মঙ্গলবার, মে ১৮, ২০২১
Rab এর অভিযানে অস্ত্র, গুলি ও গাঁজাসহ আটক ৪
২১,জানুয়ারী,বৃহস্পতিবার,জয়পুরহাট প্রতিনিধি,নিউজ একাত্তর ডট কম: জয়পুরহাটে পৃথক অভিযান চালিয়ে অস্ত্র, গুলি ও বিপুল পরিমাণ গাঁজাসহ ৪ জনকে আটক করেছে Rab। বুধবার (২০ জানুয়ারি) রাতে জেলার দুটি স্থানে পৃথক অভিযান চালিযে এসব উদ্ধার করে Rab। Rab জানায়, জয়পুরহাট Rab ক্যাম্পের একটি অপারেশনাল দল রাত ৯টার সময় সদর উপজেলার ভাদসা বাজারে অভিযান চালিয়ে একটি বিদেশী রিভলবার, চার রাইন্ড গুলি, একটি মোটরসাইকেল ও কয়েকটি মোবাইল ফোন সেটসহ দুজন অস্ত্র ব্যবসায়ীকে আটক করে। তারা হলেন নওগাঁ জেলার ধামইরহাট উপজেলার ইনশিরা গ্রামের নৃপেন্দ্রনাথ মণ্ডলের ছেলে সুব্রত কমুার ও ধঞ্জয় গ্রামের গোলাম রব্বানীর ছেলে বায়েজিদ হোসেন। এদিকে রাত সাড়ে সাতটার সময় Rabর অপর একটি দল ক্ষেতলাল উপজেলার বটতলী এলাকা থেকে ২৬ কেজি ৭শ গ্রাম গাঁজা ও নগদ অর্থসহ শীর্ষ মাদক ব্যবসায়ী বগুড়া জেলার আদমদিঘি উপজেলার বাচ্চু সরদারের ছেলে ইমরান ও এনামুল ইসলামকে আটক করে। আটকদের বিরুদ্ধে সংশ্লিষ্ট থানায় অস্ত্র ও মাদক আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে।
আদালতের ব্যতিক্রমী রায়: ৪৯ শিশু-কিশোরের সাজার বদলে মিললো বই
২০,জানুয়ারী,বুধবার,সাবরীন জেরীন,নিউজ একাত্তর ডট কম: সুনামগঞ্জে একসঙ্গে ৩৫টি মামলার রায় দিয়েছেন নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল আদালত। রায়ে ৪৯ জন অভিযুক্ত শিশু-কিশোরকে সাজার বদলে সুন্দর জীবনে ফিরে আসার সুযোগ দিয়ে পরিবারের কাছে হস্তান্তরের আদেশ দেওয়া হয়। বুধবার (২০ জানুয়ারি) নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক মো. জাকির হোসেন এ রায় ঘোষণা করেন। অভিযুক্ত শিশু, তাদের অভিবাবক ও আইনজীবীদের উপস্থিতিতে রায় ঘোষণা করা হয়। এসময় আদালতের পক্ষ থেকে প্রত্যেকের হাতে ১০০ মনীষীর জীবন নামে বই উপহার দেওয়া হয়। বিচারক জাকির হোসেন রায়ের পাশাপাশি পরিবারের সদস্যদের শিশু-কিশোরদের অপরাধ প্রবণতা থেকে দূরে রাখতে ও সুন্দর পরিবেশ দেওয়ার আহবান জানান। একই সঙ্গে আগামীর বাংলাদেশের নেতৃত্ব দিতে তাদের প্রস্তুত হওয়ার জন্য উৎসাহ দেন। আদালত রায়ের পর্যবেক্ষণে বলেন, শিশুরা হলো জাতির ভবিষ্যত। তারা বিভিন্ন অভিযোগে অভিযুক্ত হয়ে নানান মামলায় জড়িত ছিল। আদালত শিশু আইনের বাস্তবায়ন ও শিশু অধিকার রক্ষায় এ রায় দিয়েছে। শিশুদের প্রতি বিশেষভাবে খেয়াল রাখার জন্য অভিবাবকদের আদেশ দেওয়া হলো। যাতে শিশুরা আবারও অপরাধে জড়িয়ে না পড়ে। বাবা-মায়ের কাছে পাঠাতে ১০টি শর্ত দিয়েছেন আদালত- ১. প্রবেশনে থাকাকালে একশ মনীষীর জীবনী নামক গ্রন্থটি পাঠ করা ২. বাবা-মাসহ গুরুজনদের আদেশ নির্দেশ মেনে চলা ৩. বাবা-মায়ের সেবা যত করা এবং কাজেকর্মে তাদের সাহায্য করা ৪. ধর্মীয় অনুশাসন মেনে চলা ৫. নিয়মিত ধর্মগ্রন্থ পাঠ করা ৬.প্রত্যেকে কমপক্ষে ২০টি করে গাছ লাগানো এবং গাছের পরিচর্যা করা ৭. অসৎ সঙ্গ ত্যাগ করা ৮. মাদক থেকে দূরে থাকা ৯. ভবিষ্যতে কোন অপরাধের সাথে নিজেকে না জড়ানো ১০. স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলা। এসব শর্ত প্রতিপালিত হচ্ছে কিনা তা প্রবেশন কর্মকর্তা মো. শফিউর রহমান পর্যবেক্ষণ করবেন এবং প্রতি তিনমাস অন্তর অন্তর অবহিত করার নির্দেশনা দিয়েছেন আদালত। এবিষয়ে সুনামগঞ্জ জেলার প্রবেশন কর্মকর্তা মো. শফিউর রহমান বলেন, আদালত যে রায় দিয়েছেন সেটি শিশুদের ভবিষ্যতে বেড়ে উঠতে কাজে দিবে এতে করে শিশুরা অপরাধ থেকে নিজেকে দূরে রাখতে পারবে। আদালত তাদের ১০টি শর্ত দিয়েছেন এবং আমি তাদের প্রতি নজর রাখবো। এ বিষয়ে সুনামগঞ্জ সনাকের সভাপতি অ্যাডভোকেট আইনুল ইসলাম বাবলু বলেন, সামাজিক ন্যায়বিচার প্রতিষ্ঠা ও শিশুদের অধিকার রক্ষায় আদালতের রায় দেশের বিচারিক ইতিহাসে একটি মাইল ফলক হয়ে থাকবে। সম্প্রতি লক্ষ্য করা যাচ্ছে প্রায় প্রতিটি মামলায় শিশুদের অভিযুক্ত করা হয়। দেশের বিভিন্নস্থানে লেখাপড়ায় থাকা শিশুদের বাড়ির ঘটনার সঙ্গে জড়িয়ে মামলা দেওয়া হচ্ছে। এটি মূলত দুই কারণে করা হয়। একটি হলো শিশুর জীবনকে নষ্ট করে দেওয়া ও পরিবারের সুন্দর আগামীকে অন্ধকার করে দিতে এমন করা হচ্ছে। মামলায় আসামি করার আগে তদন্ত কর্মকর্তাদের আরও দায়িত্বশীল ভূমিকা পালনের আহ্বান জানান তিনি। শিশু আদালতের পিপি নান্টু রায় বলেন, পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে থেকে সুষ্ঠু জীবনে ফিরে আসার সুযোগ করে দিতে আদালত রায় দিয়েছেন। শিশু আদালতের বিচারক মো. জাকির হোসেন এর আগেও ১৪ জন শিশুকে শর্তযুক্ত মুক্তি দিয়েছেন। আদালত সূত্র জানায়, মামলাগুলো দীর্ঘদিন ধরেই চলমান ছিল। রায়ে বাদী এবং বিবাদী পক্ষ সন্তোষ প্রকাশ করেছেন। এদিকে অভিযুক্ত শিশু-কিশোররা জানান, তাদের নামে মামলা থাকার কারণে প্রতিমাসে আদালতে হাজিরা দিতে হতো। লেখাপড়া বাদ দিয়ে আদালতে হাজির হওয়ায় তাদের পড়ার ক্ষতি হচ্ছিলো। এখন আদালতের আদেশে স্বাভাবিক জীবন যাপন করা সম্ভব হবে বলে আশা প্রকাশ করে তারা।
ঘন কুয়াশায় আজও বন্ধ ফেরি চলাচল
১৯,জানুয়ারী,মঙ্গলবার,রাজবাড়ী প্রতিনিধি,নিউজ একাত্তর ডট কম: ঘন কুয়াশার কারণে গত দুদিনের মতো আজও দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌরুটে ফেরি চলাচল বন্ধ রয়েছে। বাংলাদেশ অভ্যান্তরীণ করপোরেশন (বিআইডব্লিউটিসি) রাত ২টা ৩০ মিনিটি থেকে ফেরি চলাচল বন্ধ করে। দীর্ঘ সময় ফেরি চলাচল বন্ধ থাকায় উভয় ঘাটে যানবাহনের দীর্ঘ সারি দেখা গেছে। আজ মঙ্গলবার সকালে সরেজমিন ঘুরে দেখা যায়, দুই পারে পারাপারের অপেক্ষায় রয়েছে শত শত যানবাহন। সবচেয়ে বিপাকে পড়েছেন যাত্রী ও চালকরা। জানা গেছে, অন্যান্য দিনের মতো সোমবার দিবাগত রাত আড়াইর দিকে কুয়াশার ঘনত্ব বৃদ্ধি পায়। এতে করে দুর্ঘটনা এড়াতে ফেরি চলাচল বন্ধ করা হয়। কুয়াশা কমলে পুনরায় ফেরি চলাচল শুরু হবে বলে জানিয়েছে বিআইডব্লিউটিসি কর্তৃপক্ষ।
সীতাকুণ্ডে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে বাড়ির ভেতর ঢুকে পড়ল বাস
১৮,জানুয়ারী,সোমবার,সীতাকুণ্ড প্রতিনিধি,নিউজ একাত্তর ডট কম: চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডে একটি যাত্রীবাহী বাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে বাড়ির ভেতরে ঢুকে পড়েছে। সোমবার (১৮ জানুয়ারি) সকালে উপজেলার সুলতানা মন্দির এলাকায় এই দুর্ঘটনা ঘটে। ওই বাসে থাকা এক যাত্রী জানিয়েছেন, বাসটি ঢাকা থেকে চট্টগ্রামের দিকে আসছিল। বাসটি সীতাকুণ্ডের সুলতানা মন্দির এলাকায় আসলে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে বাড়ির মধ্যে ঢুকে পড়ে। তবে এতে কেউ হতাহত হয়নি। বারআউলিয়া হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আলমগীর জানান, রাত ২টার দিকে রিল্যাক্স পরিবহনের একটি বাস ঢাকা থেকে আসার পথে সুলতানা মন্দির এলাকায় নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে বাড়ির ভেতর ঢুকে যায়। তবে এ সময় ওই বাড়িতে কেউ ছিল না। বাসেরও কেউ হতাহত হয়নি। পরে আরেকটি বাস এসে যাত্রীদের নিয়ে যায়।
সুষ্ঠু নির্বাচন নিয়ে আপাতত কোনো আশঙ্কা দেখছেন না কাদেরের ভাই
১৬,জানুয়ারী,শনিবার,নোয়াখালী প্রতিনিধি,নিউজ একাত্তর ডট কম: নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার বসুরহাট পৌরসভা নির্বাচনের ভোট গ্রহণ আজ শনিবার সকালে শান্তিপূর্ণ পরিবেশে শুরু হয়েছে। সকাল আটটায় ইভিএমে ভোট গ্রহণ শুরু হয়। সকাল আটটার আগেই ভোট দেওয়ার জন্য বড় রাজাপুর উদয়ন ক্রিকেট একাডেমি কেন্দ্রে উপস্থিত হন আওয়ামী লীগের প্রার্থী আবদুল কাদের মির্জা। তিনি সকাল আটটায় এ কেন্দ্রে ভোট দেন। ভোটদান শেষে তিনি সাংবাদিকদের বলেন, অত্যন্ত সুন্দর পরিবেশে ভোট গ্রহণ শুরু হয়েছে। নির্বাচনে জয়ের ব্যাপারে তিনি শতভাগ আশাবাদী। আগে সুষ্ঠু নির্বাচন নিয়ে নানা আশঙ্কা থাকলেও আপাতত তিনি সে রকম কোনো লক্ষণ দেখছেন না। সরকারের উচ্চপর্যায় থেকে তাঁকে সুষ্ঠু নির্বাচনের আশ্বাস দেওয়া হয়েছে। সকাল সাড়ে সাতটায় বড় রাজাপুর উদয়ন ক্রিকেট একাডেমিতে নারী ভোটারদের উপস্থিতি চেখে পড়ে। কেন্দ্রের ভেতর স্থান সংকুলান না হওয়ায় পার্শ্ববর্তী রাস্তায় অনেক ভোটারকে লাইনে অবস্থান করতে দেখা যায়। সকাল নয়টায় মাকসুদা সরকারি বালিকা উচ্চবিদ্যালয় কেন্দ্র এবং বসুরহাট ইসলামিয়া সিনিয়র মাদ্রাসা কেন্দ্রে ও নারী ভোটারদের উপস্থিতি চোখে পড়ে। একসময় পুরুষ ভোটারদেরও বেশ উপস্থিতি দেখা যায়।
স্বপ্নের ঠিকানা পাচ্ছে ১১৫ পরিবার
১৪,জানুয়ারী,বৃহস্পতিবার,মানিকগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি,নিউজ একাত্তর ডট কম: পঞ্চাশোর্ধ্ব ফুলমালা বেগম। অকালে মারা গেছে স্বামী। যমুনা নদীর ভাঙনে বিলীন হয়েছে বাড়ি। নিঃসন্তান এই নারী অন্যের বাড়িতে কাজ করে জীবিকা নির্বাহ করেন। জমি নেই, ঘর নেই তাই রাস্তার পাশে ঝুপড়ি ঘর তুলে মানবেতর জীবনযাপন করছিলেন তিনি। অবশেষে মানিকগঞ্জের শিবালইয়ের জাফরগঞ্জ এলাকার এ অসহায় বিধবা নারী পাচ্ছেন নিজের একটি বাড়ি। সরকারের আশ্রয়ন প্রকল্পে জমি আর ঘর বরাদ্দ করা হয়েছে তার নামে। মুজিববর্ষ উপলক্ষে বাড়ি পাচ্ছেন সারাদেশের প্রায় আট লাখেরও বেশি ভূমি ও গৃহহীন মানুষ। এরই ধারাবাহিকতায় ফুলমালার মতো মানিকগঞ্জের সাত উপজেলায় ১১৫টি পরিবার পাচ্ছেন স্বপ্নের ঠিকানা। প্রথম পর্যায়ে বিধবা, প্রতিবন্ধী স্বামী পরিত্যক্তাদের অগ্রাধিকার দেয়া হয়েছে। পর্যায়ক্রমে সকল ভূমি ও গৃহহীনরা আসবেন এই প্রকল্পের আওতায়। ২০ জানুয়ারি ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এই ঘরগুলো আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধন করবেন বলে জানা গেছে। সরেজমিন শিবালয় ও ঘিওর উপজেলার আশ্রয়ন প্রকল্পের এলাকা ঘুরে দেখা গেছে, খাস জমি ভরাট করে সারিবদ্ধভাবে ঘরগুলো তৈরি করা হয়েছে। প্রতিটি ঘরের চালে লাল রংয়ের টিন। দেয়ালের রং থাকবে নীল। থাকার জন্য রয়েছে দুটি কক্ষ। রয়েছে স্টোর রুম, রান্না ঘর এবং টয়লেটও। প্রকল্প এলাকায় কথা হয় কয়েকজন উপকারভোগীর সঙ্গে। যারা অন্যের বাড়ি অথবা রাস্তার পাশে ঘর তুলে বসবাস করতেন। নিজেদের একটি ঘর পেয়ে তারা খুশি সবাই। তারা আরও জানান, জমির মালিকানাসহ ঘর পাওয়ায় তারা প্রধানমন্ত্রীর প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছেন। যতদিন বেঁচে আছেন তার জন্য দোয়া করবেন তারা। জেলা প্রশাসকের কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ের আশ্রয়ন-২ প্রকল্পের আওতায় শিবালয় উপজেলায় ২১টি, ঘিওরে ২৫টি, সাটুরিয়ায় ৩০টি, হরিরামপুরে ১২টি, সিংগাইরে ১২টি এবং সদর উপজেলায় ১৫টিসহ মোট ১১৫টি ঘর তৈরি করা হয়েছে। ঘিওর উপজেলা নির্বাহী অফিসার আইরিন সুলতানা জানান, প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ের মুখ্য সচিব তাদের নির্দেশনা দিয়েছিলেন নিজের বাড়ি মনে করে ঘরগুলোকে তৈরি করার জন্য। এজন্য তিনি ইট, টিন থেকে শুরু করে প্রতিটি মালামালের গুনগত মাণ ঠিক রাখার চেষ্টা করেছেন। শিবালয় উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা বি এম রুহুল আমিন রিমন বলেন, দুই শতাংশ জমির বন্দোবস্তের কাগজসহ উপকারভোগীরা দুই কক্ষ বিশিষ্ট ঘর পাচ্ছেন। প্রকল্প এলাকায় যাতায়াত সুবিধা, বিদ্যুৎ সংযোগ, সোলার সিস্টেম, বিশুদ্ধ পানিসহ নানা সুবিধা দিতেও কাজ করছেন তারা। এছাড়া প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা অনুযায়ী, বিভিন্ন দফতরকে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে যাতে উপকারভোগীদের যথাযথ প্রশিক্ষণ দিয়ে আয়বর্ধক কাজে ঋণ দিয়ে আত্মকর্মশীল করা হয়।
স্বামীর মোটরসাইকেল থেকে পড়ে প্রাণ গেল স্ত্রীর
১৪,জানুয়ারী,বৃহস্পতিবার,চুয়াডাঙ্গা প্রতিনিধি,নিউজ একাত্তর ডট কম: চুয়াডাঙ্গায় স্বামীর চলন্ত মোটরসাইকেল থেকে পড়ে স্ত্রী উম্মে সালমার (৫৫) মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনায় স্বামী আলতাব হোসেনও আহত হয়েছেন। বুধবার (১৩ জানুয়ারি) দিবাগত রাত সাড়ে ৮টার দিকে সদর উপজেলার ভিমরুল্লা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সামনে এ দুর্ঘটনা ঘটে। উম্মে সালমা নাটোরের সিংড়া উপজেলার কলম গ্রামের আলতাফ হোসেনের স্ত্রী। দুজনই চুয়াডাঙ্গা দর্শনা পল্লী বিদ্যুৎ কার্যালয়ে চাকরি করেন। চুয়াডাঙ্গা শহরতলীর দৌলতদিয়াতে ভাড়া বাসায় থাকতেন তারা। প্রত্যক্ষদর্শী ও স্থানীয়রা জানায়, বুধবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে স্বামীর সঙ্গে সালমা দর্শনা কর্মস্থল থেকে মোটরসাইকেলযোগে দৌলতদিয়ার ভাড়া বাসায় ফিরছিলেন। পথে শহরের ভিমরুল্ল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সামনের গতিরোধক অতিক্রম করার সময় মোটরসাইকেল থেকে রাস্তায় ছিটকে পড়েন তিনি। এ সময় মাথায় প্রচণ্ড আঘাতপ্রাপ্ত হলে স্থানীয়রা তাদেরকে উদ্ধার করে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে নেয়। তবে স্বামী বেঁচে গেলেও মারা যান স্ত্রী। কর্তব্যরত চিকিৎসক শাকিল আরসালান জানান, মাথার প্রচণ্ড আঘাতের কারণে উম্মে সালমার মৃত্যু হয়েছে। ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন চুয়াডাঙ্গা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবু জিহাদ ফখরুল আলম খান।
আখাউড়ায় মাটি খুঁড়তে মিলল হাজারও বুলেট
১২,জানুয়ারী,মঙ্গলবার,ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি,নিউজ একাত্তর ডট কম: ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়ায় মাটি খুঁড়ে পাওয়া গেছে হাজার হাজার বুলেট। সোমবার দুপুর থেকে বিকেল পর্যন্ত আখাউড়া রেলওয়ে পূর্ব কলোনী থেকে বিপুল পরিমান এই বুলেট উদ্ধার করা হয়। খবর পেয়ে আখাউড়া রেলওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সফিউল আজম ঘটনাস্থলে অবস্থান করছেন। খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, ওই এলাকায় রেলওয়ের উন্নয়ন কাজ চলছে। সকালে মো. রফিক ও জুয়েল নামে দুই যুবক সেখানে লাকড়ি কুড়ানোর সময় তারা একটি শক্ত মাটির চাকা পায়। পরে চাকার মধ্যে বুলেট পাওয়া যায়। পরে এই দুই যুবক আরো মাটি খুঁড়ে বেশ কিছু বুলেটপায়। সব মিলিয়ে কুড়িয়ে পাওয়া বুলেটের ওজন পাঁচ কেজির মতো। কলোনীর বাসিন্দা রাকিব হাসান বলেন, ধারণা করা হচ্ছে বুলেটগুলো মুক্তিযুদ্ধের সময়কার। বিষয়টি পুলিশকে জানানো হয়েছে। এ ব্যাপারে আখাউড়া রেলওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শফিউল আজম বলেন, খবর পেয়ে তিনি ঘটনাস্থলে ছুটে যান। তিনি বিষয়টি আখাউড়া থানা পুলিশকে অবহিত করেছেন। এ ব্যাপারে আখাউড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রসুল আহমেদ নিজামী বলেন, রেলওয়ে উন্নয়ন কাজের জন্য মাটি খুঁড়ায় সেখানে মাটির নিচে থাকা পরিত্যক্ত বুলেট পাওয়া গেছে বলে শুনেছি। ঘটনাস্থলে দারোগা পাঠিয়েছি। পরে বিস্তারিত বলা যাবে।
শাহ মখদুমে দুর্ঘটনার কবলে প্রশিক্ষণ প্লেন
০৯,জানুয়ারী,শনিবার,রাজশাহী প্রতিনিধি,নিউজ একাত্তর ডট কম: রাজশাহীর হযরত শাহ মখদুম (রহ.) বিমানবন্দরে দুর্ঘটনার কবলে পড়েছে একটি প্রশিক্ষণ প্লেন। শনিবার (৯ জানুয়ারি) বিকেল ৩টার দিকে বিমানবন্দরের রানওয়েতে এ ঘটনা ঘটে। তবে কেউ হতাহত হননি। বিমানবন্দরের ব্যবস্থাপক দিলারা পারভিন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, গ্যালাক্সি ফ্লাইং একাডেমির একটি প্রশিক্ষণ প্লেন (নম্বর-S2-AFK) উত্তর দিক থেকে অবতরণ করার সময় রানওয়ের মাঝামাঝি স্থানে প্লেনটির পেছনের ডান পাশের একটি চাকা গোড়া থেকে ভেঙে যায়। পরে আবারও আকাশে উড্ডয়নের চেষ্টা করলে হুমড়ি খেয়ে সামনের বড় চাকাটি গোড়া থেকে ভেঙে যায়। দিলারা পারভিন জানান, ওই প্লেনটিতে গ্যালাক্সি ফ্লাইং একাডেমির চিফ ফ্লাইং প্রশিক্ষক ক্যাপ্টেন মশিউর রহমান নিজেই চালক হিসেবে ছিলেন। তার সঙ্গে একজন প্রশিক্ষণার্থী রায়হান গফুরসহ মোট দুজন ওই প্রশিক্ষণ প্লেনে অবস্থান করছিলেন। তারা দুজনই বর্তমানে অক্ষত অবস্থায় আছেন। দুর্ঘটনার কারণ জানতে ফ্লাইং একাডেমির কর্মকর্তারা কাজ করছেন বলেও জানান তিনি। এ ঘটনার পর থেকে শাহ মখদুম বিমানবন্দরে নিয়মিত ফ্লাইট ওঠানামা বন্ধ রয়েছে।

সর্বশেষ সংবাদ

সারা দেশ পাতার আরো খবর