জঙ্গিবাদ দমনে সফলতা ধরে রাখতে হবে: Rab ডিজি
০১,জুলাই,বুধবার,নিজস্ব প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম: দেশে জঙ্গিবাদ যথেষ্ট পরিমাণে নিয়ন্ত্রণে আছে উল্লেখ করে Rapid Action Battalion (Rab) মহা-পরিচালক (ডিজি) চৌধুরী আব্দুল্লাহ আল মামুন বলেছেন, আমরা কিন্তু আত্মতুষ্টিতে ভুগছি না। জঙ্গিবাদ দমনের যে সফলতা অর্জন করেছি, সেই সফলতা ধরে রাখতে Rab সহ আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সব ইউনিট কাজ করছে। হলি আর্টিজান বেকারিতে নৃশংস হামলার চার বছর পালনে বুধবার (০১ জুলাই) সকাল ৯টার দিকে ঘটনাস্থলে এসে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন Rab ডিজি। ২০১৬ সালের (০১ জুলাই) এ দিনে পাঁচ অস্ত্রধারী জঙ্গি রাজধানীর গুলশানে অবস্থিত হলি আর্টিজান বেকারিতে হামলা করে। সেখানে অবস্থানরত দেশি-বিদেশি ব্যক্তিদের জিম্মি করে। পরে তাদের মধ্যে ২০ জনকে নির্মমভাবে হত্যা করে জঙ্গি সদস্যরা। এদের মধ্যে তিনজন বাংলাদেশি, সাতজন জাপানি, নয়জন ইতালিয়ান এবং একজন ভারতীয় নাগরিক ছিলেন। জঙ্গি সংগঠনগুলোর সক্ষমতা কেমন? সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে Rab ডিজি বলেন, জঙ্গিবাদ একটি বৈশ্বিক সমস্যা। সারাবিশ্ব জঙ্গিবাদ মোকাবিলায় কাজ করছে। আমরাও প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা অনুযায়ী চেষ্টা চালিয়ে জঙ্গিবাদ দমন করতে সক্ষম হয়েছি। আমি মনে করি জঙ্গিবিরোধী কার্যক্রম সফলভাবে আমরা বাস্তবায়ন করতে পেরেছি এবং এই সফলতার ধারাবাহিকতা বজায় থাকবে বলে আমরা আশা করছি। Rab ডিজি বলেন, হলি আর্টিজান বেকারিতে হামলার ঘটনার আগ থেকেই Rab দেশের জঙ্গিবিরোধী বিভিন্ন অভিযান পরিচালনা করেছে। এখন পর্যন্ত আমরা দুই হাজারেরও অধিক জঙ্গি সদস্যদের গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়েছি। এ ঘটনার পর আমরা অভিযান চালিয়ে এক হাজারেরও অধিক জঙ্গি সদস্যদের গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়েছি। বর্তমান পরিস্থিতিতেও বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে জঙ্গি সদস্যদের গ্রেফতার করছে Rab। আমি মনে করি, আমরা এক ধাপ এগিয়ে আছি, জঙ্গি সংগঠনের সদস্যরা যখনই কোনো পরিকল্পনা করছে, তখনই আমরা গোয়েন্দা তথ্য পেয়ে কাজ করছি এবং তাদের আটক করতে সক্ষম হচ্ছি। বর্তমানে জঙ্গিবাদ আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। তিনি বলেন, ২০১৬ সালের এ দিনে হলি আর্টিজান বেকারিতে মর্মান্তিক ও কাপুরুষিত ঘটনা ঘটেছে। এই ঘটনায় যারা নিহত হয়েছেন তাদের প্রতি গভীর শোক প্রকাশ করছি। নিহতদের স্বজনরা যাতে এই শোক সইতে পারেন সেজন্য তাদের প্রতি সমবেদনা জানাচ্ছি। তিনি বলেন, হলি আর্টিজান হামলার ঘটনার পর থেকে Rab, পুলিশ, গোয়েন্দা সংস্থা আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সব ইউনিট একত্রিত হয়ে জঙ্গিদের বিরুদ্ধে বিভিন্ন অভিযান পরিচালনা করি। সফলতার সঙ্গে জঙ্গিদের সক্ষমতা ভেঙে দিতে আমরা সফল হয়েছি। প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা জনগণকে সঙ্গে নিয়ে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা দেশের জঙ্গি নিয়ন্ত্রণে সফলতা পেয়েছি। হলি আর্টিজান হামলার ঘটনায় নিহত ও পরিকল্পনাকারীসহ জঙ্গি সদস্যদের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। সেটি তদন্ত শেষে চার্জশিট আদালতে জমা দেওয়া হয়েছে বর্তমানে মামলাটি বিচারাধীন রয়েছে। আমরা আশা করছি, খুব দ্রুতই এর বিচার সম্পন্ন হবে আসামিরা সাজা পাবে। জঙ্গিবাদ দমনে দেশের সাধারণ মানুষ থেকে শুরু করে জনপ্রতিনিধিসহ সব পর্যায়ের মানুষ আমাদের সহযোগিতা করেছে। এজন্য সবাইকে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর পক্ষ থেকে পক্ষ থেকে আন্তরিক কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছি।
লঞ্চডুবির ঘটনায় শাস্তি নিশ্চিত করা হবে: নৌ প্রতিমন্ত্রী
০১,জুলাই,বুধবার,নিজস্ব প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম: বুড়িগঙ্গায় লঞ্চডুবির ঘটনায় তদন্ত কমিটি নির্দিষ্ট সময়ে প্রতিবেদন জমা দেবে উল্লেখ করে নৌ পরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী বলেছেন, দোষীদের আইনের আওতায় এনে শাস্তি নিশ্চিত করা হবে। বুধবার (১ জুলাই) দেশের প্রধান সমুদ্রবন্দরের কর্মীদের করোনা চিকিৎসার জন্য ৬০ শয্যার বিশেষায়িত ইউনিট ও নতুন হাসপাতাল ভবনের উদ্বোধন শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে তিনি এসব কথা জানান। নৌ প্রতিমন্ত্রী বলেন, চট্টগ্রাম বন্দরের আওতায় মাতারবাড়ী গভীর সমুদ্রবন্দর, বে টার্মিনাল, পিসিটিসহ অনেক প্রকল্প বাস্তবায়ন করা হচ্ছে। তাই বন্দরের জন্য শুধু উদ্ধারকারী জাহাজ নয়, হেলিকপ্টার কেনারও পরিকল্পনা রয়েছে। ১০ বছরে চট্টগ্রাম বন্দর বিশ্বের সেরা ১০০ কনটেইনার হ্যান্ডলিংকারী বন্দরের তালিকায় ৬৪ তম অবস্থানে এসেছে। আমরা চাই ৩০-৫০ তম অবস্থানের মধ্যে চলে আসতে। তিনি বলেন, বন্দরের সঙ্গে জড়িতদের সাহসী পদক্ষেপের কারণে করোনাকালে অপারেশন একমুহূর্তের জন্যও বন্ধ হয়নি। পৃথিবীর কোনো দেশ প্রস্তুত ছিলো না কোভিড-১৯ এর জন্য। উন্নত দেশেও স্বাস্থ্যসেবা থমকে গেছে। বাংলাদেশের মানুষের সাহসিকতা ও সরকারের সাহসী ব্যবস্থাপনা ছিলো। একটি ল্যাব দিয়ে যাত্রা শুরু হয়েছিলো আমাদের। আমরা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে এগিয়ে গেছি। বিস্ময়কর নেতৃত্বে এ সংকট মোকাবিলা করছেন দেশের মানুষ। কোভিড-১৯ আমাদের অর্থনীতিতে যে ধাক্কা দিয়েছে তা কাটিয়ে এগিয়ে যেতে চেষ্টা চলছে। খালিদ মাহমুদ চৌধুরী বলেন, চট্টগ্রাম বন্দর বাংলাদেশের লাইফ লাইন। চট্টগ্রামের মানুষের প্রতি আমাদের দায়বদ্ধতা আছে। কোভিড-১৯ চিকিৎসায়ও সামাজিক দায়বদ্ধতা থেকে চট্টগ্রামবাসীর পাশে থাকবে বন্দর। নির্দেশনা মেনে চলবে বন্দর কর্তৃপক্ষ:
রাত ১০টা থেকে ৭ ঘণ্টা বাসস্থানের বাইরে যাওয়া নিষেধ
৩০জুন,মঙ্গলবার,নিজস্ব প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম: করোনা ভাইরাসের সংক্রমণে সীমিত চলাচলের নতুন নির্দেশনায় বাসস্থানের বাইরে থাকার সময় বেড়েছে তিন ঘণ্টা। মঙ্গলবার (৩০ জুন) মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের নতুন নির্দেশনায় বলা হয়েছে, রাত ১০টা থেকে সকাল ৫টা পর্যন্ত অতীব জরুরি প্রয়োজন ব্যতীত (প্রয়োজনীয় ক্রয়-বিক্রয়, কর্মস্থলে যাতায়াত, ওষুধ ক্রয়, চিকিৎসাসেবা, মরদেহ দাফন/সৎকার ইত্যাদি) বাসস্থানের বাইরে আসা যাবে না। বাসস্থানের বাইরে মাস্ক পরিধান করা, পারস্পরিক দূরত্ব বজায় রাখা ও অন্যান্য স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলা নিশ্চিত করতে হবে। অন্যথায় আইন অমান্যকারীদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে। করোনা সংক্রমণ রোধে ২৬ মার্চ থেকে ৩০ মে পর্যন্ত টানা ছুটি শেষে ৩১ মে থেকে ১৫ জুন পর্যন্ত চলাচল সীমিত করে অফিস-আদালত এবং গণপরিবহন ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়া হয়। সেই মেয়াদ পরে ৩০ জুন পর্যন্ত বাড়ানো হয়। আগের নির্দেশনায় রাত ৮টা থেকে সকাল ৬টা পর্যন্ত বাড়ির বাইরে আসা নিষেধ ছিল।
স্বাস্থ্যমন্ত্রীকে সরিয়ে দেওয়ার প্রস্তাব সংসদে
৩০জুন,মঙ্গলবার,নিজস্ব প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম: স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক স্বপনকে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় থেকে সরিয়ে অন্য কোথাও দায়িত্ব দেওয়ার ব্যাপারে প্রস্তাব এসেছে জাতীয় সংসদে। বিরোধী দল জাতীয় পার্টির সংসদ সদস্য পীর ফজলুর রহমান এ প্রস্তাব দিয়েছেন। মঙ্গলবার (৩০ জুন) জাতীয় সংসদে ২০২০-২১ অর্থবছরের বাজেটের ওপর স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের ছাঁটাই প্রস্তাব বিষয়ে আলোচনায় অংশ নিয়ে এ প্রস্তাব করেন পীর ফজলুর রহমান। স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরী এ সময় অধিবেশনের সভাপতিত্ব করেন। দেশের স্বাস্থ্য খাতের ভঙ্গুর চিত্র তুলে ধরে পীর ফজলুর রহমান বলেন, দেশের স্বাস্থ্য খাত দুরাবস্থার মধ্যে পড়ে আছে। আমাদের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় নাকি মিনা কার্টুনের টিয়া পাখির দ্বারা চলছে। আমি গ্রামে গ্রামে ঘুরি। সেইসব গ্রামের মানুষ আমাকে বলেছেন যে, আপনি তো সংসদে কথা বলতে পারেন। আপনি প্র্রধানমন্ত্রীকে বলেন, স্বাস্থ্যমন্ত্রীকে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় থেকে সরিয়ে অন্য কোনো মন্ত্রণালয়ে দিতে। স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব সাবেক কৃষিমন্ত্রী বেগম মতিয়া চৌধুরীকে দেওয়ার কথা বলেন। আমি প্রধানমন্ত্রীকে মানুষের এই কথাটি জানালাম। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এসময় সংসদের অধিবেশনে উপস্থিত ছিলেন। এদিন স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের ছাঁটাই প্রস্তাবের ওপর আলোচনাকালে করোনা পরিস্থিতিতে উঠে আসা দেশের স্বাস্থ্য খাতের দুরাবস্থা নিয়ে বিরোধী দলের সংসদ সদস্যরা ব্যাপক ক্ষোভ প্রকাশ করেন।
অনলাইন শিক্ষণে শিশুদের প্রবেশাধিকার নিশ্চিতের আহ্বান
৩০জুন,মঙ্গলবার,নিজস্ব প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম: করোনা ভাইরাস (কোভিড-১৯) মহামারিকালে অনলাইন ও দূর-শিক্ষণে শিশুদের সার্বজনীন প্রবেশাধিকার নিশ্চিতের আহ্বান জানিয়েছেন জাতিসংঘের শিশু বিষয়ক সংস্থার (ইউনিসেফ) নির্বাহী বোর্ডের সভাপতি রাবাব ফাতিমা। তিনি বলেছেন, ডিজিটাল প্ল্যাটফর্ম ও ইন্টারনেট সংযোগের ঘাটতি থাকায় উন্নয়নশীল দেশগুলোর অধিকাংশ শিশুদের দূর-শিক্ষণ গ্রহণ একটি চ্যালেঞ্জ হয়ে দাঁড়িয়েছে। এসব দেশে মাত্র ৩০ শতাংশ শিশুর এ সুযোগ রয়েছে। তাই এই মুহূর্তে অনলাইন ও দূর-শিক্ষণে প্রবেশাধিকারের বিষয়টি হওয়া উচিৎ বৈশ্বিকভাবে সর্বোচ্চ প্রাধিকারভুক্ত বিষয়। সোমবার (২৯ জুন) বোর্ডের বার্ষিক অধিবেশনের ভার্চ্যুয়াল উদ্বোধনী পর্বে তিনি এসব কথা বলেন। মঙ্গলবার (৩০ জুন) জাতিসংঘের স্থায়ী মিশন থেকে পাঠানো এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়। ইউনিসেফ নির্বাহী বোর্ডের প্রথম ভার্চ্যুয়াল আনুষ্ঠানিক অধিবেশনের আয়োজন করা হয়। উদ্বোধনী বক্তব্যে নিবেদিত ও সাহসী প্রচেষ্টার মাধ্যমে কোভিড-১৯ সঙ্কট মোকাবিলায় বিশ্বশিশুদের পাশে দাঁড়ানোর জন্য বিশ্বে দায়িত্বরত ইউনিসেফের কর্মীবাহিনীকেও ধন্যবাদ জানান রাবাব ফাতিমা। বৈশ্বিক এই মহামারি মোকাবিলা ও উত্তরণে ইউনিসেফ গৃহীত কর্মসূচি যাতে সদস্য দেশগুলোর সরকার গৃহীত কর্মসূচিসমূহকে সমর্থন যোগাতে পারে এবং তা যেন সরকারি পদক্ষেপসমূহের পরিপূরক হয় সে আহ্বান জানান ইউনিসেফ নির্বাহী বোর্ডের সভাপতি। তিনি বলেন, সদস্য দেশসমূহে ইউনিসেফের নিয়মিত ও অবশ্য পালনীয় যেসব কর্মসূচি রয়েছে, তা যেন কোনোভাবেই কোভিড-১৯ সংক্রান্ত ইউনিসেফের কর্মসূচিসমূহের পরিপূরক না হয়। বৈশ্বিক এই মহামারিতে বিশ্বের বিভিন্ন দেশ বিশেষ করে নিম্ন আয়ের, স্বল্পোন্নত ও আফ্রিকার দেশসমূহ যে ভয়াবহ বাস্তবতা মোকাবিলা করছে তা তুলে ধরেন রাষ্ট্রদূত ফাতিমা। তিনি বলেন, এমনকি সাধারণ হাত ধোয়ার মতো বিষয়টিও অনেক শিশুর জন্য চ্যালেঞ্জ হয়ে দাঁড়িয়েছে, কেননা পানি, পয়:নিষ্কাশন ও স্বাস্থ্য অবকাঠামোতে প্রবেশের সুযোগ থেকে এই শিশুরা বঞ্চিত। এছাড়া বৈশ্বিক মহামারির প্রেক্ষাপটে ইউনিসেফের টিকাদান কর্মসূচি স্থগিত বা হ্রাস হওয়ার ফলে কলেরা, পোলিও এবং হামের মতো প্রতিরোধযোগ্য রোগের প্রাদুর্ভাব ঘটার ব্যাপক ঝুঁকি রয়েছে মর্মে উল্লেখ করেন রাষ্ট্রদূত ফাতিমা। কোভিড-১৯ মহামারিকে জাতিসংঘ ব্যবস্থাপনার জন্য একটি লিটমাস টেস্ট হিসেবে উল্লেখ করেন ইউনিসেফ নির্বাহী বোর্ডের সভাপতি। কোভিড-১৯ মোকাবিলা ও উত্তরণে ইউনিসেফ গৃহীত কর্মসূচিসমূহ যাতে জাতিসংঘের অন্যান্য সংস্থাগুলো গৃহীত কর্মসূচির সঙ্গে সামঞ্জস্যপূর্ণ হয় সে বিষয়ে বিশেষ গুরুত্বারোপ করেন তিনি। এক্ষেত্রে ইউনিসেফকে কৌশলগত নির্দেশনা প্রদান এবং বৈশ্বিকভাবে সমর্থন জোগাতে সব ধরনের সহায়তা করতে নির্বাহী বোর্ড সদাপ্রস্তুত রয়েছে বলে পুনরুল্লেখ করেন রাষ্ট্রদূত ফাতিমা। সংস্থাটির মূল কাজগুলোকে সমুন্নত রাখতে ইউনিসেফের প্রতি উদার ও অব্যাহত সহযোগিতার হাত নিয়ে এগিয়ে আসতে সবাইকে উৎসাহিত করেন তিনি। উদ্বোধনী অধিবেশনে অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন ইউনিসেফের নির্বাহী পরিচালক মিস হেনরিয়েটা এইচ ফোর। তিনি ইউনিসেফের কর্মসূচিসমূহ বিস্তারিতভাবে তুলে ধরেন এবং ইউনিসেফ যেসব চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা করছে তাও উল্লেখ করেন। এরপর জাতিসংঘে নিযুক্ত সদস্য দেশসমূহের স্থায়ী প্রতিনিধিসহ অন্যান্য প্রতিনিধিরা স্ব-স্ব দেশের পক্ষে বক্তব্য দেন।
সৌদি আরবে নতুন রাষ্ট্রদূত জাবেদ পাটোয়ারী
২৯জুন,সোমবার,নিজস্ব প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম: সৌদি আরবে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত হিসেবে পুলিশের সদ্য সাবেক মহাপরিদর্শক (আইজিপি) ড. মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারীকে নিয়োগের সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। আজ সোমবার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে পাঠানো এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়। জাবেদ পাটোয়ারী সৌদি রাষ্ট্রদূত গোলাম মসীহের স্থলাভিষিক্ত হবেন। এর আগে ২০১৮ সালের ২৫ জানুয়ারি আইজিপি নিয়োগ পেয়েছিলেন জাবেদ পাটোয়ারী। পরে তাকে সিনিয়র সচিবের পদমর্যাদাও দেয় সরকার। জাবেদ পাটোয়ারী কর্মজীবনে অতিরিক্ত আইজিপি হিসেবে পুলিশ সদরদপ্তর, সিআইডি ছাড়াও রাজশাহী ও খুলনার পুলিশ কমিশনারসহ বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পদে আসীন ছিলেন। চাঁদপুরে জন্ম নেওয়া জাবেদ পাটোয়ারী পুলিশ ট্রেনিং সেন্টার ও পুলিশ স্টাফ কলেজের কমান্ড্যান্ট ও পরিচালকের দায়িত্বও পালন করেছেন।
এটি দুর্ঘটনা নয়, হত্যাকাণ্ড: নৌ প্রতিমন্ত্রী
২৯জুন,সোমবার,নিজস্ব প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম: ক্যামেরার ফুটেজ দেখে মনে হয়েছে এটি দুর্ঘটনা নয়, এটি একটি হত্যাকাণ্ড। এক্ষেত্রে লঞ্চ মালিকদের গাফিলতি আছে কিনা তা খতিয়ে দেখা হবে। সোমবার (২৯ জুন) সদরঘাটে যাত্রীবাহী লঞ্চ দুর্ঘটনার স্থান এবং উদ্ধার কার্যক্রম পরিদর্শনকালে একথা বলেন নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী। মন্ত্রণালয়ের সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে প্রতিমন্ত্রীকে উদ্ধৃত করে বলা হয়, বিআইডব্লিউটিএর নৌ দুর্যোগ তহবিল থেকে লঞ্চ দুর্ঘটনায় মৃত প্রত্যেকের পরিবারকে দেড় লাখ টাকা করে দেওয়া হবে। তাৎক্ষণিকভাবে দাফনের জন্য বিআইডব্লিউটিএর পক্ষ থেকে ১০ হাজার করে টাকা এবং ঢাকা জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ২০ হাজার করে টাকা দেওয়া হয়েছে। এসময় মন্ত্রণালয়ের সচিব মোহাম্মদ মেজবাহ উদ্দিন চৌধুরী, বিআইডব্লিউটিএর চেয়ারম্যান কমডোর গোলাম সাদেক এবং নৌপুলিশের ডিআইজি মো. আতিকুর রহমান উপস্থিত ছিলেন।
ভূমিমন্ত্রী ও সংশ্লিষ্ট সবাইকে প্রধানমন্ত্রীর অভিনন্দন
২৯জুন,সোমবার,নিজস্ব প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম: দেশব্যাপী ই-মিউটেশন বাস্তবায়নের স্বীকৃতি স্বরূপ ভূমি মন্ত্রণালয় জাতিসংঘের মর্যাদাপূর্ণ ইউনাইটেড নেশনস পাবলিক সার্ভিস অ্যাওয়ার্ড-২০২০ অর্জন করায় ভূমিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী জাবেদ এবং ভূমি মন্ত্রণালয় ও এর আওতাধীন দপ্তর/সংস্থায় কর্মরতসহ ই-মিউটেশন কার্যক্রম সংশ্লিষ্ট সবাইকে অভিনন্দন ও ধন্যবাদ জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সোমবার (২৯ জুন) জাতীয় সংসদে প্রস্তাবিত ২০২০-২১ অর্থবছরের বাজেটের ওপর সাধারণ আলোচনায় অংশ নিয়ে বক্তব্য দেওয়ার সময় তিনি এ অভিনন্দন জানান। প্রধানমন্ত্রী বলেন, ২০১৯ সালের জুলাই থেকে দেশব্যাপী নামজারির প্রচলিত পদ্ধতির পরিবর্তে ই-নামজারি বাস্তবায়ন করা হচ্ছে, ফলে জনগণ ডিজিটাল পদ্ধতিতে ঘরে বসে নামজারি করতে পারছে। এ কাজের স্বীকৃতি হিসেবে বাংলাদেশ প্রথমবারের মতো জাতিসংঘের সর্বোচ্চ মর্যাদা 'ইউনাইটেড ন্যাশনস পাবলিক সার্ভিস অ্যাওয়ার্ড-২০২০' অর্জন করেছে। আমি আশা করি, সব মন্ত্রণালয় এটা অনুসরণ করবে। চলতি মাসের ৫ জুন জাতিসংঘের অর্থনৈতিক ও সামাজিক বিষয়ক বিভাগের (ডেসা) আন্ডার সেক্রেটারি-জেনারেল লিউ ঝেনমিন জাতিসংঘে নিযুক্ত বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি রাষ্ট্রদূত রাবাব ফাতিমাকে একটি চিঠির মাধ্যমে আনুষ্ঠানিকভাবে ভূমি মন্ত্রণালয়কে দেওয়া এ পুরস্কারের কথা জানান। এরপর ১৬ জুন জাতিসংঘ আনুষ্ঠানিকভাবে বিজয়ী ৭টি দেশের ৭টি প্রতিষ্ঠান কিংবা উদ্যোগের নাম ঘোষণা করে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কর্তৃক রূপকল্প ২০২১ ও ২০৪১ বাস্তবায়নে এবং প্রধানমন্ত্রীর তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিষয়ক উপদেষ্টা সজীব আহমেদ ওয়াজেদের স্বপ্ন ডিজিটাল বাংলাদেশ গঠনে ভূমি মন্ত্রণালয় ভূমিসেবা ডিজিটাল সেবায় রূপান্তর সম্পন্ন করছে। ই-মিউটেশন এরই একটি গুরুত্বপূর্ণ অংশ। ইউনাইটেড নেশনস পাবলিক সার্ভিস অ্যাওয়ার্ড-২০২০ প্রাপ্তি প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে সবার সম্মিলিত অর্জন। ভূমিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরীর নেতৃত্বে এবং ভূমিসচিব মো. মাক্ছুদুর রহমান পাটওয়ারীর তত্ত্বাবধানে ২০১৯ সালের জুলাই থেকে তিন পার্বত্য জেলা ব্যতিত সারাদেশে ই-মিউটেশন কার্যক্রম বাস্তবায়িত হচ্ছে। এ কাজে কারিগরি সহায়তা করছে আইসিটি বিভাগের এটুআই প্রকল্প। ভূমি সংস্কার বোর্ডের ব্যবস্থাপনায় সহকারী কমিশনারদের (ভূমি) মাধ্যমে ই-নামজারি বাস্তবায়ন করা হচ্ছে।