বৃহস্পতিবার, মে ২৩, ২০১৯
প্রকাশ : 2018-07-19

শিল্পী, কবি ও সাহিত্যিকদের অংশগ্রহণে এই উৎসব

অনলাইন ডেস্ক :দেশজ সংস্কৃতি ধারণ, লালন ও সম্প্রসারণের লক্ষ্যে আগামী শুক্র ও শনিবার সারা দেশে সাংস্কৃতিক উৎসব করবে সরকার। জেলা প্রশাসন, জেলা শিল্পকলা একাডেমি এবং জেলা তথ্য অফিসের সহযোগিতায় সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয় এই উৎসবের আয়োজন করেছে। সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর বুধবার তথ্য অধিদফতরের এক সংবাদ সম্মেলনে জানান, সাংস্কৃতিক উৎসব আয়োজন কর্মসূচি বাস্তবায়নের জন্য মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে সব জেলা প্রশাসকদের নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। স্থানীয় শিল্পী, কবি ও সাহিত্যিকদের অংশগ্রহণে এই উৎসব হবে জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, যেসব জেলার মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে সাংস্কৃতিক চর্চা কার্যক্রম পরিচালিত হচ্ছে সেসব বিদ্যালয়ে প্রশিক্ষণ নেওয়া ছাত্রছাত্রীদের এই অনুষ্ঠানে অংশ নেওয়ার সুযোগ দেওয়া হবে। উৎসবে স্থানীয় শিল্পীরা রবীন্দ্র সংগীত, নজরুল সংগীত, আধুনিক ও দেশাত্মবোধক গান, কবিতা আবৃত্তি, একক অভিনয়, পল্লীগীতি, লালনগীতি, লোকগীতি; জারি, সারি ও মুর্শিদী গান ছাড়াও আঞ্চলিক গান পরিবেশন করবেন। সংস্কৃতিমন্ত্রী বলেন, ‘এ সংস্কৃতিক উৎসব সফলভাবে আয়োজনের মাধ্যমে দেশব্যাপী সাংস্কৃতিক কর্মকাণ্ড আরও বিকশিত হবে এবং কিশোর-তরুণ সমাজসহ সর্বস্তরের জনগণ বাংলাদেশের নিজস্ব সংস্কৃতির প্রতি আকৃষ্ট হবে।’ অন্যদের মধ্যে তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু, তথ্যসচিব আবদুল মালেক, সংস্কৃতি সচিব নাসির উদ্দিন আহমেদ, প্রধান তথ্য কর্মকর্তা কামরুন নাহার সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন।

জাতীয় পাতার আরো খবর