প্রকাশ : 2018-07-12

মানবধিকার লংঘন এখন বাংলাদেশের নিত্য ঘটনা

অনলাইন ডেস্ক :মানবধিকার লংঘন এখন বাংলাদেশের নিত্য নৈমিত্তিক ঘটনা হয়ে দাঁড়িয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তিনি অভিযোগ করেন, বিএনপির ৫ শতাধিক নেতাকর্মী নিখোঁজ ও ১০ হাজার নেতাকর্মীকে রাজনৈতিকভাবে হত্যা করা হয়েছে। এছাড়া সারাদেশের বিএনপির ৭৮হাজার নেতাকর্মীকে মামলা দেওয়া হয়েছে। ১৮ লক্ষ মানুষকে অভিযুক্ত করা হয়েছে।বৃহস্পতিবার বিকেলে রাজধানীর গুলশানের হোটেল লেকশোতে অনুষ্ঠিত এক সেমিনারে এই কথা বলেন।দেশের চলমান রাজনীতি ও সরকারের বিভিন্ন কর্মকান্ডের বিষয়ে বাংলাদেশে নিযুক্ত বিভিন্ন দেশের কূটনীতিক ও প্রতিনিধিদের অবহিত করে সেমিনারে দেওয়া বক্তব্যে মির্জা ফখরুল বলেন, মানুষের লাশ পড়ে থাকছে, নারীরা অধিকার থেকে বঞ্চিত হচ্ছে, সম্ভ্রম হারাচ্ছে, শিশুরা নির্যাতিত হচ্ছে, রাজনীতিক দলের যারা ভিন্নমত পোষণ করে তাদের ওপরে রাষ্ট্রীয়বাহিনীর নির্যাতন, ভিন্নমত পোষণকারী ছাত্রকে হাতুড়ি দিয়ে পেটানো হয়েছে, এটা এখন বাংলাদেশের প্রতিদিনের চিত্র।বিএনপি মহাসচিব বলেন, আমরা অনেকবার এ বিষয়গুলো বিভিন্ন সমাবেশের মাধ্যমে বলেছি। কিন্তু দুভার্গ্যরে কথা এতো কিছু পরেও সরকারের কর্নগোচর হয় না। আমরা জানি এই সরকার ক্ষমতায় টিকে থাকার জন্য মরিয়া হয়ে উঠেছে। আর এ কারনে তারা ন্যায় নীতি সংবধিান কোনো কিছুর তোয়াক্কা না করে তারা একের পর এক মানবধিকার লংঘন করে তারা ক্ষমতাকে চিরস্থায়ী করতে চায়।অনুষ্ঠানে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, ব্যারিস্টার মওদদু আহমদ, মির্জা আব্বাস, ড. মঈন খান, নজরুল ইসলাম খানপ্রমুখ।

রাজনীতি পাতার আরো খবর