আর্জেন্টিনারই। পুরো ম্যাচে আর্জেন্টিনার অর্ধে বল গিয়েছে আতে গোনা কয়েকবার। কিন্তু লিওনেল মেসিদের রুখে দিতে মরিয়া আইসল্যান্ড প্রতিপক্ষকে গোল দিতে খুব একটা আগ্রহ দেখায়নি এদিন। যদিও বেশ কিছু ভালো আক্রমণও তারা করেছিল। এদিন আইসল্যান্ডের বিপক্ষে ১১ শট নিয়েছেন মেসি। কিন্তু একটিও আইসল্যান্ডের জাল খুঁজে পায়নি। তবে মেসিদের রুখে দেওয়ার বড় কৃতিত্ব নিতে পারেন আইসল্যান্ডের গোলকিপার হ্যানেস থর হ্যালডরসন। তার দুর্দান্ত পারফরম্যান্সে বেশ কিছু গোল থেকে রক্ষা পায় আইসল্যান্ড। এদিন ম্যাচের ১৭তম মিনিটেই এগিয়ে যেতে পারত আর্জেন্টিনা। কিন্তু মেসির দূরপাল্লার শট আটকে দেন হ্যালডরসন। তবে তার দুই মিনিট পর আইসল্যান্ডের ডিফেন্সের জমাট বরফ ভাঙেন সার্জিও আগুয়েরো। ডি-বক্সের ভেতর থেকে বাঁ পায়ে শটে গোল করেন তিনি। বিশ্বকাপে এটি তার প্রথম গোল। কিন্তু ২৩তম মিনিটে গোল করে আর্জেন্টিনার হাসি মুছে দেন আলফ্রেড ফিনবোগাসন। বিশ্বকাপে দেশের হয়ে প্রথম গোল করে অনন্য এক ইতিহাসে নাম লেখান তিনি। ১-১ গোলে সমতায় ফেরে আইসল্যান্ড। গোল খেয়ে আক্রমণের ধার বাড়িয়ে দেয় মেসিরা। কিন্তু কোনভাবেই গোলের দেখা পায় না। এর মধ্যে ম্যাচের ৬৫ মিনিটে পেনাল্টি পায় আর্জেন্টিনা। স্পটকিক নেন মেসি নিজে। কিন্তু ডান পাশে ঝাঁপিয়ে পড়ে মেসির পেনাল্টি শট রুখে দেন আইসল্যান্ডের গোলকিপার। জাতীয় দলের জার্সি গায়ে এ নিয়ে চতুর্থবারের মতো পেনাল্টি শ্যুট মিস করলেন মেসি। এরপর বাকি সময়টা একের পর এক আক্রমণ করেও গোলের দেখা না পাওয়ায় ১-১ গোলে ড্র নিয়ে মাঠ ছাড়তে হয় মেসিদের।

খেলাধূলা পাতার আরো খবর