প্রকাশ : 2018-11-06

যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যবর্তী নির্বাচন আজ

অনলাইন ডেস্ক: আর কয়েক ঘণ্টা পরই যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যবর্তী নির্বাচন। এই নির্বাচনকে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের জনপ্রিয়তা যাচাইয়ের গণভোট হিসেবে দেখা হচ্ছে। এরইমধ্যে ইন্ডিয়ানা রাজ্যে আগাম ভোট হয়ে গেছে। এদিকে, শেষ মুহূর্তের নির্বাচনী প্রচারণায় ভোটারদের মন জয়ের চেষ্টা করেছেন দুই দলের শীর্ষ নেতারা। এবারো অভিবাসী ইস্যুকেই প্রচারণার অস্ত্র হিসেবে ব্যবহার করছে ট্রাম্প। ডেমেক্রেটরা বিজয়ী হলে যুক্তরাষ্ট্রমুখী অভিবাসীদের ঢল বাড়তেই থাকবে বলে মন্তব্য করেন তিনি। সোমবার এভাবেই মধ্যবর্তী নির্বাচনের আগাম বা আর্লি ভোট দিতে দীর্ঘ লাইন ধরে দাঁড়িয়ে থাকে যুক্তরাষ্ট্রের ইন্ডিয়ানা অঙ্গরাজ্যের রাজধানী ইন্ডিয়ানা পলিশের ভোটাররা। স্থানীয় গণমাধ্যম অনুসারে, অন্তত দুই ঘণ্টা অপেক্ষার পর পছন্দের প্রার্থীদের ভোট দেন তারা। আগাম ভোটের ব্যবস্থা থাকলেও দেশটিতে হতে যাওয়া মধ্যবর্তী নির্বাচনের মূল পর্ব শুরু হচ্ছে মঙ্গলবার। আর তাই নির্বাচনকে ঘিরে মার্কিন মুল্লুকে তৈরি হয়েছে উৎসব মুখোর পরিবেশ। ভোটারদের মধ্যেও নির্বাচনকে ঘিরে চলছে নানা জল্পনা কল্পনা। এদিকে, মধ্যবর্তী নির্বাচনের শেষ মুহূর্তের প্রচারণায় ব্যস্ত সময় পার করছেন ডেমোক্রেট দলের শীর্ষ নেতারা। ভার্জিনিয়া অঙ্গরাজ্যে এক সমাবেশে অংশ নিয়ে সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা দেশের বর্তমান পরিস্থিতিতে উদ্বেগ জানিয়ে ব্যালটের মাধ্যমে রায় দিতে জনগণের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন। একইদিন তিনটি অঙ্গরাজ্যে নির্বাচনী সমাবেশে যোগ দেন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। জনগণকে সতর্ক করে তিনি বলেন ডেমেক্রেটরা বিজয়ী হলে যুক্তরাষ্ট্রমুখী অভিবাসীদের ঢল বাড়তেই থাকবে। তারা অভিবাসীদের আমন্ত্রণ জানাচ্ছে এদেশে আসতে। তবে চিন্তার কোনো কারণ নেই আমরা সীমান্তে দেয়াল তৈরি করছি। অবৈধভাবে কাউকে প্রবেশ করতে দেয়া হবে না। কেননা রিপাবলিকানরা তা কখনো হতে দেবে না। এবারের মধ্যবর্তী নির্বাচনে সিনেটের ১শ টি আসনের মধ্যে ভোট হবে ৩৫টিতে। আর হাউস অব রিপ্রেজেন্টটিভস এ ভোট হবে ৪৩৫টি আসনেই। পাশাপাশি গভর্ণর আসনে ৫০টি অঙ্গরাজ্যের মধ্যে ৩৬টিতে ভোট হবে। যার ফলাফলেই প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের ভবিষ্যতের পূর্বাভাস পাওয়া যাবে বলে মনে করছেন বিশ্লেষকরা।

আন্তর্জাতিক পাতার আরো খবর