প্রকাশ : 2018-08-01

আমি প্রতিনিয়ত যুদ্ধ করে যাচ্ছি

অনলাইন ডেস্ক: অনেক দিন ধরেই বড় পর্দায় অনুপস্থিত তিনবার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পাওয়া অভিনেত্রী পপি। ২০১১ সালের পর প্রেক্ষাগৃহে আর তাকে দেখা যায়নি। এদিকে বাবা মিয়া আমির হোসেন অসুস্থ থাকায় কাজের জন্য সময়ই বের করতে পারছিলেন না জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত অভিনেত্রী পপি। তবে তার বাবা ধীরে ধীরে সুস্থ হয়ে উঠছেন। ফলে আগামী মাস থেকেই কাজে ফেরার ইঙ্গিত দিয়েছেন নায়িকা। এদিকে ২১ কেজি ওজন কমানো নিয়ে বেশ বিতর্কে পড়েছেন পপি। এটাকে চলচ্চিত্রের প্রস্তুতিরই অংশ দাবী করে তিনি বলেন, আমরা যারা সেলিব্রেটি আছি তাদের সবাই ফলো করে। আর বিশেষ করে আমি এখন যে ছবিগুলো করছি সেগুলো একটু অ্যাকশনধর্মী। সেকারণে লুকটা গুরুত্বপূর্ণ। ফলে ওজনটা কমানোর দরকার ছিল। তাকে ঠিকঠাকভাবে পরিচালকরা উপস্থাপন করতে ব্যর্থ, এমন কথা বলে পপি জানান, শুধু আমি না, আমাদের কাউকেই পরিচালকরা ব্যবহার করতে পারছেন না। দেশে প্রচুর আর্টিস্ট আছেন, প্রচুর আর্টিস্ট আসছেও। আমাদের দরকার ভালো পরিচালক, ভালো গল্প, ভালো প্রোডাকশন হাউজ। কিন্তু তা নাই।…হলিউড থেকে আর্টিস্ট এনেও সঠিকভাবে কাজে লাগাতে না পারলে সে জিরো। হারানো সেই পপিকে দর্শক আবার ফিরে পাবেন কিনা, এমন প্রশ্নের জবাবে পপি বলেন, ভালো কাজের জন্য আমি প্রতিনিয়ত যুদ্ধ করে যাচ্ছি। নিজেকে সেভাবে তৈরিও করছি। আমি আর্টিস্ট; আমি আর কতটুকু ফাইট করতে পারব? আমাকে যদি সুন্দরভাবে উপস্থাপন করা না হয় তাহলে আমার করণীয় কী আছে? পপি জানালেন হাতে অসম্পূর্ণ তিনটি ছবি রয়েছে। এগুলার কাজ এখন শেষ করতে চাইছেন। দি ঢাকা পোস্ট