প্রকাশ : 2019-04-11

ভারতে লোকসভা নির্বাচনে প্রথম দফায় ভোটগ্রহণ চলছে

১১এপ্রিল,বৃহস্পতিবার,আন্তর্জাতিক ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: ভারতে আজ বৃহস্পতিবার লোকসভা নির্বাচনের প্রথম দফায় ১৮ রাজ্য ও দুটি কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলের ৯১টি আসনে ভোটগ্রহণ শুরু হয়েছে। এসব রাজ্যের মধ্যে অন্ধ্রপ্রদেশ ও তেলাঙ্গানার সবগুলো আসনে ভোট অনুষ্ঠিত হচ্ছে। প্রথম দফার এই নির্বাচনে নীতিন গাড়করি, কিরেন রিজিজু ও ভিকে সিংয়ের মতো কেন্দ্রীয় মন্ত্রীদের ভাগ্য নির্ধারিত হবে। ভারতের প্রেস ইনফরমেশন ব্যুরো জানিয়েছে, সকাল ৭টা থেকে ভোটগ্রহণ শুরু হয়েছে এবং চলবে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত। তবে উত্তরপূর্বাঞ্চলীয় রাজ্যগুলোতে বামপন্থী চরমপন্থীদের কারণে কোথাও কোথাও সকাল ৭টা থেকে বিকেল ৫টা, সকাল ৭টা থেকে বিকেল ৪টা বা সকাল ৭টা থেকে বিকেল ৩টা পর্যন্ত ভোটগ্রহণ চলতে পারে। একইসঙ্গে অন্ধ্রপ্রদেশ, সিকিম, উড়িষ্যা ও অরুণাচলে বিধানসভা নির্বাচনে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। এর মধ্যে এই তিন রাজ্যে এক দফায় বিধানসভা নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে আর উড়িষ্যায় চার দফায়। অন্ধ্রপ্রদেশে ক্ষমতাসীন বিরোধী মনোভাব, বর্ণ এবং দুর্নীতির মতো বিষয়গুলো গুরুত্বপূর্ণ ফ্যাক্টর হয়ে উঠেছে। রাজ্যের তিন কোটি ৯৩ লাখ ভোটার আজ বিধানসভার ১৭৫টি আসন ও লোকসভার ২৫টি আসনে ভোটাভুটিতে তাদের রায় দেবেন। ২০১৪ সালে রাজ্য ভাগ হওয়ার পর এটাই সেখানে প্রথম সাধারণ নির্বাচন। ভোটের ময়দানে আছেন অন্ধ্রপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী চন্দ্রবাবু নাইডু থেকে শুরু করে জগনমোহন রেড্ডিরা। দেশের সবচেয়ে বড় রাজ্য উত্তরপ্রদেশের ১০টি আসনে আজ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে। মুজফফরনগর থেকে লড়ছেন আরএলডি-র প্রধান অজিত সিং। বাঘপত কেন্দ্রে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী সত্যপাল সিংয়ের বিরুদ্ধে লড়ছেন তার ছেলে। মহারাষ্ট্রে সাতটি আসনে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে। বিহারে চারটি ও পশ্চিমবঙ্গে দুটি আসনে ভোটগ্রহণ চলছে। এরইমধ্যে সকাল থেকেই পশ্চিমবঙ্গের কোচবিহার ও আলিপুরদুয়ারে ভোটগ্রহণ শুরু হয়েছে। এদিকে অরুণাচল প্রদেশে দুটি এবং আসামে পাঁচটি আসনে লোকসভা নির্বাচন হচ্ছে। আসামে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী কিরেন রিজিজুর পাশাপাশি সাবেক মুখ্যমন্ত্রী তরুণ গগৈয়ের ছেলে গৌরব গগৈয়ের কেন্দ্রেও আজ নির্বাচন হবে। ছত্তিশড়ের বস্তার কেন্দ্রেও আজ নির্বাচন হচ্ছে। মাত্র দুদিন আগে মাওবাদীদের হামলায় এখানকার বিজেপি বিধায়কসহ কয়েকজনের মৃত্যু হয়েছে। এবারের লোকসভা নির্বাচনে প্রায় ৯০ কোটি ভোটার ভোট দেবেন। ভারতের নির্বাচন কমিশনের তথ্য অনুযায়ী, এবার ভোটারের সংখ্যা গতবারের চেয়ে প্রায় ৯ শতাংশ বেড়েছে। এবার ১৩ কোটি নতুন ভোটার নির্বাচনী প্রক্রিয়ায় অন্তর্ভুক্ত হয়েছেন। তবে ২০১৪ সালে নতুন ভোটারের সংখ্যা অনেক বেশি ছিল। ভোটারদের দুই-তৃতীয়াংশের বয়স ৩৫ বা তার থেকে কম। এবারের নির্বাচনে ডিজিটাল মিডিয়ার প্রভাব খুবই বেশি। ২০১৪ সালে দেশের ৫৪৩ টি আসনের মধ্যে ২৮২ টি তে জিতে সরকার গঠন করে বিজেপি। ওই নির্বাচনে পরাজিত হয় কংগ্রেস। জনসংখ্যার দিক থেকে দ্বিতীয় এবং আয়তনের দিক থেকে বিশ্বে সপ্তম ভারতের নির্বাচনে দুই হাজার দলের প্রায় আট হাজার প্রার্থী অংশ নিচ্ছেন। লোকসভা নির্বাচনের ভোট গণনা কেন্দ্রের সংখ্যা এবার সারাদেশে প্রায় দশ লাখেরও বেশি গণনা কেন্দ্রে ভোট নেয়া হবে। শুধু ভারতে নয় পুরো বিশ্বের হিসেবে এটা একটি রেকর্ড। মোট ১১ লাখ ইভিএমে নিজেদের মত জানাবেন ভোটাররা। এবারের নির্বাচনে ভি ভি প্যাটও থাকছে। উল্লেখ্য, লোকসভার ৫৪৩টি আসনের বিপরীতে সাত দফায় ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। প্রথম দফায় ১১ এপ্রিল, দ্বিতীয় দফায় ১৮ এপ্রিল, তৃতীয় দফায় ২৩ এপ্রিল, চতুর্থ দফায় ২৯ এপ্রিল, পঞ্চম দফায় ৬ মে, ষষ্ঠ দফায় ১২ ও সপ্তম দফায় ১৯ মে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। পরে ২৩ মে ফলাফল ঘোষণা করা হবে।

আন্তর্জাতিক পাতার আরো খবর