প্রকাশ : 2018-08-03

দূরপাল্লার বাস চলাচল বন্ধ

অনলাইন ডেস্ক :নিরাপদ সড়কের দাবিতে চলমান বিক্ষোভের মধ্যেই এবার নিরাপত্তার অভাব দেখিয়ে রাজধানীসহ দূরপাল্লার বাস চলাচল বন্ধ রেখেছে পরিবহন মালিক-শ্রমিকরা। এতে পুরো দেশের যোগাযোগ ব্যবস্থা ভেঙে পড়েছে। সরকারি ছুটির দিন আজ শুক্রবার শিক্ষার্থীদের সড়কে বিক্ষোভ করতে দেখা না গেলেও, দেখা গেছে পরিবহন শ্রমিকদের। রাজধানীতে চলাচলের বাহন হিসেবে অটোরিকশা ও রিকশায় এখন ভরসা যাত্রীদের। সেক্ষেত্রেও গুণতে হচ্ছে কয়েকগুণ বেশি ভাড়া। খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, ঢাকার গাবতলী, সায়েদাবাদ ও মহাখালী বাস টার্মিনালে দূরপাল্লার পরিবহনের কাউন্টারগুলো বন্ধ রয়েছে। সেখান থেকে কোনো বাস ছাড়া হচ্ছে না; এমনকি কোনো বাস প্রবেশও করছে না। সেখানে কর্তা ব্যক্তিদের কাছে জানতে চাইলে তাদের সবার মোটামুটি একই বক্তব্য, সড়কে নিরাপত্তা নেই। বাস ভাঙচুর করা হচ্ছে। এই অবস্থায় নিরাপত্তার খাতিরে কোনো বাস ছাড়া হচ্ছে না। অন্যদিকে এসব বাসের মালিক ও শ্রমিকরা পরস্পরবিরোধী কথা বলছেন। মালিকরা বলছেন, ভাঙচুরের কারণে শ্রমিকরা বাস চালাতে চাইছেন না। শ্রমিকরা দাবি, মালিকরা বাস নামাতে নিষেধ করেছেন। গত ২৯ জুলাই রাজধানীর বিমানবন্দর সড়কে বাসচাপায় দুই কলেজ শিক্ষার্থী নিহত হওয়ার পর থেকে সড়কে নেমে বিক্ষোভ করছেন শিক্ষার্থীরা। তাদের বেশিরভাগ ক্ষেত্রে গাড়ির লাইসেন্স চেক, গাড়ির লেন ঠিক করতে দেখা গেলেও শ্রমিকদের বক্তব্য তারা ভাঙচুর করছেন। বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন মালিক সমিতির মহাসচিব খন্দকার এনায়ত উল্লাহ সাংবাদিকদের বলেন, শিক্ষার্থীরা বাস ভাঙচুর করায় নিরাপত্তার কারণে বাসের চলাচল বন্ধ রাখা হয়েছে। ভাঙচুর বন্ধ হলে বাস চলাচল স্বাভাবিক হয়ে যাবে।

জাতীয় পাতার আরো খবর