প্রকাশ : 2020-04-08

চুপি চুপি রাতের আঁধারে কর্মহীন মানুষের মাঝে খাদ্যসামগ্রী পৌছে দিচ্ছে ভালুকা ক্লাব

0৮এপ্রিল,বুধবার,মো.মোকছেদুর রহমান মামুন,ভালুকা প্রতিনিধি,নিউজ একাত্তর ডট কম: মানুষ মানুষের জন্য, জীবন জীবনের জন্য। দেশের বৈশ্বিক মহামারি করোনা সংক্রমণ রোধে সরকার কর্তৃক লকডাওন ঘোষণা করায় বিপুল সংখ্যক মানুষ কর্মহীন হয়ে তাদের পরিবার নিয়ে অসহায় হয়ে পড়ে। সেই সব কর্মহীন অসহায় মানুষগুলোর কথা চিন্তা করে ভালুকা ক্লাবের এক ঝাক স্বেচ্ছাসেবকরা উদ্যোগ নেয় তাদের মুখে খাবার তুলে দেওয়ার। তারই পরিপ্রেক্ষিতে ভালুকা'র বিভিন্ন স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন এবং বিত্তশালী ও উদারমনা ব্যাক্তিগণের বিভিন্নধরনের সহযোগিতা নিয়ে নীরবে কাজ করে যাচ্ছে ভালুকা ক্লাবের স্বেচ্ছাসেবীগন। দুর্যোগেই মনুষ্যত্বের পরীক্ষা হয়, এই দৃষ্টিকোন থেকে সকলের সহযোগিতায় এবং ভালুকা ক্লাব এর স্বেচ্ছাসেবকদের অক্লান্ত পরিশ্রমে প্রথম পর্যায়ে ৮৫ টি অসহায় পরিবারকে ৫ কেজি চাল, ১ কেজি ডাল, ২ কেজি আলু, ১ কেজি পেঁয়াজ, ১ লিটার সয়াবিন তেল, লবণ এবং ১ টি সাবান কোন ধরনের জনসমাগম না করে রাতের আঁধারে বাড়ি বাড়ি গিয়ে পৌঁছে দেওয়া হয়। এ বিষয়ে ভালুকা ক্লাব কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করলে ভালুকা ক্লাব এর সভাপতি মোঃ সুমন খান জানান, সৃষ্টিকর্তার অশেষ রহমতে এবং ভালুকা'র বিত্তশালী ও উদারমনা ব্যাক্তিদের সহযোগিতায় আমরা প্রথম পর্যায়ে ৮৫ টি পরিবারের কাছে আগামী ১ সপ্তাহের খাদ্যসামগ্রী সহায়তা পৌঁছে দিতে পেরেছি, আমাদের দ্বিতীয় পর্যায়ের কাজ প্রায় শেষের দিকে এবং যতদিন পর্যন্ত এই দুর্যোগকালীন অবস্থা থাকবে ততদিন পর্যন্ত আমাদের এই কর্মসূচি চলমান থাকবে। আমি ভালুকা ক্লাব এর পক্ষ থেকে ব্লাড ডোনার্স সোসাইটি ভালুকা এবং অন্যান্য যারা বিভিন্ন সহযোগিতার মাধ্যমে আমাদের পাশে দাঁড়িয়েছেন সকলের প্রতি ভালুকা ক্লাব পরিবারের পক্ষ থেকে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি এবং ভবিষ্যতেও আপনাদেরকে ভালুকা ক্লাবের পাশে আশা করছি। ক্লাবের সহ"সভাপতি খোরশেদ আলম ইমন বলেন, ব্যাক্তিগত উদ্যোগে অনেকেই ত্রাণ দিচ্ছেন আপনাদের প্রতি ভালুকা ক্লাব এর পক্ষ থেকে আহবান জানাচ্ছি দয়া করে জনসমাগম করে ত্রাণ দিবেন না, আপনার ত্রাণ অসহায়দের বাড়ি বাড়ি পৌঁছে দিন,কেউ যেন বাড়ি থেকে বের না হয় সেদিকে খেয়াল রাখবেন। তাছাড়া কেউ যদি আমাদের কোন প্রকার সাহায্য সহযোগিতা বা বুদ্ধি পরামর্শ দিয়ে পাশে থাকতে ভালুকা ক্লাব ফেইসবুক পেইজে যোগাযোগ করতে আহ্বান করা হলো, করোনার বিরুদ্ধে যুদ্ধ আমরা সকলে মিলে জিতবো, ইনশাআল্লাহ। ১নং জয়েন সেক্রেটারি জালাল উদ্দিন রিয়াদ বলেন যেহেতু এটা মানুষের আমানত ও সঠিক গ্রহীতার হক অতএব আমরা যথেষ্ট সতর্কতার সাথে যাচাই-বাছাই এর মাধ্যমে সঠিক প্রাপ্য ব্যক্তির কাছে পৌঁছে দিতে আমারা বদ্ধপরিকর। এবং ক্লাবের অন্যান্য আরো কয়েক সদস্য বলেন আর্তমানবতার সেবায় নিজেকে নিয়োজিত রেখে সাধ ও সাধ্যের মধ্যে ভালুকা ক্লাব এর কার্যক্রম চলমান রয়েছে। সকলের কাছে ভালুকা ক্লাবের স্বেচ্ছাসেবীগন দোয়া ও সহযোগিতা কামনা করে।

সারা দেশ পাতার আরো খবর