রবিবার, ফেব্রুয়ারী ২৩, ২০২০
প্রকাশ : 2020-01-27

এক নজরে ৩৩ নং ফিরিঙ্গী বাজার ওয়ার্ডের উন্নয়ন চিত্র ও পরিকল্পনা

২৭জানুয়ারী,সোমবার,কমল চক্রবর্তী,বিশেষ প্রতিনিধি,চট্টগ্রাম,নিউজ একাত্তর ডট কম: চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের কোতোয়ালী থানাধীন ১ বর্গ কিলোমিটার এলাকার মোট জনসংখ্যা প্রায় এক লক্ষ ও মোট বিশ হাজার ভোটারের ৩৩ নং ফিরিঙ্গী বাজার ওয়ার্ডের উন্নয়ন চিত্র ও আগামীর পরিকল্পনা তুলে ধরা হল। সরেজমিনে ঘুরে দেখা এলাকার উন্নয়ন চিত্র ও বর্তমান সফল কাউন্সিলর আলহাজ্ব হাসান মুরাদ বিপ্লবের আগামীর উন্নয়ন পরিকল্পনা তুলে ধরা হল। বর্তমান উন্নয়ন চিত্রঃ সিটি কর্পোরেশন ও ফিরিঙ্গী বাজার ওয়ার্ড অফিস সুত্রে জানা গেছে, ৩৩ নং ফিরিঙ্গী বাজার ওয়ার্ডের বিভিন্ন প্রকল্পে মোট ১২৩ কোটি টাকার এডিবির বরাদ্ধের কাজ চলছে। তারমধ্যে উল্লেখ যোগ্য কাজ গুলোর মধ্যে কোতয়ালী মোড়ের হজরত শাহ সুন্দর মাজার সজ্জিতকরণ কাজ করেছেন। কাজ চলমান আছে আলকরন-১, ২, ৩ নং গলির ড্রেন সম্প্রসারণ ও রাস্তা প্রসস্থ করন কাজ। বাটা গলির রাস্তা পাকা করনের কাজ। ৩ কোটি টাকা ব্যায়ে ডাঃ মান্নান গলির কাঁচা রাস্তা পাকাকরনের কাজ । কবি নজরুল সড়ক পাকাকররনের কাজ। হাজী কলোনির রাস্তা পাকাকরনের কাজ। এয়াকুব নগর এর রাস্তা পাকাকরনের কাজ। শিব বাড়ি এলাকার রাস্তা মেরামত ও পাকাকরনের কাজ। কোতয়ালী থেকে মেরিনার্স রোড পর্যন্ত মিড আইল্যান্ড সজ্জিতকরণ ও সম্প্রসারণ। প্রায় ৪ কোটি টাকা ব্যায়ে কোতয়ালী থেকে মেরিনার্স ও অভয়মিত্র ঘাট পর্যন্ত রোড কারপেটিং এর কাজ। ব্রিজ ঘাট এলাকার রাস্তা পাকাকরনের কাজ । বান্ডেল খালের উপর দুটি রিটাইনিং ওয়াল নির্মাণ কাজ। ডাঃ জাকির হোসেন হোমিও কলেজের দশ তলা ভবনের মধ্যে ৬ তলা ভবন নির্মাণ কাজ। হরিজন সেবকদের জন্য অত্যাধুনিক বহুতল ভবন নির্মাণ কাজ যা ইতিমধ্যে এর ভিতিপ্রস্তর স্তাপন করা হয়েছে এবং দরপত্র চুরান্ত পর্যায়ে আছে। দ্রুত কাজ শুরু হবে। আলকরন ২নং গলির পুকুর সংস্কার ও সৌন্দর্য বর্দ্ধন। মহিলা ও পুরুষদের জন্য আলাদা ঘাট। আছে মহিলাদের পোশাক পরিবর্তনের জন্য পুকুর পাড়ে নির্দিষ্ট কক্ষ। পুকুরের চার পাশ ও রাস্তা সিসি ঢালাই করা। আলকরন সুলতান আহমেদ দেওয়ান সিটি করপরেশন উচ্চ বিদ্যালয়ের উন্নতমানের গেইট স্থাপন। দেয়ালে বঙ্গবন্ধুর ও নতুন বই উৎসবের মুর্যারল স্থাপন। কবি নজরুল রোড থেকে ডাস্টবিন সড়িয়ে ফুলের বাগান করা হয়েছে। অভয় মিত্র ঘাট এলাকায় ডাস্টবিন সড়িয়ে ফুলের বাগান করা হয়েছে। চেয়ারম্যান ঘাট এলাকায় ফুলের বাগান। মহিম দাশ রোডের উন্নয়ন ও ডাস্টবিন সড়িয়ে ফুলের বাগান করা হয়েছে। সাবিত্রী স্কুল এর পাশে থাকা ডাস্টবিন সড়িয়ে ফুলের বাগান করা হয়েছে। ৩৩ নং ওয়ার্ড অফিসের সামনের রাস্তা সজ্জিতকরণ। যাত্রী ছাউনী তৈরি করা হয়েছে। ব্রীজ ঘাট এর রাস্তা প্রসস্ত করন ও রাস্তার মাঝখানে আইল্যান্ড স্থাপন ও সজ্জিতকরণ। মানুষের বসার জন্য একটি গোল চক্কর করা হয়েছে। বংশাল রোডের পাকাকরনের কাজ ও ড্রেন সমপ্রসারন। আব্দুর রহমান দোভাশ গলির রাস্তা পাকাকরন ও ড্রেন সম্প্রসারন। সুজা কাঠঘড় থেকে টুকিটাকি পর্যন্ত রাস্তা মেরামত ও পাকাকরন। ধাউম্মা পুকুর পাড় এলাকার রাস্তা পাকাকরন ও ড্রেন সম্প্রসারন। শাহজি পাড়ার রাস্তা পাকাকরন ও ড্রেন সম্প্রসারন। ফিরিঙ্গী বাজার মসজিদ গলির রাস্তা পাকাকরন ও ড্রেন সম্প্রসারন। টেক পাড়া এলাকার রাস্তা পাকাকরন। মধ্যম নোয়াপাড়া এলাকার রাস্তা পাকাকরন। ১ম নোয়াপাড়া এলাকার রাস্তা পাকাকরন ও ড্রেন সম্প্রসারন। চুরিয়াল টুলী এলাকার রাস্তা পাকাকরন ও ড্রেন সম্প্রসারন। জে এম সেন স্কুল এলাকার রাস্তার উপর থেকে ডাস্টবিন সড়িয়ে ফুলের বাগান করা হয়েছে। চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন পরিচালিত তিন বছর মেয়াদী ম্যাটস কোর্স চালু করন। ডিপ্লোমা ইন নার্স কোর্স চালু করন। রাস্তায় ব্যপক এলইডি বাল্ব স্থাপন করা হয়েছে। প্রতিটি সড়কে এলইডি বাল্ব স্থাপন। এলাকার ময়লা আবর্জনা অপসারনে ডাস্টবিন বসানো হয়েছে। সেইসাথে ডোর টু ডোর ময়লা অপসারনের ব্যবস্থা করা হয়েছে। জলাবদ্ধতা নিরসনে ড্রেন গুলোকে সম্প্রসারণ। মাদক ও সন্ত্রাস নির্মূলে জনসচেতনতা তৈরি করতে দেয়ালে দেয়ালে সচেতনতার জন্য লেখনী। আগামীর নির্বাচন নিয়ে কথা হয় ৩৩ নং ফিরিঙ্গী বাজার ওয়ার্ডের বর্তমান কাউন্সিলর আলহাজ্ব হাসান মুরাদ বিপ্লব এর সাথে, তিনি জানান, আমি আশাবাদী এলাকায় যে সকল কাজ করেছি তাতে এলাকার জনগন আমাকে আবার কাউন্সিলর হিসাবে নির্বাচিত করবে। আমার ওয়ার্ড একটি সমৃদ্ধ ওয়ার্ড। এখানে প্রাইমারী স্কুল, হাইস্কুল, কলেজ, মসজিদ, মাদ্রাসা হোমিও কলেজ সব মিলিয়ে এটাকে একটি শিক্ষা নগরী বলা চলে। আমি মাদক ও সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স। আমি আমার ওয়ার্ডকে মাদক মুক্ত ঘোষণা করেছি। আমার চাওয়া পাওয়ার কিছু নেই। জনগনের জন্য কিছু করতে পারাটাই আমার একমাত্র চাওয়া। আমি বিগত ৫ বছরে চেষ্টা করেছি জনগণকে সর্বোত্তম সেবা দিতে। আপনারা নিশ্চয় সরেজমিনে ঘুড়ে দেখেছেন এলাকার উন্নয়ন চিত্র। আমি এই উন্নয়নের ধারাবাহিকতা বজায় রাখাতে চাই। আমি চাই এলাকার জনগন আমাকে ভালোবাসুক ও মন থেকে দোয়া করুক। জনগন চায় বলে আমি এই বারও নির্বাচন করব। অসমাপ্ত কাজ গুলো শেষ করব এবং আমার কিছু পরিকল্পনা আছে সেই গুলো বাস্তবায়নের জন্য। সেই সাথে আমাদের জানালেন আগামীর উন্নয়ন পরিকল্পনার কথা। আগামীর উন্নয়ন পরিকল্পনাঃ অসমাপ্ত কাজ গুলো অগ্রাধিকার ভিত্তিতে শেষ করা। এলাকায় একটি কারিগরি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গড়ে তোলা। যেখানে থাকবে কম্পিউটার প্রশিক্ষন, সেলাই প্রশিক্ষন, বিউটি পার্লারের কাজ, বিভিন্ন হাতের কাজের প্রশিক্ষন। এখানে এলাকার বেকার যুবক ও মহিলাদের প্রশিক্ষন দিয়ে আত্মকর্মসংস্থানের সুযোগ করে দেয়া হবে। মাদক ও সন্ত্রাস মুক্ত একটি মডেল ওয়ার্ড গঠন। গরিব ও অসহায় পরিবারের সন্তানদের শিক্ষার জন্য আর্থিক সহায়তা প্রদান।এলাকার জনগনের বিনোদনের জন্য একটি পার্ক করা। এলাকার নিরাপত্তার জন্য সড়কে ব্যাপক হারে সিসি ক্যামরা স্থাপন। প্রতিটি রাস্তা শতভাগ আলোকায়নের ব্যবস্থা করা। ডোর টু ডোর ময়লা অপসারণ শতভাগ কার্যকর করন। ফুটপাত জনগনের হাঁটার উপযোগী করা। এলাকার জনগনের বিভিন্ন সমস্যা সমাধানে ওয়ার্ড অফিসে কাউন্সিলিং বোর্ড গঠনের ব্যবস্থা করা।

নিউজ চট্টগ্রাম পাতার আরো খবর