প্রকাশ : 2019-10-06

সম্রাট আটকের পর যা বললেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

০৬অক্টোবর,রবিবার,অনলাইন ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: নানা জল্পনা কল্পনার পর, সুনির্দিষ্ট অভিযোগের ভিত্তিতে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগের সভাপতি ইসমাইল চৌধুরী সম্রাট এবং তার সহযোগী আরমানকে গ্রেফতার করেছে Rab। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেছেন, সম্রাটের অপরাধের ভিত্তিতে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে। এদিকে, ক্যাসিনোবিরোধী অভিযানের পর সম্রাটকে নিয়ে কোনো পদক্ষেপ না নিলেও আজ গ্রেফতারের পরপরই তাকে বহিস্কার করে কেন্দ্রীয় যুবলীগ। সিঙ্গাপুরে প্রথমসারির জুয়াড়ি হিসেবে খ্যাত ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগের সভাপতি ইসমাইল হোসেন সম্রাট। রাজধানীর সব ক্যাসিনো চলতো তার ছত্রছায়াতেই। ক্যাসিনো বিরোধী অভিযানের পর, সম্রাট ও তার স্ত্রীর ব্যাংক হিসাব জব্দ করা হয়; দেশত্যাগে জারি করা হয় নিষেধাজ্ঞা। সবশেষ রোববার (৬ অক্টোবর) ভোর পাঁচটায় কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামের আলকরা ইউনিয়নের কুঞ্জশ্রীপুর থেকে ইসমাইল হোসেন সম্রাটকে গ্রেফতার করে Rab। তার সঙ্গে গ্রেফতার করা হয় ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সহ-সভাপতি আরমানকে। দুপুর একটার দিকে সম্রাটকে নিয়ে আসা হয় কাকরাইলে যুবলীগের অফিসে। সেখানে তাকে নিয়ে অভিযানে নামে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাবাহিনী। এদিকে, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান বলেন, সম্রাট এবং আরমানের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে। মন্ত্রী বলেন, আইনানুযায়ী ব্যবস্থা নেয়া হবে। এটা এখন তদন্ত হবে। তদন্তের পর সে অনুযায়ী ব্যবস্থা নেয়া হবে। এদিকে, ক্যাসিনোবিরোধী অভিযানের ১৭ দিনেও সম্রাটের বিরুদ্ধে কোন ব্যবস্থা না নিলেও গ্রেফতারের পরপরই তাকে বহিস্কারের ঘোষণা দেয় যুবলীগ।