প্রকাশ : 2018-11-13

জিরো টলারেন্সে থাকবে ইসি

অনলাইন :ত্রিশ ডিসেম্বরের পর সংসদ নির্বাচনের তারিখ আর পেছাবে না জানিয়ে প্রধান নির্বাচন কমিশনার কে এম নুরুল হুদা বলেছেন, অংশগ্রহণমূলক নির্বাচনে অনিয়মের সুযোগ নেই। মঙ্গলবার (১৩ নভেম্বর) সকালে নির্বাচন কমিশন সচিবালয়ে রিটার্নিং কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠকে একথা বলেন তিনি। এ সময় প্রার্থী বা কোনো রাজনৈতিক নেতাকে প্রতিপক্ষ না ভেবে সন্দেহ'র উর্ধ্বে উঠে নির্বাচনের চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় রিটার্নিং কর্মকর্তাদের কাজ করার নির্দেশ দেন কমিশনাররা। ৩০ ডিসেম্বরের পর জাতীয় সংসদ নির্বাচনের তারিখ পেছানোর আর সুযোগ নেই। সকালে আগাঁরগাওয়ে নির্বাচন কমিশন সচিবালয়ে এক অনুষ্ঠানে একথা বলেন তিনি। নির্বাচন কমিশনার কে এম নুরুল হুদা বলেন, 'সব ভোটার, ভোটকেন্দ্রে বিনা বাঁধায় স্বাধীনভাবে, স্বাধীনচিত্তে আনন্দঘন পরিবেশে ভোট দিবেন। উৎসবমুখর পরিবেশে সবাই ভোট দিবেন। ৩০ তারিখের পরে আমাদের আর পিছানোর কোন সুযোগ নেই। সেটাকে আপনাকে সামনে রেখেই এই প্রস্তুতি নিতে হবে।' নির্বাচনের আগে সবকিছু নিয়ন্ত্রনে রাখা কমিশনের জন্য চ্যালেঞ্জ উল্লেখ্য করে নির্বাচন কমিশনার মাহবুব তালুকদার বলেন, পরিস্থিতি মোকাবেলায় জিরো টলারেন্স থাকবে ইসি। মাহবুব তালুকদার বলেন, 'নির্বাচন সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের কোন প্রকার শিথিলতা আমরা বরদাস্ত করবো না। নির্বাচনে গাফেলতির জন্য যে কঠোর শাস্তির ব্যবস্তা রয়েছে তা প্রয়োগ করতে আমরা দ্বিধাবোধ করবো না।' অন্যদিকে, রিটার্নিং অফিসারদের ব্যর্থতার দায় যেন ইস্র উপর না আসে সে ব্যাপারে রিটার্নিং কর্মকর্তাদের সতর্ক করে দেন নির্বাচন কমিশনাররা। কবিতা খানম বলেন, অত্যন্ত দক্ষতার সঙ্গে আপনারা আপনাদের কাজ করবেন, যেন কোন পক্ষ থেকে আপনাকে কোন মন্তব্য করতে না পারে।

জাতীয় পাতার আরো খবর