প্রকাশ : 2018-01-03

খসড়া ভোটার তালিকা প্রকাশ

হালনাগাদে এবার নতুন ভোটার তালিকায় যুক্ত হয়েছে ৪২ লাখ ৯৪ হাজার ৮৮৯ জন। সব মিলিয়ে বাংলাদেশে ভোটার সংখ্যা ১০ কোটি ৪০ লাখ ৫১ হাজার ৮৮৩ জনে পৌঁছেছে বলে তথ্য দিয়েছে নির্বাচন কমিশন। দেশের সব জেলা, উপজেলা নির্বাচন অফিস, ইউনিয়ন পরিষদসহ গুরম্নত্বপূর্ণ স্থানে মঙ্গলবার খসড়া ভোটার তালিকা দেখার জন্য উন্মুক্ত রাখা হয়েছে। এই তালিকা নিয়ে দাবি, আপত্তি ও সংশোধনীর নিষ্পত্তি করে নির্বাচন কমিশন আগামী ৩১ জানুয়ারি চূড়ান্ত্ম ভোটার তালিকা প্রকাশ করবে। ইসির ভারপ্রাপ্ত সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ ঢাকার আগারগাঁওয়ে নির্বাচন কমিশন ভবনে এক সংবাদ সম্মেলনে বলেন, ২০১৭ সালের হালনাগাদ এবং ২০১৫ সালে নেয়া পনের বছর বয়সীদের নিবন্ধনের তথ্য মিলিয়ে (যারা ১ জানুয়ারি ২০১৮ সালে ভোটার হওয়ার যোগ্য হয়েছেন) এই নতুন তালিকা হয়েছে। নতুন ভোটারদের মধ্যে ৩৩ লাখ ৩২ হাজার ৫৯৩ জনের তথ্য গত বছর এবং ৯ লাখ ৬২ হাজার ২৯৬ জনের তথ্য ২০১৫ সালে সংগ্রহ করা হয়। হেলালুদ্দীন বলেন, হালনাগাদের আগে দেশে ভোটার ছিল ১০ কোটি ১৪ লাখ ৪০ হাজার ৬০১ জন। হালনাগাদে মৃত ভোটার বাদ পড়েছে ১৭ লাখ ৪৮ হাজার ৯৩৪ জন। এবার হালনাগাদে নারী ভোটারের সংখ্যা বেশি হলেও মোট ভোটারের মধ্যে নারী ভোটারের সংখ্যা পুরম্নষের চেয়ে নয় লাখের মতো কম। বর্তমানে মোট ভোটারের মধ্যে ৫ কোটি ২৪ লাখ ৬২ হাজার ৮৬৫ জন পুরম্নষ এবং ৫ কোটি ১৫ লাখ ৮৯ হাজার ১৮ জন নারী। 'গরমিল' থাকছেই প্রধান নির্বাচন কমিশনার কে এম নূরম্নল হুদা ১৬ জুলাই নির্বাচনী রোডম্যাপ ঘোষণার সময় বলেছিলেন, দেশে ভোটার সংখ্যা ১০ কোটি ১৮ লাখ। যা ইসি প্রকাশিত কর্মপরিকল্পনাতেও একই সংখ্যা দেখানো হয়। ২৫ জুলাই থেকে হালনাগাদ কার্যক্রম শুরম্নর সময় তৎকালীন ইসি সচিব মোহাম্মদ আব্দুলস্নাহও জানান, বর্তমানে ভোটার রয়েছে ১০ কোটি ১৮ লাখ ৪৩ হাজার ৬৬৭ জন। কিন্তু মঙ্গলবার ইসির ভারপ্রাপ্ত সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ বলেন, হালনাগাদের আগে ২০১৭ সালে দেশে ভোটার ছিল ১০ কোটি ১৪ লাখ ৪০ হাজার ৬০১ জন। সংখ্যায় এই গরমিলের বিষয়ে জানতে চাইলে ইসি সচিব বলেন, ওই তালিকা থেকে মৃত কিছু ভোটার কর্তন হয়ে থাকতে পারে। কাগজপত্র দেখে ১০ কোটি ১৪ লাখের তথ্য পেয়েছি। আগের বিষয়টি আমার জানা নেই। খোঁজ নিয়ে দেখতে হবে।

জাতীয় পাতার আরো খবর