প্রকাশ : 2019-02-20

আরব আমিরাত সফর সফল হয়েছে: প্রধানমন্ত্রী

২০ফেব্রুয়ারী,বুধবার,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, সংযুক্ত আরব-আমিরাতে বর্তমান সরকারের মেয়াদের প্রথম দ্বিপাক্ষিক সফর সফল হয়েছে। বাংলাদেশে বিনিয়োগে বিদেশি ব্যবসায়ী ও উদ্যোক্তারা আগ্রহ প্রকাশ করেছেন। এতে অর্থনৈতিকভাবে দেশ আরো সমৃদ্ধ হবে। আবুধাবিতে বাংলাদেশ দূতাবাস আয়োজিত মতবিনিময় সভায় তিনি এ কথা বলেন। সরকার প্রবাসীদের কল্যাণে নানা উদ্যোগ নিয়েছে বলেও জানান প্রধানমন্ত্রী। শেখ হাসিনা আরো বলেন, আওয়ামী লীগ সরকারের উন্নয়নের ছোঁয়া জনগণের পর্যায়ে পৌঁছেছে বলেই ৩০ ডিসেম্বর নির্বাচনে মানুষ আবারও আওয়ামী লীগকে ভোট দিয়েছে। সংযুক্ত আরব-আমিরাতে তৃতীয় দিনের রাষ্ট্রীয় সফরের শেষদিন মঙ্গলবার (১৯ ফেব্রুয়ারি) স্থানীয় সময় সন্ধ্যায় আবুধাবির সেন্ট রেজিস হোটেলে বাংলাদেশের দূতাবাস আয়োজিত মতবিনিময় সভায় যোগ দেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বাংলাদেশ ও আরব-আমিরাতের জাতীয় সংগীতের মধ্য দিয়ে সভার আনুষ্ঠানিকতা শুরু হয়। শুরুতে সেখানে বসবাসরত বাঙালি বিভিন্ন কমিউনিটির নেতারা প্রধানমন্ত্রীকে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানান। পরে প্রবাসীদের উদ্দেশ্যে বক্তব্য দেন সরকার প্রধান। বলেন, আরব আমিরাত বাংলাদেশের দীর্ঘদিনের পরীক্ষিত বন্ধু। বিশ্বের সব দেশের সঙ্গে বাংলাদেশের সু-সম্পর্ক আছে উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী টানা তৃতীয় মেয়াদে প্রথম এই দ্বিপাক্ষিক সফর সফল হয়েছে বলে জানান। প্রধানমন্ত্রী বলেন, সরকার গঠন করার পর এটা আমার প্রথম রাষ্ট্রীয় সফর, দ্বিপাক্ষিক সফর। আমার মতে, প্রথম সফর ভালভাবে সফল হয়েছে। বিশেষ করে বিনিয়োগের জন্য আমরা আলোচনা করে খুব ভাল সাড়া পেয়েছি। আওয়ামী লীগ সরকার প্রবাসীদের প্রশিক্ষণসহ বিশেষ সুবিধা তৈরি করে দিচ্ছে জানিয়ে শেখ হাসিনা বলেন, আরব আমিরাতের কারাগারে থাকা ৭'শ বাংলাদেশিকে ফিরিয়ে নিতে উদ্যোগ নিয়েছে সরকার। এসময় তিনি বিদেশে নিয়ম-কানুন মেনে চলার জন্য প্রবাসীদের আহ্বান জানান। এসময় প্রধানমন্ত্রী আরো বলেন, ৭শ বাঙালী কারাগারে সাজাপ্রাপ্ত আছে। আমরা তাদেরকে ফেরত নেবার ব্যবস্থা করছি। এছাড়া আপনারা যে দেশে যাবেন সেখানকার আইন মেনে চলবেন। শেখ হাসিনা বলেন, আওয়ামী লীগ সরকারের প্রতি জনগণের আস্থার প্রতিফলন ছিল ৩০ ডিসেম্বর নির্বাচন। যেখানে তরুণ ও নারীরা ব্যাপকভাবে আওয়ামী লীগকে ভোট দিয়েছে। এর আগে দুপুরে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাত করেন সংযুক্ত আরব-আমিরাতের শীর্ষ দুই ব্যবসায়ী লুলু গ্রুপের চেয়ারম্যান ইউসুফ আলী এবং এনএমসি গ্রুপের চেয়ারম্যান বি আর শেঠি। তারা বাংলাদেশে স্বাস্থ্য, পর্যটন, রিটেইল চেইন শপসহ বিভিন্ন খাতে বড় আকারের বিনিয়োগে আগ্রহ প্রকাশ করেন। এর মধ্যে লুলু গ্রুপ পাঁচ তারা হোটেল নির্মাণে আগ্রহ জানিয়ে বাংলাদেশে বিনিয়োগের নীতিগত সিদ্ধান্তের কথা প্রধানমন্ত্রীকে জানান। এনএমসি গ্রুপের চেয়ারম্যান বি আর শেঠি বাংলাদেশে ক্যান্সার ও হৃদরোগের জন্য বিশেষায়িত হাসপাতাল তৈরিতে আগ্রহ প্রকাশ করেন। এ সময় প্রধানমন্ত্রী বাংলাদেশে বিদেশি বিনিয়োগের নানা সুযোগ-সুবিধার কথা তুলে ধরেন।

জাতীয় পাতার আরো খবর