প্রকাশ : 2019-07-17

কুমিল্লা আদালতে হত্যা,পুলিশের ব্যর্থতায় কী ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে: হাইকোর্ট

১৭জুলাই২০১৯,বুধবার,অনলাইন ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: দেশের প্রতিটি আদালতে আইনজীবী, বিচারক ও কর্মকর্তাদের নিরাপত্তায় কী কী ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে তা জানতে চেয়েছেন হাইকোর্ট। একইসঙ্গে কুমিল্লার ঘটনায় যারা নিরাপত্তার দায়িত্বে ছিল তাদের বিরুদ্ধে কি ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে তাও জানাতে রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবীকে নির্দেশ দিয়েছে আদালত। বুধবার (১৭ জুলাই) আদালত চত্ত্বরে বিচারকদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে দায়ের করা রিটের শুনানি করে বিচারপতি এফ আর এম নাজমুল আহাসান ও বিচারপতি কে এম কামরুল কাদেরের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন। আদালতে রিটের পক্ষে শুনানি করেন রিটকারী আইনজীবী ইশরাত হাসান। অন্যদিকে রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল ব্যারিস্টার এ বি এম আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ বাশার। শুনানির সময় আদালত বলেন, কুমিল্লার পর গতকাল সুপ্রিমকোর্ট বারেও ঘটনা (বিবাদী ও তার আইনজীবীর ওপর হামলা) ঘটেছে। এ অবস্থায় কোর্টে আইনজীবী, জাজ ও কর্মকর্তাদের সিকিউরিটির জন্য কী পদক্ষেপ নিলেন? তখন রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী বলেন, কুমিল্লা এবং সুপ্রিমকোর্ট বারের ২টি ঘটনাই ব্যক্তিগত। এ সময় আদালত বলেন, ব্যক্তিগত হোক, যাই হোক। কোর্টের ভেতরে ছুরি নিয়ে কিভাবে যায়? পুলিশ কি করে? অবশ্যই এটা পুলিশের দায়িত্বহীনতা। তখন রিটকারী আইনজীবী বলেন, নিরাপত্তা তো সবার জন্য। উনিও (রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী) এমন পরিস্থিতিতে পড়তে পারেন। তাই আইনজীবী, বিচারকসহ সবার নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে হবে।

জাতীয় পাতার আরো খবর