প্রকাশ : 2019-04-15

লাইফ সাপোর্টে শিল্পী সুবীর নন্দী

১৫এপ্রিল,সোমবার,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম: একুশে পদকে প্রাপ্ত জনপ্রিয় সঙ্গীত শিল্পী সুবীর নন্দী গুরুতর অসুস্থ। রোববার রাত ১১টার দিকে তাকে রাজধানীর সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) ভর্তি হয়েছে। বর্তমানে তাকে লাইফ সাপোর্টে রাখা হয়েছে। শিল্পীর কন্যা ফাল্গুনী নন্দী এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন। পরিবারসহ সিলেট থেকে ফিরছিলেন সুবীর নন্দী। শারীরিক অবস্থা খারাপ হয়ে গেলে তাকে ট্রেন থেকে নামিয়ে অ্যাম্বুলেন্সে করে সিএমএইচে নেয়া হয়। সুবীর নন্দীর জামাতা রাজেশ শিকদার জানান, অবস্থার অবনতি হলে চিকিৎসকরা সুবীর নন্দীকে করোনারি কেয়ার ইউনিটে (সিসিইউ) স্থানান্তর করেন। পরে অবস্থার অবনতি হলে চিকিৎসকরা সুবীর নন্দীকে করোনারি কেয়ার ইউনিটে (সিসিইউ) স্থানান্তর করেন বলে তার জামাতা রাজেশ শিকদার জানান। তিনি বলেন, বাবার অবস্থা বেশি ভালো নয়। চিকিৎসকরা তাকে নিবিড় পর্যবেক্ষণে রেখেছেন। আমরা সবার কাছে আশীর্বাদ চাই। ৬৬ বছর বয়সী সুবীর নন্দী দীর্ঘদিন ধরে কিডনির জটিলতায় ভুগছেন। নিয়মিতভাবে তার ডায়ালাইসিস করতে হচ্ছিল। জনপ্রিয় কণ্ঠশিল্পী সুবীর নন্দী দীর্ঘ ৪০ বছরের ক্যারিয়ারে গেয়েছেন আড়াই হাজারেরও বেশি গান। সঙ্গীতে অবদানের জন্য পেয়েছেন দেশের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ বেসামরিক সম্মাননা একুশে পদক। পাঁচবার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পেয়েছেন তিনি। সুবীর নন্দীর কণ্ঠে বিখ্যাত গানের মধ্যে রয়েছে- কেন ভালোবাসা হারিয়ে যায়, একটা ছিল সোনার কইন্যা, ও আমার উড়াল পঙ্খীরে,দিন যায় কথা থাকে, আমার এ দুটি চোখ পাথর তো নয়, পৃথিবীতে প্রেম বলে কিছু নেই, আশা ছিল মনে মনে, হাজার মনের কাছে প্রশ্ন রেখে, আমি বৃষ্টির কাছ থেকে কাঁদতে শিখেছি, কতো যে তোমাকে বেসেছি ভালো,।