নারীরা আগামীতে অনলাইন ব্যবসায়ও নেতৃত্ব দেবেন: ডিসি ইলিয়াস
১৫ডিসেম্বর,রবিবার,মো:ইরফান চৌধুরী,চট্টগ্রাম,নিউজ একাত্তর ডট কম: চট্টগ্রামের নারীরা অনলাইন ব্যবসায় আগামীর নেতৃত্ব দিবে। অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি চট্টগ্রাম জেলার জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ ইলিয়াস হোসেন সম্প্রতি চিটাগাং উইম্যান চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রি এর সহযোগিতায় এবং এর উদ্যোগে আয়োজিত Online Entrepreneur Trade Fair 2019 এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এ কথা বলেন। পলোগ্রাউন্ডস্থ ১৩ তম আন্তর্জাতিক মহিলা এসএমই বাণিজ্য মেলা বাংলাদেশ ২০১৯ প্রাঙ্গণে চিটাগাং উইম্যান চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাষ্ট্রি এর সিনিয়র ভাইস-প্রেসিডেন্ট ও ১৩ তম আন্তর্জাতিক মহিলা এসএমই বাণিজ্য মেলা বাংলাদেশ ২০১৯ এর চেয়ারপার্সন ডা. মুনাল মাহবুব এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিশিষ্ট সংগীত শিল্পী শুভ্র দেব, চিটাগাং উইম্যান চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাষ্ট্রি এর প্রেসিডেন্ট ইনচার্জ ও সিনিয়র ভাইস-প্রেসিডেন্ট আবিদা মোস্তাফা, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও সমাজসেবী সিরাজুল ইসলাম কমু এবং দ্যা রিপাবলিক অব তুর্কি এর বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও আউডিইএম টেকনোলজির প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান Nejmettin UNAL. প্রথমেই স্বাগত বক্তব্য রাখেন,Bangladesh Online Entrepreneurs Association এর প্রেসিডেন্ট ও চিটাগাং উইম্যান চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রি এর পরিচালক মোস্তারি মোর্শেদ স্মৃতি । প্রধান অতিথি তার বক্তব্যে বলেন আমরা এখন ডিজিটাল বাংলাদেশ এর দিকে এগোচ্ছি। বর্তমানে নারী উদ্যোক্তারা অনলাইন ব্যবসার মাধ্যমে স্বাবলম্বী হয়ে উঠছে। আগামী দিনে এর পরিধি দেশের সীমা ছাড়িয়ে যাবে। বিশেষ অতিথির বাক্তব্যে আবিদা মোস্তফা বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী নারীর ক্ষমতায়নকে অনেক উপরে নিয়ে গেছেন এবং নারীকে বাদ দিয়ে দেশের সামগিক উন্নয়ন সম্ভব নয় বলেও মনে করেন তিনি। এছাড়াও বিশেষ অতিথি সিরাজুল ইসলাম বলেন, নারীদের জন্য যদি নিজেদের সিদ্ধান্ত নিজেরা নেওয়ার মত সক্ষমতা অর্জনের পরিস্থিতি তৈরি করা যায় তবে দেশের অগ্রযাত্রা কেউ রুখতে পারবেনা। অনুষ্ঠানের সভাপতি ডা. মুনাল মাহবুব বলেন, আমরা অনলাইনভিত্তিক নারী উদ্যোক্তাদের সহযোগিতা করছি যেন তারা তাদের গ্রাহকদের সাথে সরাসরি যোগসূত্র তৈরি করতে পারে। অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন চিটাগাং উইম্যান চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রি এর অন্যান্য পরিচালক, সদস্যসহ Bangladesh Online Entrepreneurs Association এর অন্যান্য সদস্যবৃন্দ। আগামী ১৬ ডিসেম্বর ২০১৯ পর্যন্ত ১৩ তম আন্তর্জাতিক মহিলা এসএমই বাণিজ্য মেলা বাংলাদেশ ২০১৯ এর এক্সিবিশন হলে চলবে এই Online Entrepreneur Trade Fair 2019.
চট্টগ্রামে প্রস্তুত চাহিদার শতভাগ বই, উৎসবের অপেক্ষায়
১৪ডিসেম্বর,শনিবার,স্টাফ রির্পোটার,চট্টগ্রাম,নিউজ একাত্তর ডট কম: নতুন বছরের প্রথম দিন উৎসবমুখর পরিবেশে অনুষ্ঠিত হবে বই উৎসব। আর উৎসবকে সামনে রেখে বন্দর নগরী চট্টগ্রামে ইতোমধ্যে মাধ্যমিক পর্যায়ের শতভাগ নতুন বই চলে এসেছে। এছাড়া প্রাথমিক পর্যায়ে এসেছে ৯৩ শতাংশ বই। চাহিদা অনুযায়ী মাধ্যমিক পর্যায়ের সকল বই থানা ও উপজেলার সকল বিদ্যালয়ে পৌঁছে গেলেও প্রাথমিকের বই বণ্টন এখনও শুরু হয়নি বলে জানিয়েছেন শিক্ষা কর্মকর্তারা। বছরের প্রথম দিন স্কুলে স্কুলে পালন করা হয় বই উৎসব। নতুন বইয়ের আশায় উদগ্রীব হয়ে আছে ক্ষুদে শিক্ষার্থীরা। এবার অনেক আগেই চলে এসেছে প্রাথমিক পর্যায়ের বেশিরভাগ বই। প্রাথমিকে চট্টগ্রামে মোট বইয়ের চাহিদা রয়েছে ৪৮ লক্ষ ১৪ হাজার বইয়ের। ইতোমধ্যে ৯৩ শতাংশ চলে এসেছে বলে জানিয়েছেন চট্টগ্রাম প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো. শহীদুল ইসলাম। তিনি বলেন, চট্টগ্রামের ২০টি উপজেলায় মোট ৪৮ লাখের মতো বইয়ের চাহিদা আছে। তারমধ্যে আমরা ৯৩ শতাংশ বই আমরা পেয়ে গেছে। বাকি বইগুলো আমরা এক সপ্তাহের মধ্যে পেয়ে যাবো এবং উপজেলা পর্যায়ে চলে যাবে। অন্যদিকে, মাধ্যমিক, ইবতেদায়ী ও দাখিল পর্যায়ে চাহিদা রয়েছে ১ কোটি ৫৩ লক্ষ ৮৭ হাজার বইয়ের। প্রাথমিকে বই পুরোপুরি না আসলেও, মাধ্যমিক পর্যায়ে চলে এসেছে শতভাগ বই। চট্টগ্রাম জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা মো. জসীম উদ্দীন বলেন, আমাদের উপজেলা পর্যায়ে বই পৌঁছে গেছে। এ মাসেই প্রতিষ্ঠান পর্যায়ে বই বিতরণ শেষ করবো। বছরের প্রথম দিন উৎসবের মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের হাতে বই পৌঁছবে। আর মাধ্যমিক পর্যায়ের সকল বই থানা ও উপজেলা পর্যায়ের বিদ্যালয়ে বণ্টন করে দেয়া হয়েছে। অন্যদিকে, অল্প কয়েকদিনের মধ্যে প্রাথমিকেরও সব বই বিদ্যালয়গুলোতে বণ্টন করে দেয়া হবে বলে জানিয়েছেন থানা শিক্ষা কর্মকর্তারা। ডা. খাস্তগীর সরকারী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা শাহেদা আকতার বলেন, ষষ্ঠ থেকে নবম শ্রেণী পর্যন্ত চাহিদা অনুযায়ী আমরা প্রত্যেক বিষয়ের বই পেয়ে গেছি। চট্টগ্রাম থানা শিক্ষা কর্মকর্তা (মাধ্যমিক) জিয়াউল হুদা বলেন, মুজিববর্ষের শুরুতেই আমরা সাড়ম্বরে এবং উৎসবমুখরভাবে বিদ্যালয়গুলোতে বই বিতরণ করতে পারবো। জেলার ৪ হাজার ৩৮৮টি বিদ্যালয়ে প্রাথমিকের ১০ লাখ ১৮ হাজার ২২০ জন শিক্ষার্থী ও মাধ্যমিক পর্যায়ে ২ হাজার ৬৬টি বিদ্যালয়ের ১১ লক্ষ ৮৭ হাজার ৭৪৩ জন শিক্ষার্থীকে বই বিতরণ করা হবে।
চট্টগ্রাম নিয়ে শেখ হাসিনার ভিশন বাস্তবায়নে কাজ করতে হবে: এম. এ সালাম
১৪ডিসেম্বর,শনিবার,প্রেস বিজ্ঞপ্তি,নিউজ একাত্তর ডট কম: চট্টগ্রাম উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের নব নির্বাচিত সভাপতি জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এমএ সালামের সাথে মিরসরাই উপজেলা আলীগ নেতৃবৃন্দের মতবিনিময়সভা ১১ ডিসেম্বর বুধবার বেলা ১২টায় জেলা পরিষদ মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হয়। উপজেলা আলীগের সভাপতি জাহাঙ্গীর কবির চৌধুরীর সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক একে এম জাহাঙ্গীর ভূঁইয়ার পরিচালনায় সভায় বক্তব্য রাখেন, মীরসরাই উপজেলা চেয়ারম্যান জসিম উদ্দিন, উপজেলা আলীগ নেতা মিহির কান্তি নাথ, কালু কুমার দে, উত্তম কুমার শর্মা, এস.এম আবুল হোসেন, উপজেলা কৃষকলীগ নেতা খন্দকার শফি, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা এরাদুল হক নিজামী, উপজেলা যুবলীগ নেতা ইউপি চেয়ারম্যান কামরুল হায়দার চৌধুরী, উপজেলা আলীগ নেতা সাইফুল্লাহ দিদার, ইসমাইল নিজামী সবুজ, মাইনুর ইসলাম রানা,ইউনিয়ন আলীগ নেতা মো. মাহফুজ, মো. শাহারিয়ার, উত্তর জেলা ছাত্রলীগ নেতা সোহরাওয়ার্দ্দী নিজামী নোওফেল প্রমূখ। সভায় বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা দেশের প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্বে রয়েছেন বলেই বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে মন্তব্য করেন এমএ সালাম। তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ উন্নত দেশের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে। প্রধানমন্ত্রী শেখা হাসিনা চট্টগ্রামকে নিয়ে যে ভিশন দেখছেন, তা বাস্তবায়নে সবাইকে কাজ করতে হবে।- প্রেস বিজ্ঞপ্তি
সিটিজি ব্লাড ব্যাংকের ৭ম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী
১৪ডিসেম্বর,শনিবার,প্রেস বিজ্ঞপ্তি,নিউজ একাত্তর ডট কম: সিটিজি ব্লাড ব্যাংক এর সপ্তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেছেন, যারা রক্ত দেয় তারা কখনো জঙ্গী এবং মাদকে যুক্ত হতে পারে না। রক্তের ফেরীওয়ালারা অপরাধে জড়াতে পারে না। চট্টগ্রামে সাত বছর আগে অনলাইনে গড়ে উঠা স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন সিটিজি ব্লাড ব্যাংক এর সপ্তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী অনুষ্ঠানে বক্তারা এসব কথা বলেন। গতকাল শুক্রবার বিকালে চট্টগ্রাম জেলা আইনজীবী সমিতি মিলনায়তনে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। এতে দেশের বিভিন্ন এলাকা থেকে প্রায় তিনশ স্বেচ্ছাসেবী প্রতিনিধি যোগ দেয়। অনুষ্ঠানে অতিথি ছিলেন চট্টগ্রাম বিভাগের স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের পরিচালক ডা. হাসান শাহরিয়ার কবির, চট্টগ্রাম সাংবাদিক ইউনিয়নের সহ-সভাপতি মোহাম্মদ আলী, সাংবাদিক আলমগীর সবুজ, ফকির আব্দুল মান্নান, শওকত হোসেন। সিটিজি ব্লাড ব্যাংকের অ্যাডমিন মোহাম্মদ মোরশেদুল আলমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে সমাজ ও স্বেচ্চাসেবী কর্মকাণ্ডে অবদানের জন্য চমেক হাসপাতালের হেমাটোলজি বিভাগের অধ্যাপক ও থ্যালাসেমিয়া প্রিভেনশন ক্যাম্পেইন বাংলাদেশের চিফ সাইন্টিফিক এডভাইজর ডা. শাহেদ আহমদ চৌধুরী, সিএমপির উপকমিশনার বিজয় বসাক, চমেকের সমাজসেবা কর্মকর্তা অভিজিৎ সাহা, কোতোয়ালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোহাম্মদ মহসিন এবং পাঁচলাইশ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আবুল কাশেম ভূঁইয়াকে সম্মাননা প্রদান করা হয়।- প্রেস বিজ্ঞপ্তি
চট্টগ্রাম-৮ আসনের উপ-নির্বাচনে মনোনয়ন জমা দিয়েছেন ছয়জন
১২ডিসেম্বর,বৃহস্পতিবার,স্টাফ রির্পোটার,চট্টগ্রাম,নিউজ একাত্তর ডট কম: বোয়ালখালী, চান্দগাঁও, পাঁচলাইশ, বায়েজিদ আংশিক এলাকা নিয়ে গঠিত চট্টগ্রাম-৮ আসনের উপ-নির্বাচনে ছয়জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। বৃহস্পতিবার মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার শেষ দিনে চট্টগ্রাম আঞ্চলিক নির্বাচন অফিসে রিটানিং কর্মকর্তা কাছে আওয়ামী লীগের প্রার্থী মোছলেম উদ্দিন আহমদ , জাতীয় পার্টির প্রার্থী জিয়া উদ্দিন আহমদ বাবলু মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। এর আগে গতকাল বুধবার মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন বিএনপি প্রার্থী মোহাম্মদ আবু সুফিয়ান। এছাড়াও বাংলাদেশ ন্যাশনালিস্ট ফ্রন্টের এস এম আবুল কালাম আজাদ, ন্যাশের বাপন দাশ গুপ্ত , ইসলামিক ফ্রন্ট বাংলাদেশের সৈয়দ মোহাম্মদ ফরদি উদ্দিন মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। আগামী ১৫ ডিসেম্বর যাচাই-বাছাই শেষে ২২ ডিসেম্বর পর্যন্ত মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের সুযোগ থাকবে। আর ইভিএমে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে ১৩ জানুয়ারি। এ আসনে ১৮৯টি কেন্দ্রে মোট ভোটার চার লাখ ৭৫ হাজার ৯৮৮ জন।
রোহিঙ্গাদের এনআইডি: সোয়া কোটি টাকার দুর্নীতির অভিযোগে চট্টগ্রামে ২ মামলা
১১ডিসেম্বর,বুধবার,চট্টগ্রাম প্রতিনিধি,নিউজ একাত্তর ডট কম: জালিয়াতির মাধ্যমে রোহিঙ্গাদের ভোটার তালিকায় নাম অন্তর্ভুক্ত করে জ্ঞাত আয়বহির্ভূত সম্পদ অর্জন ও অর্থ পাচারের অভিযোগে চট্টগ্রামের ডবলমুরিং থানা নির্বাচন কার্যালয়ের অফিস সহায়ক জয়নাল আবেদীনসহ আটজনের বিরুদ্ধে আলাদা মামলা করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। বুধবার চট্টগ্রামের ১ নম্বর ও ২ নম্বর সমন্বিত জেলা কার্যালয়ে মামলা দুটি দায়ের করা হয় হয় বলে ২ নম্বর সমন্বিত জেলা কার্যালয়ের উপ-সহকারী পরিচালক শরীফ উদ্দিন জানিয়েছেন। এর মধ্যে দুদকের ২ নম্বর চট্টগ্রাম সমন্বিত জেলা কার্যালয়ের ৬৯ লাখ সাত হাজার ৪৪২ টাকার জ্ঞাত আয়বহির্ভূত সম্পদ অর্জনের মামলায় শুধু জয়নালকে আসামি করা হয়েছে, যার বাদী শরীফ নিজে। অপরদিকে মোট ৬৭ লাখ ৮৩ হাজার ২৯৬ টাকা পাচারের অভিযোগে দুদকের ১ নম্বর চট্টগ্রাম সমন্বিত জেলা কার্যালয়ে উপ-সহকারী পরিচালক জাফর সাদে শিবলীর করা মামলায় জয়নালসহ সবাইকে আসামি করা হয়েছে। অপর আসামিরা হলেন- জয়নালের স্ত্রী আনিছুন নাহার, জাফর, ঢাকায় এনআইডি প্রকল্পের ডাটা এন্ট্রি অপারেটর সত্য সুন্দর দে, জয়নালের সহযোগী সীমা দাশ, তার ভাই বিজয় দাশ, চট্টগ্রাম জেলা নির্বাচন অফিসের অস্থায়ী অফিস সহায়ক ঋষিকেশ দাশ, বান্দরবান সদর উপজেলার ডাটা এন্ট্রি অপারেটর নিরুপম কান্তি নাথ। অর্থ পাচারের মামলার নথি অনুযায়ী, পরস্পর যোগসাজসে ইসলামী ব্যাংক চশবাজার শাখায় ৩৪ লাখ তিন হাজার ১৫২ টাকা, আল আরাফা ইসলামী ব্যাংক আনোয়ারা শাখায় ২৮ লাখ ২০ হাজার ১৪৪ টাকা, প্রাইম ব্যাংক বাঁশখালী এক লাখ ১০ হাজার এবং এসএ পরিবহনের মাধ্যমে তিন লাখ ৫০ হাজার টাকাসহ মোট ৬৭ লাখ ৮৩ হাজার ২৯৬ টাকা হস্তান্তর, স্থানান্তর বাড়ি নির্মাণে ব্যয়ের ঘটনায় আট আসামির বিরুদ্ধে মানি লন্ডারিং প্রতিরোধ আইনের ২০১২ এর ৪(২) ও দণ্ডবিধির ১০৯ এবং দুর্নীতি প্রতিরোধ আইনের ৫(২) ধারায় মামলা হয়েছে। অন্যদিকে জ্ঞাত আয়বহির্ভূত ৬৯ লাখ সাত হাজার ৪৪২ টাকার সম্পদ নিজের ভোগ দখলে রাখার ঘটনায় জয়নালের বিরুদ্ধে দুর্নীতি কমিশন আইন, ২০০৪ এর ২৭(১) ধারায় মামলা হয়েছে। গত অগাস্টে এক রোহিঙ্গা নারী ভুয়া জাতীয় পরিচয়পত্র (এনআইডি) নিয়ে চট্টগ্রামে পাসপোর্ট সংগ্রহ করতে গিয়ে ধরা পড়ার পর জালিয়াত চক্রের খোঁজে নামে নির্বাচন কমিশন। আটকে দেয় রোহিঙ্গা সন্দেহে অর্ধশত এনআইডি বিতরণ। এনআইডি জালিয়াতিতে সম্পৃক্ততার অভিযোগে গত ১৬ সেপ্টেম্বর চট্টগ্রাম নির্বাচন কার্যালয়ের অফিস সহায়ক জয়নাল, দুই সহযোগী সীমা ও বিজয়কে আটক ও একটি ল্যাপটপ জব্দ করে পুলিশে দেন ইসি কর্মকর্তারা। এ ঘটনায় চট্টগ্রামের কোতোয়ালী থানায় করা মামলার তদন্ত করছে নগর পুলিশের কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিট। ইতোমধ্যে কাউন্টার টেরোরিজম নির্বাচন অফিসের চারজন স্থায়ী ও প্রকল্পের অধীনে কর্মরত সাতজনসহ মোট ১৩ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এদিকে নির্বাচন কর্মকর্তাদের অর্থিক দুর্নীতির তদন্তে নেমেছে দুদক। চট্টগ্রামের বেশ কয়েকজন নির্বাচনী কর্মকর্তার সম্পদের তথ্য চেয়ে চিঠিও দিয়েছে।
নীতি নৈতিকতা সম্পন্ন নয় এমন কাজই দুর্নীতি: বিভাগীয় কমিশনার
০৯ডিসেম্বর,সোমবার,স্টাফ রির্পোটার,চট্টগ্রাম,নিউজ একাত্তর ডট কম: বিভাগীয় কমিশনার আবদুল মান্নান বলেছেন, নীতি নৈতিকতাসম্পন্ন নয় এমন কাজই দুর্নীতি। কাজে ফাঁকি দেওয়া, কর্মক্ষেত্রে উপস্থিত না হওয়াও দুর্নীতি। দুর্নীতি একটি রোগ। এ রোগবালাই থেকে দেশকে রক্ষা করতে ও দেশকে দুর্নীতিমুক্ত করতে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে। বিভাগীয় কমিশনার আজ নগরীর শিল্পকলা একাডেমিতে শিক্ষার্থী সততা সংঘের সমাবেশ ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে আমরা দুর্নীতির বিরুদ্ধে একতাবদ্ধ প্রতিপাদ্যে আন্তর্জাতিক দুর্নীতি বিরোধী দিবস উপলক্ষে আয়োজিত মানববন্ধন ও আলোচনা সভায় এ আহ্বান জানান। এর আগে সকালে পতাকা উত্তোলনের মধ্যদিয়ে শুরু হয় দিনের কার্যক্রম। পরে বেলুন ও পায়রা উড়িয়ে কর্মসূচির উদ্বোধন করেন বিভাগীয় কমিশনার। মানববন্ধনে চট্টগ্রাম বিভাগের সরকারি দপ্তরের কর্মকর্তা কর্মচারীগণ অংশ নেন। আলোচনা সভায় চট্টগ্রাম বিভাগীয় কার্যালয়ের পরিচালক মো.মাহমুদ হাসান এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রেঞ্জ ডিআইজি মো. আবুল ফজল, অতিরিক্ত কমিশনার মোসা. আমেনা বেগম, জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ ইলিয়াছ হোসেন, পুলিশ সুপার নুরে আলম মীনা, চট্টগ্রাম মহানগর দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির সভাপতি মনোয়ারা হাকিম আলী প্রমুখ। বিভাগীয় কমিশনার বলেন, সরকার দুর্নীতি প্রতিরোধে কঠোর অবস্থানে রয়েছে। শুধু সরকার নয় আমরা যে যেখানে আছি এই ব্যাধির বিরুদ্ধে অবস্থান নিতে হবে। এর সাথে জনগণের মাঝে সচেতনতা তৈরি করাও জরুরি। ২০০৩ সালে সারা বিশ্বকে দুর্নীতির বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ করার লক্ষ্যে জাতিসংঘ ৯ ডিসেম্বরকে আন্তর্জাতিক দুর্নীতি বিরোধী দিবস হিসেবে ঘোষনা করে। পরে ২০০৭ সাল থেকে বিশ্বজুড়ে দিবসটি পালন শুরু করে। বাংলাদেশে ২০১৭ সাল থেকে সরকারিভাবে দিবসটি পালন করা হচ্ছে।
রোটারি সাগরিকার গভর্নর ক্লাব ভিজিট
০৯ডিসেম্বর,সোমবার,মো:ইরফান চৌধুরী,চট্টগ্রাম,নিউজ একাত্তর ডট কম: রোটারী ক্লাব অব চিটাগাং সাগরিকার গভর্নর ভিজিট ২০১৯-২০ সম্প্রতি নগরীর একটি রেস্টুরেন্টে সম্পন্ন হয়। তিনটি পর্বে অনুষ্ঠিত এই ভিজিটে প্রথম পর্বে ক্লোজডোর মিটিং সম্মানিত জেলা গভর্নর লে, কর্ণেল অধ্যক্ষ এম আতাউর রহমান পীর (অব.), অত্র ক্লাবের দায়িত্বপ্রাপ্ত এসিস্ট্যান্ট গভর্নর পিপি সাইফুদ্দিন আহমেদ, ক্লাব সভাপতি রোটারিয়ান ফয়জুল কবির চৌধুরী, সেক্রেটারী রোটারিয়ান আরিফ আহমেদের মধ্যে অনুষ্ঠিত হয়। জেলা গভর্নর ক্লাবের বিভিন্ন প্রশাসনিক ও সেবামূলক কার্যক্রমের বিষয়ে আলোচনা ও প্রয়োজনীয় পরামর্শ প্রদান করেন। জেলা গভর্ণরের অনুরোধে এসিস্ট্যান্ট গভর্নর পিপি অধ্যাপক মঈন উদ্দিন আহমদ কিছু সময়ের জন্য আলোচনায় উপস্হিত ছিলেন। দ্বিতীয় পর্বে ক্লাব এসেম্বলী ও তৃত্বীয় পর্বে নিয়মিত সভা ক্লাব সভাপতির সভাপতিত্বে ও রোটারী প্রত্যয়ের মাধ্যমে শুরু হয়। এতে প্রধান অতিথি জেলা গভর্নর সারাবিশ্বে রোটারীর অতীত, বর্তমান ও ভবিষ্যৎ কার্য্ক্রমের উপর আলোচনা করেন ও অত্র ক্লাবের কার্যক্রমের ভূয়সী প্রশংসা করেন এবং মানবতার সেবায় আগামীতে রোটারী ফাউন্ডেশনে আরো অবদান রাখবে বলে প্রত্যাশা করেন। এতে আরো বক্তব্য রাখেন দায়িত্বপ্রাপ্ত এসিস্ট্যান্ট গভর্ণর, ডিস্ট্রিক্ট সচিব পিপি নিরেশ চন্দ্র দাশ, ডিস্ট্রক্ট ফাষ্ট লেডি ফিরোজা রহমান, লে, গভর্নর পিপি মাহফুজুল হক, এসিস্ট্যান্ট গভর্ণর কামাল ভূইয়া, পিপি রেজাউল করিম, পিপি মুনিরুজ্জামান, পিপি এফ আর চৌধুরী পারভেজ, পিপি আজিজুল হক, পিপি নুর মোহাম্মদ, পিপি ছৈয়দ মোঃ তারিক, পিপি মঈন উদ্দিন আহমদ। এতে আরো উপস্হিত ছিলেন ডেপুটি গভর্নর নান্টু, পিপি সাইফুল্লাহ, নির্বাচিত সভাপতি রাশেদুল আমিন, ক্লাব সেক্রেটারী, কাওসার হায়াত, মোশাররফ হুসাইন, শরীফ তসলিম, আজিজুল ইসলাম, কামরুল হাসান, সম্পদ বড়ুঁয়া, রোকসানা ফারুক, ডা. নন্দন কুমার, ডা. তরুণ তপন, সাব্বির আহমেদ, শরীফুল ইসলাম, সারওয়াত জাহান, ইমতিয়াজ হোসাইন, নাসরিন নাহার, অধ্যক্ষ মনোয়ার জাহান, উৎপল বড়ুঁয়া, আজিজুল কাদের প্রমুখ।
কাতালগঞ্জ আবাসিক কল্যাণ সমিতির বর্ষপূর্তি অনুষ্ঠান
০৯ডিসেম্বর,সোমবার,প্রেস বিজ্ঞপ্তি,নিউজ একাত্তর ডট কম: গত শনিবার দুপুরে কিশালয় কমিউনিটি সেন্টারে কাতালগঞ্জ আবাসিক এলাকা কল্যাণ সমিতির ১৪ তম বর্ষপূর্তি অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের প্যানেল মেয়র, কাউন্সিলর চৌধুরী হাসান মাহমুদ হাসনী। সমিতির সভাপতি সৈয়দ খুরশিদ আলমের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন চসিক কাউন্সিলর সাইয়েদ গোলাম হায়দার মিন্টু, সংরক্ষিত ওয়ার্ড কাউন্সিলর আঞ্জুমান আরা বেগম, কাতালগঞ্জ আবাসিক এলাকা কল্যাণ সমিতির সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব জসিম উদ্দিন, মোরশেদুল আলম কাদেরী, নুরুল আলম সওদাগর, প্রকাশনা কমিটির আহ;ায়ক মো. নাসিমুল আহসান চৌধুরী জুয়েল। অনুষ্ঠানে সমিতির সহ-সভাপতি মো. হারুণ অর রশিদ ডিউক, আলহাজ্ব মো. সেলিম রেজা চৌধুরী, উপদেষ্টা মন্ডলীর সদস্যদের মধ্যে আলহাজ্ব আক্তার আহমদ চৌধুরী, মো. সালাউদ্দিন জাহেদ চৌধুরী, কোষাধ্যক্ষ এইচ এম সামশুল ইসলাম চৌধুরী, সাংগঠনিক সম্পাদক সেলিম পারভেজ ববি, সমাজকল্যাণ সম্পাদক মো. মঈনুল ইসলাম, আইন বিষয়ক সম্পাদক এ এস এম সাজ্জাদ হোসেন চৌধুরী, মহিলা সম্পাদিকা রিসালা রহমানসহ স্থানীয় গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ ও সমিতির সদস্যবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। বর্ষপূর্তি অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে চসিক প্যানেল মেয়র চৌধুরী হাসান মাহমুদ হাসনী বলেন, এলাকার সামাজিক উন্নয়ন কর্মকান্ড, শান্তিশৃংখলা প্রতিষ্ঠা, পরিবেশ সংরক্ষণ, যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নতি সাধন, শিক্ষা ব্যবস্থার প্রসার ঘটিয়ে একটি আদর্শ আবাসিক এলাকা হিসেবে গড়ে তোলার যে প্রচেষ্ঠা কাতালগঞ্জ এলাকা কল্যাণ সমিতি চালিয়ে যাচ্ছে তা সত্যিই প্রশংসার দাবীদার। তিনি বলেন, ছাত্র সমাজ ও যুব সমাজকে মাদক, সাইবার অপরাধ, অপসংস্কৃতি নৈতিক থেকে সুরক্ষা দিতে সামাজিক বন্ধন আরো জোরদার করা জরুরি। মূল্যবোধ ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় সুনাগরিক তৈরিতে সামাজিক সংগঠনগুলি রাখতে পারে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা। জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা বিনির্মানে দেশকে নিরক্ষরতা মুক্ত, সন্ত্রাস ও মাদকমুক্ত দেশ গঠনে নতুন প্রজন্মসহ সকলকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান তিনি।-প্রেস বিজ্ঞপ্তি

নিউজ চট্টগ্রাম পাতার আরো খবর