প্রকাশ : 2017-12-26

উত্তর সাগরে যুক্তরাজ্যের জলসীমায় রাশিয়ার যুদ্ধজাহাজ প্রবেশ করায় উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়েছে

যুক্তরাজ্যের রয়্যাল নেভি জানিয়েছে, রুশ যুদ্ধজাহাজগুলোর পাহারায় একটি ব্রিটিশ ফ্রিগেট মোতায়েন করা হয়েছে। তারা আরো জানিয়েছে, রুশ যুদ্ধবিমান অ্যাডমিরাল গোরশকোভের ওপর নজর রাখছে তাদের এইচএমএস সেন্ট আলবানস নামে ফ্রিগেট। তবে এ ইস্যুতে এখনো কোনো মন্তব্য করেনি রাশিয়া। রয়্যাল নেভি বলেছে, সম্প্রতি যুক্তরাজ্যের জলসীমায় রাশিয়ান ইউনিটের আনাগোনা বেড়ে গেছে। সাগরতলে ইন্টারনেট-তারের নিরাপত্তা নিয়ে রাশিয়ার হুমকির বিষয়ে সম্প্রতি সতর্ক করা হয়েছে যুক্তরাজ্যকে। দি চিফ অব দি ডিফেন্স স্টাফ বিমানবাহিনীর প্রধান মার্শাল স্যার স্টুয়ার্ট পিচ এ মাসের প্রথম দিকে বলেছিলেন, যোগাযোগের লাইনগুলো রক্ষায় ব্রিটেন ও ন্যাটোকে গুরুত্ব দিতে হবে। তিনি সতর্ক করে বলেছিলেন, লাইনগুলো যদি বিচ্ছিন্ন করা হয় বা ক্ষতিগ্রস্ত হয়, তাহলে অর্থনীতিতে তার তাৎক্ষণিক আঘাত আসবে এবং সম্ভাব্য বিপর্যয়ের মুখে অর্থনীতি। সাগরতলে কুশাকারে বিছানো রয়েছে ইন্টারনেট সংযোগের অসংখ্য তার। এই তারের মাধ্যমে দেশ ও মহাদেশ ইন্টারনেট লাইনে যুক্ত হয়েছে। এক বিবৃতিতে রয়্যাল নেভি বলেছে, রাশিয়ার যুদ্ধবিমান অ্যাডমিরাল গোরশকভের ওপর নজর রাখতে ২৩ ডিসেম্বর এইচএমএস সেন্ট আলবানস ফ্রিগেটকে বলা হয়। তখন রুশ যুদ্ধজাহাজটি ব্রিটিশ জলসীমার পাশ ধরে এগোচ্ছিল। বড়দিনেও ব্রিটিশ ফ্রিগেট রুশ যুদ্ধজাহাজের ওপর নজর রাখতে ব্যস্ত ছিল। যুক্তরাজ্যের প্রতিরক্ষামন্ত্রী গাভিন উইলিয়ামসন বলেছেন, আমাদের জলসীমা রক্ষায় অথবা যেকোনো ধরনের আগ্রাসন প্রতিহতে আমি কোনো দ্বিধা করব না। তিনি আরো বলেন,আমাদের দেশ, আমাদের জনগণ ও জাতীয় স্বার্থ রক্ষার প্রশ্নে ব্রিটেন কখনো আতঙ্কিত হবে না।

আন্তর্জাতিক পাতার আরো খবর