প্রকাশ : 2018-10-08

স্বপ্নদ্রষ্টা তরুণদের উদ্যোগ- বাংলাদেশ ইউটিলিটি ব্যাংক

অনলাইন ডেস্ক: একজন মানুষের অপ্রয়োজনীয় ফেলে রাখা জিনিসগুলো আরেকজন মানুষের প্রয়োজন মেটাতে পারে। সময় মতো ঠিক মানুষটির কাছে সেগুলো পৌঁছে দিতে প্রয়োজন একটি কাঠামোগত সমন্বিত উদ্যোগ। দেশের প্রত্যন্ত জেলা বরগুনা থেকে একদল স্বপ্নদ্রষ্টা তরুণের এরকমই একটি উদ্যোগের নাম বাংলাদেশ ইউটিলিটি ব্যাংক। উদ্যোক্তাদের দাবি, সুসংগঠিতভাবে বাংলাদেশে তারাই প্রথম এ ধারনার বাস্তবায়ন করতে যাচ্ছে। বরগুনার আমতলীর স্বেচ্ছাসেবি সামাজিক সংগঠন সময় নানাধর্মী মানবিক কাজ রয়েছে। নিয়মিতভাবে স্বেচ্ছায় রক্তদান, ক্যান্সার আক্রান্ত মৃত্যু পথযাত্রী রোগীদের শেষ সময়ে চিকিৎসায় সহযোগিতা প্যালিটিভ কেয়ার, নিজেদের উপার্জিত অর্থের একটা অংশ সংগঠনে জমা করে গুণীদের স্বীকৃতি, ত্রাণ কার্যক্রম, শিশু শিক্ষা, শিক্ষা উপকরণ প্রদান, বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা, নিরাপদ সড়ক, বৃক্ষ রোপণ, পরিচ্ছন্নতা অভিযান বিভিন্ন মাত্রার কর্মযজ্ঞ পরিচালনা করছে এরা। উদযাপনসহ পালন করছে বিভিন্ন দিবসের কার্যক্রমও। আয়োজন করে সাংস্কৃতিক ও খেলাধূলার প্রতিযোগিতা। চলছে একেবারে স্বল্প ব্যয়ে তথ্য ও প্রযুক্তি বিষয়ক প্রশিক্ষণ। সময়-র সদস্যরা ৫ আক্টোবর ২০১৮ তারিখে শুরু করেছে এ কর্মসূচি। নাম দিয়েছে, বাংলাদেশ ইউটিলিটি ব্যাংক। সম্পূর্ণস্বেচ্ছাসেবী পদ্ধতিতে সংগ্রহ করা হচ্ছে অবস্থাপন্ন মানুষদের প্রয়োজনের অতিরিক্ত বলতে গেলে ফেলে রাখা নিয়ে অব্যবহৃত কাপড়, জুতা, বই, শিক্ষা সামগ্রী, ঔষধ, বাচ্চাদের খেলনা, রান্নার সরঞ্জাম ও অন্যান্য ব্যবহার্য সামগ্রী। এগুলো বিতরণ করা হবে তাদের মধ্যে, একান্তই যাদের প্রয়োজন কিন্তু প্রয়োজন মেটাবার মতো আর্থিক সংগতি নেই। সময়-র সমন্বয়কারী প্রকৌশলী জানিয়েছেন, কিছুদিন আগে ভারতে ভ্রমণ করতে গিয়ে ইন্ডিয়ান ইউটিলিটি ব্যাংক-র কার্যক্রম দেখে তিনি অনুপ্রানিত হন বাংলাদেশেই এমন একটি কার্যক্রম চালু করতে। ইন্ডিয়ান ইউটিলিটি ব্যাংকের প্রধান সমন্বয়ক রওশন মুন্সির কাছ থেকে দিক নির্দেশনা ও পরামর্শ নিয়ে সময়-র সহযোগিতায় এ পৃথিবী বাসযোগ্য হোক সবারই স্লোগান নিয়ে বাংলাদেশ ইউটিলিটি ব্যাংকের প্রাথমিক কার্যক্রম শুরু করা হয়েছে। সমন্বয়কারী রাজু আরও জানিয়েছেন, শুরুতেই আমতলী ছাড়াও বরগুনা, পটুয়াখালী, ভোলা, পিরোজপুর ও কিশোরগঞ্জে কাজ শুরু হচ্ছে বাংলাদেশ ইউটিলিটি ব্যাংকের। ধীরে ধীরে সারাদেশে তাদের কার্যক্রম ছড়িয়ে দেয়া হবে। প্রতি শুক্রবার তাদের স্বেচ্ছাসেবকবৃন্দ সেগুলো সংগ্রহ করবে। আমতলীর পৌর মেয়র মতিয়ার রহমান জানিয়েছেন, এর আগে সময়-র নানা কাজে যুক্ত হয়েছি। এ নতুন উদ্যোগকে স্বাগত জানাই। এ কাজে সব ধরনের সহযোগিতা করা হবে।-বাসস

সারা দেশ পাতার আরো খবর