প্রকাশ : 2017-12-24

যেকোনো চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় পিছপা হব না :প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, আমরা মুক্তিযুদ্ধের মাধ্যমে বিজয়ী জাতি। অন্যায়ের কাছে মাথানত অথবা যেকোনো চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় পিছপা হব না। তিনি আজ রবিবার সকালে চট্টগ্রামে নেভাল একাডেমিতে নৌবাহিনীর বিএনএ ফ্লোটিলায় রাষ্ট্রপতি কুচকাওয়াজ মিডশিপম্যান- ২০১৫ পরিদর্শন শেষে দেয়া বক্তব্যে একথা বলেন। প্রধানমন্ত্রী বলেন, ৭ মার্চের ভাষণে জাতির অস্তিত্বের ইতিহাস প্রতিফলিত হয়েছে। আমার মা বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন নেছা মুজিব ভাষণ দিতে বাড়ি থেকে বের হওয়ার প্রাক্কালে বাবাকে পরামর্শ দিয়ে বলেছিলেন, কারো দ্বারা প্রভাবিত হয়ে নয়, তার বিবেক যা বলে- সেই কথাগুলোই ভাষণে বলে আসতে। আমার মা বুঝতেন, জাতির পিতাই বাঙালির আশা-আকাঙ্ক্ষা, দুঃখ-বঞ্চনার কথা সবচেয়ে ভালো জানেন। বাঙালি জাতির প্রতি তার মতো গভীর আন্তরিকতা আর কারো নেই।রোহিঙ্গাদের দ্রুত ফেরত পাঠাতে সরকার কাজ করছে বলে জানিয়েছেন, প্রধানমন্ত্রী নবীন নৌ সদস্যদের বলেন, মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় উজ্জীবিত হয়ে দেশের স্বাধীন, সার্বভৌম রক্ষা ও আত্মনিয়োগের জন্য নবীন নৌ সদস্যদের কাজ করতে হবে। তিনি বলেন, আমি দৃঢ়ভাবে বিশ্বাস করি, মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় উজ্জীবিত হয়ে তোমরা এ দেশের স্বাধীনতা ও সার্বভৌমত্ব রক্ষার মহান দায়িত্বে আত্মনিয়োগ করবে। একটি সুশৃঙ্খল বাহিনীর সদস্য হিসেবে সর্বদা ঊর্ধ্বতনদের প্রতি আনুগত্য ও অধঃস্তনদের সহমর্মিতা প্রদর্শন করবে। চেইন অব কমান্ড মেনে চলার মধ্য দিয়ে বাংলাদেশ নৌবাহিনীকে বিশ্ব দরবারে আরও গৌরবোজ্জ্বল আসনে অধিষ্ঠিত করতে সক্ষম হবে। এর আগে সকাল ১১টার দিকে ঢাকা থেকে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের নিয়মিত ফ্লাইটে চট্টগ্রাম শাহ আমানত বিমানবন্দরে এসে পৌঁছেন প্রধানমন্ত্রী। পরে তার গাড়ী বহর নেভাল একাডেমিতে পৌঁছান। এসময় নৌবাহিনীর প্রধান এডমিরাল মুহাম্মদ নিজামউদ্দিন আহমেদ তাঁকে স্বাগত জানান। পরে একটি খোলা জিপে করে বার্ষিক প্যারেড পরিদর্শন ও সালাম গ্রহণ করেন প্রধানমন্ত্রী। অনুষ্ঠানে তিনবাহিনীসহ সামরিক-বেসামরিক ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। বিকেলে নগরীর চশমা হিলে প্রয়াত আওয়ামী লীগ নেতা ও সাবেক সিটি মেয়র মহিউদ্দিন চৌধুরীর বাসায় যাবেন শেখ হাসিনা। সেখানে মহিউদ্দিনের স্বজনদের সঙ্গে কথা বলবেন তিনি।