ফেরি থেকে নামতে গিয়ে হুড়োহুড়িতে নিহত ৬, আহত অর্ধশতাধিক
১২,মে,বুধবার,মুন্সিগঞ্জ প্রতিনিধি,নিউজ একাত্তর ডট কম: মুন্সিগঞ্জের শিমুলিয়া ঘাট থেকে যাত্রী নিয়ে মাদারীপুরের বাংলাবাজার ঘাটে নামার সময় হুড়োহুড়িতে ৬ জন মারা গেছেন। এ ঘটনায় অসুস্থ হয়েছেন প্রায় অর্ধশতাধিক। বুধবার (১২ মে) দুপুরে শাহ পরান ও এনায়েতপুরী নামের দুটি ফেরিতে এ দুর্ঘটনা ঘটে। এ সময় এনায়েতপুরীতে ৫ জন আর শাহ পরানে ১ জন মারা যান। শিবচর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মিরাজ হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, বুধবার (১২ মে) বেলা ১১টার দিকে ৩ নম্বর ফেরিঘাটে শাহ পরান নামের রোরো ফেরিটি ভিড়লে নামার সময় যাত্রীদের চাপে আনছার মাদবর নামের এক কিশোর যাত্রীদের চাপে অসুস্থ হয়ে ফেরির পন্টুনেই মারা যায়। তার বাড়ি শরীয়তপুরের নড়িয়া উপজেলার কালিকাপ্রসাদ গ্রামে। এদিকে এনায়েতপুরী ফেরিতে বুধবার (১২ মে) দুপুর দেড়টার দিকে বাংলাবাজারের উদ্দেশে ছেড়ে যায়। ফেরি ছাড়ার সময় পন্টুনে কিছু যাত্রী দাঁড়ানো ছিল। পন্টুন ওঠানোর সময় এটি খাড়া হয়ে গেলে তারা অন্য যাত্রীদের মধ্যে পড়ে যান। এ সময় হুড়োহুড়ি তারা মারা যান বলে ধারণা করা হচ্ছে। পরে ফেরিটি বাংলাবাজারে পৌঁছালে ৫ জনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়। তিনি আরও জানান, প্রাথমিকভাবে এই ৫ জনের নাম-পরিচয় নিশ্চিত হওয়া যায়নি।
বঙ্গবন্ধু সেতুতে ২৪ ঘণ্টায় ৪২ হাজার যানবাহন পারাপার
১১,মে,মঙ্গলবার,টাঙ্গাইল প্রতিনিধি,নিউজ একাত্তর ডট কম: ঈদের দিন যতই ঘনিয়ে আসছে, ততই ঢাকা-টাঙ্গাইল-বঙ্গবন্ধু সেতু মহাসড়কে যানবাহন ও ঘরমুখো মানুষের চাপ বাড়ছে। সোমবার (১০ মে) ভোর ৬টা থেকে মঙ্গলবার (১১ মে) ভোর ৬টা পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় বঙ্গবন্ধু সেতু দিয়ে ৪১ হাজার ৬২৫টি যানবাহন পারাপার হয়েছে। এ সময়ে টোল আদায় করা হয়েছে ২ কোটি ৫৬ লাখ টাকা। সেতু কর্তৃপক্ষের এক কর্মকর্তা নাম না প্রকাশ করার শর্তে এ তথ্য জানান। তিনি জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় যত সংখ্যক যানবাহন পারাপার হয়েছে, তার মধ্যে ব্যক্তিগত গাড়ির সংখ্যা বেশি। স্বাভাবিক সময়ে একদিনে ১১/১২ হাজার যানবাহন চলাচল করে এই সেতু দিয়ে। বতর্মানে প্রায় চারগুণ যানবাহন পারাপার হচ্ছে। মঙ্গলবার (১১ মে) সকালে ঢাকা-টাঙ্গাইল-বঙ্গবন্ধু সেতু মহাসড়কের টাঙ্গাইল সদর উপজেলার ঘারিন্দা থেকে বঙ্গবন্ধু সেতু পর্যন্ত ২৫ কিলোমিটার সড়কে সরেজমিন গিয়ে দেখা যায়, সড়কে দূরপাল্লার বাস নেই। তবে চাপ রয়েছে ট্রাক, মাইক্রোবাস, পিকআপ, প্রাইভেটকার ও মোটরসাইকেলের। এ সব যানবাহনে গাদাগাদি করে মানুষ যাচ্ছে। সকাল থেকে সড়কে উত্তরবঙ্গমুখী যানবাহনের চাপ বেড়েছে। বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে সড়কে যানবাহনও বৃদ্ধি পাচ্ছে। ট্রাক, পিকআপ, মাইক্রোবাস, মুরগির খাচার ওপর বসে ও ব্যক্তিগত গাড়িতে গাদাগাদি করে ঈদ উপলক্ষে বাড়িতে ফিরছে মানুষ। দুর্ঘটনা ও করোনা সংক্রমণের ঝুঁকি নিয়েই ফিরছে তারা। এলেঙ্গা হাইওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ইনচার্জ) ইয়াসির আরাফাত জানান, যাত্রীবাহী দূরপাল্লার বাস না চললেও ট্রাকসহ অন্যান্য যানবাহনের চাপ রয়েছে।
ফেরিতে উঠতে গিয়ে যাত্রীবাহী মাইক্রোবাস নদীতে
১১,মে,মঙ্গলবার,রাজবাড়ী প্রতিনিধি,নিউজ একাত্তর ডট কম: রাজবাড়ী গোয়ালন্দা উপজেলায় ঝড়ের কবলে পড়ে দৌলতদিয়ার ৫ নম্বর ফেরি ঘাটের পন্টুনের তার ছিঁড়ে একটি মাইক্রোবাস নদীতে পড়ে যায়। মঙ্গলবার (১১ মে) বেলা সাড়ে ১১টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। ওই মাইক্রোবাসটিতে কতজন যাত্রী ছিল তা এখনো নিশ্চিত হওয়া যায়নি। এ বিষয়ে গোয়ালন্দ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. আজিজুল হক খান মামুন জানান, ঝড়ের কারণে দৌলতদিয়া ৫ নম্বর ফেরি ঘাটের পন্টুনের তার ছিঁড়ে একটি মাইক্রোবাস নদীতে পড়ে যায়। গাড়িটিতে কতজন যাত্রী ছিল তা এখনো নিশ্চিত হতে পারেননি। তিনি আরও বলেন, সংবাদ পাওয়ার পর থেকেই তিনি ঘটনাস্থলে আছেন। ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা উদ্ধার তৎপরতা শুরু করেছেন।
মেট্রোরেলের দ্বিতীয় চালান পৌঁছেছে মোংলা বন্দরে
০৯,মে,রবিবার,খুলনা প্রতিনিধি,নিউজ একাত্তর ডট কম: মোংলা বন্দরে পৌঁছেছে মেট্রোরেলের দ্বিতীয় চালানের আরও ৬ বগি। আজ রোববার (৯ মে) দুপুরে জাপানের কোবে বন্দর থেকে ছেড়ে আসা বেলিজ পতাকাবাহী জাহাজ- এমভি ওশান গ্রেস মোংলা বন্দরের জেটিতে ভিড়ে। বিকেলে এসব কোচ বন্দর জেটি থেকে খালাস শুরু হবে বলে জানিয়েছে মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষ। এর আগে ২১ এপ্রিল (বুধবার) সকালে জাপানের কোবে সমুদ্রবন্দর থেকে দ্বিতীয় চালানের ৬টি বগি নিয়ে বাংলাদেশে রওনা দিয়েছিল- এমভি ওশান গ্রেস। এই নিয়ে মোংলা বন্দরে মেট্রোরেলের দুটি চালান পৌঁছালো। বিদেশি জাহাজটির স্থানীয় শিপিং এজেন্ট এনসিয়েন্ট ষ্টিমশিপ কোম্পানি লিমিটেডের মহাব্যবস্থাপক মো. ওহিদুজ্জামান বলেন, ৬টি বগি নিয়ে- এমভি ওশান গ্রেস নামে বেলিজ পতাকাবাহী জাহাজটি মোংলা বন্দরে এসে পৌঁছায়। আমরা যত দ্রুত সম্ভব খালাস শুরু করব। মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান রিয়ার এ্যাডমিরাল মোহাম্মদ মুসা বলেন, পর্যায়ক্রমে ২০২২ সালের মধ্যে ২৪টি জাহাজে করে মেট্রোরেলের আরও ১৪৪টি বগি এ সমুদ্র বন্দর দিয়ে খালাস হবে বলে জানান তিনি।
কুশিয়ারায় ধরা পড়া এক বাঘাইড়ের ওজন সাড়ে ৪ মণ
০৮,মে,শনিবার,নিউজ ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: সাড়ে ৪ মণ ওজনের একটি বাঘাইড় মাছ ধরা পড়েছে সিলেটের কুশিয়ারা নদীতে। শুক্রবার (৭ মে) রাতে সিলেটের ফেঞ্চুগঞ্জে কুশিয়ারা নদীতে জেলেদের মাছ ধরার জালে ধরা পড়ে মাছটি। শনিবার (৮ মে) সকাল ১০টার দিকে সিলেট নগরীর বন্দরবাজার এলাকার লালবাজারে বিক্রির জন্য তোলা হয় মাছটি। বাজারে দেখা যায়, বাঘার মাছটির খবর শুনে উৎসুক মানুষ ভিড় করেছেন। অনেকে মোবাইল ফোনে ছবি তুলতে থাকেন মাছটির। মৎস্য ব্যবসায়ী বেলাল জানান, শুক্রবার রাতে ফেঞ্চুগঞ্জের কুশিয়ারা নদীতে জেলেদের জালে ধরা পড়ে মাছটি। শনিবার সকালে বিক্রির জন্য সিলেটের কাজীরবাজার মাছের আড়তে তোলা হয়। পরে সেখান থেকে লালবাজারে নেয়া হয় মাছটি। তিনি আরও বলেন, মাছটির ওজন সাড়ে ৪ মণ। এর দাম চাওয়া হয়েছে ৪ লাখ টাকা। পুরো মাছটি কেনার মতো ক্রেতা না থাকায় দুপুর ২টায় কেটে কেজি দরে বিক্রি করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। প্রতি কেজি দুই থেকে আড়াই হাজার টাকা দরে বিক্রি করা হবে বলেও জানান ওই ব্যবসায়ী।
নেত্রকোনায় শিক্ষার্থীদের ঈদ উপহার দিলেন রিকশা চালক তারা মিয়া
০৮,মে,শনিবার,নেত্রকোনা প্রতিনিধি,নিউজ একাত্তর ডট কম: জেলার দুর্গাপুরে মানবতার ফেরিওয়ালা নামে খ্যাত রিকশা চালক তারা মিয়া ঈদুল ফিতর উপলক্ষে মাদরাসার শিক্ষার্থীদের ঈদ উপহার দিয়েছেন। শুক্রবার (৭ মে) দুপুরে দুর্গাপুর ইউনিয়নের পশ্চিম চকলেংগুরা বাইতুল নুর জামে মাদরাসার শিক্ষার্থীদের মাঝে এই ঈদ সামগ্রীগুলো বিতরণ করা হয়। এ সময় উপস্থিত ছিলেন স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের মেম্বার হয়রত আলী, সুসং সরকারি কলেজের কর্মচারী মো. আব্দুল রাজ্জাক, পথ পাঠাগার সভাপতি নাজমুল হুদা সারোয়ার সহ স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ। উল্লেখ্য, তারা মিয়া গত ৭ বছর যাবত রিকশা চালানোর উপার্জিত টাকা থেকে বিভিন্ন বিদ্যালয় ও মাদরাসার শিক্ষার্থীদের মাঝে শিক্ষাসামগ্রীসহ নানা উপহার বিতরণ করে আসছেন। এছাড়াও তিনি মাঝে মাঝে গরীব অসহায়দের বিভিন্ন ভাবে সহযোগিতা করে থাকেন।
দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌরুটে যাত্রীদের উপচে পড়া ভিড়
০৬,মে,বৃহস্পতিবার,রাজবাড়ী প্রতিনিধি,নিউজ একাত্তর ডট কম: দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌরুটজুড়ে ছোট গাড়ী ও যাত্রীদের উপচে পড়া ভিড়। সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার কোনও তোয়াক্কা করছে না কেউ। গাদাগাদি করে গন্তব্যস্থানে পৌঁছানোর চেষ্টা করছে যাত্রীরা। এসময় ঘাটে ছোট গাড়ীর চাপও বৃদ্ধি পেয়েছে। দৌলতদিয়া ফেরি ঘাট এলাকায় গিয়ে দেখা যায়, দীর্ঘবিরতির পর শুরু হয়েছে স্থানীয় যাত্রীবাহী পরিবহনগুলোর চলাচল। ঘরমুখি হচ্ছে সাধারণ মানুষ। স্থানীয় গণপরিবহন থাকলেও ছোট গাড়ীর চাপ বেশি রয়েছে। এসময় ভাড়ায় চলাচল করছে প্রাইভেটকার, মাইক্রোবাস, অটো এবং মোটরসাইকেল। এদিকে লঞ্চ চলাচল বন্ধ থাকায় ঘরমুখি যাত্রীরা নদী পার হচ্ছেন ফেরিতেই। বিআইডব্লিউটিসি দৌলতদিয়া ঘাট শাখা সূত্রে জানা যায়, দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌরুটে দিনে ৬টি ইউটিলিটি (ছোট) ফেরি চলাচল করে। রাতে চলাচল করে ছোট বড় ১৫টি ফেরি। এরইমাঝে গত ২৪ ঘণ্টায় ১১ শত পণ্যবাহী ট্রাক ও ১৫ শত ছোট গাড়ী নদী পার হয়েছে বলেও জানায় দৌলতদিয়া ঘাট কর্তৃপক্ষ।
মানবতার ফেরিওয়ালা যুবলীগ নেতা বায়েজীদ
০৫,মে,বুধবার,লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি,নিউজ একাত্তর ডট কম: করোনাভাইরাস শুরু থেকে মানুষের পাশে দাঁড়িয়ে সকাল থেকে মাঝরাত পর্যন্ত কাজ করে যাচ্ছেন লক্ষ্মীপুর জেলা যুবলীগের সাবেক যুগ্ন-আহবায়ক বায়েজীদ ভূঁইয়া। প্রতিদিন নতুন নতুন উদ্যোগ আর সাহায্য সহযোগিতায় তাকে পাশে পাচ্ছেন জেলাবাসী। এসব উদ্যোগের কারণে বায়েজীদ ভূঁইয়া স্থানীয়দের কাছে- মানবতার ফেরিওয়ালা হিসেবে পরিচিত হয়ে উঠেছেন। কেউ কেউ আবার তাকে 'মানবিক নেতা' বলেও ডাকেন। গেল বছরে করোনার শুরু থেকে এ পর্যন্ত লক্ষ্মীপুর জেলায় শনাক্ত হয়েছে ২ হাজার ৮৪৫ জন। মৃত্যু হয়েছে ৫১ জনের। ফলে শুরু থেকে বেড়েছে ঝুঁকি। করোনার দ্বিতীয় ঢেউ মোকাবিলায় গত মাসের (৫ এপ্রিল) লকডাউন করা হয়েছে লক্ষ্মীপুর জেলা। এর আগে ২০২০ সালে করোনার শুরু থেকে কয়েক বার লকডাউন হয় এ জেলা। এমন পরিস্থিতিতে নিম্ন আয়ের লোকজনের চরম দুর্দিন যাচ্ছে। কষ্টে আছেন মধ্যবিত্তরাও। তাদের কথা চিন্তা করে বায়েজীদ ভূঁইয়া ব্যতিক্রমী উদ্যোগ গ্রহণ করেন। সে তার উপজেলায় সকাল থেকে মধ্যরাত পর্যন্ত গরীব, অসহায় ও দুস্থ মানুষের বাড়িতে বাড়িতে গিয়ে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ কার্যক্রম অব্যাহত রেখেছেন। খাদ্য সামগ্রীর মাঝে ছিল চাল, ডাল, তেল, আলু ও পেঁয়াজ। এদিকে রমজানের শুরু থেকে মানুষের মাঝে ইফতার সামগ্রী বিতরণ অব্যাহত রেখেছে। এছাড়া তার ইউনিয়নে মাইকিং ও মাস্ক, হ্যান্ড গ্লাভস এবং হ্যান্ড স্যানিটাইজার বিতরণ করছেন। সুরক্ষা পোশাকসহ ভিন্ন উপকরণ দিয়ে চিকিৎসকদের সহায়তা করেছেন তিনি। করোনা শুরু থেকে তিনি বিভিন্ন স্থানে নিজ হাতে জীবাণুনাশক স্প্রেও করেন। একই সময় তিনি সদর উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নে বিতরণ করেন প্রায় ৭ হাজার ব্যাগ খাদ্য সামগ্রী। সম্প্রতি তিনি রোজা রেখে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও কেন্দ্রীয় যুবলীগ নেতাকর্মীদের নির্দেশে অসহায় কৃষদের ধান কেটে মাড়াই করে বাড়িতে পৌঁছে দেওয়াসহ কৃষকদেরকে খাদ্যসামগ্রী দিয়েছেন। সদর উপজেলার রায়পুর কেরোয়া ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি মো. আকবর ও সাধারণ সম্পাদক হুমায়ুন কবির নিউজ একাত্তরকে বলেন, করোনার শুরু থেকে খাদ্য সহায়তা ও ১ম রমজান থেকে ৩০ রমজান পর্যন্ত ইফতার সামগ্রী বিতরণ কার্যক্রম চলমান রেখেছেন বায়েজীদ। তিনি নিজেই উপস্থিত থেকে নিজ হাতে মানুষের মধ্যে এ সব সামগ্রী বিতরণ করেন। জানতে চাইলে যুবলীগ নেতা বায়েজীদ ভূঁইয়া নিউজ একাত্তরকে বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে যুবলীগের চেয়ারম্যান শেখ শামস পরশ ও সাধারণ সম্পাদক মাইনুল হোসেন খান নিখিলের আহ্বানে অসহায় মানুষগুলোর পাশে দাঁড়ানো আমার কর্তব্য। করোনাযুদ্ধের এই ক্রান্তিলগ্নে খাদ্যসামগ্রী না পেলে অসহায় মানুষগুলো খাদ্য সংকটে থাকতো। এই কারণে আমার নিজস্ব তহবিল থেকে আমি এসব সাহায্য সহযোগীতা করে যাচ্ছি। এসব কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে।
হিলি স্থলবন্দরে আমদানি-রপ্তানি শুরু
০২,মে,রবিবার,দিনাজপুর প্রতিনিধি,নিউজ একাত্তর ডট কম: মে দিবস উপলক্ষে একদিন বন্ধের পর দিনাজপুরের হিলি স্থলবন্দরের আবারও আমদানি-রপ্তানিসহ সকল কার্যক্রম চালু হয়েছে। রোববার (২ মে) সকালে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন হিলি স্থলবন্দরের আমদানি-রপ্তানিকারক গ্রুপের সভাপতি হারুন উর রশিদ হারুন। সভাপতি জানান, গতকাল শনিবার মে দিবস উপলক্ষে হিলি বন্দরে ভারত থেকে সকল প্রকার আমদানি-রপ্তানি বন্ধ ছিলো। একদিন বন্ধের পর ভারত থেকে পণ্য আমদানি শুরু হয়েছে। সভাপতি আরও জানান, আজ সকাল থেকে বন্দরে সব কার্যক্রম স্বাভাবিক হয়েছে। ভারতীয় ট্রাকের পণ্য আনলোড করে দেশি ট্রাকগুলো লোড হয়ে দেশের বিভিন্ন স্থানে ছেড়ে যেতে শুরু করেছে।

সারা দেশ পাতার আরো খবর