প্রকাশ : 2018-07-03

কোয়ার্টার ফাইনালে ব্রাজিল নেইমার ম্যাজিকে

এখন পর্যন্ত প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ যেসব ম্যাচে নেইমার গোল করেছেন তার কোনোটি হারেনি ব্রাজিল। আবার বিশ্বকাপে ব্রাজিলের বিপক্ষে কখনো জেতেনি মেক্সিকো। শুধু তাই না, এই আসরের জায়ান্ট কিলার এবং প্রতিভাবান দলটি কোনো বিশ্বকাপের নক আউট পর্বে পিছিয়ে পড়ে কখনো জিততে পারেনি। আরো আছে। গেল ৬ বিশ্বকাপের শেষ ষোল থেকেই বাদ পড়েছে তারা। এবারও তাই হলো। নেইমার একটি রেকর্ড গোলের জন্ম দিলেন গোলশূন্য প্রথমার্ধ শেষ হওয়ার ৬ মিনিট পরই। আর সেই গোলেই ২০১৮ রাশিয়া বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনালে উঠে গেল ব্রাজিল। ১-০ গোলের হারে ‘কুফা’ শেষ ষোল থেকেই বিদায় মেক্সিকোর। brazil neymarসোমবার ভোলগা নদীর কাছের শহর সামারায় সমানে সমান প্রথমার্ধের পর দ্বিতীয়ার্ধটাও রোমাঞ্চ ছড়িয়েছে। হয়েছে গতির খেলা। কিন্তু প্রথমার্ধের শুরুতে প্রবল গতিতে ঝড়ের মতো আক্রমণে গিয়েই বুঝি ক্লান্তির মুখে পড়েছিল মেক্সিকানরা। তাদের ক্লান্ত করে তারপরই গোছানো আক্রমণে গেছে রেকর্ড ৫বারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন ব্রাজিল। প্রথমার্ধে তারপরও গোল পায়নি। বিরতি থেকে ফিরেই অন্য ব্রাজিল, অন্য নেইমার। চেনা ব্রাজিল, চেনা নেইমার। ম্যাজিকাল নেইমার। ৪৮ মিনিটে কুতিনহো নেইমারের কর্নার থেকে একটুর জন্য গোল মিস করলেন। কিন্তু ৫১ মিনিটে ৫১ মিনিটে নেইমার এবারের বিশ্বকাপে তার দ্বিতীয় গোল করে ১-০ গোলের লিড এনে দিলেন। উৎসবমুখর ব্রাজিল। কিন্তু মেক্সিকোর কফিনে শেষ পেরেকটা ঠুকে দেওয়ার ব্যবস্থাটাও করেছেন সেই নেইমার। গেল তিন ম্যাচে যাকে অপেক্ষাকৃত বিবর্ণ লেগেছে। এবার ফিরমিনহোকে দিয়ে ৮৮ মিনিটে গোল করালেন। চ্যাম্পিয়নদের মরণফাঁদ হয়ে ওঠা রাশিয়া বিশ্বকাপে ব্রাজিল সেরা দল হিসেবেই দেখা দিল যেন। জার্মানি, আর্জেন্টিনা ও স্পেনের বিদায় হয়ে গেছে। কিন্তু এটা ব্রাজিল দল! নেইমার-কুতিনহো ছাড়াও তারা ভরা দুর্দান্ত নৈপুণ্যের দল। একসাথেই যেন এদিন জ্বলে উঠলেন তারা। রাত ১২টায় বেলজিয়াম-জাপান ম্যাচের বিজয়ীর বিপক্ষে কোয়ার্টার ফাইনাল লড়াই ব্রাজিলের।