প্রকাশ : 2021-04-07

ঝাউতলা ও উত্তর কাট্টলীতে অগ্নিকাণ্ড: ১২ দোকান ও ৩ বসতঘর ভস্মীভূত

৭,এপ্রিল,বুধবার,নিউজ ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে নগরীর ঝাউতলায় পুড়েছে ১২টি দোকান। এছাড়াও পুড়ে গেছে গরু-ছাগল। গতকাল মঙ্গলবার ভোর ৫টার দিকে ঝাউতলা রেললাইন সংলগ্ন রেলওয়ের সেতু বিভাগের গুদামের পাশে এ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। ফায়ার সার্ভিস তাৎক্ষণিকভাবে ক্ষয়ক্ষতি ও আগুন লাগার কারণ জানাতে পারেনি। তবে ক্ষতিগ্রস্ত ব্যবসায়ীদের দাবি, প্রায় ২০ লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে। আগ্রাবাদ ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের নিয়ন্ত্রণ কক্ষের অপারেটর জিল্লুর জানায়, আগুন লাগার খবর পেয়ে আগ্রাবাদ ও নন্দনকানন স্টেশন থেকে ৬টি গাড়ি ঘটনাস্থলে পৌঁছে। সকাল ৭টার দিকে আগুন নিয়ন্ত্রণ আসে। তিনি বলেন, ১২ জন মালিকের ১২টি দোকান পুড়ে গেছে। আগুন লাগার কারণ জানা যায়নি। ক্ষতির পরিমাণও তদন্ত সাপেক্ষে জানা যাবে। এদিকে স্থানীয়দের সাথে আলাপকালে জানা গেছে, সেখানে ছোট-বড় ১২টি দোকান ছিল। সবগুলো পুড়ে গেছে। চারটি গরু ও একটি ছাগলও আগুনে দগ্ধ হয়ে গেছে। এছাড়া আগুনে রেলওয়ে নলকূপ পরিদর্শকের অফিসও ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে বলে জানা গেছে। এদিকে নগরের উত্তর কাট্টলীতে প্রফুল্ল সেন বাড়ির রান্নার চুলা থেকে সৃষ্ট আগুনে তিনটি কাঁচা বসতঘর ও একটি গোয়াল ঘর পুড়ে গেছে। গত রাতে সংঘটিত এ দুর্ঘটনায় দুই লাখ টাকার সম্পদ ক্ষতি হয়েছে বলে জানায় ফায়ার সার্ভিস। আগ্রাবাদ ফায়ার স্টেশনের কন্ট্রোল রুমের অপারেটর হেফাজ উল্লাহ বলেন, উত্তর কাট্টলী ঈশান মহাজন হাটের প্রফুল্ল সেনের বাড়িতে রাত সাড়ে ৮টায় আগুন লাগে। অগ্নিকাণ্ডে সমীরণ ও সলীল সেনের মালিকানাধীন দুইটি কাঁচা বসত ঘর ও গোয়াল ঘর পুড়ে যায়। দুই মালিকের তিনজন ভাড়াটিয়া ছিল। গোয়ালঘরে থাকা একটি ছাগলও পুড়ে গেছে। আগ্রাবাদ ফায়ার স্টেশনের দুটি গাড়ি অগ্নি নির্বাপণে কাজ করে। রাত ৯টা ৪০ মিনিটে আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে।

নিউজ চট্টগ্রাম পাতার আরো খবর