প্রকাশ : 2020-04-05

নগরীর দেওয়ান বাজারে ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযান, ২১ হাজার দুইশত টাকা জরিমানা আদায়

0৫এপ্রিল,রবিবার,কমল চক্রবর্তী,বিশেষ প্রতিনিধি,চট্টগ্রাম,নিউজ একাত্তর ডট কম: করোনা রোধে বাধ্যতামূলক হোম কোয়ারান্টাইন নিশ্চিতকরণ, বাজার মনিটরিং ও সেনা বাহিনীকে আইনানুগ নির্দেশনা প্রদানের উদ্দেশ্যে নগরীর বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়েছে জেলা প্রশাসনের ভ্রাম্যমান আদালত।এদিকে নগরীর দেওয়ান বাজারে দ্রব্যমূল্য প্রদর্শন না করা, উচ্চ মুল্যে পন্য বিক্রি ও ক্রেতার সাথে অসধারন আচরনের জন্য এবং অপরিচ্ছন্ন পরিবেশে খাবার পরিবেশন, অপ্রয়োজনে বাইরে মোটর সাইকেল চালানো ও কাগজ পত্র প্রদর্শন না করা দায়ে কয়েকজনকে ২১ হাজার দুইশত টাকা জরিমানা করা হয়। আজ রবিবার (৫ মার্চ) সন্ধ্যা ৬ টা থেকে ৮ টা পর্যন্ত নগরীর নগরীর দেওয়ান বাজার এলাকায় ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযান চালানো হয়। চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের ম্যাজিস্ট্রেট এহসান মুরাদ নেতৃত্বে সেনাবাহিনীর সহযোগিতায় দেওয়ান বাজারে অভিযান চালানো হয়। অভিযান চলাকালে করোনা ভাইরাসজনিত প্রাদুর্ভাব প্রতিরোধের লক্ষ্যে বাধ্যতামূলক হোম কোয়ারান্টাইন নিশ্চিতকরণ ও সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত করার জন্য মাইকিং করা হয়।বাজার মনিটরিং কালে বিভিন্ন অপরাধে ৭ টি মামলায় মোট ২১ হাজার দুইশত টাকা জরিমানা আদায় করা হয়। নিউ সাতকানিয়া স্টোরকে মুল্য তালিকা প্রদর্শন না করা, উচ্চ মুল্যে পন্য বিক্রির দায়ে ২৬৯ ধারায় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইনে ৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে সেই সাথে তিন দিন বন্ধ রাখার নির্দেশ দেন । পলাশ ডিপারট্মেন্টাল স্টোরকে মুল্য তালিকা প্রদর্শন না করা, উচ্চ মুল্যে পন্য বিক্রি ও ক্রেতার সাথে দুর্ব্যবহার করার দায়ে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। দেওয়ান বাজার ব্রিজ সংলগ্ন একটি চা দোকান কে অপরিচ্ছন্ন পরিবেশে খাবার পরিবেশনের জন্য ৩ হাজার টাকা জরিমানা করা হয় সেই সাথে পরিবেশ পরিছন্ন করারা জন্য তিন দিন বন্ধ রাখার নির্দেশ প্রদান করেন। এসময় এক মাছ দোকানদারকে রাস্তা দখল করে মাছ বিক্রির দায়ে ২ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। অকারনে রাস্তায় ঘুরাফিরা, হেলমেট ব্যবহার না ও মোট সাইকেলের কাগজ পত্র দেখাতে না পারার দায়ে মো; ইমতিয়াজকে ৮৯/১ ধারায় ৫ শত টাকা , মোঃ ইয়াসিনকে ৯২/২ ধারায় ২ শত টাকা ও মোঃ রাজিউল ইসলাম কে ৯২/১ ধারায় ৫ শত টাকা জরিমানা করা হয়। তাছাড়া অকারনে গলিতে আড্ডা দেওয়ার অপরাধে ৪/৫ জন যুবককে আটক করা হয়। পরে অভিবাবকের অনুরোধে এবং সতর্ক করে ছেড়ে দেয়া হয়। সেনা বাহিনী মাইকযোগে সবাইকে সতর্ক করেন । অকারনে বাইরে বের না হওয়ার আহ্বান জানান এবং সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার অনুরোধ করেন।

নিউজ চট্টগ্রাম পাতার আরো খবর