মঙ্গলবার, মে ১৮, ২০২১
পুলিশের তাড়ায় বাইক ফেলে পালালো মাদক ব্যবসায়ী
২১সেপ্টেম্বর,সোমবার,বেনাপোল প্রতিনিধি,নিউজ একাত্তর ডট কম: পুলিশের তাড়া খেয়ে ফেনসিডিল ও মোটরসাইকেল ফেলে পালিয়ে গেল দুই মাদক ব্যবসায়ী। রোববার (২০ সেপ্টেম্বর) বিকেলে শার্শার বাগআঁচড়া এলাকা থেকে মোটরসাইকেল ও মাদকের চালানটি উদ্ধার করে বাগআঁচড়া তদন্ত কেন্দ্রের পুলিশ। বাগআঁচড়া তদন্ত কেন্দ্রের অফিসার ইনচার্জ উত্তম কুমার বিশ্বাস জানান, গোপন খবরের ভিত্তিতে উপজেলার টেংরা-বালুন্ডা সড়কের টেংরা চৌরাস্তার কাছে একটি মোটর সাইকেল বেরিকেড দিলে চালকসহ দু'জন গাড়ি ফেলে পালিয়ে যায়। পরে পাঁকা রাস্তার ওপর থেকে ১৬০ বোতল ফেনসিডিল এবং আসামীদের ফেলে যাওয়া ব্লু কালারের একটি এ্যপাাচি মোটর সাইকেল ( সাতক্ষীরা-ল-১১-৮৬৪৩) ও একটি মোবাইল ফোনও উদ্ধার করা হয়। আসামীদের গ্রেফতারের চেষ্টা ও মামলার প্রস্তুতি চলছে বলে তিনি জানান।
বেগমগঞ্জে দোকান ঘর দখলের চেষ্টা ও হয়রানির অভিযোগ
২০সেপ্টেম্বর,রবিবার,মল্লিক উদ্দিন,নোয়াখালী প্রতিনিধি,নিউজ একাত্তর ডট কম: নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ উপজেলার চন্দ্রগঞ্জ পূর্ব বাজারে দোকান ঘর দখলের চেষ্টা, ষড়যন্ত্র ও মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানির অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনার প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন করেছে ভুক্তভোগী পরিবারের সদস্যরা। আজ রোববার সকালে নোয়াখালী টিভি সাংবাদিক ফোরাম কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে এ অভিযোগ করা হয়। লিখিত বক্তব্যে দোকানের মালিক মোহাম্মদ ইব্রাহীম খলীল ও মোহাম্মদ কবির হোসেন সুজন জানান, আমরা দুই ভাই প্রায় ১০ বছর যাবত ব্যবসা প্রতিষ্ঠান পরিচালনা করে আসছি। কিন্তু কিছু দিন থেকে আমার বাবার সৎ ভাইয়েরা ভুয়া কাগজপত্র তৈরি করে মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানি করছে। আমরা ন্যায় বিচারের স্বার্থে এ বিষয়ে প্রশাসনের ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপ কামনা করছি।
ভালুকায় সাংবাদিক নিগ্রহের বিচার দাবিতে মানববন্ধন
২০সেপ্টেম্বর,রবিবার,মামুন সরকার,ভালুকা,ময়মনসিংহ,নিউজ একাত্তর ডট কম: ময়মনসিংহের ভালুকায় উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. সোহেলী শারমিন কর্তৃক এসএ টিভির ময়মনসিংহ প্রতিনিধি আওলাদ রুবেলকে নিগ্রহের বিচার দাবিতে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে। সকালে উপজেলা পরিষদের সামনে ঘন্টাব্যাপী এই মানববন্ধনের আয়োজন করে ভালুকা রিপোর্টার্স ইউনিটি। এসময় ভালুকা রিপোর্টার্স ইউনিটির আহ্বায়ক মাহমুদুল হাসান ফোরাত, সদস্য সচিব আনোয়ার হোসেন তরফদার, সদস্য মোকছেদুর রহমান মামুন, ওমর ফারুক তালুকদারসহ আরো অনেকেই বক্তব্য রাখেন। সাংবাদিকের সাথে অসৌজন্যমূলক আচরণ এবং পেশাগত কাজে বাধা দেয়ায় অনতিবিলম্বে উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তার দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেন বক্তারা। উল্লেখ্য, গত ১৩ সেপ্টেম্বর এসএ টিভির ময়মনসিংহ প্রতিনিধি আওলাদ রুবেল ভালুকা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে সংবাদ সংগ্রহে গেলে উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডাঃ সোহেলী শারমিন প্রথমে তার সাথে অসৌজন্যমূলক আচরণ করেন এবং এসএ টিভির ক্যামেরা কেড়ে নিয়ে ভেঙে ফেলার চেষ্টা করেন।
দুর্ঘটনার গাড়ি উদ্ধার করতে গিয়ে প্রাণ হারালেন এস আই মাহবুব
২০সেপ্টেম্বর,রবিবার,সিতাকুন্ড প্রতিনিধি,নিউজ একাত্তর ডট কম: সীতাকুণ্ড উপজেলার বাশবাড়ীয়ায় এক মর্মান্তিক সড়ক দুর্ঘটনায় হাইওয়ে থানার এস. আই নিহত ও এক কনষ্টেবল আহত হয়েছেন। আজ রবিবার (২০ সেপ্টেম্বর) সকাল সাড়ে ৬টায় এ ঘটনা ঘটে। নিহতের নাম মো. মাহবুবুর রহমান (৪২)। তিনি বারআউলিয়া হাইওয়ে থানায় কর্মরত ছিলেন। জানা যায়, রবিবার সকালে উপজেলাধীন মহাসড়কের বাঁশবাড়িয়ায় চট্টগ্রামমুখী লাইনে একটি কাভার্ডভ্যান দুর্ঘটনা কবলিত হয়। এ খবর পেয়ে দুর্ঘটনা কবলিত গাড়ি উদ্ধারের জন্য সেখানে ছুটে যান বারআউলিয়া হাইওয়ে থানার এস. আই মাহবুবুর রহমান ও কনষ্টেবল নোমান। তারা সকাল সাড়ে ৬টার দিকে ঘটনাস্থলে গিয়ে সড়কের পাশে গিয়ে দাড়ালে একইমুখী অপর আরেকটি কাভার্ডভ্যান নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে তাদেরকে সজোরে ধাক্কা দেয়। এতে এস. আই মাহবুব ও এক কনষ্টেবল নোমান গুরুতর আহত হন। পরে তাদেরকে উদ্ধার করে চমেক হাসপাতালে নিয়ে গেলে সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক এস. আই মাহবুবকে মৃত ঘোষণা করেন। বারআউলিয়া হাইওয়ে থানার ওসি মো. আলমগীর হোসেন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, লাশ ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে।
তিতাসের ৮ কর্মকর্তা-কর্মচারীর ২ দিনের রিমান্ড
১৯সেপ্টেম্বর,শনিবার,নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি,নিউজ একাত্তর ডট কম: নারায়ণগঞ্জে মসজিদে বিস্ফোরণের ঘটনায় তিতাসের ৮ কর্মকর্তা-কর্মচারীর ২ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত। শনিবার (১৯ সেপ্টেম্বর) বিকেলে সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট কাউছার আলমের আদালত এই রিমান্ড মঞ্জুর করেন। এর আগে এদিন বিকেলে ৫ দিনের রিমান্ড চেয়ে আবেদন করে সিআইডি। আদালত শুনানি শেষে ২ দিন রিমান্ড মঞ্জুর করেন। এর আগে তিতাস গ্যাস ট্রান্সমিশন এন্ড স্ট্রবিউশন কোম্পানি লিমিটেড ফতুল্লা অঞ্চলের সাময়িক বহিস্কৃত ৪ কর্মকর্তাসহ ৮ জনকে গ্রেফতার করে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি)। আটককৃতরা হলো- তিতাসের ফতুল্লা অঞ্চলের ব্যবস্থাপক প্রকৌশলী মো. সিরাজুল ইসলাম, উপ ব্যবস্থাপক মাহামুদুর রহমান রাব্বী, সহকারী প্রকৌশলী এসএম হাসান শাহরিয়ার, সহকারী প্রকৌশলী মানিক মিয়া, সিনিয়র সুপারভাইজার মো. মুনিবুর রহমান চৌধুরী, সিনিয়র উন্নয়নকারী মো. আইউব আলী, হেল্পার মো. হানিফ মিয়া ও কর্মচারী মো. ইসমাইল প্রধান। প্রসঙ্গত, গত ৪ সেপ্টেম্বর নারায়ণগঞ্জের তল্লা বাইতুস সালাত জামে মসজিদে বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে। বিস্ফোরণের ৩৭ জন দগ্ধ হন। তাদের মধ্যে ৩২ জনের মৃত্যু হয়েছে। এখনও পর্যন্ত আইসিইউতে আশঙ্কাজনক অবস্থায় রয়েছেন ৪ জন। এ ঘটনায় ৫ সেপ্টেম্বর ফতুল্লা থানার এসআই হুমায়ন কবির বাদী হয়ে অজ্ঞাত আসামি করে থানায় মামলা দায়ের করেন। পরবর্তীতে মামলাটি সিআইডিতে হস্তান্তর করা হয়।
ধর্ষণের অভিযোগে লোহাগাড়ার ইউপি সদস্য গ্রেপ্তার
১৬সেপ্টেম্বর,বুধবার,এম.ইহসানুল হক,লোহাগাড়া প্রতিনিধি,নিউজ একাত্তর ডট কম: লোহাগাড়ায় এক বিধবা নারীকে ধর্ষণের অভিযোগে স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) সদস্য মো. আনোয়ার হোসেনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এ ঘটনায় গতকাল থানায় মামলা দায়েরের পর সোমবার (১৫ সেপ্টেম্বর) রাত ১টার দিকে চান্দগাঁও থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। আটক ইউপি সদস্য মো. আনোয়ার হোসেনকে চান্দগাঁও থানা হেফাজত থেকে লোহাগাড়া থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। লোহগাড়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) জাকের হোসাইন মাহমুদ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, সিএমপির চান্দগাঁও থানার সহায়তায় অভিযুক্ত মো. আনোয়ার হোসেনকে আটক করা হয়। এরপর তাকে লোহাগাড়া থানায় নিয়ে আসতে একটি টিম চান্দগাঁও থানায় পাঠানো হয়। চান্দগাঁও থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আতাউর রহমান খন্দকার নিউজ একাত্তরকে বলেন, মো. আনোয়ার হোসেন নামে এক আসামিকে রাত ১টার দিকে বাস টার্মিনাল থেকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। রাতেই লোহাগাড়া থানা পুলিশের কাছে তাকে হস্তান্তর করা হয়েছে। উল্লেখ্য, পদুয়া এলাকার এক বিধবা নারীকে দীর্ঘদিন ধরে হয়রানি করে আসছিলেন পদুয়া ৪ নম্বর ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য মো. আনোয়ার হোসেন। ওই নারীকে বাড়িতে ডেকে নিয়ে জোরপূর্বক অশ্লীল ভিডিও ধারণ করে সেই ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছেড়ে দেওয়ার ভয় দেখিয়ে ব্ল্যাকমেইল করছেন বলেও অভিযোগ ছিল ইউপি সদস্য আনোয়ারের বিরুদ্ধে।
কাপ্তাই হ্রদে দখল ও দূষণরোধে ব্যবস্থাপনা কমিটির সুপারিশ
১৬সেপ্টেম্বর,বুধবার,আব্দুল নাঈম,কাপ্তাই প্রতিনিধি,নিউজ একাত্তর ডট কম: দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার বৃহত্তম কৃত্রিম জলাধার রাঙ্গামাটির কাপ্তাই হ্রদে ড্রেজিংয়ের মাধ্যমে নাব্যতা ফেরানো, হ্রদে কার্পজাতীয় মাছের উৎপাদন বৃদ্ধি, দখল ও দূষণ রোধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়ার সুপারিশ উঠেছে জেলা নদী রক্ষা ও কাপ্তাই হ্রদ ব্যবস্থাপনা কমিটির পক্ষ থেকে। গতকাল সকালে জেলা নদী রক্ষা ও কাপ্তাই হ্রদ ব্যবস্থাপনা কমিটির এক সভায় সুপারিশ করা হয়। সম্প্রতি কাপ্তাই হ্রদে দখলের প্রবণতা বৃদ্ধি পাওয়ায় জরুরি ভিত্তিতে জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের সম্মেলন কক্ষে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়। জেলা নদী রক্ষা ও কাপ্তাই হ্রদ ব্যবস্থাপনা কমিটির সভাপতি এবং রাঙ্গামাটি জেলা প্রশাসক একেএম মামুনুর রশিদের সভাপতিত্বে এতে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ মৎস্য উন্নয়ন করপোরেশনের রাঙ্গামাটি কেন্দ্রের ব্যবস্থাপক লে. কমান্ডার মো. তৌহিদুল ইসলাম, জেলা অতিরিক্ত ম্যাজিস্ট্রেট শিল্পী রানী রায়সহ কমিটির অন্য সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন। সভায় এ বছর হ্রদের পানি কম হওয়ায় শুষ্ক মৌসুমে নৌযান চলাচল স্বাভাবিক রাখাসহ হ্রদের মৎস্যসম্পদ রক্ষা করা এবং একই সঙ্গে কাপ্তাইয়ে অবস্থিত কর্ণফুলী জলবিদ্যুৎ কেন্দ্রের উৎপাদন চলমান রাখার বিষয়েও গুরুত্বারোপ করা হয়। জেলা নদী রক্ষা ও কাপ্তাই হ্রদ ব্যবস্থাপনা কমিটির সভাপতি ও জেলা প্রশাসক একেএম মামুনুর রশিদ বলেন, কাপ্তাই হ্রদে নাব্যতা ফেরাতে বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ-পরিবহন মন্ত্রণালয়ে যোগাযোগ করে দ্রুত কাজ শুরুর ব্যাপারে ব্যবস্থা নেয়ার জন্য অনুরোধ জানানো হবে। হ্রদের দখল বন্ধে সবার সহযোগিতা কামনা এবং অবৈধভাবে বালি উত্তোলনকারীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে ইউএনওদের নির্দেশ দেয়া হয়েছে।
সাংবাদিকদের দেখলেই তেড়ে আসেন স্বাস্থ্য কর্মকর্তা, কিন্তু কেন!
১৫সেপ্টেম্বর,মঙ্গলবার,কামরুজ্জামান মিন্টু,ময়মনসিংহ প্রতিনিধি,নিউজ একাত্তর ডট কম: সরকারি বরাদ্দের দেড় কোটি টাকা অনিয়ম করাসহ নানা অভিযোগে অভিযুক্ত ময়মনসিংহের ভালুকা উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. সোহেলী শারমিন। তিনি চলতি বছরের ১২ মার্চ উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা হিসেবে যোগদান করেন। যোগদানের পরপরই হাসপাতালের কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের সাথে অসদাচরণ করার অভিযোগ উঠে তার বিরুদ্ধে। তার অসদাচরণে অতিষ্ঠ হয়ে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ করাসহ লিখিত অভিযোগ করেন হাসপাতালের স্টাফরা। খোঁজ নিয়ে জানা যায়, এর কিছুদিন পর উপজেলা স্বাস্থ্য ব্যবস্থাপনা কমিটি তার বিরুদ্ধে সরকারি বরাদ্দের দেড় কোটি টাকা অনিয়ম করার অভিযোগ তুলে। এই অনিয়ম খতিয়ে দেখতে গত জুলাই মাসে উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যানের নেতৃত্বে ৫ সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়। কিন্তু দুমাস পেরিয়ে গেলেও আজো তদন্ত কমিটি তার কাছ থেকে দেড় কোটি টাকার হিসাব নিতে পারেনি। এছাড়া আর্থিক অনিয়মের পাশাপাশি হাসপাতালের প্রসূতি ও অন্যান্য রোগীদের প্রাইভেট হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়ার অভিযোগ রয়েছে তার বিরুদ্ধে। হাসপাতালে সিজারিয়ান অপারেশন বন্ধ রেখে প্রাইভেট হাসপাতালে সিজারিয়ান অপারেশন করে তিনি প্রতিদিন হাতিয়ে নিচ্ছেন মোটা অংকের টাকা। সরকারী গাড়ী ব্যবহার করে প্রতিদিন প্রাইভেট প্র্যাকটিস করেন তিনি। তিনি নিজের পছন্দের ঠিকাদার নিয়োগ করে নিম্ন মানের খাবার সরবরাহ করে কমিশন খায়, হাসপাতালের বাবুর্চিকে নিজের বাসায় ব্যবহার করেন ডা. সোহেলী শারমিন। কর্মচারীদেরকে নিজের ব্যক্তিগত কাজে লাগানো, ক্ষমতার অপব্যবহার করে ৩ জনের কোয়ার্টারের রুম একাই ব্যবহার করাসহ নানা অভিযোগ রয়েছে তার বিরুদ্ধে। গোপন সূত্রে জানা যায়, হাসপাতালের কর্মকর্তা, কর্মচারীদের সাথে অসদাচরণ, বেতন আটকে রাখা, বদলি করা, কাজ বন্টনে স্বজনপ্রীতি, টিএ বিল প্রদানের ক্ষেত্রেও নানা অভিযোগ রয়েছে তার বিরুদ্ধে। এসব অনিয়মের ফলে হাসপাতালের স্টাফদের মাঝে একধরণের চাপা অসন্তোষ বিরাজ করছে। এভাবে স্বাস্থ্য কর্মকর্তার সাথে স্টাফদের রেষারেষির কারণে হাসপাতালে ব্যাহত হচ্ছে স্বাস্থ্যসেবা। আরো জানা যায়, স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের সকল কর্মকর্তা ও কর্মচারী সবাই একত্রে ডা. সোহেলী শারমিনের অসদাচরণে অতিষ্ঠ হয়ে তার প্রত্যাহার চেয়ে মানববন্ধন করেছিলেন। এছাড়াও স্বাস্থ্য অধিদপ্তর বরাবর ভালুকার সংসদ সদস্য, স্বাস্থ্য বিভাগের বিভাগীয় পরিচালক, সিভিল সার্জন ও উপজেলা চেয়ারম্যানের কাছে অনুলিপি পাঠানো হয়েছিল। সেই থেকেই এই ডাক্তারের ভয়ে এখনো অনেকের শরীর ঘামে। এত অভিযোগের পরেও এখনো বহাল তবিয়তেই আছেন এই স্বাস্থ্য কর্মকর্তা। তার খুঁটির জোড় নিয়ে জনমনে নানা প্রশ্ন দেখা দিয়েছে। এসব অভিযোগের সত্যতা যাচাই করতে গিয়ে অনুসন্ধান বেড়িয়ে এসেছে আরও অজানা অনেক তথ্য। রবিবার (১৩ সেপ্টেম্বর) দুপুর ১২ টার দিকে গিয়ে দেখা যায়, এসএ টিভির সাংবাদিক আওলাদ হোসেন রুবেল ও সাথে ভালুকার স্থানীয় এক সহযোগী হাসপাতালে প্রবেশ করা মাত্রই অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে। তখন ক্যামেরা বন্ধ ছিল, তবুও তিনি ক্যামেরা কেড়ে নিয়ে ভেঙে ফেলার চেষ্টা করেন। একপর্যায়ে ডা. সোহেলী শারমিন স্থানীয় ঐ ব্যক্তির সাথে হাতাহাতি শুরু করেন। হাসপাতালে এমন ঘটনা দেখে সেবা নিতে আসা অনেকে নিরাশ হয়েছিলেন। স্থানীয় সাংবাদিক মহল এ ঘটনায় নিন্দা জানিয়েছেন। এ বিষয়ে ডা. সোহেলী শারমিন বলেন, আমি স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আসার পর থেকেই একটি মহল আমার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করছে। আমি কোনো দুর্নীতি করিনি। আমার বিরুদ্ধে যেই মানববন্ধন করা হয়েছে তারও কোনো ভিত্তি নেই। সাংবাদিকদের কেন লাঞ্ছিত করেন এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, আমি প্রথমে চিনতে পারিনি। হাসপাতালের একজন আমাকে বলছে কে যেন ক্যামেরা নিয়ে আসছে। তাই ভয় পেয়ে গিয়েছিলাম। আপনার কক্ষে সাংবাদিক ডুকেনি, আপনার অনুমতি না নিয়ে ক্যামেরা চালু করা হয়নি তবুও ক্ষিপ্ত হয়েছিলেেন কেন? এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, আমি দেখতে ভালোনা। তাই ক্যামেরার সামনে আসিনা। পরে সিভিল সার্জন স্যারের সাথে কথা বলে নিশ্চিত হয়েছি তারা গণমাধ্যম কর্মী ছিলেন। পরে ক্যামেরার সামনে সাক্ষাৎকারে বলেছি যে সকল বিরুদ্ধে সকল অভিযোগ মিথ্যা। স্বাস্থ্যখাতের নানা অনিয়ম ও দুর্নীতি বন্ধ করতে সরকারকে বিশেষ টাস্কফোর্স গঠনের আহ্বান জানিয়েছেন ময়মনসিংহ জনউদ্যোগের আহ্বায়ক অ্যাডভোকেট নজরুল ইসলাম চুন্নু। এ বিষয়ে উপজেলা চেয়ারম্যান আবুল কালাম আজাদ বলেন, বর্তমান সরকার উন্নয়নের সরকার। স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে দুর্নীতির সাথে স্বাস্থ্য কর্মকর্তা জড়িত থাকলে অবশ্যই যথাযথ কর্তৃপক্ষ ব্যবস্থা নিবেন। আমরাও কোনো অপরাধীকে ছাড় দেবোনা। তবে ময়মনসিংহের সিভিল সার্জন ডা. এবিএম মসিউল আলম উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তার বিরুদ্ধে এসব অভিযোগের ব্যাপারে ফোনে অথবা ক্যামেরার সামনে কোনো কথা বলতে রাজী হয়নি। স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. সোহেলী শারমিনের বিরুদ্ধে অভিযোগের বিষয়গুলো খতিয়ে দেখার আশ্বাস দিয়েছেন ভালুকার সংসদ সদস্য কাজিম উদ্দিন আহম্মেদ ধনু।
উখিয়ায় বেগুনের বস্তায় পৌনে ২ কোটি টাকার ইয়াবা, যুবক আটক
১৫সেপ্টেম্বর,মঙ্গলবার,মো.জুনায়েদুল হক,কক্সবাজার প্রতিনিধি,নিউজ একাত্তর ডট কম: কক্সবাজারের উখিয়ায় বেগুনের বস্তা ভরে ইয়াবা পাচারকালে ইয়াবাসহ এক যুবককে আটক করেছে বিজিবি। আটককৃত যুবকের নাম মামুন। আজ মঙ্গলবার (১৫ সেপ্টেম্বর) সকাল সাড়ে ৬টার দিকে উপজেলার রাজাপালং ইউনিয়নের পূর্ব দরগারবিল বাগানপাড়া এলাকা থেকে তাকে আটক করা হয়। এ সময় তার কাছ থেকে ৬০ হাজার পিস উদ্ধার করা হয়। কক্সবাজার ৩৪ বিজিবির উপ-পরিচালক তাজমিলুর ইসলাম নিউজ একাত্তরকে জানান, বিজিবির নিজস্ব গোয়েন্দা সংবাদের মাধ্যমে কিছু লোক বিপুল পরিমাণ ইয়াবা নিয়ে মিয়ানমার থেকে বাংলাদেশে প্রবেশ করার তথ্যে এ অভিযান চালানো হয়। এ সময় বেগুনের বস্তায় অভিনব কৌশলে লুকানো আনুমানিক এক কোটি ৭৮ লাখ ৫৭ হাজার ৫শ টাকার ৬০ হাজার পিস ইয়াবা উদ্ধার করা হয়। আটককৃত যুবকের বিরুদ্ধে সংশ্লিষ্ট মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে ব্যবস্থা নেয়া হবে বলেও জানান বিজিবির এই কর্মকর্তা।

সর্বশেষ সংবাদ

সারা দেশ পাতার আরো খবর